বাবরের ওপর অতি নির্ভরতা পাকিস্তানের 'হারের কারণ'

বাবরের ওপর অতি নির্ভরতা পাকিস্তানের 'হারের কারণ'

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথমবারের মতো পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারের পর ব্যাটিংয়ে বাবর আজমের ওপর অতি নির্ভরতাকে দায় দিলেন দলটির কোচ মিসবাহ-উল-হক। একই সঙ্গে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বে থাকা সাবেক এই ক্রিকেটারের মতে, ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বোলিং ও ফিল্ডিংয়েও বাজে করেছে তার দল।

কোচের সঙ্গে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বও পেলেন মিসবাহ

কোচের সঙ্গে প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বও পেলেন মিসবাহ

গত কিছুদিনের ঘটনাপ্রবাহ অনেকটাই নিশ্চিত করে দিয়েছিল, পাকিস্তানের কোচ হতে যাচ্ছেন মিসবাহ-উল-হক। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ঘোষণায় তার পরও থাকল বড় চমক। কোচ তো বটেই, সঙ্গে পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বও পেয়েছেন মিসবাহ।

পাকিস্তানের কোচ হতে চান মিসবাহ

পাকিস্তানের কোচ হতে চান মিসবাহ

প্রস্তুতি ক্যাম্প পরিচালনা করতে গিয়ে হয়তো বেড়ে গেছে স্বপ্নের সীমানা। মিসবাহ-উল-হক এখন চান পাকিস্তান জাতীয় দলের কোচ হতে। পিসিবির ক্রিকেট কমিটি থেকে পদত্যাগ করে প্রধান কোচ পদের জন্য এরই মধ্যে আবেদন করেছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

নিজের ব্যাটিংয়ে সন্তুষ্ট নন মিসবাহ

নিজের ব্যাটিংয়ে সন্তুষ্ট নন মিসবাহ

দল ভালো না করলে অনুপ্রাণিত করার দায়িত্ব অধিনায়কের। কিন্তু অধিনায়কই যদি থাকেন কাঠগড়ায়! মিসবাহ-উল-হকের এখন হচ্ছে সেই অভিজ্ঞতা। ধুঁকছে চিটাগং ভাইকিংসের মিডল অর্ডার। সেটির সবচেয়ে বড় প্রমাণ তাদের অধিনায়কই। টুর্নামেন্টের তিন ম্যাচে তার স্ট্রাইক রেট ৮৩.৭৫!

আজহারের শতক, বিদায়ী টেস্টে মিসবাহর অর্ধশতক

আজহারের শতক, বিদায়ী টেস্টে মিসবাহর অর্ধশতক

ইউনুস খানকে ফিরতে হয়েছে দ্রুত। তবে ভীষণ মন্থর শুরু করা মিসবাহ-উল-হক পেয়েছেন অর্ধশতক। তাদের বিদায়ী টেস্টে আলো ছড়ানো আজহার আলি পেয়েছেন শতক।

অবশেষে থামছে মিসবাহর পথচলা

অবশেষে থামছে মিসবাহর পথচলা

ইংল্যান্ড সফর দিয়ে বিদায় নিচ্ছেন? নাকি অস্ট্রেলিয়া? নইলে কবে! গত এক-দেড় বছর ধরে পাকিস্তানের প্রতিটি সিরিজের আগে এই প্রসঙ্গ ছিল অবধারিত। অবশেষে মিলল সেটির সুনিশ্চিত উত্তর। পথচলায় ইতি টানার ঘোষণা দিলেন মিসবাহ-উল-হক।

হ্যামিল্টন টেস্টে নিষিদ্ধ মিসবাহ

হ্যামিল্টন টেস্টে নিষিদ্ধ মিসবাহ

অধিনায়ক হওয়ার পর একটি টেস্টই খেলতে পারেননি মিসবাহ-উল-হক। সেটি ছিল মন্থর ওভার রেটের কারণে নিষিদ্ধ হওয়ায়। একই কারণে আরও একবার বাইরে থাকতে হচ্ছে মিসবাহকে। এক টেস্টের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক।