• আল আমিনের শাস্তি
    বিসিএলের ফাইনালে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানের উদ্দেশে বাজে ভাষা ব্যবহারের জন্য শাস্তি পেয়েছেন আল আমিন হোসেন। দক্ষিণাঞ্চলের এই পেসারকে ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে।
  • বিসিএলে দক্ষিণাঞ্চলের হ্যাটট্রিক শিরোপা
    দারুণ বোলিং পারফরম্যান্স করলেন শফিউল ইসলাম। তাকে সঙ্গ দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের জয়ে অবদান রাখলেন মেহেদি হাসান ও ফরহাদ রেজা। এক দিন বাকি থাকতে পূর্বাঞ্চলকে হারিয়ে বিসিএলের টানা তৃতীয় শিরোপা ঘরে তুলল দক্ষিণাঞ্চল।
  • রাজ্জাকের ৭ উইকেট, আবার ব্যর্থ মাহমুদউল্লাহ
    এক পাশ থেকে যন্ত্রের মতো বোলিং করে পূর্বাঞ্চলের ব্যাটিংয়ে ধস নামালেন আব্দুর রাজ্জাক। ৭ উইকেট নিয়ে অভিজ্ঞ স্পিনার দলকে এনে দিলেন বড় লিড। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে অবশ্য ধুঁকছে রাজ্জাকের দল দক্ষিণাঞ্চল। তবে প্রথম ইনিংসের সৌজন্যেই এগিয়ে তারা অনেকটা। নাটকীয় এই দিনের আরেকটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা, দ্বিতীয় ইনিংসেও রান পাননি মাহমুদউল্লাহ।
  • তিন অভিষেকে তানজিদের ফিফটি
    অভিষেকে ফিফটি তার জন্য নতুন কিছু নয়। টি-টোয়েন্টি ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেট; দুই সংস্করণের অভিষেকেই খেলেছিলেন পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস। সেই পথে হেঁটে এবার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও প্রথম ইনিংস ফিফটিতে রাঙালেন তানজিদ হাসান।
  • আটে নেমে ফরহাদ রেজার দুর্দান্ত সেঞ্চুরি
    আট নম্বরে নেমে দারুণ ইনিংস খেললেন ফরহাদ রেজা। করলেন দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি। দক্ষিণাঞ্চল পেল সাড়ে চারশ ছাড়ানো পুঁজি। ব্যাটিংয়ে নেমে তিন উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে বিপাকে পূর্বাঞ্চল।
  • ব্যর্থ মাহমুদউল্লাহ, এনামুল-মাহমুদের ব্যাটে রান
    উইকেট ছিল সবুজাভ। শুরুর কঠিন সময় পেরিয়ে দক্ষিণাঞ্চলকে বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দিলেন দুই ওপেনার ফজলে মাহমুদ ও এনামুল হক। শেষ সেশনে দ্রুত কিছু উইকেট নিয়ে যদিও লড়াইয়ে ফিরেছে পূর্বাঞ্চল, তবে দক্ষিণাঞ্চলের রান ছাড়িয়ে গেছে তিনশ। দলের এমন দিনেও অবশ্য নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি টেস্ট দলে জায়গা হারানো মাহমুদউল্লাহ।
  • টেস্ট দল থেকে ছেড়ে দেওয়া হলো হাসানকে
    প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে ডাক পেয়েছিলেন হাসান মাহমুদ। তবে দেশের হয়ে মাঠে নামার অপেক্ষাটা আরও লম্বা হলো তরুণ এই পেসারের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের স্কোয়াড থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে তাকে। টেস্ট যেদিন থেকে শুরু, হাসান সেদিন খেলবেন বিসিএলের ফাইনালে।
  • জোড়া সেঞ্চুরিতে মিনহাজুল-শাহরিয়ার-তামিমদের পাশে ইয়াসির
    প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরির পর প্রথমবারের মতো ডাক পেলেন টেস্ট দলে। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসেও তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে জোড়া সেঞ্চুরিতে তরুণ ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলি চৌধুরি বসলেন মিনহাজুল আবেদীন, শাহরিয়ার হোসেন, তামিম ইকবালদের পাশে।
  • ম্যাচ বাঁচিয়ে ফাইনালে দক্ষিণাঞ্চল
    রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে ভালো সম্ভাবনা জাগিয়ে শেষ পর্যন্ত জিততে পারল না মধ্যাঞ্চল। শামসুর রহমানের সেঞ্চুরি ও নাসুম আহমেদের হাফ সেঞ্চুরির পর শেষ দিকে ফরহাদ রেজা ও শফিউল ইসলামের দৃঢ়তায় হার এড়াল দক্ষিণাঞ্চল। আর তাতে অষ্টম বিসিএলের ফাইনালের টিকেটও পেয়ে গেল চারবারের চ্যাম্পিয়নরা।
  • ইয়াসিরের সুযোগ হাতছাড়া, সানজামুলের ৭ উইকেট
    আগের দিনই পেয়েছিলেন সেঞ্চুরি। ইয়াসির আলি চৌধুরির সামনে সুযোগ ছিল সেটিকে ডাবল সেঞ্চুরিতে নিয়ে যাওয়ার, পারেননি তিনি। ৭ উইকেট নিয়ে পূর্বাঞ্চলের লিড বড় হতে দেননি সানজামুল ইসলাম। তবে ব্যাটিং ব্যর্থতায় চাপে আছে তার দল উত্তরাঞ্চল।
  • গোলাপি বলে খেলার অপেক্ষা বাড়ল ক্রিকেটারদের
    বিসিএলের ফাইনাল গোলাপি বলে খেলার প্রস্তাবে সাড়া মেলেনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে দিবা-রাত্রির ম্যাচ খেলার অপেক্ষা তাই বাড়ল ক্রিকেটারদের।
  • শান্তর ডাবল সেঞ্চুরিতে মধ্যাঞ্চলের ফাইনালের আশা
    হিসেবে ভুল করার মাশুল দিচ্ছে দক্ষিণাঞ্চল। প্রতিপক্ষের বোনাস পয়েন্ট ঠেকাতে গিয়ে পড়েছে হারের শঙ্কায়। নাজমুল হোসেন শান্তর ডাবল সেঞ্চুরিতে ফাইনালের স্বপ্ন দেখছে মধ্যাঞ্চল।
  • ডাবল সেঞ্চুরিতে প্রস্তুতি সারলেন শান্ত
    ১৯১ রান নিয়ে লাঞ্চে গিয়েছিলেন। বিরতির পর মুখোমুখি হওয়া ১১ বলে একই বোলারকে হাঁকালেন তিন ছক্কা। দ্বিতীয়টায় নাজমুল হোসেন শান্ত পৌঁছে গেলেন ডাবল সেঞ্চুরিতে। যেটির স্বাদ ক্যারিয়ারে পেলেন এই প্রথম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের প্রস্তুতিটা হলো দারুণ।
  • জিম্বাবুয়ে টেস্টের আগে শান্তর সেঞ্চুরি
    পাকিস্তান সফরে প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই থিতু হয়ে আউট হয়েছিলেন। নাজমুল হোসেন শান্ত বিসিএলে ফিরে খেললেন বড় ইনিংস। তার অপরাজিত সেঞ্চুরিতে দক্ষিণাঞ্চলকে বড় লক্ষ্য দেওয়ার পথে আছে মধ্যাঞ্চল।
  • ইয়াসিরের সেঞ্চুরি, সানজামুলের ৫ উইকেট
    আগের দিন তিন রানে দুই ওপেনারকে হারানো পূর্বাঞ্চলকে অপরাজিত সেঞ্চুরিতে টানলেন ইয়াসির আলী চৌধুরী। পাঁচ উইকেট নিয়ে বিসিএলের ম্যাচে উত্তরাঞ্চলকে লড়াইয়ে রেখেছেন সানজামুল ইসলাম।
  • প্রতিপক্ষের পয়েন্ট ঠেকাতে ইনিংস ঘোষণা
    প্রতিপক্ষের চেয়ে পিছিয়ে ১২১ রানে, হাতে ছয় উইকেট। তবুও প্রতিপক্ষ মধ্যাঞ্চলকে বোনাস পয়েন্ট না দিতে ১১৪ রানে ইনিংস ঘোষণা করে দিল দক্ষিণাঞ্চল!
  • জিম্বাবুয়ে টেস্টের আগে নাঈমের ৮ উইকেট, মুশফিকের সেঞ্চুরি
    বিসিএলের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে নিয়েছিলেন ৮ উইকেট। ছিলেন পাকিস্তান সফরের টেস্ট দলে, যদিও খেলার সুযোগ পাননি। বিসিএলে ফিরে আবার উইকেট উৎসব করলেন নাঈম হাসান। এবার ইনিংসে নিলেন ৮ উইকেট। তার বিধ্বংসী বোলিংয়ের সামনে একাই লড়লেন মুশফিকুর রহিম, করলেন সেঞ্চুরি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের আগে দুজনের প্রস্তুতিটা হলো দারুণ।
  • মার্শালের লড়াকু সেঞ্চুরি
    স্পিনারদের রাজত্বের দিনে লড়লেন একা, তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। মার্শাল আইয়ুবের ব্যাটে বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে আড়াইশর কাছাকাছি পুঁজি পেয়েছে মধ্যাঞ্চল। দিনশেষে দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা বিপদে দক্ষিণাঞ্চল।
  • চোট কাটিয়ে ফিরছেন সাইফ উদ্দিন, মিরাজ
    চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন ও অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ। বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের স্কোয়াডে আছেন তারা।
  • দুই জোড়া সেঞ্চুরিতে তুষারের পাশে এনামুল
    প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করে দলকে এনে দিলেন বড় সংগ্রহ। দ্বিতীয় ইনিংসেও পেলেন তিন অঙ্কের দেখা, ওয়ানডে মেজাজের ব্যাটিংয়ে দলকে জেতালেন দশ উইকেটে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্যাচের দুই ইনিংসে দ্বিতীয়বারের মতো সেঞ্চুরি করলেন এনামুল হক বিজয়। বসলেন তুষার ইমরানের পাশে।
  • আফিফের সেঞ্চুরি, এনামুলের জোড়া সেঞ্চুরি
    আগের দিনের সম্ভাবনাময় ইনিংসটিকে শেষ দিনে তিন অঙ্কে নিয়ে গেলেন আফিফ হোসেন। তবে দিনের সব আলো কেড়ে নিলেন এনামুল হক। এবারের বিসিএলে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ম্যাচে করলেন জোড়া সেঞ্চুরি।তার পাশাপাশি শাহরিয়ার নাফিসের ফিফটিতে আসরে প্রথম জয় পেয়েছে দক্ষিণাঞ্চল।
  • তানবীরের অবিশ্বাস্য ইনিংসেও পারল না উত্তরাঞ্চল
    রোমাঞ্চের আঁচ লেগেছিল আগের দিনেই। শেষ দিনে উত্তেজনা বাড়ল আরও। সবুজ উইকেটে ম্যাচের চতুর্থ দিনে অসাধারণ এক ইনিংস খেললেন তানবীর হায়দার। তার দাপুটে ব্যাটিংয়ে একটা সময় জয়ের আশা জাগে উত্তরাঞ্চলের। কিন্তু চরম নাটকীয় লড়াইয়ে উল্টো তাদের হারিয়ে দিল মধ্যাঞ্চল।
  • রোমাঞ্চকর শেষের অপেক্ষায় সিলেট
    দারুণ এক সেঞ্চুরি করলেন শুভাগত হোম। অধিনায়কের ইনিংসে ভর করে উত্তরাঞ্চলকে বড় লক্ষ্য দিল মধ্যাঞ্চল। পরে শহিদুল ইসলামের বোলিংয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখছে প্রথম রাউন্ডে ইনিংস ব্যবধানে হারা দলটি।
  • মেহেদির ৫ উইকেট, পিনাকের সেঞ্চুরি
    প্রতিপক্ষকে দ্রুত গুটিয়ে দিতে পাঁচ উইকেট নিলেন মেহেদি হাসান। প্রথম ইনিংসে সুযোগ হাতছাড়া করা পিনাক ঘোষ এবার করলেন সেঞ্চুরি। তিন অঙ্ক ছোঁয়ার অপেক্ষায় আছেন আফিফ হোসেন। দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে ফলোঅনে পড়ে লড়ছে পূর্বাঞ্চল।
  • আশরাফুল-পিনাকের সুযোগ হাতছাড়া
    প্রথম রাউন্ডে একাদশে সুযোগ পাননি। মোহাম্মদ আশরাফুল এবার সুযোগ পেলেন। ক্রিজে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে করলেন ফিফটি। কিন্তু যেতে পারেননি সেঞ্চুরি পর্যন্ত। তার মতো ফিফটি করে থেমেছেন পিনাক ঘোষও।
  • ব্যর্থ মুশফিক, মুস্তাফিজের ৪ উইকেট
    বিসিএলের প্রথম রাউন্ডে ছিলেন নিষ্প্রভ। দ্বিতীয় রাউন্ডে দিলেন ছন্দে ফেরার আভাস। চার উইকেট নিয়ে উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে মধ্যাঞ্চলকে এনে দিলেন লিড। মুস্তাফিজুর রহমানের জ্বলে ওঠার দিনে ব্যাট হাতে ব্যর্থ মুশফিকুর রহিম।
  • এনামুল-সোহান-মেহেদির সেঞ্চুরি
    নতুন বলে দক্ষিণাঞ্চলকে কাঁপিয়ে দিলেন রেজাউর রহমান। তবে এনামুল হক বিজয়, নুরুল হাসান সোহান ও মেহেদি হাসানের সেঞ্চুরিতে ঘুরে দাঁড়াল দলটি। প্রথম দিনেই তাদের সংগ্রহ ছাড়িয়ে গেছে চারশ।
  • তাসকিনের ছোবলে নীল মধ্যাঞ্চল
    মাঠ থেকে উইকেট আলাদা করাই কঠিন। সবুজ ঘাসের উইকেটে আগুন ঝরালেন তাসকিন আহমেদ। পাঁচ উইকেট নিয়ে মধ্যাঞ্চলকে গুঁড়িয়ে দিলেন তরুণ এই পেসার। শেষ বেলায় দ্রুত ৩ উইকেট হারালেও লিডের পথে আছে উত্তরাঞ্চল।
  • ৬ উইকেটে পাকিস্তানের প্রস্তুতি সারলেন নাঈম
    পাকিস্তানে টেস্ট স্কোয়াডে থাকা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে রান পেয়েছেন প্রায় সবাই। এবার বোলারদের মধ্যে থেকে আশার বার্তা দিলেন নাঈম হাসান। বিসিএলের প্রথম রাউন্ডের শেষ দিনে এই অফ স্পিনার নিয়েছেন ৬ উইকেট। পাকিস্তান সফরের দলে থাকা মোহাম্মদ মিঠুন সেঞ্চুরি না পেলেও খেলেছেন ভালো ইনিংস।
  • পাকিস্তানে টেস্টের আগে লিটনের ম্যাচ বাঁচানো সেঞ্চুরি
    পাকিস্তানে টেস্ট খেলতে যাওয়ার আগে অনুশীলনটা বেশ ভালো হলো লিটন দাসের। প্রথম ইনিংসে গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ পাওয়া জাতীয় দলের এই কিপার-ব্যাটসম্যান খেললেন লম্বা ইনিংস। তার অপরাজিত শতকে দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে ম্যাচ বাঁচিয়েছে উত্তরাঞ্চল।
  • সাড়ে তিনশতে চোখ ছিল তামিমের
    সোহরাওয়ার্দী শুভর এক ওভারে মাত্রই দুটি ছক্কা মেরেছেন তামিম ইকবাল। এর পরপরই অনেকটা হুট করে ইনিংস ঘোষণা করে দিলেন পূর্বাঞ্চল অধিনায়ক মুমিনুল হক। উইকেটে থাকা তামিম একটু যেন অবাক হলেন। ইশারায় কিছু বলতেও যেন চাইছিলেন মুমিনুলকে। পরে জানালেন, তার দৃষ্টি ছিল সাড়ে তিনশতে।
  • তামিমের হৃদয়ের কাছে থাকবে ৩৩৪
    উদযাপন দেখে বোঝার উপায় নেই, মাইলফলকটি বিশেষ কিছু। সেঞ্চুরির পর যেমন, ডাবল সেঞ্চুরি বা আড়াইশর পর, এমনকি তিনশ ছোঁয়া ও রেকর্ড গড়ার পরও উদযাপন একদমই সাদামাটা। স্রেফ একটু ব্যাট তোলা। সেটিও খুব উঁচিয়ে নয়, লম্বা সময় ধরেও নয়। তবে উদযাপন যেমনই হোক, তামিম ইকবাল বললেন, তার হৃদয়ের খুব কাছে থাকবে অপরাজিত ৩৩৪ রানের রেকর্ড গড়া ইনিংস।
  • তামিমকে লারার রেকর্ড ভাঙতে বলেছিলেন রকিবুল
    সিঙ্গেল নিয়ে পা রেখেছিলেন তিনশ রানের উচ্চতায়, দৌড়ে ১ রান নিয়েই তামিম ইকবাল গড়লেন রেকর্ড। যার রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন, সেই রকিবুল হাসান ফিল্ডিং করছিলেন কাছেই। প্রাণখোলা হাসিতে ছুটে এসে সবার আগে তামিমকে অভিনন্দন জানালেন রকিবুল। কিছু একটা বলছিলেনও তখন। সেটি জানা গেল দিনের খেলা শেষে। রকিবুল বলছিলেন, “লারার রেকর্ড ভেঙে ফেল!”
  • তামিমের রেকর্ডের পর বিপাকে সৌম্য-শান্তরা
    ইনিংস ঘোষণা এলো অনেকটা হুট করেই, তামিম ইকবাল একটু অবাকই হলেন। ভেবেছিলেন রেকর্ড ইনিংসটিকে আরও বড় করার আরেকটু সময় হয়তো পাবেন। তবে দ্বিতীয় সেশনের মাঝামাঝি সময়ে ইনিংস ছেড়ে দিলেন পূর্বাঞ্চল অধিনায়ক মুমিনুল হক। যে আশায় ইনিংস ঘোষণা, সেটি অবশ্য পূরণ হয়েছে অনেকটাই। তুলে নিতে পেরেছেন তারা প্রতিপক্ষের ৩ উইকেট।
  • পাকিস্তানে টেস্টের আগে মাহমুদউল্লাহর ঝড়ো সেঞ্চুরি
    সময়ের দাবি মেনে ক্রিজে গিয়েই ঝড় তুললেন মাহমুদউল্লাহ। ওয়ানডে ঘরানার ব্যাটিংয়ে তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। আর্দশ না হলেও পাকিস্তান টেস্টের প্রস্তুতিটা ভালোই হলো অভিজ্ঞ এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের।
  • শাহরিয়ার নাফীসের ৮ হাজার, তামিমের ৭ হাজার
    মিরপুরে তামিম ইকবাল করেছেন ট্রিপল সেঞ্চুরি, চট্টগ্রামে শাহরিয়ার নাফীস সেঞ্চুরি। বিসিএলে শনিবার দুই মাঠে বাংলাদেশের দুই ব্যাটসম্যান ক্যারিয়ারের পথচলায় পেরিয়েছেন উল্লেখযোগ্য দুটি মাইলফলক। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তামিম সাত হাজার রান পূর্ণ করেছেন, শাহরিয়ার আট হাজার।
  • ট্রিপল সেঞ্চুরিতে ইতিহাসে তামিম
    সব ফিল্ডার বৃত্তের ভেতরে, ঠেকাতে হবে একটি রান। তামিম ইকবালের তখন একটি রানই চাই! শুভাগত হোমের বল মিড উইকেটের দিকে ঠেলে ঠিকই আদায় করে নিলেন সিঙ্গেল। তামিমের নাম খোদাই হয়ে গেল রেকর্ড বইয়ে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে করলেন ট্রিপল সেঞ্চুরি। পরে গড়লেন সর্বোচ্চ ইনিংসের রেকর্ডও।
  • বাজে সময় পেছনে ফেলার স্বস্তি মুমিনুলের
    সবশেষ টেস্টে দুঃস্বপ্নের স্মৃতি পেছনে ফেলে পাকিস্তানের বিপক্ষে রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের দিকে তাকিয়ে মুমিনুল হক। সে লক্ষ্যে তার প্রস্তুতিটা বেশ ভালো হলো। বিসিএলের ম্যাচে মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে মন্থর উইকেটে করেছেন সেঞ্চুরি। দেশের বাইরে বাজে সময় কাটানো টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যানের আশা, বড় রান করার অভ্যাস কাজে লাগবে পাকিস্তানে।
  • ‘লম্বা সময় খেললে তামিম ভাইয়ের তিনশ হবেই’
    দিন শেষে নামের পাশে অপরাজিত ২২২ রান। ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। তবু জানা হলো না তামিম ইকবালের অনুভূতি। দিনের খেলা শেষে পূর্বাঞ্চলের ওপেনার বললেন, “সময় হলেই কথা বলব।” সেই সময় কখন হবে, বলা কঠিন। তবে মুমিনুল হক তাকিয়ে আছে একটা সময়ের দিকে। দলের ইনিংস যতক্ষণ চলবে, পূর্বাঞ্চলের অধিনায়ক ততক্ষণই উইকেট দেখতে চান তামিমকে। তাহলে তো ট্রিপল সেঞ্চুরি হবেই!
  • তামিমের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, মুমিনুলের ২১তম সেঞ্চুরি
    সেই ২০১৪ সালে বিসিএলে দুটি ম্যাচ খেলেছিলেন তামিম ইকবাল। ইনিংস মিলিয়ে করতে পারেননি একশ। ৬ বছর পর আবার বিসিএলে খেলতে নেমে সেই তামিম করলেন ডাবল সেঞ্চুরি। খেললেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে নিজের সেরা ইনিংস। একই দিনে সেঞ্চুরি করেছেন মুমিনুল হক। পূর্বাঞ্চলের দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের ব্যাটে পিষ্ট হয়েছে মধ্যাঞ্চলের বোলিং।
  • রনি-আরিফুলের লড়াই, রাজ্জাকের দারুণ বোলিং
    আগের দিন আগুন ঝরানো পেসার শফিউল ইসলামকে দ্বিতীয় দিন ঠিকঠাক সামলাতে পারলেন উত্তরাঞ্চলের ব্যাটসম্যানরা। অন্য পেসারদেরও সামলালেন দারুণভাবে। চট্টগ্রামের সবুজ উইকেটে ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষায় ফেললেন অভিজ্ঞ বাঁহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। রনি তালুকদার ও আরিফুল হকের লড়াকু ফিফটির পরও তাই দক্ষিণাঞ্চল পেল লিড।  
  • ডাবল সেঞ্চুরিতে তামিম, সেঞ্চুরিতে মুমিনুলের প্রস্তুতি
    পাকিস্তানে টেস্ট ম্যাচের আগে প্রস্তুতির সুযোগ বিসিএলের একটি রাউন্ড। সেই সুযোগ দারুণভাবে কাজে লাগালেন তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হক। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন তামিম। মুমিনুলের ব্যাট থেকে এসেছে সেঞ্চুরি।
  • সবুজ উইকেটে ফজলে মাহমুদের সেঞ্চুরি, শফিউলের আগুনে বোলিং
    উইকেট দেখে ধন্দে পড়ে যেতে পারেন যে কেউ, বাংলাদেশই তো! মাঠ থেকে উইকেট আলাদা করাই কঠিন, এতটা সবুজ চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামের ২২ গজ। সেখানেই চোখধাঁধানো সব স্ট্রোকের ফোয়ারা ছুটিয়ে দ্যুতিময় সেঞ্চুরি উপহার দিলেন ফজলে রাব্বি মাহমুদ। পরে আগুন ঝরা বোলিংয়ে ৫ উইকেট নিলেন শফিউল ইসলাম। এক ওভারেই নিয়েছেন ৪ উইকেট!
  • সাইফের ৫ ঘণ্টায় ফিফটি, তাইজুলের ৫ উইকেট
    ধীরস্থির ব্যাটসম্যান হিসেবেই দেশের ক্রিকেটে সাইফ হাসানের পরিচিতি। তবে ধীর-লয়ের ব্যাটিংয়ে এবার যেন নিজেকেও ছাড়িয়ে গেলেন এই ওপেনার। ফিফটি করেছেন ৫ ঘণ্টার বেশি সময় নিয়ে। সাইফের উইকেটসহ ৫ শিকার ধরে মধ্যাঞ্চলকে ভুগিয়েছেন পূর্বাঞ্চলের তাইজুল ইসলাম।
  • প্রস্তুতির ঘাটতি ও অনেক প্রশ্ন নিয়ে শুরু হচ্ছে বিসিএল
    ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম শেণির ম্যাচ পর্যাপ্ত নয় বলে আক্ষেপ এমনিতেই। সেখানে এবার বিসিএল (বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ) নামিয়ে আনা হয়েছে সিঙ্গেল লিগে। টুর্নামেন্টের মাত্র তিন দিন আগে চূড়ান্ত হয়েছে দলগুলির স্কোয়াড। কেবল দুই দিনের প্রস্তুতিতে নামতে হবে মাঠে। বাংলাদেশের একমাত্র ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেট লিগ, কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজি আছে মোটে দুটি! সেই দুই ফ্র্যাঞ্চাইজিরও আক্ষেপ আছে বেশ। এই সবকিছুকে সঙ্গী করেই শুরু হতে যাচ্ছে এবারের বিসিএল।
  • বিসিএলের আগে বিপ টেস্টে সেরা রুয়েল-মাহিদুল
    জাতীয় ক্রিকেট লিগের মতো বিসিএলের আগেও হয়ে গেল ক্রিকেটারদের ফিটনেস পরীক্ষা- বিপ টেস্ট। বেঁধে দেওয়া ১১ পর্যন্ত যেতে পারেননি সিনিয়রদের অনেকেই। একশর বেশি ক্রিকেটারের মধ্যে ফিটনেস পরীক্ষায় সেরা হয়েছেন তরুণ পেসার রুয়েল মিয়া ও কিপার-ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম।
  • বিসিএলের ফাইনাল গোলাপি বলে খেলার প্রস্তাব
    প্রায় কোনো প্রস্তুতি ছাড়াই দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলে ফেলেছে বাংলাদেশ। প্রস্তুতির অভাব সেই ম্যাচে ফুটে উঠেছে প্রকটভাবে। আগামী দিনগুলোতে গোলাপি বলে আরও ম্যাচ খেলতে হতে পারে। এই ভাবনা থেকে বিসিএলের ফাইনাল দিবা-রাত্রির করার একটি প্রস্তাব এসেছে। দাবি উঠেছে ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করার।
  • উত্তরাঞ্চলকে হারিয়ে বিসিএল চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণাঞ্চল
    একার লড়াইয়ে কোনোমতে উত্তরাঞ্চলের ইনিংস পরাজয় এড়াতে পারলেন জিয়াউর রহমান। দ্বিতীয় ইনিংসেও পাঁচ উইকেট নিয়ে লক্ষ্যটা ছোট রাখলেন দক্ষিণাঞ্চলের আব্দুর রাজ্জাক। অনায়াস জয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো বিসিএলের শিরোপা জিতল তার দল।
  • এনামুল ১৮০, সানজামুলের ৬ উইকেট
    ডাবল সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েও পারলেন না এনামুল হক। তাকে থামিয়ে তৃতীয় দিন শিকার শুরু করা সানজামুল ইসলাম নিলেন ছয় উইকেট। তবে ততক্ষণে বিশাল সংগ্রহ গড়ে ফেলেছে দক্ষিণাঞ্চল। দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত উত্তরাঞ্চলের ৫ উইকেট তুলে নিয়ে জয়ও দেখছে দলটি।
  • মুমিনুল-ইয়াসিরের সেঞ্চুরির পর নাঈমের ৮ উইকেট
    অধিনায়ক মুমিনুল হক ও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলীর সেঞ্চুরিতে মধ্যাঞ্চলকে বড় লক্ষ্য দিয়েছিল পূর্বাঞ্চল। এরপর ৮ উইকেট নিয়ে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দিয়ে দলকে তিন দিনেই দারুণ এক জয় এনে দিলেন নাঈম হাসান।
  • তাইজুলের ৬ উইকেট
    মাত্র ৬ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ফিরলেন মাহমুদুল হাসান। তবে ততক্ষণে চারশ ছাড়ানো সংগ্রহ পেয়ে গেছে পূর্বাঞ্চল। ৬ উইকেট নিয়ে মধ্যাঞ্চলকে দ্রুত গুটিয়ে দিলেন তাইজুল ইসলাম। বাঁহাতি এই স্পিনারের দারুণ বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসে বড় লিড পেল মুমিনুল হকের দল। 
  • এনামুল, আল আমিন জুনিয়রের সেঞ্চুরি
    বিসিএলের ষষ্ঠ ও শেষ রাউন্ডে সেঞ্চুরি পেলেন এনামুল হক ও আল আমিন জুনিয়র। তাদের ব্যাটে উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বড় লিডের আশা জাগিয়েছে দক্ষিণাঞ্চল।
  • ইমরুল-মুমিনুল-জাকির-মাহমুদুলের ফিফটি
    শতরানের জুটিতে দলকে পথ দেখানো টপ অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস ও মুমিনুল হক করেছেন ফিফটি। মিডল অর্ডারে ফিফটি করেছেন মাহমুদুল হাসান ও জাকির হাসান। চারটি পঞ্চাশ ছোঁয়া জুটিতে মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহের পথে পূর্বাঞ্চল।
  • আরিফুল ৯৮, রাজ্জাকের ৭ উইকেট
    মাত্র ২ রানের জন্য সেঞ্চুরি পাননি আরিফুল হক। তাকে থামিয়ে উত্তরাঞ্চলকে প্রথম ইনিংসে তিনশ রানের নিচে গুটিয়ে দিয়েছেন দক্ষিণাঞ্চলের অধিনায়ক আব্দুর রাজ্জাক। অভিজ্ঞ বাঁহাতি এই স্পিনার নিয়েছেন ৭ উইকেট। 
  • সানজামুলের ৬ উইকেট, মজিদের ফিফটি
    টানা তৃতীয় ম্যাচে ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিলেন উত্তরাঞ্চলের বাঁহাতি স্পিনার সানজামুল ইসলাম। সেঞ্চুরি দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা মধ্যাঞ্চলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান আব্দুল মজিদ তুলে নিলেন তৃতীয় ফিফটি। বিসিএলের পঞ্চম রাউন্ডে অনুমিত ড্র হয়েছে মধ্যাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলের ম্যাচ।
  • রনি-আশরাফুলের ঝড়ো ফিফটি
    ঝড়ো ফিফটিতে পূর্বাঞ্চলকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দিয়েছিলেন রনি তালুকদার ও মোহাম্মদ আশরাফুল। রান তাড়ায় দ্রুত পাঁচ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যাওয়া দক্ষিণাঞ্চলের ত্রাতা নুরুল হাসান সোহান ও মেহেদি হাসান।
  • শান্ত-সাইফের ফিফটিতে মধ্যাঞ্চলের লিড
    শেষ পাঁচ উইকেট নিয়ে বেশিদূর যেতে পারল না উত্তরাঞ্চল। তাদের দেড়শ রানের নিচে থামিয়ে নাজমুল হোসেন শান্ত ও সাইফ হাসানের ফিফটিতে প্রথম ইনিংসে লিড নিয়েছে মধ্যাঞ্চল।
  • আল আমিনের ৩ উইকেটের পর মাহমুদের ফিফটি
    পরপর দুই ওভারে মাহমুদুল হাসান ও ফরহাদ রেজার উইকেট তুলে নিলেন আল আমিন হোসেন। দুই অলরাউন্ডারকে হারানোর খানিক পর ইনিংস ঘোষণা করল পূর্বাঞ্চল। অপরাজিত ফিফটিতে দক্ষিণাঞ্চলকে দৃঢ় ভিতের ওপর দাঁড় করালেন ফজলে মাহমুদ রাব্বি।
  • চোট কাটিয়ে ফেরার দিনে তাসকিনের ২ উইকেট
    চোটের পর চোট। এক চোট কাটিয়ে ওঠার পালায় আরেক চোটের হানা।  অবশেষে মাঠে ফিরতে পেরেছেন তাসকিন আহমেদ। এই দফায় চোট কাটিয়ে ফেরার দিনটি খু্ব মন্দ কাটল না। জাতীয় দলের বাইরে থাকা পেসার বিসিএলে ৮ ওভারে নিয়েছেন ২ উইকেট।
  • ব্যর্থ মুমিনুল, সুযোগ হাতছাড়া ইমরুলের
    দুই অঙ্কে যেতে পারলেন না মুমিনুল হক। থিতু হয়েও বড় ইনিংস খেলার সুযোগ হাতছাড়া করলেন ইমরুল কায়েস। অপরাজিত ফিফটিতে দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে পূর্বাঞ্চলকে টানছেন ইয়াসির আলী চৌধুরী।
  • বৃষ্টির কবলে বিসিএল
    বিরূপ আবহাওয়ার কবলে পড়েছে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের টুর্নামেন্ট বিসিএল। পঞ্চম রাউন্ডের প্রথম দিন বৃষ্টির বাধায় খেলা হয়নি কোনো ভেন্যুতেই।
  • রাব্বির ছোবলের পর এনামুলের ফিফটিতে দক্ষিণাঞ্চলের জয়
    দুই দলের প্রথম দেখায় জিতেছিল মধ্যাঞ্চল। দ্বিতীয় দেখায় তাদের হারিয়ে দিল দক্ষিণাঞ্চল। কামরুল ইসলাম রাব্বি ও মেহেদি হাসানের দারুণ বোলিংয়ে ছোট লক্ষ্য পাওয়া দলটি জয় তুলে নিয়েছে এনামুল হকের অপরাজিত ফিফটিতে। 
  • অল্পের জন্য হলো না মুমিনুলের ডাবল সেঞ্চুরি
    প্রথম ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েও তার আগেই থেমেছিলেন রনি তালুকদার। দ্বিতীয় ইনিংসে ডাবল সেঞ্চুরির খুব কাছে গিয়ে থামলেন পূর্বাঞ্চলের অধিনায়ক মুমিনুল হক।
  • সানজামুলের ৫ উইকেটের পর জহুরুল-জুনায়েদের ফিফটি
    রনি তালুকদারের ডাবল সেঞ্চুরি হলো না। খুব বড় হলো না মোহাম্মদ আশরাফুলের সেঞ্চুরি। সানজামুল ইসলামের দারুণ বোলিংয়ে প্রত্যাশার অনেক আগে থমকে গেল পূর্বাঞ্চলের ইনিংস। এরপর জহুরুল ইসলাম ও জুনায়েদ সিদ্দিকের সৌজন্যে উত্তরাঞ্চলের শুরুটাও হলো ভালো।
  • সাদমানের ফিফটি, আল আমিনের ৩ উইকেট
    ফিফটিতে শুরুতে প্রতিরোধ গড়েছিলেন সাদমান ইসলাম। তার বিদায়ের পর দলকে টানছেন তাইবুর রহমান। তবে আল আমিন হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক ও মেহেদি হাসানের নৈপুণ্যে মধ্যাঞ্চলকে আড়াইশ রানের নিচে থামানোর আশা জাগিয়েছে দক্ষিণাঞ্চল।
  • ডাবল সেঞ্চুরির পথে রনি, আশরাফুলের সেঞ্চুরি
    গত অক্টোবরে এনসিএলে ডাবল সেঞ্চুরি করার পর থেকে ভালো শুরুকে আর বড় করতে পারছিলেন না রনি তালুকদার। পারলেন এবার, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দশম সেঞ্চুরির দেখা পাওয়া ওপেনার আশা জাগিয়েছেন চতুর্থ ডাবল সেঞ্চুরির। তার নিজেকে মেলে ধরার দিনে সেঞ্চুরি করেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।
  • অনেক নাটকের পর রোমাঞ্চকর ম্যাচ ড্র আলোকস্বল্পতায়
    দিন জুড়ে ম্যাচের রঙ পাল্টাল অনেকবার। চা বিরতির পর ম্যাচের ভাগ্য দুলতে থাকল পেণ্ডুলামের মতো। অসাধারণ এক জয়ের সম্ভাবনা থেকে হুট করেই পূর্বাঞ্চলকে ঘিরে ধরল হারে শঙ্কা। ম্যাচে ফিরেও মধ্যাঞ্চল আবার লাগাম হারাল শেষ দিকে। শেষ পর্যন্ত আলোকস্বল্পতায় যখন দিনের খেলা ও ম্যাচের ইতি টানলেন আম্পায়াররা, রোমাঞ্চকর রান তাড়ায় জয় থেকে তখন মাত্র ৬ রান দূরে পূর্বাঞ্চল!
  • রাজ্জাকের ৬ উইকেট, এনামুলের ব্যাটে রান
    দ্রুত শেষ ৩ উইকেট তুলে নিয়ে উত্তরাঞ্চলকে চারশ রানের আগে থামালেন আব্দুর রাজ্জাক। দ্বিতীয় ইনিংসে ফিফটি করলেন এনামুল হক, মেহেদি হাসান ও আল আমিন জুনিয়র। অনুমিত ড্র হল উত্তরাঞ্চল ও দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যে বিসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচ। 
  • মার্শাল-তাইবুর-শহিদুলের ফিফটি
    আব্দুল মজিদ ও পিনাক ঘোষের পর ফিফটি পেয়েছেন মার্শাল আইয়ুব, তাইবুর রহমান ও শহিদুল ইসলাম। প্রথম ইনিংসে গুঁড়িয়ে যাওয়া মধ্যাঞ্চল পাঁচ ফিফটিতে পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে পেয়েছে লড়াইয়ের পুঁজি।
  • জুনায়েদের সেঞ্চুরি, জিয়ার ৯০
    আশা জাগিয়েও সেঞ্চুরি পাননি জিয়াউর রহমান ও নাঈম ইসলাম। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ষোড়শ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন জুনায়েদ সিদ্দিক। তাদের ব্যাটে দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে লিড নিয়েছে উত্তরাঞ্চল।  
  • নাঈম-জুনায়েদের সিদ্দিকের ফিফটি
    দশম উইকেটে কামরুল ইসলাম রাব্বির সঙ্গে অর্ধশত রানের জুটিতে দক্ষিণাঞ্চলকে তিনশ ছাড়ানো সংগ্রহ এনে দিয়েছেন মেহেদি হাসান। নাঈম ইসলাম ও জুনায়েদ সিদ্দিকের ব্যাটে জবাব দিচ্ছে উত্তরাঞ্চল।  
  • শহিদুলের ৫ উইকেট, পিনাক-মজিদের লড়াই
    ব্যাটিং ব্যর্থতায় প্রথম দিনে গুঁড়িয়ে যাওয়া মধ্যাঞ্চল দ্বিতীয় দিনে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ব্যাটে-বলে। পেসার শহিদুল ইসলামের ৫ উইকেট লড়াইয়ে ফেরায় দলকে। এরপর ব্যাটিংয়ে এগিয়ে নেন পিনাক ঘোষ ও আব্দুল মজিদ।
  • ফরহাদ রেজার বিধ্বংসী বোলিং
    প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রায় ১৪ বছরের ক্যারিয়ার। ঘরোয়া ক্রিকেটের বহু যুদ্ধের অভিজ্ঞ সেনানী। ফরহাদ রেজার পারফরম্যান্সে তবু ভাটার টান নেই। প্রতি মৌসুমেই দারুণ ধারাবাহিক। ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এসেও যেমন ছাড়িয়ে গেলেন নিজেকে। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ৭ উইকেট নিয়ে ধসিয়ে দিলেন প্রতিপক্ষের ব্যাটিং।
  • রকিবুল-তুষারের ফিফটি, সানজামুলের ৪ উইকেট
    রকিবুল হাসান ও তুষার ইমরানের ব্যাটে দৃঢ় ভিতের ওপর দাঁড়ানো দক্ষিণাঞ্চলকে তিনশ রানের নিচে থামানোর আশা জাগিয়েছে উত্তরাঞ্চল। শেষ বেলায় আব্দুর রাজ্জাকের দলকে কাঁপিয়ে দিয়েছেন সানজামুল ইসলাম ও ইবাদত হোসেন।
  • এনামুলের সেঞ্চুরি
    দায়িত্বশীল এক ইনিংসে সময়ের দাবি মেটালেন এনামুল হক। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের লড়িয়ে সেঞ্চুরিতে ম্যাচ পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে ড্র করতে পারল ফলো অনে পড়া দক্ষিণাঞ্চল।
  • আবু হায়দারের ৬ উইকেট, সানজামুলের ৮ রানের আক্ষেপ
    মাত্র ৮ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়া সানজামুল ইসলাম জাগিয়েছিলেন উত্তরাঞ্চলের জয়ের আশা। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ৬ উইকেট নিয়ে আবু হায়দার কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন দলটিকে। জিততে অবশ্য পারেনি তাদের কেউই। রোমাঞ্চ জাগিয়ে ড্র হয়েছে উত্তরাঞ্চল-মধ্যাঞ্চলের লড়াই।
  • ফলো অনে নেমে শাহরিয়ার-এনামুলের প্রতিরোধ
    শাহরিয়ার নাফীস ও এনামুল হক জুনিয়রের ব্যাটে পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে ম্যাচ বাঁচাতে লড়ছে দক্ষিণাঞ্চল। ফলো অনে পড়ার পর শত রানের জুটিতে দলকে পথ দেখাচ্ছেন এই দুই ওপেনার।
  • মোসাদ্দেকের সেঞ্চুরি, মোহরের ৫ উইকেট
    বাজে সময়ের মধ্য দিয়ে যাওয়া মোসাদ্দেক হোসেনের ব্যাটে মিলেছে ছন্দে ফেরার আভাস। কঠিন সময়ে নেমে দারুণ এক সেঞ্চুরি করেছেন মধ্যাঞ্চলের এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। ৫ উইকেট নিয়েছেন উত্তরাঞ্চলের মোহর শেখ। ম্যাচে প্রথমবারের মতো ১০ উইকেটের স্বাদ পেয়েছেন ইবাদত হোসেন। 
  • ইয়াসিরের সেঞ্চুরি, রাজ্জাকের ৫ উইকেট
    শামসুর রহমানের পর সেঞ্চুরি করলেন ইয়াসির আলী চৌধুরী। জোড়া সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ গড়ে পূর্বাঞ্চল। খরুচে বোলিংয়ে পাঁচ উইকেট নেন আব্দুর রাজ্জাক। বড় সংগ্রহের জবাব দিতে নেমে দ্রুত ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে তার দল দক্ষিণাঞ্চল।
  • শহিদুলের ৬ উইকেট
    আগের দিন ৬ উইকেট নিয়ে মধ্যাঞ্চলকে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন ইবাদত হোসেন। দ্বিতীয় দিন ৬ উইকেট নিয়ে উত্তরাঞ্চলকে কম রানে থামালেন শহিদুল ইসলাম। তার দারুণ বোলিংয়ের দিনে পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংসে দলকে লিড এনে দিয়েছেন মিজানুর রহমান, ফরহাদ হোসেন ও নাঈম ইসলাম। 
  • শামসুরের সেঞ্চুরি
    প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ম্যাচ পর আবার সেঞ্চুরি পেলেন শামসুর রহমান। ডানহাতি এই ওপেনারের দেড়শ ছোঁয়া ইনিংসে দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ গড়ার পথে পূর্বাঞ্চল।
  • ইবাদতের ৬ উইকেট, ব্যর্থ লিটন-মোসাদ্দেক
    আবার প্রথম ইনিংসে ব্যর্থ হলেন লিটন দাস। নিজেকে খুঁজে ফেরা মোসাদ্দেক হোসেনের বাজে সময় লম্বা হলো আরেকটু। তাদের হতাশার দিনে দারুণ বোলিংয়ে মধ্যাঞ্চলকে ২২০ রানে গুটিয়ে দিয়েছেন ইবাদত হোসেন।
  • ফরহাদের সেঞ্চুরি, সাব্বির-জুনায়েদের ফিফটি
    পাঁচ ফিফটিতেও প্রথম ইনিংসে লিড নিতে পারেনি পূর্বাঞ্চল। ২ রানের মধ্যে শেষ দুই উইকেট তুলে নিয়ে প্রথম ইনিংসে ২ রানের লিড নেয় উত্তরাঞ্চল। দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন তাদের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ফরহাদ হোসেন। ফিফটি এসেছে সাব্বির রহমান ও জুনায়েদ সিদ্দিকের ব্যাট থেকে।
  • শুভাগতর পাঁচ উইকেট, আবু হায়দারের চার
    শেষ দিনের রোমাঞ্চের অপেক্ষায় ছিল সিলেট। কিন্তু লড়াই সেভাবে জমতেই দিলেন না শুভাগত হোম ও আবু হায়দার রনি। এই দুজনের দারুণ বোলিংয়ে রান তাড়ায় ভেঙে পড়ল দক্ষিণাঞ্চলের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপ। জয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করল মধ্যাঞ্চল।
  • ইয়াসিরের ৬ রানের আক্ষেপ
    ছয় রানের জন্য সেঞ্চুরি পাওয়া হলো না ইয়াসির আলী চৌধুরীর। তার আক্ষেপের দিনে অপরাজিত ফিফটিতে উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে লিডের আশা বাঁচিয়ে রেখেছেন অধিনায়ক ফরহাদ রেজা।
  • লিটনের ব্যাটে রান, মেহেদির প্রথম পাঁচ
    প্রথম ইনিংসের ব্যর্থতা ভুলে দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণ ইনিংস খেলেছেন লিটন দাস। সম্ভাবনা জাগিয়েও অবশ্য পাননি সেঞ্চুরি। তবে শেষ জুটিতে আবারও তাক লাগিয়ে দিয়েছে তার দল মধ্যাঞ্চল। দক্ষিণাঞ্চলের অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান প্রথমবারের মতো পেয়েছেন ৫ উইকেটের স্বাদ।
  • ফজলে রাব্বি ৯৪, প্রতিপক্ষের ১ রানের লিড
    কিছুদিন আগে জাতীয় লিগে ৫ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি পাননি ফজলে মাহমুদ রাব্বি। এবার বিসিএলে সেঞ্চুরি হাতছাড়া করলেন ৬ রানের জন্য। অল্পের জন্য কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য ছুঁতে পারেনি তার দলও। প্রতিপক্ষ নিয়েছে ১ রানের লিড।
  • মিজানুরের ৮ রানের আক্ষেপ, ব্যর্থ সাব্বির
    সেঞ্চুরিকে বেশি দূর এগিয়ে নিতে পারলেন না নাঈম ইসলাম ও জহুরুল ইসলাম। আগের দিন চোট পেয়ে মাঠ ছাড়া মিজানুর রহমান ক্রিজে ফিরে বিদায় নিলেন সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। মিডল অর্ডারে আবার ব্যর্থ সাব্বির রহমান। তাই যতটা আশা জাগিয়েছিল ততটা বড় হল না উত্তরাঞ্চলের ইনিংস।
  • নাঈম, জহুরুলের সেঞ্চুরি
    প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) প্রথম দিন সেঞ্চুরিতে রাঙিয়েছেন নাঈম ইসলাম ও জহুরুল ইসলাম। দুই অভিজ্ঞ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের দৃঢ়তায় পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে বড় সংগ্রহ গড়ার পথে রয়েছে উত্তরাঞ্চল।
  • মজিদের অসাধারণ সেঞ্চুরি, শেষ জুটিতে শতরান
    উইকেটে গিয়েছিলেন দিনের দ্বিতীয় ওভারে। শূন্য রানেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে তখন কাঁপছে দল। সেখান থেকেই দলকে টানলেন আব্দুল মজিদ। এক প্রান্ত আগলে রাখলেন, দেখলেন আরেক প্রান্তে সতীর্থদের আসা-যাওয়া। শেষ সঙ্গীকে যখন পেলেন, খেলছিলেন ৭৫ রানে। ইনিংস শেষে সেই মজিদের নামের পাশেই অপরাজিত ১৪১। শেষ জুটিতে এল শতরান!
  • সবার ওপর রেকর্ড গড়া রাজ্জাক
    বছরের প্রথম টুর্নামেন্ট জাতীয় ক্রিকেট লিগটা খুব একটা ভালো কাটেনি আব্দুর রাজ্জাকের। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের সেই টুর্নামেন্টে সাদামাটা বোলিং করা বাঁহাতি এই স্পিনার স্বরূপে ফিরেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগে। মৌসুমের শেষ টুর্নামেন্টে স্পিনের মায়াজালে তুলে নিয়েছেন ৪৩ উইকেট।
  • তুষারকে ছাড়িয়ে লিটন
    প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে আরেকটি চমৎকার আসর কাটল তুষার ইমরানের। দলের শিরোপা জয়ে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ অবদান। শেষ ম্যাচে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলে তাকে ছাড়িয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের চূড়ায় উঠেছেন লিটন দাস। তাদের বাইরে বিসিএলের চলতি আসরে পাঁচশ ছাড়ানো রান করেছেন সাদমান ইসলাম, মিজানুর রহমান ও মুমিনুল হক।
  • শেষ দিনে সাইফ উদ্দিনের সেঞ্চুরি
    ম্যাচের ফল এক রকম স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল বেশ আগেই। শেষ দিনটি ছিল কেবল নিয়ম রক্ষার। তাতে ব্যক্তিগত চাওয়া পূরণের পালায় হেসেছেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। তরুণ অলরাউন্ডার করেছেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগালেও শেষ পর্যন্ত পারেননি অভিজ্ঞ মার্শাল আইয়ুব।
  • কঠিন সমীকরণ মিলিয়ে রাজ্জাক-নুরুলদের উচ্ছ্বাস
    দুই রাউন্ড বাকি থাকতে পয়েন্ট টেবিলে ছিল তারা তিনে। শেষ রাউন্ডের আগে দুইয়ে উঠলেও শীর্ষে থাকা উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে পয়েন্টের ব্যবধান ছিল ১৩। শেষ রাউন্ডে তাই শুধু জিতলেই যথেষ্ট হতো না, প্রয়োজন ছিল বোনাস পয়েন্টের। সেই চ্যালেঞ্জই দারুণ দাপটে জিতে নিয়েছে দক্ষিণাঞ্চল। শীর্ষে থাকা উত্তরাঞ্চলকে ইনিংস ব্যবধানে হারিয়ে জিতেছে শিরোপা। অধিনায়ক নুরুল হাসান ও অভিজ্ঞ স্পিনার আব্দুর রাজ্জাকের কণ্ঠে ফুটে উঠল তাই কঠিন চ্যালেঞ্জ জয়ের তৃপ্তি।
  • লিটন-আফিফের ব্যাটে ছয়শর কাছে পূর্বাঞ্চল
    শিরোপা লড়াইয়ে নেই দুই দল। ম্যাচটি তাই এক রকম রূপ নিয়েছে ব্যক্তিগত চাওয়া-পাওয়া মেলানোর ম্যাচে। তাতে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস পেলেন আফিফ হোসেন। অনেক প্রাপ্তির পরও একটু না পাওয়ার আক্ষেপে পুড়লেন লিটন দাস। প্রতিপক্ষের রান পাহাড় টপকে তাদের দলও নিল লিড।
  • হাতছানি দিয়েও হারিয়ে গেল লিটনের ট্রিপল সেঞ্চুরি
    মার্শাল আইয়ুব আর মোসাদ্দেক হোসেন, কয়েক মাস আগে নাসির হেসেন - সবাই পুড়েছেন একই আক্ষেপে। সেই তিক্ত স্বাদ এবার পেতে হলো লিটন কুমার দাসকে। সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত করতে পারলেন না ট্রিপল সেঞ্চুরি। এবারও বাংলাদেশ পেল না দ্বিতীয় ট্রিপল সেঞ্চুরিয়ান।
  • রাজ্জাকের স্পিনে উত্তরাঞ্চলকে গুঁড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণাঞ্চল
    প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া আব্দুর রাজ্জাক আরও উজ্জ্বল দ্বিতীয় ইনিংসে। তার দুর্দান্ত বোলিংয়ে উত্তরাঞ্চলকে উড়িয়ে দিয়ে বিসিএলের ষষ্ঠ আসরের শিরোপা ঘরে তুলেছে দক্ষিণাঞ্চল।
  • প্যাশন না থাকলে টেস্ট ক্রিকেটার তৈরি হবে না: মাশরাফি
    একটা টেস্ট সেঞ্চুরির চেয়ে বড় কিছু নেই তামিম ইকবালের কাছে। টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাতে চান সাকিব আল হাসান। টেস্টের প্রতি মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহর ভালোবাসাও একই রকমের। মাশরাফি বিন মুর্তজা মনে করছেন, তরুণদের মাঝেও সেই আবেগ না থাকলে এগোবে না বাংলাদেশের ক্রিকেট।
  • টেস্টে ফিরতে নিজেকেই মাশরাফির যে চ্যালেঞ্জ
    মাশরাফি বিন মুর্তজা মনে করেন এখনও দুই বছর টেস্ট খেলার সামর্থ্য আছে তার। তবে আবার টেস্ট খেলার সম্ভাবনা তৈরির আগে কয়েকটি সমীকরণ মেলাতে চান বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।
  • ইমরুলের তৃপ্তি, ইমরুলের আক্ষেপ
    কঠিন সময় যেভাবে পার করে দলকে দৃঢ় অবস্থানে নিয়ে যেতে পেরেছেন তাতে খুশি ইমরুল কায়েস। তবে নিজেদের ইনিংস আরও বড় করতে না পারার আক্ষেপও আছে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের।