• বাংলাদেশের সিরিজ জয় কিংবা নিউ জিল্যান্ডের সমতা
    উইকেট পেলেও মনে হয় এতটা খুশি হন না তাসকিন আহমেদ। খ্যাপাটে দৌড়ে ছুটতে থাকা পেসারকে আটকাতেই পারছিলেন না কেউ। অমন উচ্ছ্বাসের কারণ, তার দল গোল করেছে! মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার দুপুরে গা গরমের ফুটবল ম্যাচে দেখা গেল এমন গোল আর হাসি-মজার জোয়ার। কিন্তু অনুশীলনের এই প্রাণের উৎসব কতটা দেখা যাবে মূল লড়াইয়ে?
  • বাংলাদেশের ‘আগুনের’ জবাব ‘আগুন’ দিয়েই দেবে কিউইরা
    আহত বাঘের হুঙ্কারে মিশে থাকে প্রতিশোধের নেশা। নিজের আঙিনায় চোট পাওয়া বাঘের তো আরও বেশি তেতে থাকার কথা। নিউ জিল্যান্ড তাই জানে, আগের ম্যাচে বাজেভাবে হেরে যাওয়া বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়াতে চাইবে প্রবলভাবে। সেটি মাথায় রেখেই প্রস্তুত কিউইরা। তাদের কোচ গ্লেন পকন্যাল জানিয়ে দিলেন, লড়াইয়ে তারা পিছপা হবেন না একটুও।
  • নিউ জিল্যান্ডের প্রস্তুতির অংশ বাংলাদেশের সাবেক কোচরাও
    বাংলাদেশ সিরিজের জন্য প্রস্তুতিতে কোনো কমতিই রাখেনি নিউ জিল্যান্ড। মন্থর উইকেট তৈরি করে অনুশীলন করা, দুটি ক্যাম্প করা, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের নিয়ে বিশ্লেষণ করা, এসব তো হয়েছেই। এখানকার কন্ডিশন ও ক্রিকেটারদের সম্পর্কে ধারণা নিয়েছে তারা বাংলাদেশের সাবেক কোচদের থেকেও। সব মিলিয়ে খর্বশক্তির দল পাঠালেও তারা আটঘাঁট বেঁধেই এসেছেন।
  • মুস্তাফিজকে চাপে রাখার কৌশল নেবে নিউ জিল্যান্ড
    বাংলাদেশকে হারাতে হলে কাকে সামলানো জরুরি, সেই গবেষণা করেই এসেছে নিউ জিল্যান্ড। তাদের অ্যানালিস্টের পরীক্ষাগারে প্রবল কাটাছেঁড়া হয়েছে মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং নিয়ে। বিশ্লেষণ করা হয়েছে বিস্তর। বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসারকে নিষ্ক্রিয় করার উপায়ও বের করেছে কিউইরা। তাদের কোচ গ্লেন পকন্যাল জানালেন, ভিন্ন কিছু করে মুস্তাফিজকে পাল্টা চাপে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করবেন তারা।