সৌম্যর ১০-২০ রানও ‘দলের জন্য’

ইনিংসের আকার খুব বড় ছিল না, বেশি ছিল না স্থায়ীত্ব। কিন্তু গুরুত্বে বিশাল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ের ভিত গড়া হয়েছিল সৌম্য সরকারের স্ট্রোকের দ্যুতিতে। ইনিংস বড় না করতে পারা নিয়ে আক্ষেপ থাকলেও তাই দিন শেষে বাঁহাতি ওপেনার ছিলেন খুশি। প্রতিটি রানই যে কাজে লাগাতে চান তিনি দলের জয়ে।

ক্রীড়া প্রতিবেদক লন্ডন থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 June 2019, 03:39 PM
Updated : 4 June 2019, 04:45 PM

প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে গতি ও বাউন্সে নাকাল করতে চেয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু ইটের জবাব পাটকেলে দেওয়ার শুরু সৌম্যর ব্যাটে। দুর্দান্ত সব শটে ভণ্ডুল করে দেন প্রোটিয়া পেসারদের পরিকল্পনা। ৪২ রানের ইনিংস, কিন্তু স্ট্রাইক রেট ১৪২। একের পর একে বাউন্ডারিতে দেওয়া হয়ে যায় পাল্টা জবাব।

জবাব দেওয়ার তাড়না যদিও সৌম্যর ছিল না। তার ব্যাটিংয়ের ধরনটাই এমন যে সফল হলে গুঁড়িয়ে যায় প্রতিপক্ষ! বাঁহাতি ওপেনার শোনেন কেবল নিজের মনের ডাক। ইনিংস ছোট হোক বা বড়, সেটিই যেন কাজে লাগে দলের।

“আমি আমার মতোই খেলার চেষ্টা করি। হয়তো অনেক দিন দ্রুত হয়। অনেক দিন বড় হয়। যতটুকু সময় থাকি, চেষ্টা করি দলকে ভালো শুরু এনে দিতে। যতটুকু রানই করি না কেন, ১০ হোক বা ২০ কিংবা সেঞ্চুরি, পুরোটাই দলের যেন কাজে লাগে। আমার ব্যক্তিগত পরিকল্পনা থাকে না।”

“অন্য দলকে চাপে খেলার কথা আমি ভাবিও না। আমি নিজের খেলাই খেলি। তার মধ্যে যদি ভালো কিছু হয়, নিজের জায়গায় বল পেলে যেন কাজে লাগাতে পারি, সেটাই আমার চাওয়া থাকে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক