• রিভিউয়ের নিয়মে বদল চান টেন্ডুলকার, যুক্তি পাচ্ছেন লারা
    বলের কত ভাগ অংশ স্টাম্পে লেগেছে, কত ভাগ লাগেনি, এই হিসাবের বালাই চান না শচিন টেন্ডুলকার। সর্বকালের সফলতম ব্যাটসম্যানের চাওয়া, এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে রিভিউয়ে বল স্টাম্পে সামান্যতম লাগলেও যেন আউট দেওয়া হয় ব্যাটসম্যানকে। টেন্ডুলকারের এই দাবির পক্ষে যুক্তি দেখছেন আরেক কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা।
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪ দিনে টেস্ট জেতার পরামর্শ লারার!
    ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে পাঁচ দিন টিকতে পারবে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ, মনে করেন ব্রায়ান লারা। তাই উত্তরসূরিদের চার দিনের মধ্যে জেতার চেষ্টার পরামর্শ দিলেন ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি এই ব্যাটসম্যান।
  • এনটিনির চোখে কঠিনতম ব্যাটসম্যান লারা
    অস্ট্রেলিয়া, ভারত সফর ছিল মাখায়া এনটিনির জন্য সবচেয়ে কঠিন চ্যালেঞ্জ। তবে এই দুই দেশের কেউ নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই পেসারের চোখে তার মুখোমুখি হওয়া কঠিনতম ব্যাটসম্যান ব্রায়ান লারা।
  • লারার ৩৭৫ ও ৫০১ রানের স্বাক্ষী যারা
    ১৯৯৪ সালের ৬ জুন। এজবাস্টনে বিকেল যখন সাড়ে ৫টা, থমকে দাঁড়াল যেন সময়। জন মরিসের বল বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে ব্রায়ান লারা পা রাখলেন এমন এক উচ্চতায়, যেখানে আগে পা পড়েনি কোনো মানব সন্তানের। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম পাঁচশ রানের ইনিংস!
  • লারা পুত্রের সঙ্গে টেন্ডুলকারের গ্রিপের মিল
    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সক্রিয় শচিন টেন্ডুলকার। ভক্তদের জন্য নিয়মিত ছবি, ভিডিও পোস্ট করা সর্বকালের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান এবার দেখিয়েছেন ব্রায়ান লারার ছেলের সঙ্গে তার গ্রিপের মিল।
  • নিজের চোখে লারার সেরা ১০ মুহূর্ত
    তাকে বলা হতো ‘প্রিন্স অব ত্রিনিদাদ’, আসলে ব্রায়ান লারা ছিলেন ২২ গজের রাজা। ব্যাট হাতে রাজত্ব করতেন প্রবল দাপটে, দুমড়ে-মুচড়ে দিতেন প্রতিপক্ষের বোলিং আক্রমণ আর মনোবল। ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা কিছু ইনিংস এসেছে তার ব্যাট থেকে, হয়ে উঠেছেন রেকর্ডের বরপুত্র। ক্যারিয়ারের সেই রত্নভাণ্ডার থেকে ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি নিজেই খুঁজে নিয়েছেন পছন্দের ১০ মণি-মুক্তা।
  • আফ্রিদির কঠিনতম প্রতিপক্ষ লারা
    ২২ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে বল হাতে অনেক গ্রেট ব্যাটসম্যানের মুখোমুখি হয়েছেন শহীদ আফ্রিদি। অনেক ব্যাটসম্যানই তাকে উপহার দিয়েছেন কঠিন সময়। তবে ব্রায়ান লারাকে বোলিং করতে গিয়ে যে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন, সেই অভিজ্ঞতা অন্য কারও সামনে হয়নি তার। বোলার আফ্রিদি তাই কঠিনতম প্রতিপক্ষ হিসেবে বেছে নিয়েছেন লারাকেই।
  • লারার দুই বিশ্বরেকর্ডের দুই স্বাক্ষী ও একজন ফ্রেজার
    বিশ্বরেকর্ড গড়া ইনিংসের ১০ বছর পর আবার রেকর্ড গড়া, ক্রিকেটীয় বাস্তবতায় এক মহাবিস্ময়। সেই প্রায় অসম্ভবকেই সম্ভব করেছিলেন ব্রায়ান লারা। তার ৩৭৫ ও ৪০০ রানের ইনিংস দুটি নিয়ে চর্চা হয় আজও, হতে থাকবে হয়তো যুগে যুগে। তবে মাঠে থেকে যারা ইতিহাসগড়া দুটি মুহূর্তের স্বাক্ষী, তাদের নিয়েও তো একটু আলোচনা দাবি রাখে!
  • ওভারে ২৮ রান, লারা-বেইলির রেকর্ডে মহারাজ
    ব্রায়ান লারা আর কেশভ মহারাজকে এমনিতে এক বন্ধনীতে রাখা মুশকিল। একজন সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান, আরেকজন বাঁহাতি স্পিনার, যিনি টুকটাক ব্যাটিং পারেন। অথচ ব্যাটিংয়ের একটি বিশ্বরেকর্ডে এই দুইজনের নাম এখন পাশাপাশি! টেস্টে এক ওভারে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডে লারা ও জর্জ বেইলির সঙ্গে নাম লিখিয়েছেন মহারাজও।
  • লারার চোখে, কোহলি ক্রিকেটের রোনালদো
    দুই খেলার মহাতারকা দুই জন। ফুটবলে সময়ের অন্যতম সেরা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো, ক্রিকেটে ঠিক তেমনই বিরাট কোহলি। বৈশ্বিক পর্যায়ে যদিও দুই খেলার আবেদনে ফারাক বিশাল, এই দুজনকে তবু এক বিন্দুতেই দেখছেন ব্রায়ান লারা। ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তির মতে, কোহলিই ক্রিকেটের রোনালদো।
  • আবার মাঠে নামছেন লারা-টেন্ডুলকার-ক্যালিসরা
    ২২ গজে তাদের পারফরম্যান্স এখনও স্মৃতিকাতর করে দেয় ক্রিকেট অনুসারীদের। সেই কিংবদন্তিদের আবারও সরাসরি মাঠে দেখার সুযোগ মিলছে। সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে প্রচারণামূলক একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলবেন শচীন টেন্ডুলকার, ব্রায়ান লারা, জ্যাক ক্যালিস, মুত্তিয়া মুরালিধরন, বিরেন্দর শেবাগ, শিবনারায়ন চন্দরপল, ব্রেট লিসহ আরও অনেক সাবেক ক্রিকেটার।
  • লারাকে ছাড়িয়ে রান চূড়ায় গেইল
    ২৪ বলে ১১ রানের ছোট্ট ইনিংস। কিন্তু এই ইনিংসের পথেও ব্যাট উঁচিয়ে ধরতে পারলেন ক্রিস গেইল। বিবর্ণ ইনিংসটির পথেই যে দেখা পেয়েছেন উজ্জ্বল দুটি মাইলফলকের! উঠে গেছেন ক্যারিবিয়ানদের হয়ে ও ক্যারিবিয়ান হিসেবে ওয়ানডে রানের চূড়ায়। দুটিতেই ছাড়িয়েছেন কিংবদন্তি ব্রায়ান লারাকে।