• টেকনিকের রাজা বলেছিলেন, টেকনিকই সবকিছু নয়
    টেকনিকের দিক থেকে ক্রিকেট ইতিহাসেই আদর্শ ব্যাটসম্যান মনে করা হয় রাহুল দ্রাবিড়কে। সেই দ্রাবিড়ের কাছ থেকেই চেতেশ্বর পুজারা জেনেছিলেন, টেকনিকই সবকিছু নয়। ক্রিকেটে সফল হতে হলে প্রয়োজন আরও অনেক কিছু। এমনকি, ক্রিকেট থেকে দূরে থাকাও অনেক সময় জরুরি।
  • পুজারা-জাদেজাদের সতর্ক করে দিল নাডা
    যথা সময়ে ক্রিকেটারদের অবস্থানের তথ্য জানাতে ব্যর্থতার পেছনের ব্যাখ্যা মেনে নিয়েছে ভারতের ন্যাশনাল অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সি (নাডা)। চেতেশ্বর পুজারা, রবীন্দ্র জাদেজা, লোকেশ রাহুল, স্মৃতি মান্ধানা ও দীপ্তি শর্মাকে সতর্ক করে দিয়েছে তারা।
  • কথার ফাঁদে পড়তে চান না পুজারা
    ২২ গজে চেতেশ্বর পুজারা প্রায়ই হয়ে ওঠেন ধৈর্যের প্রতিমূর্তি। কখনও কখনও যেন ধ্যানমগ্ন কোনো ঋষি। প্রতিপক্ষের বোলিং বা কথার তির, কোনোকিছুই ভাঙাতে পারে না সেই ধ্যান। এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান বলছেন, কথার ফাঁদে পা দিয়ে নিজের বিপদ ডেকে আনতে চান না।
  • ‘টেস্টে পুজারাকে বল করা সবচেয়ে কঠিন’
    টেস্ট ক্রিকেটে চেতেশ্বর পুজারার বিপক্ষে বল করা সবচেয়ে কঠিন বলে মনে করেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার প্যাট কামিন্স। অতীত অভিজ্ঞতা থেকেই এমনটা জানালেন আইসিসি টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ এই বোলার।
  • জানি আমি ওয়ার্নার কিংবা শেবাগ হতে পারব না: পুজারা
    ২৩৭ বলে ৬৬, ৮৮ বলে ২৪, ১৪০ বলে ৫৪; চেতেশ্বর পুজারার সবশেষ তিন প্রথম শ্রেণির ইনিংস। ছোট্ট এই পরিসংখ্যানে ফুটে উঠছে তার ব্যাটিংয়ের ধরন। যেটি নিয়ে প্রায়ই সমালোচনার তিরে বিদ্ধ হতে হয় তাকে। সেটি নিয়ে এবার খোলামেলা কথা বলেছেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। নিজের সীমাবদ্ধতা জানেন বলে স্ট্রাইক রেট নিয়ে চিন্তিত নন মোটেও। জানালেন, টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে পুরো সমর্থনই তিনি পাচ্ছেন।
  • ‘ব্যাটিংয়ের জন্য সেরা সময় দিনের প্রথম সেশন’
    কলকাতা টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম লক্ষ্য প্রতিপক্ষকে আবার ব্যাটিংয়ে পাঠানো। আর ভারত চায়, যত দ্রুত সম্ভব ম্যাচ শেষ করে দিতে। কাজটা খুব সহজ নাও হতে পারে। চেতেশ্বর পুজারা মনে করেন, গোলাপি বলের এই টেস্টে ব্যাটিংয়ের সেরা সময় দিনের প্রথম সেশন।
  • ‘বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের টেকনিকে ভুল নেই’
    প্রথম দিনে লিটন দাস ও নাঈম হাসানের হেলমেটে লেগেছিল বল। দ্বিতীয় দিন মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিমের হেলমেটে আঘাত হানে বল। চেতেশ্বর পুজারা মনে করছেন, ব্যাটসম্যানদের টেকনিকের ভুল নয়, গোলাপি বলের জন্যই এমনটা ঘটছে।
  • পুজারার আরেকটি সেঞ্চুরিতে ভারতের দারুণ শুরু
    অ্যাডিলেইড, মেলবোর্ন হয়ে সিডনি। আরেকটি টেস্ট, চেতেশ্বর পুজারার আরও একটি সেঞ্চুরি। উইকেটে গেলেন দিনের দ্বিতীয় ওভারে, দিন শেষে মাঠ ছাড়লেন অপরাজিত থেকে। তার আরেকটি অসাধারণ সেঞ্চুরিতে সিডনি টেস্টের প্রথম দিনটি ভারত করে নিল নিজেদের।
  • পুজারার সেঞ্চুরিতে ভারতের বড় সংগ্রহ
    সাবধানী ব্যাটিংয়ে চলতি সিরিজে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিলেন চেতেশ্বর পুজারা। সঙ্গে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মার ব্যাটে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মেলবোর্ন টেস্টে প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ গড়েছে ভারত।
  • অসাধারণ সেঞ্চুরিতে ভারতের ত্রাতা পুজারা
    টেকনিক ও টেম্পারামেন্ট। মনোযোগ ও নিয়ন্ত্রণ। সবকিছুর প্রতিফলনে আদর্শ এক টেস্ট ইনিংস। ধ্রুপদী ব্যাটিংয়ে চেতেশ্বর পুজারা দেখালেন যেন ব্যাটিং মাস্টারক্লাস। অস্ট্রেলিয়ান বোলিং তোপ সামলে ভারতকে উদ্ধার করলেন বিপর্যয় থেকে।
  • পুজারার দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ভারতের লিড
    চাপের মুখে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করলেন চেতেশ্বর পুজারা। শেষ দুই ব্যাটসম্যানকে নিয়ে যোগ করলেন ৭৮ রান। মইন আলির স্পিন ভেল্কি সামলে প্রথম ইনিংসে দলকে লিড এনে দিলেন ভারতের টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যান।
  • বিজয়-পুজারার সেঞ্চুরিতে অসহায় শ্রীলঙ্কা
    ভারতের টপ অর্ডারে এখন দারুণ প্রতিযোগিতা। কাকে রেখে কাকে খেলানো যায়! যে যখন সুযোগ পাচ্ছেন, লুফে নিচ্ছেন। সেই মধুর প্রতিযোগিতা আরও মিঠে করে তুললেন মুরালি বিজয়। চোট কাটিয়ে একাদশে ফিরে করলেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। অপরাজিত সেঞ্চুরি এল চেতেশ্বর পুজারার নির্ভরযোগ্য ব্যাট থেকেও।
  • বৃষ্টির দাপটের দিনে লাকমলের রেকর্ড, ধুঁকছে ভারত
    কলকাতায় বৃষ্টির দাপট দ্বিতীয় দিনেও। তার ফাঁকে ভারত হারিয়েছে আরও দুই উইকেট। তবে টিকে আছেন চেতেশ্বর পুজারা। চালিয়ে যাচ্ছেন লড়াই।
  • পঞ্চাশে পুজারার শতক, সঙ্গী রাহানেও
    এই মাঠে এমনিতেই তার দারুণ এক স্মৃতি আছে। দলে জায়গা হারানোর পর দুবছর আগের অগাস্টে এই মাঠেই ফিরে ওপেনার হিসেবে খেলেছিলেন ম্যাচ জেতানো ১৪৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। সেই মাঠেই চেতেশ্বর পুজারা স্পর্শ করলেন ৫০ টেস্টের মাইলফলক, উপলক্ষটাকে স্মরণীয় করে রাখলেন দারুণ সেঞ্চুরিতে।
  • পুজারার ডাবল সেঞ্চুরি, ঋদ্ধিমানের সেঞ্চুরি
    তিন দিন লড়াই হয়েছে সমানে সমান। চতুর্থ দিনে একটু একটু করে বাড়ল ব্যবধান। ধৈর্যের পরীক্ষায় প্রতিপক্ষের জীবনীশক্তি যেন আস্তে আস্তে শুষে নিলেন চেতেশ্বর পুজারা আর ঋদ্ধিমান সাহা। শেষ বিকেলে অস্ট্রেলিয়ানদের পিঠ দেয়ালে ঠেকিয়ে দিলেন রবীন্দ্র জাদেজা।
  • কামিন্সের তোপ, দেয়াল পুজারা
    আগের দিন বিকেলে দেখা গেল একটু ঝলক। প্যাট কামিন্স এদিন দেখা দিলেন পূর্ণ রূপে। গতি, সুইং, রিভার্স সুইং, বাউন্সে কাঁপিয়ে দিলেন ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপ। তবে আগের বিকেলে ঝলক দেখানো আরেকজনও যে পুরোপুরি মেলে ধরলেন নিজেকে! কামিন্সের তোপের সামনে দেয়াল হয়ে রইলেন চেতেশ্বর পুজারা। করলেন অসাধারণ এক হার না মানা সেঞ্চুরি।
  • জাদেজার পর পুজারা-রাহানের দারুণ লড়াই
    প্রথম সেশনের নায়ক রবীন্দ্র জাদেজা। শেষ সেশনে চেতেশ্বর পুজারা ও অজিঙ্কা রাহানে। মাঝের সেশনে আলো ছড়িয়েছেন জস হেইজেলউড। তবে শুরু আর শেষ সেশনই নিশ্চিত করেছে, দিনটি ভারতের।
  • বাংলাদেশকে ফলোঅন না করানোর ব্যাখ্যায় পুজারা
    বাংলাদেশকে ফলোঅন করানো উচিত ছিল কিনা তা নিয়ে হতে পারে অনেক বিতর্ক। তবে ভারতের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পুজারা জানিয়েছেন, একশ’ ওভারের বেশি ফিল্ডিং করার পর বোলারদের অন্তত এক সেশন বিশ্রাম দেওয়া প্রয়োজন ছিল। 
  • দুই সেশনেই শেষ করতে চায় ভারত
    উইকেট থেকে সহায়তা পেতে শুরু করেছেন স্পিনাররা, প্রতিপক্ষের টপঅর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান ফিরে গেছেন। হায়দরাবাদ টেস্টে আর খুব বেশি প্রতিরোধ আশা করছে না ভারত। চেতেশ্বর পুজারা মনে করছেন, দুই সেশনের মধ্যেই জয় তুলে নেওয়া সম্ভব হবে।
  • রেকর্ড গড়েই ফিরলেন পুজারা
    যেন রেকর্ডটি গড়ার অপেক্ষাই করছিলেন। নতুন উচ্চতা ছুঁয়েই ফিরলেন কটবিহাইন্ড হয়ে। নামের পাশে তখন ৮৩ রান, সেঞ্চুরি না পাওয়ার হতাশা থাকবেই। তবে থাকবে একটা তৃপ্তিও। একটা জায়গায় চেতেশ্বর পুজারা উঠে গেছেন ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের চূড়ায়। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ভারতীয় মৌসুমে সবচেয়ে বেশি রান!
  • রান রথে পুজারা, অসাধারণ কোহলি
    দিনের শুরুতে একবার হাসলেন জেমস অ্যান্ডারসন। শেষ দিকে আরেকবার। কিন্তু দুই হাসিতে কত পার্থক্য! দিনের শুরুর দিকের উইকেটে ছিল চওড়া হাসি। শেষ বেলার উইকেটে হাসিতে মিশে থাকল ক্লান্তি, শ্রান্তি। মাঝের সময়টায় যে রাজত্ব করেছেন বিরাট কোহলি ও চেতেশ্বের পুজারা!
  • বিজয়-পুজারার শতকে ভারতের জবাব
    এই ২২ গজ তার নিজের হাতের তালুর মতই চেনা। মাঠের সবুজ ঘাস বা পরিবেশ, পরিচিত সবই। ঘরের এই মাঠেই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে করেছেন দুটি ট্রিপল সেঞ্চুরি। আপন আঙিনায় প্রথমবার টেস্ট ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেলেন চেতেশ্বর পুজারা। রাজকোটের প্রথম টেস্ট দারুণ এক শতকে রাঙালেন ঘরের ছেলে।