• টি-টোয়েন্টি দলে যুক্ত হলেন মিরাজ-তাসকিন
    চোটের ধাক্কায় তিন জনকে হারিয়ে দলের আকার হয়ে পড়েছিল ছোট। শক্তি বাড়াতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম‍্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে যুক্ত করা হয়েছে অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ ও পেসার তাসকিন আহমেদকে।
  • বাংলাদেশ ও উইন্ডিজকে অপেক্ষায় রাখল বৃষ্টি
    রাত ভর হয়েছে বৃষ্টি। সকালেও ছিল অনেকটা সময়। কিন্তু পরে বৃষ্টি কমলেও মাঠ ভেজা থাকায় ভেস্তে গেছে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেন্ট লুসিয়া টেস্টের প্রথম সেশন।
  • জোসেফের ছোবল সামলে জয়-শান্তর লড়াই
    প্রথম ইনিংসে ক‍্যারিয়ার সেরা বোলিং করা আলজারি জোসেফ আলো ছড়ালেন আবারও। তবে তার ছোবল সামলে প্রতিরোধ গড়লেন মাহমুদুল হাসান জয় ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দ্রুত ২ উইকেট হারানোর পর দ্বিতীয় দিনের শেষ বেলাটা নিরাপদে কাটিয়ে দিলেন এই দুই তরুণ।
  • উইন্ডিজের ১৬২ রানের লিড, মিরাজের ৪ উইকেট
    অন‍্য বোলাররা যেখানে আঁটসাঁট বোলিং করছিলেন, সেখানে মেহেদী হাসান মিরাজের বলে রান আসছিল সহজে। তবে দ্বিতীয় দিন দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ালেন এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। চা-বিরতির আগে-পরে মিলিয়ে ১০.৫ ওভারে টানা স্পেলে নিলেন ৪ উইকেট। ধরলেন দুর্দান্ত এক ক‍্যাচ। তবে এরপরও ক্রেইগ ব্র‍্যাথওয়েট ও জার্মেইন ব্ল‍্যাকউডের ফিফটিতে বড় লিডই পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
  • মিরাজ বলে গেলেন, ‘এমন নয় যে আমরা পারি না’
    সময়টা পক্ষে নেই। তবে বিরুদ্ধ সময়কে বশ করার শক্তি-সামর্থ্য তো আছে। সেই বিশ্বাসকে সঙ্গী করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের উড়ানে চেপে বসেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দেশ ছাড়ার আগে এই স্পিনিং অলরাউন্ডার বলে গেলেন, নিউ জিল্যান্ড সফরের মতো ওয়েস্ট ইন্ডিজেও ভালো কিছু উপহার দিতে চান তারা।
  • ‘লিটনের ক্রিকেট মস্তিষ্ক ক্ষুরধার, তবে সে অন্তর্মুখী’
    বাংলাদেশের পরবর্তী টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে লিটন কুমার দাসের সম্ভাবনা খুব একটা দেখছেন না খালেদ মাহমুদ। লিটনের ক্রিকেট বোধ নিয়ে কোনো সংশয় নেই তার। তবে এই কিপার-ব্যাটসম্যানের ব্যক্তিত্বের ধরন এখন অধিনায়ক হওয়ার মতো উপযুক্ত নন বলেই মনে করেন বাংলাদেশের টিম ডিরেক্টর।
  • মুস্তাফিজকে নিয়েই উইন্ডিজ সফরের টেস্ট দল
    মুস্তাফিজুর রহমানের টেস্ট খেলা নিয়ে টানাপোড়েনের আপাতত অবসান। দীর্ঘদিন ধরে লাল বলের ক্রিকেটের বাইরে থাকা এই বাঁহাতি পেসারকে নিয়েই গড়া হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের বাংলাদেশ টেস্ট দল।
  • ‘তাসকিন-মিরাজের অনুপস্থিতি অন‍্যদের জন‍্য সুযোগ’
    নিজেকে নতুন করে গড়ে নেওয়া তাসকিন আহমেদই যে এখন বাংলাদেশের পেস আক্রমণের নেতা, তা নিয়ে প্রশ্নের অবকাশ নেই। গতিময় এই পেসারের অনুপস্থিতি তাই দলের জন‍্য বড় এক ধাক্কা। আঙুলের চোটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে খেলা হবে না পরিপূর্ণ অলরাউন্ডার হয়ে ওঠার পথে থাকা মেহেদী হাসান মিরাজেরও। তাদের অভাব অনুভব করলেও অধিনায়ক মুমিনুল হক আশাবাদী, যারা সুযোগ পাবেন তারাও ভালো করবেন।
  • সাকিব-মিরাজ না থাকায় বদলে যাচ্ছে অনেক সমীকরণ
    দুই দিন লম্বা সময় ধরে ঘাম ঝরানোর পর বুধবার অনুশীলন ছিল না বাংলাদেশ দলের। ক্রিকেটাররা হোটেলে হালকা জিম করে বিশ্রামেই ছিলেন বাকি সময়টা। কোচিং স্টাফরা সময় কাটান ভাটিয়ারি গলফ কোর্সে। তবে এই ছুটির দিনেও কোচ-অধিনায়ক ও টিম ম্যানেজমেন্টের অন্যদের মনের কোণে নিশ্চয়ই টেস্ট পরিকল্পনার নানা ভাবনা। সেই ভাবনা জুড়ে সবচেয়ে বেশি থাকার কথা চট্টগ্রাম টেস্টের সম্ভাব্য একাদশ। সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজের মতো দুজন অলরাউন্ডারকে হারিয়ে কতটা ভারসাম্যপূর্ণ একাদশ গড়া সম্ভব?
  • ‘মুক্ত আবহে’ ক্রিকেটারদের আনন্দময় ঈদ
    দিন দুয়েক আগে ফেইসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। আড়াই বছর বয়সী সন্তানকে কোলে নিয়ে তিনি লঞ্চের সারেংয়ের কক্ষে। পরের দিন পোস্ট করেছেন আরও দুটি ছবি। নদীর পাড়ে তিনি দাঁড়িয়ে, পরনে লুঙ্গি, মাথায় বাঁধা গামছা। ছবির সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন নিজের মনের কথা, “আমার দেশ, আমার গ্রাম, আমার শান্তির নীড়।”
  • চট্টগ্রাম টেস্টে মিরাজের জায়গায় নাঈম
    শঙ্কাটাই সত‍্যি হলো। আঙুলের চোটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দল থেকে ছিটকে গেছেন দারুণ ছন্দে থাকা অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। তার জায়গায় চট্টগ্রাম টেস্টের দলে এসেছেন নাঈম হাসান।
  • মিরাজের আঙুলে চিড়, শঙ্কায় চট্টগ্রাম টেস্টে খেলা
    চোটের হানায় পেস আক্রমণের শক্তি কমে গেছে আগেই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে এবার সেরা স্পিন আক্রমণ পাওয়া নিয়েও শঙ্কায় বাংলাদেশ দল। মেহেদী হাসান মিরাজের চোট পাওয়া আঙুলে চিড় ধরা পড়েছে। আপাতত দুই সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে গেছেন তিনি। এরপর আঙুলের অবস্থা বুঝে নেওয়া হবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত।
  • তামিমের ক‍্যাচ ধরার চেষ্টায় মিরাজের আঙুলে চোট
    সানজামুল ইসলামের বল উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে এসে উড়িয়ে মারলেন তামিম ইকবাল। ডিপ মিডউইকেট থেকে অনেকটা এগিয়ে এসে ক্যাচ ধরার চেষ্টা করলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু মুঠোয় জমাতে পারলেন না তিনি। উল্টো ডেকে আনলেন বিপদ। আঙুলে বলের আঘাতে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়লেন জাতীয় দলের এই অলরাউন্ডার।
  • বিল ও’রাইলির ৮৬ বছর পর মিরাজ
    দক্ষিণ আফ্রিকাকে মনে করা হয় পেস বোলারদের স্বর্গ। বিশেষ করে প্রথম দিনে প্রথম ইনিংসে এখানে বোলিং করতে মুখিয়ে থাকেন পেসাররা। সেই দেশেই এবার টেস্ট ম্যাচের প্রথম সকালে নতুন বলে এক প্রান্ত থেকে মেহেদী হাসান মিরাজের স্পিনে আক্রমণ শুরু করল বাংলাদেশ। তাতে বিরল এক নজিরও গড়া হয়ে গেল।
  • বোলিংয়ের তৃপ্তি মিলিয়ে গেল শেষ বিকেলের ব্যাটিং হতাশায়
    বোলিংয়ে ‘৩’ সংখ্যাটি বাংলাদেশের জন্য বয়ে এনেছিল স্বস্তির পরশ। ইবাদত হোসেন চৌধুরি ও মেহেদী হাসান মিরাজ দুর্দান্ত বোলিংয়ে নেন ৩টি করে উইকেট। কিন্তু দিন শেষে সেই সংখ্যাটিই এখন বিভীষিকার প্রতিশব্দ। ব্যাটিংয়ে নেমে যে ৩ উইকেট উধাও টপাটপ! ইতিহাস গড়ার রোমাঞ্চও তাই আপাতত বিলীন। বরং সঙ্গী এখন হারের শঙ্কা আর চাপা আর্তনাদ।
  • লিড দূরের পথ, বাংলাদেশের লক্ষ‍্য ব্যবধান কমানো
    দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চের পরই স্পষ্ট হতে শুরু করে, উইকেটে স্পিনারদের জন্য সহায়তা বাড়ছে। শেষ বেলায় সেটা আরও নিশ্চিত হয় সাইমন হার্মার ও কেশভ মহারাজের বোলিংয়ে। স্পিনাররা টার্ন পাচ্ছেন, কখনও কখনও বল নিচু হচ্ছে। দ্বিতীয় দিন শেষে খেলার যা চিত্র, এমন পরিস্থিতিতে লিড নেওয়া মেহেদী হাসান মিরাজের কাছে মনে হচ্ছে দূরের পথ।
  • মিরাজের করা রান আউট কোচের চোখে ‘স্পেশাল’
    ডারবান টেস্টের প্রথম দিনে ব্যাট-বলের লড়াই জমল বেশ। তবে দিনের সেরা মুহূর্তটি ছিল নিঃসন্দেহে ফিল্ডিংয়ে। মেহেদী হাসান মিরাজের অসাধারণ ফিল্ডিংয়ে রান আউট কিগান পিটারসেন। বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো এটিকে রাখছেন তার দেখা সেরা রান আউটগুলোর মধ্যে।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে আফিফের বড় লাফ
    দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ স্রেফ ৩৪ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ক্রিজে গিয়ে প্রতিরোধ গড়েন আফিফ হোসেন। দলের বিপর্যয়ে উপহার দেন দারুণ এক ফিফটি। যার ছাপ পড়েছে তার র‌্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় বড় লাফ দিয়েছেন তিনি।
  • আগের ম্যাচের হতাশা ভুলে সিরিজ জয়ের হাতছানি
    জিম্বাবুয়ে, কেনিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ… ব্যস, তালিকার সমাপ্তি! ওয়ানডেতে বাংলাদেশ এখন বিশ্ব ক্রিকেটে সমীহ জাগানিয়া শক্তি, আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগে এখন পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে। অথচ দেশের বাইরে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের স্বাদ মিলেছে কেবল তিন দেশে। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হতে পারে বড় এক নাম। উপমহাদেশের দলগুলির জন্য সফর যেখানে বরাবরই কঠিন, সেই দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ জয় ধরা দেবে স্রেফ আরেকটি জয়ে।
  • সেঞ্চুরিয়নে আবার বড় রানের আশায় বাংলাদেশ
    প্রথম ম্যাচে দলের রান পার হয় তিনশ। পরের ম্যাচে টেনেটুনেও হয়নি দুইশ। দুই ম্যাচে ব্যাটিংয়ের দুই রকম চিত্রে ব্যাটসম্যানদের সাফল্য-ব্যর্থতার ব্যাপার যেমন আছে, তেমনি আছে উইকেটের প্রভাবও। দুই মাঠের ২২ গজের আচরণ ছিল ভিন্ন। এবার সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচটি হবে প্রথম ম্যাচের ভেন্যুতেই। বাংলাদেশও তাই আশায় বুক বাঁধছে আবার বড় স্কোরের।
  • আফিফকে দেখে আত্মবিশ্বাস বেড়েছে মিরাজের
    বয়স আর অভিজ্ঞতায় আফিফ হোসেনের চেয়ে এগিয়ে মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে ক্রিকেটীয় শিক্ষার সমীকরণ অনেক সময়ই ভিন্ন। মিরাজ যেমন অকপটেই বলছেন, আফিফকে দেখে তিনি শিখছেন অনেক। মাঝেমধ্যে তিনি সময়ের আগে ছুটতে চাইলেও তরুণ সতীর্থ এসে স্থিরতা দেন তাকে। আফিফের ব্যাটিং দেখে আত্মবিশ্বাসের জোগানও মিলেছে তার।
  • দেশের মতো বাইরেও সিরিজ জয়ে চোখ বাংলাদেশের
    দেশের মাটিতে অনেক দিন ধরেই বাংলাদেশ সমীহ করার মতো দল। আছে অসংখ‍্য সাফল‍্য। দেশের বাইরেও এখন নিজেদের ছাপ রাখতে শুরু করেছে তারা। এতে খেলোয়াড়দের স্বপ্নের পরিধিও বেড়ে গেছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম ওয়ানডেতে জয়ের পর যেমন মেহেদী হাসান মিরাজ বললেন, দেশের মতো বিদেশের মাটিতেও এখন জিততে চান সিরিজ, এমনকি বিশ্বকাপও।
  • ৪ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে কী ভাবছিলেন মিরাজ?
    পঞ্চম বোলারের জন‍্য বিপদে পড়ে যাবে না তো বাংলাদেশ? মেহেদী হাসান মিরাজের প্রথম স্পেল শেষে ধীরে ধীরে প্রশ্ন উঠছিল। অধিনায়ক তামিম ইকবালের কপালেও নিশ্চয় পড়ছিল চিন্তার ভাঁজ। তবে বোলার মিরাজ নিজে কী ভাবছিলেন, ম‍্যাচের একদিন পর নিজেই জানালেন তরুণ এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার।
  • ‘আমাকে বল দেন, ম্যাচ ঘুরিয়ে দেব’
    নিজেদের আর কোনো দল যা পারেনি, তাই করে দেখাতে অধিনায়ক তামিম ইকবালের চাওয়া ছিল সাহসী ক্রিকেট। সেটা পুরোপুরিই দেখিয়েছে তার দল। মেহেদী হাসান মিরাজ ছিলেন আরও বেশি সাহসী। ৪ ওভারে ৩৮ রান দিয়েও মনোবল হারাননি তিনি; বরং তামিমের কাছে নিজেই আবার চেয়ে নেন বোলিং। দলের জয়ে রাখেন অবদান।
  • ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে লিটন, পেছালেন মুশফিক-মিরাজ
    আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন লিটন কুমার দাস। আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে উঠেছেন বাংলাদেশের ওপেনার। অবনতি হয়েছে মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান মিরাজের।
  • ‘পারফর্ম না করলে জায়গা অন্য কেউ নিয়ে নেবে’
    দলে পারফরমার বাড়ছে। সঙ্গে বাড়ছে জায়গা নিয়ে প্রতিযোগিতাও। ক্রিকেটারদের একটি লড়াই নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। আরেক লড়াই সতীর্থদের সঙ্গেই। সুযোগ কাজে লাগিয়ে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকার। ধারাবাহিক পারফর্ম করার চাপও তাই বাড়ছে। এটিকে ক্রিকেটীয় বাস্তবতা হিসেবেই দেখছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। বাংলাদেশের অলরাউন্ডারের মতে, এই চ্যালেঞ্জকে সঙ্গী করেই এগিয়ে যেতে হয় ক্রিকেটারদের।
  • বিশ্বকাপে তাকিয়ে তিনশর সীমানা বারবার ছোঁয়ার তাড়না
    উইকেটের কাভার সরানোই ছিল। রোববার অনুশীলনের ফাঁকে বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল, কোচ রাসেল ডমিঙ্গো, টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ বেশ সময় নিয়ে দেখলেন উইকেট। পরে মুশফিকুর রহিমসহ আরও কজন পরখ করলেন উইকেট। টিপে দেখলেন কেউ কেউ। কতটা কী বুঝতে পারলেন তারা, সেসব জানার উপায় নেই। তবে উইকেটের চেহারা দেখে অন্তত খুশিই হওয়ার কথা তাদের!
  • আরও ১০ পয়েন্টের আশায় মরিয়া বাংলাদেশ
    সিরিজের শেষ ম্যাচের আগের দিন অনুশীলন ঐচ্ছিক। সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, আফিফ হোসেনরা রোববার আসেননি মাঠে। সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ার পর দল একটু নির্ভার কিনা, সেই প্রশ্ন জাগতেই পারে। মেহেদী হাসান মিরাজ তা শুনে প্রবল আপত্তি করলেন। পূর্ণ ৩০ পয়েন্টের হাতছানি যেখানে, অভিযান শেষ হওয়ার আগে স্বস্তির শ্বাস নেওয়ার সুযোগ কোথায়!
  • টেস্টে ব্যর্থতার বেদনা চাপা দিয়ে ওয়ানডেতে নায়ক মিরাজ
    ম্যাচ শেষ হওয়ার পর পেরিয়ে গেছে অনেকটা সময়। কিন্তু রেশ মিলিয়ে যাওয়ার নয়। এই জয়ের মাহাত্মই এমন! আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে স্মরণীয় সেই জয়ে ম্যান অব দা ম্যাচ মেহেদী হাসান মিরাজ। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় তিনি শোনালেন আফিফ হোসেনের সঙ্গে তার রেকর্ড গড়া জুটির নানা বাঁকের গল্প। গত এক বছরে দুটি টেস্টে ব্যাট হাতে কাজ শেষ করে ফিরতে না পারার যে কষ্ট তাকে পোড়াচ্ছিল, সেই ক্ষতে প্রলেপ দেওয়ার কথাও বললেন এই অলরাউন্ডার।
  • মিরাজ নামার সময়ই ডমিঙ্গো বলেছিলেন ‘দেড়শ রানের জুটি হবে’
    ম্যাচের পর অধিনায়ক তামিম ইকবালের কণ্ঠে ছিল সরল স্বীকারোক্তি, জয়ের আশা তিনি ছেড়ে দিয়েছিলেন। বড় পরাজয়ের অপেক্ষায় ছিলেন সম্ভবত প্রায় সবাই। তবে বাংলাদেশের ড্রেসিং রুমের একজনের দাবি, ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ের পরও তিনি বিশ্বাস হারাননি! মেহেদী হাসান মিরাজ উইকেটে যাওয়ার সময়ই নাকি কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলেছিলেন, এবার বড় জুটি হবে!
  • জয়ের ভাবনা দূরে ঠেলেই জয়ের আলিঙ্গনে বাংলাদেশ
    স্কোরবোর্ডের যে চেহারা, সেদিকে না তাকানোই ভালো। জয়ের সীমানা দৃষ্টি সীমারও বাইরে! যাবতীয় সমীকরণ আর পারিপার্শ্বিকতাকে তাই ভাবনার দুয়ারে আটকে রেখেছিলেন আফিফ হোসেন। মেহেদী হাসান মিরাজ উইকেটে যাওয়ার পর তাদের চেষ্টা ছিল স্রেফ উইকেট আগলে রেখে একটু একটু করে সামনে এগিয়ে যাওয়া। ছোট ছোট সেই পদক্ষেপগুলোই শেষ পর্যন্ত দুজনকে নিয়ে যায় অভাবনীয় জয়ের আশ্রয়ে।
  • স্মরণীয় জয়ের পথে আফিফ-মিরাজের যত রেকর্ড
    ২২ গজে আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজের অসাধারণ ব্যাটিংয়ের ঢেউ আছড়ে পড়ল রেকর্ড বইয়ে। জুটির বিশ্বরেকর্ড হলো, ব্যক্তিগত অর্জনেও সমৃদ্ধ হলেন দুজন। দলের রোমাঞ্চকর জয় তো বটেই, জয়ের দুই নায়কের নানা কীর্তিতেও ম্যাচটি স্থায়ী জায়গা পেয়ে গেল বাংলাদেশের ক্রিকেটে।
  • 'মানুষ পারে না, এমন কোনো জিনিস নেই'
    আর কোনো উইকেট হারানোর সুযোগ ছিল না। কাজ যা করার করতে হতো এই জুটিকেই। কিন্তু পথটা তো ছিল অনেক লম্বা, শেষটা ছিল দৃষ্টি সীমানার বাইরে। তাই শুরুতে অতকিছু ভাবেননি আফিফ-মিরাজ। ছোট ছোট লক্ষ্য স্থির করে এগোতে থাকেন, তাতেই মিলে গেল অবিস্মরণীয় জয়। লক্ষ্য ছোঁয়ার পর প্রশান্তির হাসিমুখে মেহেদী হাসান মিরাজ শোনালেন সেই লড়াইয়ের গল্প, আফিফ হোসেনের সঙ্গে তার রেকর্ড গড়া জুটির গল্প।
  • এমন জয় বিশ্বাস করতে পারছেন না তামিমও
    রশিদ খানের শর্ট বল কাট করার চেষ্টায় মাহমুদউল্লাহ যখন ক‍্যাচ দিলেন, অনেকেই ভেবেছিলেন বাংলাদেশের আশা শেষ। সেই দলে আছে তামিম ইকবালেরও নাম। ৪৫ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর আর জেতার কথা ভাবতে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। কিন্তু তাকে বিস্ময়ের সাগরে ভাসিয়ে দলকে ঠিকই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন দুই তরুণ, আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • আফিফ-মিরাজের বীরত্বে ধ্বংসস্তূপে জয়ের সৌধ
    গুলবদিন নাইবের বলে আফিফ হোসেনের পুল শট আশ্রয় নিল বাউন্ডারিতে। স্টেডিয়ামের ঘড়িতে তখন সন্ধ্যা ঠিক ৭টা। সপ্তম উইকেট জুটিতে ঠিক ওই সময়টায় আর ওই শটে যেখানে পৌঁছল বাংলাদেশ, সেই ঠিকানার নাম ‘অবিস্মরণীয়’ বা ‘অভাবনীয়’ অথবা ‘অকল্পনীয়।’ কিংবা সবকিছুই! বিপর্যয় থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে জয়ের অনেক গল্পই তো রচিত হয়েছে ক্রিকেটে। সেখানেই হয়ে গেল গৌরবময় আরেকটি সংযোজন। পরাজয়ের দুয়ার থেকে আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজের বীরোচিত পারফরম্যান্স বাংলাদেশকে এনে দিল ওয়ানডে ইতিহাসের সেরা জয়গুলির একটি।
  • নেটে মিরাজকে হারানো কঠিন!
    রিভার্স সুইপ করার চেষ্টায় ঠিকমতো খেলতে পারলেন না আফিফ হোসেন। বোলার মেহেদী হাসান মিরাজের উল্লাস দেখে কে! “এবার তো গন… এবার তো আউট…”, চিৎকার করে এসব বলতে বলতে ছুটে গেলেন ব্যাটসম্যানের দিকে। আফিফ মানতেই চান না আউট, মিরাজও ছাড় দেবেন না দাবি। যেন এই একটি উইকেটের ওপরই নির্ভর করছে তার ক্যারিয়ার টিকে থাকা!
  • নারাইনের ব্যাটিং তাণ্ডবে ফাইনালে কুমিল্লা
    প্রথম ইনিংসে কতবার বদল হলো লাগাম। কখনও চট্টগ্রাম, কখনও আবার কুমিল্লা বসল শক্ত অবস্থানে। পরের ইনিংসে ব‍্যাটন বদল হলো না একবারও, কিন্তু ম‍্যাচ হয়ে উঠল আরও প্রাণবন্ত। সেটা সম্ভব হলো সুনিল নারাইনের জন‍্য। খুনে ইনিংসে বিপিএলে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড গড়ে ফয়সালা করে দিলেন ম‍্যাচের ভাগ্য। তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠল কুমিল্লা।  
  • জুটির রেকর্ড গড়লেন ওয়ালটন-মিরাজ
    চট্টগ্রামের ফ্র্যাঞ্চাইজির নাম তখন ভাইকিংস। সেই দলের হয়েই জুটির একটি রেকর্ড গড়েছিলেন মোহাম্মদ নবি ও এনামুল হক। এবার চট্টগ্রামের আরেক ফ্র্যাঞ্চাইজি চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে সেই রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন চাডউইক ওয়ালটন ও মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • চট্টগ্রামের নেতৃত্বে আবার বদল, এবার অধিনায়ক আফিফ
    মেহেদী হাসান মিরাজের নেতৃত্ব চলে যাওয়া নিয়ে কত নাটকই না হলো চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে! অনেক বিতর্কের পর নেতৃত্ব পেলেন যিনি, সেই নাঈম ইসলামও টিকতে পারলেন না দায়িত্বে। তাদের নতুন অধিনায়ক তরুণ ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন।
  • চট্টগ্রাম ও মিরাজের ‘দায় স্বীকারে’ সন্তুষ্ট বিসিবি
    মেহেদী হাসান মিরাজকে হুট করে চট্টগ্রাম চ‍্যালেঞ্জার্সের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরের ঘটনা প্রবাহ ভালোভাবে নেয়নি বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তাই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার ও ফ্র্যাঞ্চাইজিকে শুনানির জন‍্য ডাকে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থা। সেখানে দুই পক্ষই নিজেদের দোষ স্বীকার করে নেওয়ায় বিসিবি সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন বোর্ড পরিচালক ইসমাইল হায়দার মল্লিক।
  • শুনানিতে ডাকা হবে মিরাজ ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে
    নানা নাটকীয়তার পর চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সঙ্গে মেহেদী হাসান মিরাজের বিরোধের অবসান হলেও ঘটনার রেশ শেষ হচ্ছে না এখনই। ঢাকায় ফেরার পর দুই পক্ষকেই শুনানিতে ডাকা হবে বলে জানিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল।
  • যে কারণে নেতৃত্ব হারিয়েছেন মিরাজ
    ভালো খেলতে থাকা একটি দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া অধিনায়ককে কেন সরানো সরাতে হলো? মেহেদী হাসান মিরাজকে চট্টগ্রাম চ‍্যালেঞ্জার্স দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর বিস্ময় ও প্রশ্নের ঝড়। ধোঁয়াশাও ছিল অনেক। এবার ফ্র্যাঞ্চাইজির সত্ত্বাধিকারী রিফাত উজ জামান জানালেন, মিরাজের নেতৃত্ব হারানোর পেছনে রয়েছে কৌশল নিয়ে ম‍্যানেজমেন্টের সঙ্গে তার মতপার্থক‍্য। 
  • নাটক শেষে চট্টগ্রামেই থাকছেন মিরাজ
    নেতৃত্ব হারানোর পর চট্টগ্রামে মেহেদী মিরাজকে ঘিরে সৃষ্ট জটিলতার অবসান হয়েছে। বিপিএলের চট্টগ্রাম চ‍্যালেঞ্জার্স ফ্র‍্যাঞ্চাইজির সত্ত্বাধিকারী রিফাত উজ জামানের হস্তক্ষেপে মিটেছে ঝামেলা। নিজের ভুলের জন‍্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন দলটির প্রধান পরিচলন কর্মকর্তা ইয়াসির আলম।
  • হঠাৎ পরিবর্তনে মিরাজের জায়গায় চট্টগ্রামের নেতৃত্বে নাঈম
    টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বেশ ঘটা করেই অধিনায়ক হিসেবে মেহেদী হাসান মিরাজের নাম জানিয়েছিল চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। কিন্তু চার ম্যাচের সমাপ্তি এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের নেতৃত্বের অধ্যায়ের! পঞ্চম শনিবার সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে টস করতে দেখা গেল অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নাঈম ইসলামকে।
  • রান জোয়ারের আশায় চট্টগ্রামে বিপিএল
    সবার আগে যখন মাঠে এলেন সাকিব আল হাসান, তখনও সেন্টার উইকেট প্রস্তুত করার কাজ চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে তার দল বরিশাল বুলস মাঠে আসার আগেই অবশ‍্য মাঠকর্মীদের কাজ শেষ। চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম দিনে যাদের খেলা, সেই চার দল বৃহস্পতিবার যখন মাঠে এলো, ততক্ষণে চট দিয়ে পুরোপুরি ঢাকা উইকেট। তবে উইকেট দেখার তাড়না বা ভাবনা, খুব একটা তাদের থাকার কথা নয় এমনিতেও। সবারই জানা, সাগর পাড়ের এই মাঠে আছে প্রচুর রান। 
  • ছোট রানের ম্যাচে জয়ে শুরু সাকিবদের
    টুর্নামেন্টের প্রথম বলেই ছক্কা! তাতে সবার নড়েচড়ে বসার পালা। কিন্তু শুরুর সেই গর্জনের প্রতিফলন পরে আর পড়ল না বর্ষণে। বরং ধুঁকে ধুঁকে ভোগান্তির টি-টোয়েন্টি ব্যাটিংই দেখা গেল আবার। রান খরার জন্য বরাবরই সমালোচিত বিপিএলের নতুন আসর শুরু হলো সেই পুরনো ধাঁচেই। তাতে মেহেদী হাসান মিরাজের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে হারিয়ে জয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করল সাকিব আল হাসানের ফরচুন বরিশাল।
  • সিলেটের নেতৃত্বে মোসাদ্দেক, চট্টগ্রামের অধিনায়ক মিরাজ
    দল গঠনে দেশি-বিদেশি বড় তারকাদের পেছনে ছোটেনি এই দুই ফ্র্যাঞ্চাইজির কোনোটিই। সিলেট সানরাইজার্স দল গড়েছে মূলত ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরমারদের নিয়ে, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স জোর দিয়েছে তারুণ্যে। দুই দলের নেতৃত্ব বাছাইয়েও পড়ল সেই ভাবনারই প্রতিফলন। এবারের বিপিএলে সিলেটের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন, চট্টগ্রামের নেতৃত্বে মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • ১৩০ রানের লিড নিয়ে থামল বাংলাদেশ
    ইয়াসির আলি চৌধুরির সঙ্গে মেহেদী হাসান মিরাজের জুটি ভাঙার পর দ্রুতই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। তৃতীয় নতুন বলে দ্রুত শেষ চার উইকেট হারানোর আগে অবশ্য নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে লিড শতরানে নিতে পেরেছে মুমিনুল হকের দল।
  • মিরাজের ‘দশে মিলে’ কাজের তৃপ্তি
    নিউ জিল‍্যান্ডকে সাড়ে তিনশর আগে থামাতে দারুণ অবদান রেখেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে নিজের ভূমিকাকে অতো বড় করে দেখছেন না এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। শরিফুল ইসলামসহ সব সতীর্থ বোলার এবং শত রানের জুটি গড়া মাহমুদুল হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্তর অবদানকে দিচ্ছেন কৃতিত্ব। মিরাজের মতে, সবার মিলিত অবদানেই প্রথম টেস্টে ভালো অবস্থানে এসেছে বাংলাদেশ।
  • মিরাজের হ্যাটট্রিক ফিফটির পর শেষের রোমাঞ্চের অপেক্ষা
    পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের সময় যত ঘনিয়ে আসছে, ব্যাটে-বলে প্রস্তুতিটা ততটাই ভালো হচ্ছে মেহেদী হাসান মিরাজের। জাতীয় ক্রিকেট লিগে তিনি ব্যাট হাতে টানা তিন ইনিংসে করেছেন ফিফটি। তাতে রংপুর বিভাগকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দিয়েছে খুলনা বিভাগ। ম্যাচের শেষ দিনে হতে পারে যে কোনো ফল।
  • মিরাজের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স, মৃত্যুঞ্জয়ের ৫ উইকেট
    জাতীয় দলের হয়ে নতুন চ্যালেঞ্জের আগে ব্যাট ও বল হাতে নিজেকে শাণিত করে নিচ্ছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। অপরাজিত এক ইনিংসে দলকে আড়াইশ ছাড়ানো পুঁজি এনে দিতে রাখলেন ভূমিকা। পরে বল হাতে জ্বলে উঠে খুলনা বিভাগকে এনে দিলেন লিড।
  • বিশ্বকাপ থেকে ফিরেই নাসুমের ৭ উইকেট
    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে সবে দেশে ফিরেছেন নাসুম আহমেদ। একদিন পর জাতীয় ক্রিকেট লিগে খেলতে নেমেই ক্যারিয়ার সেরা বোলিং উপহার দিয়েছেন বাঁহাতি এই স্পিনার। তার স্পিনে ঢাকা বিভাগকে অল্প রানে গুটিয়ে প্রথম ইনিংসে লিড নেওয়ার পথে আছে সিলেট।
  • এনামুলের ৫০০ উইকেট, মিরাজের স্পিনে খুলনার জয়
    অপেক্ষা ছিল একটি উইকেটের। এনামুল হক জুনিয়র নিজের দ্বিতীয় ওভারেই পৌঁছে গেলেন কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায়। বাংলাদেশের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে স্পর্শ করলেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৫০০ উইকেটের মাইলফলক।
  • চাপের মুখে মিরাজের ব্যাটে রান
    প্রথম দুই রাউন্ডে বোলিং ভালো করলেও মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটে ছিল না রান। এবার চাপের মুখে ব্যাটিংয়ে নেমে তিনি করলেন ফিফটি। নাহিদুল ইসলামের সঙ্গে তার দারুণ জুটিতে বড় সংগ্রহের পথে এগোচ্ছে খুলনা বিভাগ।
  • নাঈম-নাসিরের সুযোগ হাতছাড়া, মিরাজের ৪ উইকেট
    ব্যাটিংয়ে নামা ১০ ব্যাটসম্যানের আট জনই গেলেন দুই অঙ্কে। কিন্তু কেউ পারলেন না ৪০ পার হতে। গড়ে উঠল না তেমন কোনো জুটি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিয়ে রংপুরকে চাপে ফেলে দিলেন খুলনার দুই বোলার মেহেদী হাসান মিরাজ ও আল আমিন হোসেন।
  • প্রথম ম্যাচে নেই মুমিনুল-মিরাজ
    হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) দলের বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচের সিরিজে বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা মুমিনুল হকের। তবে প্রথম চার দিনের ম্যাচে খেলতে পারবেন না বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক। পারিবারিক কারণে তিনি এখনও যোগ দেননি দলের সঙ্গে। কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় খেলতে পারবেন না অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজও।
  • বাংলাদেশ ‘এ’ দলে মিঠুন, অধিনায়ক মুমিনুল
    বাংলাদেশের সবশেষ টেস্ট সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। সম্প্রতি ঘোষিত বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতেও কোনো সংস্করণে তাকে রাখা হয়নি। তবে নির্বাচকদের ভাবনার বাইরে যে তিনি যাননি, তা স্পষ্ট হলো এবার। জাতীয় দলে জায়গা হারানো এই ব্যাটসম্যানকে রাখা হয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দলে।
  • টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে মাহমুদউল্লাহ-মিরাজের উন্নতি
    দলের বিপদে হাল ধরেছেন শক্ত হাতে। খেলেছেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে মাহমুদউল্লাহর দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ছাপ পড়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসির টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৯ ধাপ এগিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে বিদেশের মাটিতে রেকর্ড গড়া বোলিং করা মেহেদী হাসান মিরাজেরও উন্নতি হয়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে।
  • তাসকিন-মিরাজের বোলিংয়ে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া জয়
    সব হারিয়ে জিম্বাবুয়ের একটু লড়াই! ম্যাচের স্থায়িত্ব তাতে একটু বাড়ল, এই যা। বাংলাদেশের জয় ঠেকানো গেল না। আগুন ঝরা পেসে তাসকিন আহমেদ করলেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। মেহেদী হাসান উপহার দিলেন রেকর্ড গড়া বোলিং। বাংলাদেশের জয়ও এলো রেকর্ড ব্যবধানে।
  • তাসকিন-মিরাজের বোলিংয়ে জয় দেখছে বাংলাদেশ
    প্রথম ইনিংসে দুই স্পিনারের উইকেট ৯টি, শেষ দিনে তাদের দিকেই তাকিয়ে ছিল বাংলাদেশ। তাসকিন আহমেদ জানিয়ে দিলেন, তিনিও আছেন! পঞ্চম দিনের উইকেটে ৫০ ওভার পুরনো বলেই আগুন ঝরালেন এই পেসার। জ্বলে উঠলেন মেহেদী হাসান মিরাজও। পেস-স্পিনের যুগলবন্দীতে বাংলাদেশ অনেকটাই এগিয়ে গেল জয়ের পথে।
  • মিরাজের আত্মবিশ্বাস বাড়ানো ৫ উইকেট
    দেশের মাটিতে রেকর্ড যত উজ্জ্বল, বাইরে ততটাই ম্লান। একাদশে তার জায়গা নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। নিজের আত্মবিশ্বাসেও হয়তো একটু চোট লেগেছিল। হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট পেয়ে নিজেকে যেন ফিরে পেলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • দেশের বাইরে মিরাজের দ্বিতীয় ৫
    দেশের মাঠে ধারাল, বিদেশে নির্বিষ। মেহেদী হাসান মিরাজের বোলিং নিয়ে এই অভিযোগ শোনা যায় কান পাতলেই। সেই চ্যালেঞ্জ জয়ের পথে বাংলাদেশের অফ স্পিনার এগোলেন আরেকটি ধাপ। টেস্টে দ্বিতীয়বার পেলেন দেশের বাইরে ৫ উইকেটের স্বাদ।
  • মিরাজ-সাকিবের স্পিনে বাংলাদেশের বড় লিড
    টেস্টের তৃতীয় দিনটাকে বলা হয় ‘মুভিং ডে।’ এই দিনেই সাধারণত একটি আকার নেয় ম্যাচ, বোঝা যায় কোন পথে এগোচ্ছে। হারারেতেও সেটিই হলো। মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসানের স্পিনে ম্যাচ হেলে পড়ল বাংলাদেশের দিকে। নাটকীয় ধসে ফলো-অন পেরিয়েই শেষ হয়ে গেল জিম্বাবুয়ের ইনিংস। প্রথম ইনিংসের বড় লিড পরে আরও বাড়িয়ে নিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার।
  • হেরাথের শেখানো কৌশল রপ্ত করার আশায় মিরাজ
    দুই দিন অনুশীলন আর দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। জিম্বাবুয়েতে রঙ্গনা হেরাথের পরামর্শ এতটুকুই পেয়েছেন বাংলাদেশের স্পিনাররা। তাতেই অনেক আশার ছবি দেখতে পাচ্ছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। বাংলাদেশের এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের ধারণা, নতুন স্পিন পরামর্শকের কাছ থেকে পাওয়া পরামর্শ রপ্ত করতে ও কাজে লাগাতে পারলে দারুণ উপকৃত হবেন স্পিনাররা।
  • বোলিংয়ের প্রস্তুতিও ভালো হলো সাকিব ও বাংলাদেশের
    অফ স্টাম্পের বাইরে পিচ করা বাঁহাতি অর্থোডক্স স্পিনারের বল। পিচ করে সোজা বাইরে যাওয়ার কথা। কিন্তু অ্যাঙ্গেলে বলটি ঢুকল ভেতরে। হতভম্ব ব্যাটসম্যান বোল্ড। আরেকটি ডেলিভারি পিচ করল মিডল স্টাম্পে। ব্যাটসম্যান বলের লাইনেই ব্যাট পেতে দিলেন। কিন্তু তীক্ষ্ণ টার্ন করে বেরিয়ে বল ছোবল দিল অফ স্টাম্পে। সাকিব আল হাসানের দারুণ দুটি ডেলিভারি, যেন তার সেরা সময়ের ঝলক! স্রেফ প্রস্তুতি ম্যাচ যদিও, তবু আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাওয়ার কথা অনেক।
  • ইফরান-মিরাজের হাত ধরে খেলাঘরের চতুর্থ জয়
    আবারও ব্যর্থ পারটেক্সের ব্যাটসম্যানরা। ইফরান হোসেনের পেস কিংবা মেহেদী হাসান মিরাজ ও টিপু সুলতানের স্পিনের সঙ্গে খুব একটা লড়াই করতে পারেননি তারা। বোলারদের নৈপুণ্যে তলানিতে থাকা দলটির বিপক্ষে সহজেই জিতেছে খেলাঘর।
  • মিরাজ-ফরহাদের ব্যাটে খেলাঘরের জয়
    টিপটিপ বৃষ্টি ঝরছে তখন। সময়ের ডাক যেন শুনতে পেলেন ফরহাদ হোসেন। সুজন হাওলাদারের অফ স্টাম্পের বাইরের বল ফ্লিক করে ওড়ালেন ছক্কায়। সময়ের পরিক্রমায় সেটিই হয়ে গেল ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারক। ওই শটের পরই বৃষ্টির বেগ বেড়ে বন্ধ হলো খেলা। ফরহাদের দল ম্যাচটি জিতে গেল ৫ রানে!
  • মিরাজ-জহুরুলের ফিফটিতে খেলাঘরের দারুণ জয়
    নাবিল সামাদের বল স্লগ সুইপে ড্রেসিং রুমের দুয়ারে আছড়ে ফেললেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দেখালেন নিজের হাতের জোর। খানিকপর সাব্বির রহমানের বল উড়িয়ে প্রায় কাছাকাছিই ফেললেন জহুরুল ইসলাম। ওই দুটি শটে মিশে থাকল দুজনের দাপটের ছাপ। বাকি সময়টাও দারুণ ব্যাটিংয়ে লিগে খেলাঘরকে প্রথম জয় এনে দিলেন এই দুজন।
  • মুশফিক-সাকিবদের থেকে শেখার তাগিদ মিরাজের
    একটা সময় অনুসরণের জন্য বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের তাকাতে হতো বিদেশিদের দিকে। অনুপ্রেরণা বা আদর্শ হিসেবে মানা হতো তাদের। এখন বদলে গেছে প্রেক্ষাপট। বিশ্বমানের খেলোয়াড় যে আছে ঘরেই। মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসানদের দেখে তরুণদের শেখার তাগিদ দিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • সতীর্থরা কতটা আগলে রেখেছিলেন, মনে পড়ছে মিরাজের
    সাফল্যের উচ্ছ্বাসে ভেসে যাচ্ছেন না মেহেদী হাসান মিরাজ। দেশের হয়ে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্ট পাওয়ার পর তার মনে পড়ছে, কঠিন সময়ে কতটা আগলে রেখেছিলেন সতীর্থরা। তরুণ এই অফ স্পিনারের ধারণা, সে সময় এতোটা সহায়তা না পেলে হয়তো আজ ওয়ানডে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বরে যেতে পারতেন না তিনি।  
  • শেষ ম্যাচেও ১০ পয়েন্ট চাই বাংলাদেশের
    সিরিজ নিশ্চিত হয়ে গেছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে কি তাহলে হারাবে গুরুত্ব? মেহেদী হাসান মিরাজ জোর দিয়ে বললেন, এমনটা হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। বাংলাদেশের অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার জানালেন, আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের ম্যাচ হওয়ায় ১০ পয়েন্টে চোখ রেখেই মাঠে নামবে দল।
  • ছোট ছোট কাজ করে বড় সাফল্য মিরাজের
    টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পথচলা শুরু। সময়ের সঙ্গে মেহেদী হাসান মিরাজ এখন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলেরও গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। উঠেছেন ওয়ানডে বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ের দুই নম্বরে। দারুণ এই পথচলায় স্রেফ ছোট ছোট বিষয়গুলোতে মনোযোগ দিয়েই আজকের এই সাফল্য, বললেন অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই নম্বরে মিরাজ, ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে মুশফিক
    একজন বল হাতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, আরেক জন টানছেন ব্যাটিংয়ে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম সিরিজ জয়ে তাদের অবদানের ছাপ পড়েছে র‌্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি ওয়ানডে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নম্বরে উঠে এসেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে মুশফিকুর রহিম। দুই জনই পেয়েছেন দেশের সেরা রেটিং পয়েন্ট।
  • দলে না থাকা দুই কোচকে কৃতিত্ব দিলেন মিরাজ
    একজন পারিবারিক কারণে এই সিরিজে নেই। আরেকজন এখন জাতীয় দল বা বিসিবি থেকেই বেশ দূরে। কিন্তু দুজনই মেহেদী হাসান মিরাজের কাছে আপনজন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ম্যাচ জেতানো বোলিংয়ের পর এই অফ স্পিনার বললেন, দেশের দুই কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম ও সোহেল ইসলামের সংস্পর্শে নিজেকে শাণিত করেছেন তিনি।
  • হাসারাঙ্গার ঝড় থামিয়ে বাংলাদেশের জয়
    ব্যাটে-বলে পরিপাটি পারফরম্যান্সে বড় জয়ের আয়োজন হয়ে গিয়েছিল। বাংলাদেশের সেই সাজানো বাগান অনেকটা এলেমেলো করে দিলেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা। তবে তরুণ শ্রীলঙ্কানের বীরোচিত পারফরম্যান্স শেষ পর্যন্ত পূর্ণতার রূপ পেল না। তাকে থামিয়েই জয়ের ফুল ফোটাল বাংলাদেশ। ।
  • দুই পজিশন মিলিয়ে লিটনের ফিফটি, মিরাজের ৩ উইকেট
    ইনিংস ওপেন করে ২৭ রানে অপরাজিত, আবার সাতে নেমে ৬৪ রান করে স্বেচ্ছাবসর। দুই পজিশনে ব্যাটিং অনুশীলন সেরে নিলেন লিটন দাস। প্রথমে শূন্য রানে আউট হয়ে আবার ব্যাটিংয়ে নেমে রানের দেখা পেলেন মুমিনুল হক। বল হাতে ৩ উইকেট নিয়ে প্রস্তুতি খারাপ হলো না মেহেদী হাসান মিরাজেরও।
  • শততম টেস্টের সেই প্রতিজ্ঞা ও নিবেদন মনে পড়ছে মিরাজের
    দেশের বাইরে বাংলাদেশের সবশেষ টেস্ট জয় শ্রীলঙ্কায়। বিদেশের মাঠে সবচেয়ে স্মরণীয় টেস্ট জয়ও সেটি। আগের টেস্টে বাজেভাবে হারার ধাক্কা সামলে নিজেদের শততম টেস্টে দুর্দান্ত স্কিল আর টিম স্পিরিটের প্রদর্শনীতে ওই জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। এবারও শ্রীলঙ্কায় সেই জয়ের রেসিপি কাজে লাগাতে চান স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ।
  • শৈশবের কোচকে জাতীয় দলে পেয়ে রোমাঞ্চিত মিরাজ
    আগের সিরিজে বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ ছিলেন ড্যানিয়েল ভেটোরি। শ্রীলঙ্কায় থাকছেন সোহেল ইসলাম। দুজনের প্রোফাইলে আকাশ-পাতাল ফারাক। কিংবদন্তি ভেটোরির সঙ্গে তুলনাই চলে না সোহেলের। তবে একটা জায়গায় তিনি অনেক এগিয়ে। বাংলাদেশের স্পিনারদের তার চেয়ে ভালো চেনে আর কে! বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণের গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র মেহেদী হাসান মিরাজ যেমন উচ্ছ্বসিত তার ছেলেবেলার কোচকে জাতীয় দলে পেয়ে।
  • মিরাজকে বৈচিত্র্যের গুরুত্ব বুঝিয়েছেন ভেটোরি
    স্পিন বোলিং দিয়ে নিউ জিল্যান্ডে সফল হওয়ার উপায় ড্যানিয়েল ভেটোরির চেয়ে ভালো আর কে জানেন! কিউইদের স্পিন কিংবদন্তি এখন বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ। তার কাছ থেকে মেহেদী হাসান মিরাজ জেনেছেন, এখানে সাফল্য পেতে প্রয়োজন বোলিংয়ে বৈচিত্র্য। বাংলাদেশের এই অফ স্পিনার এখন ভেটোরির সঙ্গে কাজ করছেন বৈচিত্র্য বাড়ানো নিয়ে।
  • রেকর্ডের অনুপ্রেরণায় এগিয়ে যেতে চান মিরাজ
    ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে যেন দুই হাত ভরে পাচ্ছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি ছুঁয়েছেন প্রথম টেস্টে। পরের টেস্টে গড়েছেন দেশের হয়ে লাল বলে দ্রুততম একশ উইকেটের রেকর্ড। এই রেকর্ডের অনুপ্রেরণায় সাফল্যের পথে এগিয়ে যেতে চান মিরাজ। ক্যারিয়ারকে নিয়ে যেতে চান অনেক দূর।
  • উইন্ডিজ থেকেই উইন্ডিজকে হারানোর প্রেরণা মিরাজের
    দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়লেও বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য দেওয়ার পথেই আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। উইকেটে স্পিনারদের জন্য টার্ন মিলতে শুরু করায় তিনশ রানের আশেপাশের যে কোনো লক্ষ্যই ছোঁয়া কঠিন হবে বলে মনে করছেন মেহেদী হাসান। একই সঙ্গে চট্টগ্রাম টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয় আশাও দেখাচ্ছে তাকে।
  • রেকর্ড গড়ে মিরাজের ১০০ উইকেট
    অপেক্ষা ছিল চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ দিন থেকে। সেদিন হয়নি, হয়নি সেই টেস্টের হতাশার শেষ দিনেও। মিরপুরে এসেও কেটে গেল দুই দিন। অবশেষে তৃতীয় দিন শেষ সেশনে শেষ হলো মেহেদী হাসান মিরাজের প্রতীক্ষা। রেকর্ড গড়ে এই অফ স্পিনার পা রাখলেন ১০০ উইকেটে।
  • তিনশর নিচে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ
    লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ দারুণ একটি সেশন কাটানোর পর রাকিম কর্নওয়ালের স্পিনে ধস নামল বাংলাদেশের ইনিংসে। স্বাগতিকদের তিনশ রানের নিচে থামিয়ে শতরানের লিড পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 
  • লিটন-মিরাজের ব্যাটে বাংলাদেশের দারুণ সেশন
    মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিমের দুটি উইকেট উপহারের ফলে অনেক শঙ্কায় পড়ে যাওয়া বাংলাদেশকে টানছেন লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ। ফিফটি তুলে নেওয়া দুই ব্যাটসম্যান শতরানের জুটিতে এড়িয়েছেন ফলো অন। দলকে উপহার দিয়েছেন প্রথম উইকেটশূন্য সেশন।  
  • র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিব-মুমিনুলদের উন্নতি
    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ হারলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ, মুমিনুল হক ও সাকিব আল হাসান। আইসিসির টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে তাদের।
  • উইন্ডিজ এতো ভালো ব্যাটিং করবে ভাবেনি বাংলাদেশ
    টেস্টের শেষ দিনে ৭ উইকেটে ২৮৫ রানের সমীকরণ ক্যারিবিয়ানরা মিলিয়ে ফেলবে, কল্পনাতেও ছিল না মেহেদী হাসান মিরাজের। তার কল্পনাতীত কাজটিই করে দেখায় প্রতিপক্ষ। কাইল মেয়ার্সের রেকর্ড গড়া ডাবল সেঞ্চুরিতে রূপকথার এক জয় পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সফরকারীরা এতো ভালো ব্যাটিং করে ফেলবে, একবারের জন্যও ভাবেনি বাংলাদেশ দল।
  • সাকিব ভাই থাকলে ভালো হতো: মিরাজ
    সাকিব আল হাসানকে নিয়ে চট্টগ্রামে শুরু হওয়া হাহাকার বয়ে এলো ঢাকায়ও। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে সাকিবকে পাওয়া যায়নি তিন দিন। তার অভাব তীব্রভাবে অনুভব করেছে দল। মিরপুর টেস্টে তো তাকে পাওয়া যাবে না শুরু থেকেই। অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজের তাই অকপট স্বীকারোক্তি, এই টেস্টেও সাকিবকে মনে পড়বে দলের।
  • বড় লিডের পর এলোমেলো বাংলাদেশের টপ অর্ডার
    বাংলাদেশের বোলিংয়ের স্বস্তি অনেকটা উবে গেল ব্যাটিংয়ে নেমে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংসের শেষ দিকে উইকেটের যে স্রোত, প্রবল বেগে ধেয়ে এসে তা ভাসিয়ে দিল বাংলাদেশের টপ অর্ডারও। বড় লিডের পরও তাই দিনশেষে অস্বস্তির কাঁটার খোঁচাখুচি।
  • স্পিন ত্রয়ীর নৈপুণ্যে বাংলাদেশের বড় লিড
    স্পিন চতুষ্টয় নিয়ে শুরু করা ম্যাচের তৃতীয় সকালে বাংলাদেশ হয়ে গেল স্পিন ত্রয়ীর দল। ঊরুর চোটে দর্শক হয়ে রইলেন স্পিনারদের শিরোমণি সাকিব আল হাসান। তবে ক্যারিবিয়ানদের ভোগালেন বাকি তিন জন। মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসান মিলে দলকে এনে দিলেন বড় লিড।
  • মিরাজের সেঞ্চুরিতে বিশপের উচ্ছ্বাস
    দুটি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দিয়েছেন দলকে। বয়সভিত্তিক ক্রিকেটের ধাপ পেরিয়ে রাঙিয়েছেন টেস্ট অভিষেক। এবার পেলেন প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির স্বাদ। মেহেদী হাসান মিরাজের এই অর্জনে উচ্ছ্বসিত জনপ্রিয় ক্যারিবিয়ান ধারাভাষ্যকার ও সাবেক ফাস্ট বোলার ইয়ান বিশপ।
  • বোলিং মিরাজের ‘অস্ত্র’, ব্যাটিং ‘আত্মবিশ্বাস’
    নিজের ব্যাটিং প্রতিভার প্রতি সুবিচার করছেন না মেহেদী হাসান মিরাজ, অভিযোগ শোনা যায় প্রায়। দল তার ব্যাটিংকে কতটা গুরুত্ব দিচ্ছে, সেই প্রশ্নও ওঠে নিয়মিত। কিন্তু মিরাজের কাছে ভাবনাটা এতটা সোজাপাপ্টা নয়। তিনি দেখেন বাংলাদেশ দলের বাস্তবতা, দলে জায়গার লড়াইয়ে নিজেকে এগিয়ে রাখার তাড়না। টেস্ট সেঞ্চুরির পরও তাই বোলিং সত্ত্বাই মিরাজের কাছে পাচ্ছে সর্বোচ্চ গুরুত্ব।
  • মিরাজের ‘টেনশনে’ মুস্তাফিজের ‘ভয়’
    নিজের প্রথম সেঞ্চুরির অপেক্ষায় এক ব্যাটসম্যান। তখন যদি উইকেটে যান শেষ ব্যাটসম্যান, ভয় তার খানিকটা লাগার কথা বটে! আর সেঞ্চুরির কাছে থাকা ব্যাটসম্যান যদি হয় কাছের বন্ধু, তাহলে তো ভয়ের সঙ্গে রোমাঞ্চ-উত্তেজনা, সব অনুভূতি মিলিয়েই জট পাকানোর কথা ভেতরে। মেহেদী হাসান মিরাজের সঙ্গে উইকেটে যোগ দেওয়ার পর এমন অবস্থাই ছিল মুস্তাফিজুর রহমানের।
  • কোচ চেয়েছিলেন সেঞ্চুরি, বিশ্বাস ছিল না মিরাজের
    শিষ্যর কাছে গুরুর চাওয়া একটি সেঞ্চুরি। শিষ্য নিজের মনেই হাসেন। ব্যাটিং অর্ডারের এত নিচে নেমে সেঞ্চুরি তো সম্ভব নয়। গুরু তবু সাহস দেন। উজ্জীবিত শিষ্য সত্যিই সেঞ্চুরি উপহার দিয়ে ফেলেন! প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির পর মেহেদী হাসান মিরাজ শোনালেন তার প্রথম কোচ আল মাহমুদের কাছ থেকে পাওয়া সেই প্রেরণার গল্প।
  • সিনিয়রদের পরামর্শে ‘বুক বড় হয়ে যায়’ মিরাজের
    বেশ কিছুদিন আগে থেকে মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ব্যাটিং অনুশীলন করছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। টেস্ট সিরিজের আগে তাকে কিছু পরামর্শ দেন তামিম ইকবাল। টেস্টের দ্বিতীয় দিনে উইকেটে যাওয়ার পর গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ পান সাকিব আল হাসানের কাছ থেকে। প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির পর মিরাজ কৃতজ্ঞতাভরে জানালেন, সিনিয়রদের কাছ থেকে পাওয়া প্রেরণার কথা।
  • মিরাজের শতকের পর মুস্তাফিজের জোড়া শিকার
    মেহেদী হাসান মিরাজের সেঞ্চুরিতে গড়ে দেওয়া ভিতে দাঁড়িয়ে নতুন বলে আগুন ঝরা বোলিং উপহার দিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিংয়ে জোর ধাক্কা লাগল শুরুতেই। তবে অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটের দৃঢ়তায় শেষ পর্যন্ত দিনটা খানিকটা স্বস্তিতে শেষ করতে পারল ক্যারিবিয়ানরা।
  • ৮ বছরের পরিক্রমা ও মিরাজের সেঞ্চুরি
    ২০১৩ সালের এপ্রিলে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে যুব টেস্টে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেনের পাশাপাশি ওই ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন ১৫ বছর বয়সী এক ব্যাটসম্যান। সময়ের পরিক্রমায় সেদিনের সেই কিশোর দেশকে দুটি যুব বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দিয়ে, বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে আলোড়ন তুলে, টেস্ট আবির্ভাব রাঙিয়ে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও এখন পরিচিত মুখ। কিন্তু আরেকটি সেঞ্চুরি ছিল অধরা। অবশেষে এতটা পথ পেরিয়ে, আশা-হতাশা ছড়িয়ে, আবার তিনি পেলেন শতরানের স্বাদ। মেহেদী হাসান মিরাজ!
  • মিরাজের অসাধারণ সেঞ্চুরিতে চারশ পেরিয়ে বাংলাদেশ
    সিঙ্গেল নেওয়ার সময় শূন্যে লাফানো আর মুষ্ঠিবদ্ধ হাত বাতাসে ছুঁড়লেন এক দফায়। দ্বিতীয় রান নেওয়ার সময় আরেক দফায়। এরপর যেন ডানা মেলে দিয়ে ভেসে চললেন। একটু থেমে সিজদাও দেওয়া হয়ে গেল। মেহেদী হাসান মিরাজের উদযাপন যেন শেষই হচ্ছিল না। প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির অনির্বচনীয় স্বাদ বলে কথা!
  • শীর্ষ পাঁচ চিন্তাও করতে পারেননি মিরাজ
    চট্টগ্রামে বুধবার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের উত্তাপ। ক্রিকেটীয় উত্তেজনা এ দিন তাই ছিল মিইয়ে। দুই দলেরই হোটেল থেকে বের হওয়া নিষেধ। এমন নিস্তরঙ্গ দুপুরেই হঠাৎ বাংলাদেশ দলে আনন্দের ঢেউ হয়ে এলো আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের খবর। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে বাংলাদেশের দুই জন; চারে মেহেদী হাসান মিরাজ, আটে মুস্তাফিজুর রহমান। দুই বন্ধুকে অভিনন্দন, শুভেচ্ছায় ভাসালেন সতীর্থরা।
  • চারে মিরাজ, দশে ফিরলেন মুস্তাফিজ
    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বল হাতে দারুণ ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ ও মুস্তাফিজুর রহমান। আইসিসির ওয়ানডে বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে প্রথমবারের মতো শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশি অফ স্পিনার। বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজ ফিরেছেন সেরা দশে।
  • চেনা অস্ত্রে ঘায়েল হওয়ার আক্ষেপ উইন্ডিজ কোচের
    চেনা মুখগুলোই করেছে ক্যারিবিয়ানদের সবচেয়ে বড় সর্বনাশ। সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজের স্পিন প্রথম দুই ম্যাচে ভুগিয়েছে সফরকারী ব্যাটসম্যানদের। এতো জানাশোনা থাকার পরও এই দুই জনকে সামলাতে না পারায় আক্ষেপ ঝরল ওয়েস্ট ইন্ডিজের সহকারি কোচ রডি ইস্টউইকের কণ্ঠে।