মার্শের বোলিং চমক, বাটলারের লড়াই

মার্শের বোলিং চমক, বাটলারের লড়াই

বোলিংয়ে একটি বিকল্প বাড়ানো আর লম্বা সিরিজের শেষ ম্যাচে  মূল ফাস্ট বোলারদের একটু বিশ্রামের সুযোগ দেওয়া। মূলত এই ভাবনা থেকেই একাদশে ফেরানো হলো মিচেল মার্শকে। কিন্তু সহকারীর ভূমিকায় এসে তিনিই হয়ে উঠলেন কেন্দ্রীয় চরিত্র। দুর্দান্ত বোলিংয়ে কাঁপিয়ে দিলেন ইংলিশ ব্যাটিং। কিন্তু একজন দাঁড়িলে গেলেন ব্যাট হাতে। দারুণ ব্যাটিংয়ে জস বাটলার কিছুটা উদ্ধার করলেন ইংল্যান্ডকে।

মার্শ-খাওয়াজা মিডল-অর্ডারে মানিয়ে নেবে, বিশ্বাস কোচের

মার্শ-খাওয়াজা মিডল-অর্ডারে মানিয়ে নেবে, বিশ্বাস কোচের

দুই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান শন মার্শ ও উসমান খাওয়াজা দলের প্রয়োজনে খেলছেন মিডল অর্ডারে। অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারের বিশ্বাস, নতুন ব্যাটিং পজিশনে মানিয়ে নিতে পারবেন দুই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

কোহলির সেঞ্চুরিতে সমতা ফেরাল ভারত

কোহলির সেঞ্চুরিতে সমতা ফেরাল ভারত

দারুণ সেঞ্চুরিতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দিলেন শন মার্শ। তবে বিরাট কোহলির আরেকটি মাস্টারক্লাস সেঞ্চুরিতে জয় তুলে নিলো ভারত। বাঁচিয়ে রাখলো ওয়ানডে সিরিজ জয়ের আশা।

মিলার, দু প্লেসির সেঞ্চুরিতে সিরিজ দ. আফ্রিকার

মিলার, দু প্লেসির সেঞ্চুরিতে সিরিজ দ. আফ্রিকার

বাজে শুরুর পর রেকর্ড জুটিতে দলকে পথ দেখালেন ডেভিড মিলার ও ফাফ দু প্লেসি। তাদের দুই সেঞ্চুরিতে লড়াইয়ের পুঁজি পেল দক্ষিণ আফ্রিকা। লড়াকু সেঞ্চুরিতে আশা দেখিয়েছিলেন শন মার্শ। তবে ডেল স্টেইন ও কাগিসো রাবাদার দাপুটে বোলিংয়ে সিরিজ জিতে নিয়েছে অতিথিরা।

রয়-বাটলারের কাছে যথেষ্ট হলো না মার্শের সেঞ্চুরি

রয়-বাটলারের কাছে যথেষ্ট হলো না মার্শের সেঞ্চুরি

জেসন রয়ের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি। জস বাটলারের ব্যাটেও ঝড়। প্রথম ৫ জুটিতেই পঞ্চাশের রেকর্ড। যোগফলেও ইংল্যান্ডের রেকর্ড সংগ্রহ। তবে অসাধারণ ব্যাটিংয়ে সেটিকেও চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন শন মার্শ। আশা জাগিয়েছিলেন অভাবনীয় এক জয়ের। শেষ পর্যন্ত পারেননি মার্শ, পারেনি অস্ট্রেলিয়া। সিরিজ জয়ের পথে ইংল্যান্ড এগিয়েছে আরেক ধাপ।

স্টার্ক-হেইজেলউড গুঁড়িয়ে দিলেন ইংল্যান্ডকে

স্টার্ক-হেইজেলউড গুঁড়িয়ে দিলেন ইংল্যান্ডকে

বাতাসে ছিল উত্তেজনার রেণু। অপেক্ষা ছিল রোমাঞ্চকর শেষ দিনের। কিন্তু শেষ দিনে লড়াই একটুও জমতে দিলেন না অস্ট্রেলিয়ার পেস আক্রমণের দুই সেনানী। শুরুতে পুরোনো বলে জশ হেইজেলউডের ছোবল, পরে নতুন বলে মিচেল স্টার্কের। শেষ দিনে প্রথম সেশনেই শেষ ইংল্যান্ড।

মার্শের আলোয় রাঙা অ্যাডিলেড

মার্শের আলোয় রাঙা অ্যাডিলেড

অ্যাশেজের দল ঘোষণার দিন যেন ঝড় বয়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট আঙিনায়। কত আলোচনা-সমালোচনা, যার বেশিরভাগ জুড়ে ছিল শন মার্শ ও টিম পেইনের দলে থাকা। অ্যাডিলেড টেস্টের দ্বিতীয় দিনে সেই দুজনই অস্ট্রেলিয়ার নায়ক।