ব্যাটে-বলে দনঞ্জয়া ভোগালেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে

ব্যাটে-বলে দনঞ্জয়া ভোগালেন দক্ষিণ আফ্রিকাকে

কেশভ মহারাজের ৮ উইকেটে প্রথম দিনে উড়ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় দিনেই তাদের বাস্তবতার জমিনে নামিয়ে এনেছে শ্রীলঙ্কা। ব্যাট হাতে শেষ জুটিতে প্রোটিয়াদের যন্ত্রণা দেওয়ার পর বল হাতেও দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে লঙ্কানদের ঘুরে দাঁড়ানোর নায়ক আকিলা দনঞ্জয়া।

লঙ্কায় মহারাজের স্পিন-রাজত্ব

লঙ্কায় মহারাজের স্পিন-রাজত্ব

শ্রীলঙ্কার একাদশে তিন স্পিনার, দক্ষিণ আফ্রিকার একাদশে কেন একটি? দিনের শুরুতে ওঠা প্রশ্ন আরও উচ্চকিত হয়েছে সময় গড়ানোর সঙ্গে। তবে দিন শেষে দক্ষিণ আফ্রিকান ম্যানেজমেন্ট বলতেই পারে, একজনেই কাজ হলে আরও কেন লাগবে! অসাধারণ বোলিংয়ে প্রথম দিনেই কেশভ মহারাজ নিলেন ৮ উইকেট।

২ দিনেই জিম্বাবুয়েকে হারাল দ. আফ্রিকা

২ দিনেই জিম্বাবুয়েকে হারাল দ. আফ্রিকা

চার দিনের টেস্ট দুই দিনে জিতে নিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দিন-রাতের ম্যাচে গোলাপী বলের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি জিম্বাবুয়ে। প্রথম ইনিংসে অতিথিদের গুঁড়িয়ে দেন মর্নে মর্কেল, দ্বিতীয় ইনিংসে কেশভ মহারাজ।

ব্যাটসম্যানদের কিছু শটে অবাক দক্ষিণ আফ্রিকা

ব্যাটসম্যানদের কিছু শটে অবাক দক্ষিণ আফ্রিকা

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করবে জানাই ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারদের। তারপরও অতিথি ব্যাটসম্যানদের কিছু শট অবাক করেছে কেশভ মহারাজদের।

মহারাজের ৪ উইকেট, দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ্য ৩৩১

মহারাজের ৪ উইকেট, দক্ষিণ আফ্রিকার লক্ষ্য ৩৩১

উইকেটে ছিলেন অ্যালেস্টার কুক ও গ্যারি ব্যালান্স, অপেক্ষায় ছিলেন জো রুট, বেন স্টোকসরা। কিন্তু চতুর্থ দিন সকালে শুধুই তাদের আসা-যাওয়ার মিছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্দান্ত বোলিং সামলে ইংল্যান্ডকে টানলেন জনি বেয়ারস্টো।

মহারাজের স্পিন-রাজ!

মহারাজের স্পিন-রাজ!

দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট জয়ের নায়ক কোনো স্পিনার, এমন কিছু বলার সুযোগ সচরাচর হয় না। বেসিন রিজার্ভ টেস্টের ভাগ্য স্পিনে গড়ে দেওয়াও তেমন বিরল। কেশভ মহারাজের সৌজন্যে হয়ে গেল এই সবকিছুই।

মহারাজের স্পিনে কুপোকাত নিউ জিল্যান্ড

মহারাজের স্পিনে কুপোকাত নিউ জিল্যান্ড

এগিয়ে থেকেই দিন শুরু করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু দিন শেষ হতে হতে ম্যাচই শেষ হয়ে যাবে, ভাবতে পারেননি হয়ত তারাও! অভাবনীয় কিছুই করে দেখালেন কেশভ মহারাজ। পেস-বান্ধব বেসিন রিজার্ভে স্পিন জালে আটকালেন কিউইদের!

উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরি, মহারাজের ৫ উইকেট

উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরি, মহারাজের ৫ উইকেট

দিনের খেলা তখন শেষ ভাগে। হঠাৎই বেজে উঠল মাঠের ফায়ার এলার্ম। একটু ছোটাছুটি। খেলা বন্ধ। মাঠের তিন হাজারের বেশি দর্শককে সরিয়ে নেওয়া হলো বাইরে!