• ফিঞ্চের ২০২৩ বিশ্বকাপ ভাবনায় রিচার্ডসন-গ্রিন-ফিলিপ
    গত বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে একটু পিছিয়ে পড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। এই উপলব্ধি থেকে পরের বিশ্বকাপের জন্য আগেভাগেই কাজ শুরুর লক্ষ্য দেশটির সীমিত ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের। জাই রিচার্ডসন, জশ ফিলিপ ও ক্যামেরন গ্রিনের মতো তরুণদের ভাবনায় রেখে এগোতে চান তিনি।
  • আবারও কপাল পোড়ার শঙ্কায় রিচার্ডসন
    দুর্ভাগ্য যেন পিছু ছাড়ছে না জাই রিচার্ডসনের। কাঁধের চোটে খেলা হয়নি ২০১৯ বিশ্বকাপে। আরেকটি বিশ্বকাপের আগে ফের মাথাচাড়া দিয়েছে সেই পুরনো চোট। করাতে হয়েছে অস্ত্রোপচার। সেরে উঠে মাঠে ফিরতে যে সময় লাগবে, তাতে দেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে না পারায় শঙ্কায় পড়েছেন এই অস্ট্রেলিয়ান পেসার।
  • বড় ছক্কার চ্যালেঞ্জে নেমেছিলেন রিচার্ডস-ইনজামাম
    ইনজামাম-উল-হক যখন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু করেন, ভিভ রিচার্ডস ততদিনে অবসরে। সেই সময়েই আত্মবিশ্বাসে টগবগ তরুণ পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানকে ‘বড় ছক্কার’ চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি।
  • মরতেও রাজি, তবু হেলমেটে অরুচি!
    এখনকার মতো যত্ন করে উইকেট ঢেকে রাখার ব্যাপার ছিল না তখন। ছিল না বোলারদের হাত-পা বেঁধে রাখা বাউন্সারের নিয়মও। সেই যুগেই ভিভ রিচার্ডস ভয়ঙ্কর সব ফাস্ট বোলারকে গুঁড়িয়ে দিতেন হেলমেট না পরেই! হেলমেট ছাড়া তার খুনে ব্যাটিং ক্রিকেটীয় রূপকথায় জায়গা পেয়ে গেছে পাকাপাকিভাবে। অমন সাহস কেমন করে পেতেন রিচার্ডস? ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি জানালেন, ভালোবাসার পথে ঝুঁকি নিতে তিনি পিছপা হতেন না।
  • ছিটকে গেলেন জাই রিচার্ডসন, অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ দলে কেন রিচার্ডসন
    নিজের প্রথম বিশ্বকাপে খেলতে ফিটনেস পরীক্ষায় উতরাতে হতো জাই রিচার্ডসনকে। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পারলেন না তরুণ এই পেসার। তার জায়গায় কেন রিচার্ডসনকে ফিরিয়েছে শিরোপাধারীরা।