• একই একাদশ নিয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউ জিল্যান্ড
    চোট থেকে এখনও পুরোপুরি সেরে উঠেননি টিম সাউদি। তার জায়গায় সুযোগ পাওয়া ম্যাট হেনরি দারুণ বোলিং করেছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। তাই একাদশে পরিবর্তন আনছে না নিউ জিল্যান্ড। বাংলাদেশ ম্যাচের আগের দিন কিপার টম ল্যাথাম জানিয়ে দিলেন, একই একাদশ নিয়ে নামবেন তারা।
  • সাউদির তোপ সামলে লঙ্কানদের লড়াই
    ম্যাচের কেবল সেটি চতুর্থ ওভার, কিন্তু উইকেট নেই তিনটি! টিম সাউদির বোলিং তোপে শুরুতেই টালমাটাল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু দিমুথ করুনারত্নে ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের প্রতিরোধ ও নিরোশান ডিকভেলার প্রতি আক্রমণে লঙ্কানরা লড়াইয়ে ফিরেছে দারুণভাবে।
  • বোল্ট-সাউদির তোপের পর বেয়ারস্টোর প্রতিরোধ
    ৫৮ রানে গুটিয়ে যাওয়ার স্মৃতি এখনও টাটকা। ইংলিশদের আবারও বিপাকে ফেলেছিলেন টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্ট। তবে অসাধারণ ব্যাটিংয়ে দলকে সেই বিপর্যয় থেকে উদ্ধার করেছেন জনি বেয়ারস্টো।
  • বোল্ট-সাউদির সুইংয়ে ৫৮ রানে অলআউট ইংল্যান্ড
    অনুকূল কন্ডিশনে অসাধারণ সুইং বোলিংয়ের পসরা সাজিয়ে বসলেন ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদি। গোলাপি বলে তাদের দারুণ সব ডেলিভারির জবাব খুঁজে পেল না ইংল্যান্ড। দিবা-রাত্রির টেস্টের প্রথম সেশনেই ৫৮ রানে গুটিয়ে গেল জো রুটের দল।
  • বোলিংয়ের আগে বোল্ট-সাউদির ব্যাটিং ঝলক
    বল হাতে দুজনের ভালো বোলিং অনুমিতই ছিল। সেটি তারা করেছেনও। তবে তার আগে ব্যাট হাতেও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভোগালেন টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্ট। প্রথম দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের লড়াই দ্বিতীয় দিনে গেল হারিয়ে। বড় লিডের পথে নিউ জিল্যান্ড।
  • নিখুঁত বোলিংয়ে নিউ জিল্যান্ডের ‘ভালো দিন’
    হ্যাগলি ওভালে ব্যাটিং যখন সহজ মনে হচ্ছিল তখনই নিজেদের সামর্থ্যটা দেখিয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের পেসাররা। টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্টের দারুণ বোলিংয়ে প্রথম দিনটি নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিকরা। বাংলাদেশকে প্রথম দিনেই অলআউট করায় বোলিং ইউনিটকে কৃতিত্ব দিয়েছেন দিনের সেরা বোলার সাউদি। 
  • দিনটি হতে পারত আরও ভালো
    একটি দারুণ জুটি। আরও অনেক সম্ভাবনার অপমৃত্যু। লেজের ব্যাটসম্যানদের লড়াই। বেশ কিছু আক্ষেপ। সবকিছুর যোগফলে প্রাপ্তিটা পুরোনো। সিরিজে আগের আরও বেশ কিছু দিনের মত ক্রাইস্টচার্চেও প্রথম দিনের সারসংক্ষেপ, দিনটি ভালো হতে পারত আরও!
  • বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে বিশ্রামে সাউদি
    বাংলাদেশের বিপক্ষে ঘরোয়া সিরিজে সব ম্যাচে খেলা হবে না ট্রেন্ট বোল্ট ও টিম সাউদির। দুইজনকে পুরো মৌসুমের জন্য সতেজ রাখতে সতর্কভাবে ব্যবহার করা হবে জানিয়েছেন নিউ জিল্যান্ড কোচ মাইক হেসন। 
  • নাটকীয় ধসে হোয়াইটওয়াশড পাকিস্তান
    শেষ সেশন শুরুর সময় সবচেয়ে সম্ভাব্য ফল মনে হচ্ছিল ড্র। পাকিস্তানের জয় দুরূহ হলেও অসম্ভব ছিল না। তবে সবচেয়ে কঠিন ছিল নিউ জিল্যান্ডের জয়। কিন্তু দ্বিতীয় নতুন বলে দুর্দান্ত বোলিং আর পাকিস্তানের বাজে ব্যাটিংয়ে সেই কিউইরাই ভাসল অসাধারণ জয়ের উৎসবে!