হেটমায়ারকে ভাবনায় রাখছে বাংলাদেশ

হেটমায়ারকে ভাবনায় রাখছে বাংলাদেশ

টপ অর্ডারে ক্রিস গেইল, এভিন লুইস, শেই হোপ। পরের দিকে আন্দ্রে রাসেল, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, জেসন হোল্ডার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের আগে তাদেরকে আটকানোর পথ খুঁজতেই বেশি সময় কাটে সব প্রতিপক্ষের। তবে আরও একজন যে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন, বাংলাদেশের চেয়ে ভালো আর কে জানে! বাংলাদেশকে এত ভুগিয়েছেন শিমরন হেটমায়ার, তাকে নিয়ে যথেষ্ট গবেষণা সেরে রাখতে হয়েছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্টকে।

হেটমায়ারের সেঞ্চুরির পর কটরেলের ৫ উইকেট

হেটমায়ারের সেঞ্চুরির পর কটরেলের ৫ উইকেট

ক্রিস গেইলের ফিফটিতে পাওয়া ভালো শুরু ব্যর্থ হতে বসেছিল মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায়। তবে দাপুটে সেঞ্চুরিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দিলেন শিমরন হেটমায়ার। আর ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দলকে দারুণ এক জয় এনে দিলেন শেলডন কটরেল।

উইন্ডিজের আক্ষেপ লিটনকে ঘিরে

উইন্ডিজের আক্ষেপ লিটনকে ঘিরে

বাংলাদেশের রান তাড়ার শুরুর দিকে ক্যাচ দিয়েছিলেন লিটন দাস। আউট হয়ে ফিরছিলেন ড্রেসিং রুমে। কিন্তু টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় কেমার রোচের ডেলিভারিটি ছিল নো বল। বেঁচে গিয়ে লিটন পরে অনেকটা পথ এগিয়ে নেন দলকে। ম্যাচ শেষে ওই নো বলের জন্য আক্ষেপ করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার রোস্টন চেইস।

হেটমায়ারকে চেনা কাজে লেগেছে মিরাজের

হেটমায়ারকে চেনা কাজে লেগেছে মিরাজের

২০১৩ সাল থেকে শিমরন হেটমায়ারকে চেনেন মেহেদী হাসান মিরাজ। জানেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাঁহাতি বিস্ফোরক ব্যাটসম্যানের খেলার ধরন, শক্তি-দুর্বলতা। সেই জানাশোনাটা কাজে লেগেছে মিরাজের। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে সফরকারীদের সেরা ব্যাটসম্যানকে চার ইনিংসেই বিদায় করেন এই অফ স্পিনার।

কোহলি-রোহিতের সেঞ্চুরিতে উইন্ডিজকে উড়িয়ে দিল ভারত

কোহলি-রোহিতের সেঞ্চুরিতে উইন্ডিজকে উড়িয়ে দিল ভারত

৩২৩ রানকে যেন মামুলি লক্ষ্য বানিয়ে ফেললেন বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা। ঝড় তুললেন দুই জনই, উপহার দিলেন দুইশ রানের জুটি। দুই জনই পেলেন সেঞ্চুরি। তাদের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে দিয়ে প্রথম ওয়ানডেতে সহজ জয় পেল ভারত।

এই ম্যাচও হারল বাংলাদেশ!

এই ম্যাচও হারল বাংলাদেশ!

৫ ওভারে প্রয়োজন ৪০। হাতে ৭ উইকেট। ২ ওভারে চাই ১৪, উইকেট ৬টি। এই সময়ের বাস্তবতায় চাইলেও যেন হারা কঠিন। কিন্তু সেই অসাধ্য সাধন করেই ছাড়ল বাংলাদেশ! সহজ ম্যাচ কঠিন করে আরও একবার ভজকট পাকাল শেষে; হার মানল স্নায়ুর লড়াইয়ে। হাতের মুঠোয় থাকা জয় উপহার দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।