• ‘ওই উইকেটে ম্যাচ ঘুরেছে’, মিরাজের উইকেট নিয়ে বাবর
    নতুন বলে শাহিন শাহ আফ্রিদি ও হাসান আলির আগুনে স্পেল, পরে সাজিদ খানের স্পিন। মিরপুর টেস্টের শেষ দিনে পাকিস্তানের দারুণ জয়ের নায়ক তারাই। তবে ভুলে গেলে চলবে না বাবর আজমকে! দুই ওভার হাত ঘুরিয়েই বলা যায় ম্যাচ ঘুরিয়ে দিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক। নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক উইকেটটি ম্যাচের প্রেক্ষাপটে মহামূল্য, বলছেন স্বয়ং বাবরও।
  • বাংলাদেশকে গুঁড়িয়ে রেকর্ড বইয়ে সাজিদ
    চট্টগ্রাম টেস্টে দুই পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি ও হাসান আলির বোলিংয়ে চাপা পড়ে গিয়েছিল সাজিদ খানের অবদান। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট নিয়েছিলেন এই অফ স্পিনার। মিরপুর টেস্ট সব আলো কেড়ে নিলেন তিনিই। ৮ উইকেট নিয়ে জায়গা করে নিলেন রেকর্ড বইয়ে।
  • বাংলাদেশকে দুইবার অলআউট করে ম্যাচ জিততে চায় পাকিস্তান
    গোটা প্রায় দুটি দিন ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। প্রথম তিন দিনে সম্ভাব্য ২৭০ ওভারের মধ্যে খেলা হয়েছে ৬৩.২ ওভার। এমন নিষ্প্রাণ ম্যাচেও প্রাণ ফিরিয়েছে পাকিস্তান। দুর্দান্ত বোলিংয়ে ম্যাচ জয়ের ক্ষেত্রও তারা তৈরি করে ফেলেছে। চতুর্থ দিনের নায়ক সাজিদ খানের কণ্ঠে আত্মবিশ্বাসী উচ্চারণ, শেষ দিনে বাংলাদেশের ১৩ উইকেট নিয়ে জিতেই মাঠ ছাড়বেন তারা।
  • ছন্নছাড়া ব‍্যাটিংয়ে বিপদে বাংলাদেশ
    স্রেফ এক ওভার ভুগিয়েই সরে যেতে হলো শাহিন শাহ আফ্রিদিকে। কারণ, পেসারদের বোলিংয়ের জন‍্য যথেষ্ট আলো নেই। শেষ বেলায় বাংলাদেশের ব‍্যাটসম‍্যানদের জন‍্য চ‍্যালেঞ্জ তাই ছিল কেবল সাজিদ খান ও নুমান আলির স্পিন। সেখানেও নিদারুণভাবে ব‍্যর্থ স্বাগতিকরা। বলতে গেলে, লড়াই করার চেষ্টাই করলেন না কেউ। যেন মেতে উঠলেন বাজে শট খেলা আর উইকেট বিলিয়ে আসার উৎসবে। তাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে ভীষণ বিপদে মুমিনুল হকের দল।