• ইবাদত ও খালেদকে দেখে চমকে গিয়েছিলেন ডোনাল্ড
    রান আপে ছন্দময় ছুটে চলা আর শেষ দিকে একটু লাফ। সাবলীল বোলিং অ্যাকশনে আগ্রাসী সব ডেলিভারি। গতিময় গোলায় একসময় কত বিস্ময় জন্ম দিয়েছেন অ্যালান ডোনাল্ড! তার নতুন বলের সফল জুটি শন পোলক, তার নানা সময়ের সতীর্থ মাখায়া এনটিনি, ফ্যানি ডি ভিলিয়ার্সের মতো পেসারদের কত কীর্তির স্বাক্ষীও তিনি। সেই ডোনাল্ডকেই কিনা বড় বিস্ময় উপহার দিয়েছেন বাংলাদেশের দুই পেসার ইবাদত হোসেন ও সৈয়দ খালেদ আহমেদ!
  • ‘শরিফুল-জয় একদিন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিংবদন্তি হবে’
    শ্রীলঙ্কা যখন সোমবার অনুশীলন করছে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে, বাংলাদেশ তখন চট্টগ্রামে। এ দিন তাই মাহমুদুল হাসান জয় ও শরিফুল ইসলামের সঙ্গে দেখা হয়নি নাভিদ নওয়াজের। তবে প্রসঙ্গটা উঠে এলো ঠিকই। হাসিমুখে নওয়াজ বললেন, “ওরা দুজন নিশ্চয়ই আমাকে দেখলে খুশিই হবে!”
  • চোট নিয়ে হতাশা নেই শরিফুলের
    আরও বড় কিছুও তো হতে পারতো, এই ভেবে নিজেকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন শরিফুল ইসলাম। ছোট ছোট কিছু চোটের জন‍্য মাঠের বাইরে থাকা নিয়ে তাই হতাশা নেই বাঁহাতি এই পেসারের। অস্ত্রোপচার নিয়েও নেই কোনো দুর্ভাবনা। মাঠের বাইরে থাকা পেসার জানালেন, সেরে উঠে যত দ্রুত সম্ভব ফিরতে চান মাঠে।
  • দেশে ফিরছেন তাসকিন-শরিফুল
    কিংসমিড টেস্টের চতুর্থ দিন টিভি পর্দায় দেখা গেল তাসকিন আহমেদের ডান কাঁধে টেপ প্যাচানো। শঙ্কাটা তখনই জাগে। পরে যদিও বোলিং করেন তিনি। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট থেকে ঠিকই ছিটকে গেলেন গতিময় এই পেসার।
  • তামিমের পেটের পীড়া, শরিফুলকে বিশ্রাম
    চোট-আঘাত কাটিয়ে প্রায় এক বছর পর ডারবান টেস্ট দিয়েই সাদা পোশাকে ফেরার কথা ছিল তামিম ইকবালের। কিন্তু ম্যাচের সকালে পেটের পীড়ায় আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেলেন তিনি। ছোটখাটো কিছু চোট সমস্যার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এই টেস্টের একাদশে রাখা হয়নি শরিফুল ইসলামকেও।
  • টেস্ট জিততে ইবাদত-তাসকিনদের কাছে অধিনায়কের চাওয়া
    দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডেতে প্রথম ম‍্যাচ জয়ের পর ধরা দিয়েছে সিরিজও। এবার টেস্টে ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙার পালা। লক্ষ্য পূরণে প্রক্রিয়া ঠিক রেখে করতে হবে পরিকল্পনার বাস্তবায়ন। আর সেজন্য পেসারদের বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার তাগিদ দিলেন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক।
  • রংধনুর দেশে ফিরে শরিফুলের চোখে নতুন স্বপ্ন
    মাঝে একটি মাত্র জয়। তার আগে-পরে দক্ষিণ আফ্রিকায় দুঃস্বপ্নের সব স্মৃতি সঙ্গী বাংলাদেশ জাতীয় দলের। তবে এই দেশেই আছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অর্জনের একটি; ২০২০ সালে এখানেই ভারতকে হারিয়ে জিতেছিল যুব বিশ্বকাপ। সেখানে ফিরে নতুন অর্জনের দিকে তাকিয়ে বিশ্বজয়ী সেই দলের একজন-বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম।
  • ঢাকার মুঠো থেকে জয় বের করে নিলেন শরিফুল-মৃত্যুঞ্জয়
    মোহাম্মদ নাঈম শেখ ড্রাইভ করলেন সোজা ব্যাটে। কিন্তু যথেষ্ট জোর হলো না মারে। মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরির কণ্ঠের জোর অবশ্য শোনা গেল অনেক দূর থেকেও। অসাধারণ বোলিংয়ে ম্যাচ জয়ের আনন্দ চিৎকার! তার সতীর্থরাও তখন খুশিতে আত্মহারা হয়ে ছুটছে দিগ্বিদিক। অবিশ্বাস্য এক জয়ের উচ্ছ্বাস তো এমন বাঁধনহারাই হওয়ার কথা। তামিম ইকবালের চোখেমুখে তখন রাজ্যের অন্ধকার। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দারুণ খেলেও ঢাকার ওপেনার অসহায় হয়ে দেখলেন প্রতিপক্ষের উল্লাস।
  • আইপিএল নিলামের চূড়ান্ত তালিকায় বাংলাদেশের ৫ জন
    আইপিএলের মেগা নিলামের জন্য ক্রিকেটারদের চূড়ান্ত তালিকায় প্রত্যাশিতভাবে আছেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে নিয়মিত খেলা এই দুই ক্রিকেটার ছাড়া বাংলাদেশ থেকে জায়গা হয়েছে আরও তিন জনের।
  • তারুণ্যের চট্টগ্রামের কাছে পাত্তা পেল না অভিজ্ঞদের ঢাকা
    অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ আর তারকায় ঠাসা দল মিনিস্টার ঢাকা। উঠতি ক্রিকেটারদের দিয়ে গড়া তারুণ্য নির্ভর দল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। প্রজন্মের সেই লড়াইয়ে জয় হলো নবীনদের। ব্যাটিংয়ে সম্মিলিত পারফরম্যান্সের পর নাসুম আহমেদ ও শরিফুল ইসলামের দারুণ বোলিংয়ে টুর্নামেন্টে প্রথম জয়ের দেখা পেল চট্টগ্রাম।
  • ‘ইবাদত যে দিন ভালো জায়গায় বল করবে, সেদিন ওই দল শেষ’
    গতি সব সময়ই ছিল কিন্তু ছিল না নিয়ন্ত্রণ। বিচ্ছিন্নভাবে দুয়েকটা স্পেলে ঝলক দেখালেও বেশিরভাগ সময় ছিলেন অকার্যকর। উইকেট নেওয়ায় ব্যর্থতার সঙ্গে ছিল রান বিলানোর প্রবণতা। সব মিলিয়ে ১০ উইকেট নেওয়া বোলারদের মধ্য টেস্ট ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে গড় ছিল তার। স্বাভাবিকভাবেই তাকে খেলানো নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল। রেকর্ড রাঙা বোলিংয়ে সব প্রশ্নের উত্তর দিলেন ইবাদত হোসেন চৌধুরি।
  • মিরাজের ‘দশে মিলে’ কাজের তৃপ্তি
    নিউ জিল‍্যান্ডকে সাড়ে তিনশর আগে থামাতে দারুণ অবদান রেখেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে নিজের ভূমিকাকে অতো বড় করে দেখছেন না এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। শরিফুল ইসলামসহ সব সতীর্থ বোলার এবং শত রানের জুটি গড়া মাহমুদুল হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্তর অবদানকে দিচ্ছেন কৃতিত্ব। মিরাজের মতে, সবার মিলিত অবদানেই প্রথম টেস্টে ভালো অবস্থানে এসেছে বাংলাদেশ।
  • শরিফুলের খুশি মনে আছে 'কিন্তুও'
    বলা হয়, ‘নিউ জিল্যান্ডের সবুজ ঘাসের আড়ালে রান হাসে।’ শুরুর কঠিন সময় পার করে দিতে পারলে হাতছানি দেয় বড় রান। সেখানেই ডেভন কনওয়ের সেঞ্চুরির পরও স্বাগতিকদের খুব বেশি রান করতে দেয়নি বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষকে বেঁধে রাখতে চমৎকার বোলিংয়ে বড় অবদান রাখেন শরিফুল ইসলাম। নিজেদের প্রথম দিনের পারফরম্যান্সে খুশি বাঁহাতি এই পেসার। একটু আফসোসও আছে, দিনটা হতে পারত যে আরও ভালো।
  • নিউ জিল্যান্ডে বোলিং করে যেমন লেগেছে শরিফুলের
    নিউ জিল্যান্ডে স্বাভাবিকের তুলনায় এবার ততটা সবুজ নয় উইকেট। তবে সবুজের ছোঁয়া ভালোভাবেই আছে। দুই দলেরই চাওয়া ছিল আগে বোলিং। ইচ্ছে পূরণ হয় বাংলাদেশের। নিজেকে মেলে ধরেন শরিফুল ইসলাম। তার শরীরী ভাষায় যা ফুটে উঠছিল দিনের খেলা শেষে বললেনও তাই, দারুণ উপভোগ্য ছিল প্রথম ঘণ্টায় বোলিং।
  • দুই সেশনে বাংলাদেশের প্রাপ্তি দুই উইকেট
    ‘প্রথম ঘণ্টা বোলারদের দাও, বাকি দিনটা নিজেদের করে নাও’, টেস্ট ক্রিকেটে বহু পুরনো এক কথা এটি। নিউ জিল্যান্ড হাঁটল যেন সেই পথেই। টম ল্যাথামকে শুরুতে হারানোর পর উইল ইয়াং ও ডেভন কনওয়ে মাথা গুঁজে পড়ে রইলেন প্রথম ঘণ্টা। দিনটা নিজেদের করে নেওয়ার আয়োজনও হয়ে গেল তাতে। ইয়াং পরে আউট হলেও সেই কনওয়ে এখন সেঞ্চুরির দুয়ারে।
  • কোভিড পরীক্ষার ফলের অপেক্ষায় বাংলাদেশ দল
    নিউ জিল‍্যান্ডে শনাক্ত হওয়া প্রথম ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত ব‍্যক্তির সঙ্গে একই বিমানে থাকায় বাড়তি সতর্কতার মধ‍্য দিয়ে যেতে হচ্ছে বাংলাদেশ দলকে। তবে লম্বা সময় পেরিয়ে তারা এখন কোয়ারেন্টিনের শেষ ধাপে দাঁড়িয়ে। সবশেষ পরীক্ষার জন‍্য নমুনা দেওয়ার পর অপেক্ষা করছেন মাঠে ফেরার জন‍্য।
  • নাঈম শেখকে নিয়েই নিউ জিল্যান্ড যাচ্ছে বাংলাদেশ
    দেশের উইকেটেই বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটে যার সামর্থ্য নিয়ে আছে প্রশ্ন, তাকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে আরও কঠিন পরীক্ষার জন্য। তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া মোহাম্মদ নাঈম শেখ আছেন নিউ জিল্যান্ড সফরের বাংলাদেশ দলে।
  • শেষদিকে এরকম হতেই পারে: মাহমুদউল্লাহ
    পাওয়ার প্লের বাজে ব্যাটিংয়ের মতো ভোগাচ্ছে শেষের বোলিংও। শেষে গিয়ে লাইন, লেংথ কিছুই যেন বুঝে উঠতে পারছেন না বাংলাদেশের বোলাররা। এর মাশুল দিতে হচ্ছে ম্যাচ হেরে। ডেথের বোলিং নিশ্চিতভাবেই দুর্ভাবনার ব্যাপার। তবুও বোলারদের সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেন মাহমুদউল্লাহ। পাকিস্তানের বিপক্ষে আশা জাগিয়েও হেরে যাওয়ার পর বললেন, শেষের দিকে এমন বোলিং কখনও কখনও হতেই পারে।
  • বিব্রতকর হারে শেষ বাংলাদেশের প্রস্তুতি
    শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তবুও কিছুটা লড়াই করতে পেরেছিল বাংলাদেশ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সেটাও সম্ভব হলো না। মুস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম করলেন খরুচে বোলিং। পরে ব্যাটিং হলো আরও হতাশাজনক। দুই বিভাগেই ব্যর্থতায় বড় হার দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ প্রস্তুতি।
  • কোহলির উইকেটে চোখ শরিফুলের
    প্রতিপক্ষের সবচেয়ে দামি উইকেটটা পেতে কে না চাইবে! শরিফুল ইসলামও তাই মনস্থির করে ফেলেছেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুযোগ পেলে সময়ের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন বিরাট কোহলির উইকেট নেওয়ার চেষ্টা করবেন বাংলাদেশের তরুণ এই পেসার।
  • বিশ্বজয়ীর বেশে বিশ্বকাপে শামীম-শরিফুল
    আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের সবে শুরু। এখনও একাদশে জায়গা নিশ্চিত নয়। এর মধ্যেই ডাক পেলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে। স্কোয়াডে তিনজন আছেন যারা এই টুর্নামেন্টের প্রতিটি আসরেই খেলেছেন। তবুও একটা জায়গায় সবার চেয়ে এগিয়ে শরিফুল ইসলাম ও শামীম হোসেন। এই দুই তরুণ যে খেলতে যাচ্ছেন বিশ্বজয়ীর বেশে।
  • তিন সংস্করণেই বিসিবির চুক্তিতে তাসকিন-শরিফুল
    আগের বছরের চুক্তিতে কোনো সংস্করণেই ছিলেন না তাসকিন আহমেদ। শরিফুল ইসলাম কখনোই ছিলেন না কোনো সংস্করণে। এবার দুজনই জায়গা পেয়েছেন বিসিবির তিন সংস্করণের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে।
  • ‘দেশের মাঠে মুস্তাফিজ চ্যাম্পিয়ন, দেশের বাইরে উন্নতি প্রয়োজন’
    অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের সম্প্রতি এরকম নাচিয়ে ছাড়লেন মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু উইকেটে সহায়তা না পেলে তিনিও হয়ে ওঠেন অসহায়। দেশের বাইরে তার কার্যকারিতা, তার সুইং-ইয়র্কারে উন্নতি হবে কিভাবে? বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন দেখালেন সেই পথ। পাশাপাশি তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলামদের এগিয়ে চলা, অন্যান্য পেসারদের শক্তি-দুর্বলতা-সম্ভাবনা, বাংলাদেশের পেস বোলিং সংস্কৃতির বদল ও ভবিষ্যৎ ভাবনা, সব কিছু নিয়েই বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ একান্তে কথা বললেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে।
  • মাহমুদউল্লাহ-সাকিবদের কথায় ‘কলিজা বড় হয়’ শরিফুলদের
    বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে এখন তারুণ্যের ছড়াছড়ি। তবে সেই তরুণদের ওপর ছায়া হয়ে আছেন দুই সিনিয়র ক্রিকেটার। তরুণদের উজ্জ্বল প্রতিনিধি শরিফুল ইসলাম বললেন, মাহমুদউল্লাহ ও সাকিব আল হাসানের ইতিবাচক কথা তাদের সাহস জোগায় প্রতিনিয়ত।
  • মুস্তাফিজের কাটার শেখার চেষ্টা করছেন শরিফুল
    দুজনই বাঁহাতি পেসার। বোলিংয়ের ধরনেও বেশ মিল আছে মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলামের। তবে বড় পার্থক্য একটি জায়গায়। সেখানে অবশ্য শুধু শরিফুল নয়, বিশ্ব ক্রিকেটেই সবার চেয়ে আলাদা মুস্তাফিজ। তার ভয়ঙ্কর কাটার! মুস্তাফিজকে কাছ থেকে দেখে ও তার কাছ থেকে শিখে সেই মারণাস্ত্র রপ্ত করার চেষ্টা করছেন তরুণ শরিফুল।
  • শরিফুলকে আইসিসির তিরস্কার
    আইসিসির আচরণবিধি ভঙ্গ করায় শাস্তি পেয়েছেন শরিফুল ইসলাম। আনুষ্ঠানিকভাবে তিরস্কার করা হয়েছে বাঁহাতি এই পেসারকে। সঙ্গে তার নামের পাশে যুক্ত হয়েছে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট।
  • সৌম্য-শরিফুল-নাঈমের উন্নতিতে খুশি ডমিঙ্গো
    আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক দিন হয়ে গেলেও এখনও পায়ের নিচে মাটি খুঁজে ফিরছেন সৌম্য সরকার। টি-টোয়েন্টিতে ঝলক দেখালেও ধারাবাহিক হতে পারেননি মোহাম্মদ নাঈম শেখ। তবে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট রাসেল ডমিঙ্গো। আর শরিফুল ইসলাম ছোট্ট ক্যারিয়ারে এরই মধ্যে নিজের সামর্থ্যের ছাপ রাখতে পেরেছেন। এই তিন জনের উন্নতিতে খুশি বাংলাদেশ কোচ।
  • সাকিবময় ম্যাচে বাংলাদেশের সিরিজ জয়
    এই ইনিংসের জন্য কত অপেক্ষা! মহাদেব সাহার কবিতার মতো ‘কোটি কোটি মঙ্গল-বুধবার’ বা ‘লক্ষ লক্ষ শীত-বর্ষা’ পার হয়নি যদিও, তবে অপেক্ষা রূপ নিয়েছিল কাতর প্রতীক্ষায়। অবশেষে সেই ইনিংস উপহার দিলেন সাকিব আল হাসান। এমন এক দিনে, যেদিন ভীষণ জরুরি ছিল। এমন এক ক্ষণে, যখন তিনি না দাঁড়ালে ভেঙে পড়ত দল। রানে ফেরার দিনটি সাকিব রাঙালেন ম্যাচ জেতানো অপরাজিত ইনিংসে। হারের চোখরাঙানি থামিয়ে বাংলাদেশ পেল সিরিজ জয়ের স্বাদ।
  • অভিষিক্ত শরিফুলকে নিয়ে বোলিংয়ে বাংলাদেশ
    আগের টেস্টে টস জিতলেও এবার মুদ্রা নিক্ষেপে ভাগ্যকে পাশে পেলেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। পাল্লেকেলেতে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় টেস্টে টস জিতে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে বেছে নিলেন ব্যাটিং। মুমিনুল জানালেন, টস জিতলে তিনিও নিতে ব্যাটিং।
  • দ্বিতীয় টেস্টের বাংলাদেশ দল ঘোষণা
    আগের টেস্টের মতো এবারও ম্যাচ শুরুর আগের দুপুরে ঘোষণা করা হলো বাংলাদেশের স্কোয়াড। প্রথম টেস্টের ১৫ জনের স্কোয়াড থেকে দ্বিতীয় টেস্টের স্কোয়াডে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।
  • তামিম-মুশফিকের সঙ্গে ‘ফাইট’ উপভোগ করছেন তরুণ পেসার
    শরিফুল ইসলামের কাছে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমরা একসময় ছিলেন দূর আকাশের তারা। মুগ্ধ হয়ে তাদের দেখতেন তিনি, আঁকতেন নানা স্বপ্নের ছবি। এখন সেই তামিম-মুশফিকরাই তার সতীর্থ। শরিফুল বললেন, নিজের নায়কদের সঙ্গে আনন্দময় সময় কাটছে তার।
  • টেস্ট ক্রিকেটের ‘স্বাদ’ পেয়ে রোমাঞ্চিত শরিফুল
    পাঁচটি দিন যেন স্বপ্নময় জগতে বিচরণ ছিল শরিফুল ইসলামের। ড্রেসিং রুমের আবহে বুঁদ হয়েছেন। সতীর্থদের প্রয়োজনে বারবার মাঠে ছুটে গেছেন। কখনও কখনও কোচদের বার্তাবাহক হয়ে ডানা মেলেছেন মাঠময়। সব মিলিয়ে প্রথম টেস্টে এতটাই একাত্ম ছিলেন, বাঁহাতি এই পেসারের মনেই হয়নি তিনি একাদশের বাইরে। তার মনে হচ্ছিল, খেলছেন তিনিও!
  • চূড়ান্ত টেস্ট স্কোয়াডেও শরিফুল, নেই শুভাগত
    শ্রীলঙ্কা সফরের প্রাথমিক দল থেকে চূড়ান্ত টেস্ট স্কোয়াডেও ঢুকে গেলেন শরিফুল ইসলাম। তরুণ বাঁহাতি পেস বোলারের জায়গা হয়েছে প্রথম টেস্টের বাংলাদেশ দলে। অনেক আলোচনার জন্ম দিয়ে প্রাথমিক দলে ফেরা অলরাউন্ডার শুভাগত হোম নেই মূল দলে।
  • শুভাগতর পরিচয় এখন ‘ব্যাটিং অলরাউন্ডার’
    অফ স্পিনার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার চক্করে আপন সত্ত্বাই যেন হারিয়ে ফেলেছিলেন শুভাগত হোম চৌধুরি। অবশেষে জাতীয় নির্বাচকদের কাছে তার সত্যিকার পরিচয় ফিরে এলো। শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে শুভাগতকে ব্যাটিং অলরাউন্ডার হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে বলে জানালেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন।
  • শ্রীলঙ্কা সফরের দলে শুভাগত, সঙ্গে নতুন পেস ত্রয়ী
    শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে জায়গা পেয়েছেন শুভাগত হোম চৌধুরি। এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের সঙ্গে ২১ সদস্যের দলে আছেন কিপার-ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান ও তিন পেসার মুকিদুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলাম।
  • অভিষেকে যে ফিফটি চাননি শরিফুল
    অভিষেক ম্যাচেই ফিফটি, শুনলে এমনিতে ভালো কিছুই মনে হওয়ার কথা। কিন্তু তা যদি হয় বোলারের রান দেওয়ার ক্ষেত্রে, তাহলে স্বাদ উল্টো। অভিষেক ম্যাচে সেই হতাশার সঙ্গে দেখা হলো বাংলাদেশের তরুণ সম্ভাবনাময় পেসার শরিফুল ইসলামের।
  • আনন্দে ভাসছেন শরিফুল, সুযোগের অপেক্ষায় হাসান-মেহেদি
    যুব বিশ্বকাপ জেতা শরিফুল ইসলাম প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়ে যেন খুশিতে ভাসছেন। এরই মধ্যে দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলা হাসান মাহমুদ ও মেহেদি হাসানের নজর আরেক সংস্করণে অভিষেকে। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের তিন তরুণ জানালেন তাদের ভাবনার কথা।
  • উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে হাসান-শরিফুল-মেহেদি
    ধারাবাহিকভাবে দারুণ বোলিংয়ে নিজের দাবি জানিয়ে রাখা হাসান মাহমুদ পেলেন প্রত্যাশিত ডাক। তার সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে আছেন আরেক পেসার শরিফুল ইসলাম ও অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান।
  • যে কারণে ওয়ানডে স্কোয়াডে শরিফুল-পারভেজ
    মাশরাফি বিন মুর্তজার বাদ পড়ার দামামায় আড়াল দল নিয়ে আর সব আলোচনা। তবে শরিফুল ইসলাম ও পারভেজ হোসেন ইমনের দলে জায়গা করে নেওয়াও যথেষ্ট কৌতূহল জাগানিয়া। নির্বাচকরা জানালেন, ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করে তোলার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই নেওয়া হয়েছে প্রতিভাবান দুই তরুণকে।
  • ২৪ জনের প্রাথমিক দলে নেই মাশরাফি
    নেতৃত্ব ছাড়ার পর এবার স্কোয়াডে জায়গা হারালেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে জায়গা হয়নি দেশের সফলতম বোলারের। চোট-আঘাতের কারণে দলের বাইরে মাশরাফিকে থাকতে হয়েছে অনেকবারই। তবে দীর্ঘ ক্যারিয়ারে বাদ পড়ার অভিজ্ঞতা তার এবারই প্রথম।
  • মুশফিকদের সহজেই হারিয়ে ফাইনালে চট্টগ্রাম
    ধারার বাইরে গিয়ে টস জিতে ব্যাটিং আর ওপেনিং জুটিতে নতুনত্ব, ম্যাচের শুরুতে তাক লাগিয়ে দিল ঢাকা। কিন্তু কৌশলের চমক রূপ নিল না ব্যাটে-বলে। ২২ গজে পেশাদার পারফরম্যান্সে তাদের অনায়াসেই হারিয়ে ফাইনালের মঞ্চে পা রাখল চট্টগ্রাম।
  • মুস্তাফিজের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় রোমাঞ্চিত শরিফুল
    প্রতিপক্ষ যখন ব্যাটসম্যান, লক্ষ্য তাদের গুঁড়িয়ে দেওয়া। প্রতিযোগিতা যখন নিজেদের মধ্যে, চাওয়া তখন পরস্পরকে ছাড়িয়ে যাওয়া। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে এভাবেই যেন ছুটে চলেছেন মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম। গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করে চলেছেন দুই বাঁহাতি পেসার। অভিজ্ঞ তারকার সঙ্গে বোলিং করা এবং তাকে ছাপিয়ে যাওয়ার চেষ্টা দারুণ উপভোগ করছেন তরুণ শরিফুল।
  • বরিশালকে হারিয়ে চট্টগ্রামের তিনে তিন
    মুমিনুল হক চোটে ছিটকে না গেলে হয়তো একাদশেই থাকা হতো না সৈকত আলির। সুযোগ পেয়ে তিনি খেললেন দারুণ এক ক্যামিও। ধুঁকতে থাকা চট্টগ্রাম পেল লড়াইয়ের ভিত। সেই রানকে জয়ের জন্য যথেষ্ট করে তুলল মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলামদের দুর্দান্ত বোলিং। চট্টগ্রাম পেল টানা তৃতীয় জয়।
  • নাঈম ৪০, ঢাকার বাকি সবাই ৩৯
    টি-টোয়েন্টি বিশেষজ্ঞ বলে বিবেচিত অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের রান ১০ বলে শূন্য। এরপর অধিনায়কের বিদায় প্রথম বলেই রিভার্স সুইপ খেলে। এই দুটি কেবল উদাহরণ। মোহাম্মদ নাঈম শেখ ছাড়া ঢাকার বাকি ব্যাটসম্যানদেরও একই দশা। বোলিংয়ে তাদেরকে গুঁড়িয়ে ব্যাটিংয়েও উড়িয়ে দিল চট্টগ্রাম।
  • মুস্তাফিজের কাছে অনেক প্রশ্ন শরিফুলের
    মুস্তাফিজুর রহমান যদি বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের বর্তমান হন, শরিফুল ইসলামকে অনায়াসেই বলা যায় ভবিষ্যৎ। দুজনই বাঁহাতি পেসার। উঠে আসার পথটাও প্রায় একই। এখন তারা দুজনই খেলছেন এক দলে। সুযোগটা পুরোপুরি কাজে লাগাচ্ছেন শরিফুল। সিনিয়র বাঁহাতি পেসারের কাছ থেকে যতটা সম্ভব শিখে তরুণ সম্ভাবনাময় পেসার সমৃদ্ধ করছেন নিজেকে।
  • নজর থাকবে যে তরুণদের ওপর
    তারকাদের নিয়ে বাড়তি আগ্রহ বরাবরই থাকে। প্রেসিডেন্ট’স কাপেও তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমদের পারফরম্যান্স নিয়ে থাকবে তুমুল কৌতূহল। তবে তরুণ ও উঠতি ক্রিকেটারদের জন্যও এই টুর্নামেন্ট হতে পারে আলো ছড়ানোর দারুণ মঞ্চ।
  • প্রাণবন্ত উইকেটে টেস্ট ম্যাচও উপভোগ্য হবে: শরিফুল
    উইকেটে পেসারদের জন্য কিছুই নেই। একটু প্রাণের সন্ধানে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করে গেছেন বিসিবি একাদশের তিন পেসার। শরিফুল ইসলাম মনে করছেন, এই ধরনের উইকেটে বড় দৈর্ঘ্যের ম্যাচ উপভোগ করা কঠিন। উইকেটে প্রাণ থাকলে টেস্ট ম্যাচও হবে উপভোগ্য। 
  • জয় দিয়ে নিউ জিল্যান্ড সফর শেষ বাংলাদেশের যুবাদের
    ছন্দে থাকা ওপেনার তানজিদ হাসান তুলে নিলেন টানা চতুর্থ ফিফটি। রান পেলেন পারভেজ হোসেন, শাহাদাত হোসেন ও অভিষেক দাস। বোলিংয়ে আলো ছড়ালেন শরিফুল ইসলাম। নিউ জিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজ শেষ করল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল।
  • যুব এশিয়া কাপের বাংলাদেশ দলে রিশাদ-শরিফুল
    অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপের চূড়ান্ত দলে প্রতাশিতভাবেই আছেন সম্ভাবনাময় লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার রিশাদ হোসেন ও বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম।
  • অনূর্ধ্ব-১৯ দলে লেগ স্পিনার রিশাদ
    সম্ভাবনাময় লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার রিশাদ হোসেন ডাক পেয়েছেন অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপের প্রাথমিক দলে। যুব এশিয়া কাপের দলে জায়গা পেয়েছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম।
  • ইয়াসিন, শরিফুল গুঁড়িয়ে দিলেন পূর্বাঞ্চলকে
    লিটন দাস ও তাসামুল হকের ব্যাটে দুর্দান্ত শুরু পাওয়া পূর্বাঞ্চল হেরে গেল ইনিংস ব্যবধানে। দুই তরুণ পেসার ইয়াসিন আরাফাত ও শরিফুল ইসলামের দাপুটে বোলিংয়ে তিন দিনেই জিতে গেল উত্তরাঞ্চল।
  • মাশরাফির দুর্দান্ত নৈপুণ্যেও পারল না আবাহনী
    বল হাতে ৪ উইকেট। ব্যাটিংয়ে শেষ দিকে ২১ বলে ২২। যথারীতি আবারও দারুণ উজ্জ্বল মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে এবার তার অলরাউন্ড পারফরম্যান্সও যথেষ্ট হয়নি আবাহনীর জন্য। প্রায় অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠা দলটিকে প্রথম হারের স্বাদ দিয়েছে লিগে ধুঁকতে থাকা প্রাইম ব্যাংক।