• ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে হাসান-আফ্রিদি-নুমান
    জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে দারুণ বোলিংয়ের পুরস্কার পেয়েছেন হাসান আলি, শাহিন শাহ আফ্রিদি ও নুমান আলি। আইসিসি টেস্ট বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে তিনজনই উঠেছেন ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে।
  • ১১২ বছর পর নুমান-আফ্রিদি
    এক ইনিংসে দুই বোলারের ৫ উইকেট খুব নিয়মিত না হলেও বিরল নয়। তবে দুই বাঁহাতি বোলারের ৫ উইকেট কতটা বিরল, সেটিই মনে করিয়ে দিলেন পাকিস্তানের শাহিন শাহ আফ্রিদি ও নুমান আলি। ১৪৪ বছরের টেস্ট ইতিহাসে এই নজির মাত্র দুটি!
  • পাকিস্তানকে অপেক্ষায় রাখল জিম্বাবুয়ের শেষ জুটি
    তৃতীয় দিনেও নেই বোলারদের জন্য বাড়তি তেমন কোনো সুবিধা। কিন্তু হাসান আলি, শাহিন শাহ আফ্রিদিদের বোলিং আর জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং দেখে সেটা বোঝার কোনো উপায় নেই। ব্যাটসম্যানরা যেন গেলেন আর এলেন।  তাদের ব্যর্থতায় টানা দ্বিতীয় টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হারের দুয়ারে স্বাগতিকরা।
  • আবিদের দ্বিশতক, নুমানের ৩ রানের আক্ষেপ
    দ্বিতীয় দিনের শুরুতে দারুণ লড়াই করল জিম্বাবুয়ে। এক প্রান্ত আগলে রাখা আবিদ আলি এদিনও পথ দেখালেন পাকিস্তানকে। লড়াকু ব্যাটিংয়ে করলেন ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। নয়ে নেমে সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে আক্ষেপ নিয়ে ফিরলেন নুমান আলি। তাদের ব্যাটে পাঁচশ ছাড়ানো সংগ্রহ নিয়ে ইনিংস ঘোষণার পর জিম্বাবুয়েকে চেপে ধরেছে পাকিস্তান।
  • নুমান-ইয়াসিরের স্পিনে বিধ্বস্ত দ. আফ্রিকা
    আগের দিন শেষ বেলায় দিক হারানো দক্ষিণ আফ্রিকা ফিরতে পারল না কক্ষপথে। দারুণ বোলিংয়ে নুমান আলি ও ইয়াসির শাহ লক্ষ্যটা রাখলেন একশর নিচে। বাকিটা সারলেন ব্যাটসম্যানরা। করাচি টেস্টে সহজেই জিতল পাকিস্তান।
  • ৭২ বছরের মধ্যে নুমানের মতো অভিষেক হয়নি কারও
    ১৩ বছরের প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ার, প্রায় তিনশ উইকেট। এতটা পথ পেরিয়ে তবেই টেস্ট ক্রিকেটের ঠিকানা পেয়েছেন নুমান আলি। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর পাওয়া সুযোগ অসাধারণ বোলিংয়ে স্মরণীয় করে রাখলেন পাকিস্তানের এই বাঁহাতি স্পিনার। গড়লেন এমন এক কীর্তি, ১৯৪৯ সালের পর আর যা দেখেনি টেস্ট ক্রিকেট।