স্নায়ুচাপ সামলে ওয়ার্নারের দারুণ ফেরা

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ম্যাচ দিয়ে দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা ডেভিড ওয়ার্নার নিজের প্রত্যাবর্তনকে রাঙিয়েছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে। বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বিস্ফোরক ব্যাটসম্যানদের একজন হয়েও এ ম্যাচে খেলেননি খুব বেশি আক্রমণাত্মক শট। এক বছরেরও বেশি সময় ওয়ানডে ক্রিকেটের বাইরে থাকাকে স্বভাববিরুদ্ধ ব্যাটিংয়ের কারণ বলে জানিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 June 2019, 08:53 AM
Updated : 2 June 2019, 08:53 AM

গত বছর কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কাণ্ডে এক বছরের জন্য ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নিষিদ্ধ করে অস্ট্রেলিয়া। সেই নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেন ওয়ার্নার ও স্মিথ। শনিবারের ম্যাচে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ৭ উইকেটের দাপুটে জয়ে ১১৪ বলে অপরাজিত ৮৯ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস খেলেন ওয়ার্নার।

২০৮ রানের ছোট লক্ষ্যে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের সঙ্গে ৯৬ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন ওয়ার্নার। নিজের সহজাত আক্রমণাত্মক ব্যাটিং ভুলে দলের প্রয়োজনে এক প্রান্ত আগলে রেখে টেনেছেন দলকে। প্রথম ৪০ বলে করেন মাত্র ২০ রান। এরপর ধীরে ধীরে বাড়িয়েছেন রানের গতি।

ম্যাচের পর অনেক দিন বাদে দলে ফেরার অনুভূতির কথা জানান ওয়ার্নার।

“ক্যাম্পে ফেরা ও পুরো মাত্রায় অনুশীলনে যোগ দেওয়াটা স্নায়ুচাপের ছিল বলে আমি মনে করি। যখন ফিঞ্চি (অ্যারন ফিঞ্চ) এগোনো শুরু করলো, আমি আরেকটু বেশি শান্ত হই।”

“সেখানে (আফগানিস্তানের বিপক্ষে) যেভাবে আমি শুরু করলাম- গত ১২ থেকে ১৪ মাস ধরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলায়- আমি আমার পা ভালোভাবে নাড়াতে পারছিলাম না। তাই ছন্দে ফেরার জন্য, সঠিক পথে এগোতে শুরু করলাম।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক