• হতাশার সিরিজ শেষে সামনে তাকিয়ে বাংলাদেশ
    ট্রফি হাতে নিয়ে হাসি মুখে পোজ দেওয়াই নিয়ম। সে কারণেই হয়তো ত্রিদেশীয় সিরিজে যৌথ শিরোপা জয়ী হয়ে সাকিব আল হাসানের মুখে দেখা গেল হাসি। নইলে ঘরের মাঠে বছরের শেষ আন্তর্জাতিক সিরিজে হাসির উপলক্ষ্য খুব একটা পায়নি বাংলাদেশ দল। সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠেও ফুটে উঠল সেই হতাশা। জানালেন, সামনে এগিয়ে চলার পথে আরও উন্নতি করেতে মুখিয়ে আছে দল।
  • ভারত সফরে চোখ রেখে সিপিএলে সাকিব
    ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ব্যস্ত হয়ে পড়বেন প্রথম শ্রেণির টুর্নামেন্ট জাতীয় ক্রিকেট লিগ নিয়ে। সতীর্থরা যখন পরের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়ার আগে খানিকটা বিশ্রাম নেবেন সেই সময়ে সাকিব আল হাসান ছুটবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ভারত সফরে চোখ রেখে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার।
  • দর্শকদের হতাশা ছুঁয়ে যাচ্ছে সাকিবকে
    ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যখন ডাক পড়ল সাকিব আল হাসানের, তুমুল উল্লাস ও করতালি শোনা গেল গ্যালারি থেকে। ম্যাচের সমাপ্তি টানা হয়েছে আরও অনেক আগেই। টিপটিপ বৃষ্টির মধ্যে তবু অপেক্ষায় দর্শকদের অনেকে। গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডে শুধু নয়, দূরের অন্যান্য গ্যালারিতেও তখনও আছেন দর্শক। অনেক আগ্রহ, কৌতূহল ও উৎসাহ নিয়ে দর্শকেরা শেষ পর্যন্ত খেলা দেখতে না পারায় তাদের প্রতি সহানুভূতি জানালেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।
  • ‘রিজার্ভ ডে’ না থাকার আক্ষেপ দুই দলের
    খেলা পরিত্যক্ত হওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা যখন এলো, তখনও গ্যালারিতে ১৫ হাজারের চেয়ে বেশি দর্শক। বৃষ্টি ভেজা শরীর নিয়েও মনে ছিল আশা, যদি কয়েক ওভারও খেলা হয়! শেষ পর্যন্ত তাদের মাঠ ছাড়তে হয়েছে দীর্ঘশ্বাস ফেলে। টিভি পর্দার সামনে লাখো দর্শকেরও সঙ্গী ছিল হতাশা। একটি প্রশ্ন ছিল হয়তো সবারই, ফাইনালের ‘রিজার্ভ ডে’ কেন নেই!
  • বৃষ্টিতে ভেসে গেল ফাইনালের রোমাঞ্চ
    জমজমাট এক ফাইনালের রসদ ছিল মজুদ। কিন্তু জমে উঠল না কিছুই। গ্যালারি ভরা দর্শক আর দুই দলের দীর্ঘ অপেক্ষা শেষ হলো হতাশায়। টানা বৃষ্টিতে ভেসে গেল ফাইনাল ম্যাচের সম্ভাব্য সব উত্তেজনা। ম্যাচ না হওয়ায় ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান।
  • যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ-আফগানিস্তান
    প্রাথমিক পর্বে দুই দলের লড়াইয়ে ছিল সমতা। ঢাকায় জিতেছিল আফগানিস্তান। চট্টগ্রামে শোধ নিয়েছিল বাংলাদেশ। ফাইনালে ছিল রোমাঞ্চের হাতছানি। তাতে জল ঢেলে দিল বৃষ্টি। পরিত্যক্ত হয়ে গেল ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনাল। বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মধ্যে কোনো টি-টোয়েন্টি এই প্রথম পরিত্যক্ত হল।
  • এবার ট্রফির লড়াইয়ে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান
    ফাইনালের আগের দিন যখন বাংলাদেশ দলের অনুশীলন শেষ হলো, মিরপুরের আকাশে তখন মেঘের ঘনঘটা। বাংলাদেশের ড্রেসিং রুম থেকে অবশ্য অস্বস্তির মেঘ সরে গেছে অনেকটাই। প্রায় অপরাজেয় হয়ে ওঠা আফগানদের হারানো গেছে আগের ম্যাচে। আত্মবিশ্বাস নিয়েই তাই ফাইনালের লড়াইয়ে নামবে বাংলাদেশ। তবে র‍্যাঙ্কিং, স্কিল আর সামর্থ্য মিলিয়ে ফাইনালেও ফেবারিট আফগানিস্তানই।
  • শান্তর অনুশীলনে মুগ্ধ ডমিঙ্গো
    তার প্রতিভা ও সম্ভাবনার প্রতিফলন সামান্যই পড়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পারফরম্যান্সে। তাকে ঘিরে দেশের ক্রিকেটে যে উচ্চাশা, তা বাস্তবে সেভাবে এখনও ধরা দেয়নি। নাজমুল হাসান শান্তকে নিয়ে যখন হতাশার রেশ বাড়ছে, সেখানে নতুন করে আশা দেখালেন রাসেল ডমিঙ্গো। এই তরুণ ক্রিকেটারের অনুশীলন ও ক্রিকেটীয় দৃষ্টিভঙ্গির উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন বাংলাদেশ কোচ।
  • বিশ্বের যে কোনো দলকে হারাতে পারে আফগানিস্তান: রশিদ
    টি-টোয়েন্টিতে সমীহ করার মতো দল হয়ে উঠেছে আফগানিস্তান। কদিন আগে সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, এই দলকে হারাতে বাংলাদেশের কষ্ট করতে হয়। আর রশিদ খান ভালো করে জানেন যে এই সংস্করণে কতটা এগিয়ে তারা। আফগান অধিনায়ক মনে করেন, নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারলে বিশ্বের যে কোনো দলকে হারাতে পারে তার দল।
  • ‘এক হাত না থাকলেও দেশের জন্য খেলবে আফগানরা’
    আগের ম্যাচে পাওয়া চোট থেকে পুরোপুরি সেরে ওঠেননি এখনও। ফাইনালে তার মাঠে নামা নিয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণাও আসেনি। তবে নিজের ভাবনাটা জানিয়ে রাখলেন রশিদ খান। ১০ ভাগ ফিট হলেও খেলবেন। দেশের জন্য যে কোনো অবস্থায়ই নাকি মাঠে নামতে প্রস্তুত আফগানরা!
  • আফগানদের সহজাত প্রতিভায় উচ্ছ্বসিত রশিদ
    একের পর এক প্রতিভা উঠে আসছে আফগানিস্তান ক্রিকেটে। রহস্য বোলারের ছড়াছড়ি দলে। কমতি নেই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যানের। যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটিতে মাঠের ঘাটতির পাশাপাশি সুযোগ-সুবিধার কমতি থাকতে পারে, কিন্তু প্রতিভার কোনো কমতি নেই। অধিনায়ক রশিদ খান মনে করেন, ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসার জন্যই দেশটিতে দেখা মিলছে এতো সহজাত প্রতিভার।
  • ‘রশিদ-মুজিবকে খেলায় রাতারাতি উন্নতি সম্ভব নয়’
    মানসম্পন্ন স্পিনের বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা অনেক দিনের। সহসাই এখান থেকে উন্নতি সম্ভব নয়। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো মনে করেন, রশিদ খান, মুজিব উর রহমান মানের স্পিনারদের খেলার পথ বের করতে অনেক সময় ব্যয় করতে হবে তাদের।
  • একই দামে ফাইনালের টিকেট
    ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঢাকার প্রাথমিক পর্বে যে দামে পাওয়া গিয়েছিল টিকেট সেই দামেই পাওয়া যাবে ফাইনালের টিকেট।
  • বাংলাদেশের ‘বড় জয়’
    টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের থেকে তিন ধাপ ওপরে আফগানিস্তান। মাঠের ক্রিকেটে ব্যবধান হয়ে উঠছিল যেন আরও বেশি। পাত্তাই পাচ্ছিল না বাংলাদেশ। অবশেষে সাকিব আল হাসানের দারুণ এক ইনিংসে জয় এসেছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। বাংলাদেশ অধিনায়ক নিজেই এটিকে বলছেন বড় জয়।
  • সাকিব জানতেন, বড় ইনিংস আসছে
    বোলিংটা হচ্ছিল ভালোই। কিন্তু ব্যাট হাতে দেখা যাচ্ছিল না সাকিব আল হাসানের চেনা চেহারা। বাংলাদেশ অধিনায়ক অবশ্য জানতেন, হারিয়ে ফেলেননি নিজেকে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ জেতানো ইনিংসের পর বললেন, অপেক্ষায় ছিলেন এমন ইনিংসের।
  • সাকিবের দুর্দান্ত ইনিংসে কাটল আফগান গেরো
    বরাবরের মতোই নির্লিপ্ত দেখাল সাকিব আল হাসানকে। জয়ের পর দেখা গেল না বিন্দুমাত্র উচ্ছ্বাস। তবে প্রতিক্রিয়া যেমনই হোক, ভেতরটা স্বস্তিতে ভরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ অধিনায়কের। অবশেষে আফগান-ধাঁধা মেলাতে পারল বাংলাদেশ। সতীর্থ ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার মিছিলে অধিনায়কের ব্যাটেই খুলল জট।
  • সাকিব মাস্টারক্লাসে ভাঙল হারের বৃত্ত
    ঘুরে দাঁড়িয়ে বোলাররা লক্ষ্যটা রেখেছিলেন হাতের নাগালে। দুই ওপেনারের দ্রুত বিদায়ের পর দলকে কক্ষপথে ফেরান সাকিব আল হাসান। ফ্লাড লাইট বিভ্রাটের পর টানা তিন ওভারে উইকেট হারিয়ে কঠিন হয়ে পড়েছিল সমীকরণ। তবে অধিনায়কের অসাধারণ ইনিংসে জয়ের হাসিতে মাঠ ছেড়েছে বাংলাদেশ।
  • ‘মুধারা’ মাসাকাদজার অশ্রুসিক্ত সকাল, আনন্দময় রাত
    আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের শেষ দিন! শেষবার যখন টিম মিটিংয়ে কথা বলতে গেলেন, গলা ধরে এসেছিল হ্যামিল্টন মাসাকাদজার। চোখ ছিল অশ্রুসিক্ত। তবে রাতে বিদায়ের মুহূর্তটিতে ছিল আবেগের ভিন্ন আরেক রূপ। দুর্দান্ত ইনিংসে দলকে এগিয়ে নিয়েছেন জয়ের পথে। সতীর্থরা ভালোবেসে তাকে ডাকেন ‘মুধারা’। শেষ ম্যাচে দলকে জয় উপহার দিয়ে মুধারা ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন চওড়া হাসিতে।
  • মাসাকাদজাকে বিসিবির সম্মাননা
    অধিনায়ক হিসেবে পুরষ্কার বিতরণী মঞ্চে একবার এগিয়ে যেতেই হতো। তবে তার আগেই আরেকবার ডাক পড়ল হ্যামিল্টন মাসাকাদজার। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে সুদীর্ঘ আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানা ব্যাটসম্যানকে বিদায় বেলায় বিশেষ সম্মাননা জানিয়েছে বিসিবি।
  • ‘জয়ের অভ্যাস’ নিয়ে ফাইনাল খেলতে চায় বাংলাদেশ
    একদিন বিশ্রামের পর আবার ব্যাট-বলের লড়াই। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুক্রবার সকালে ঘাম ঝরিয়েছে বাংলাদেশ দল। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের লাইন-আপ ঠিক হয়ে গেছে আগেই। তবে প্রাথমিক পর্বের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে আপাত গুরুত্বহীন ম্যাচটিকেও বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ। লক্ষ্য আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙা আর জয়ের ধারায় থেকে ফাইনালে মাঠে নামা।
  • বাংলাদেশের মূল চ্যালেঞ্জ আফগানিস্তান
    জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি জয় নিশ্চিত করেছে ফাইনাল। কিন্তু ত্রিদেশীয় সিরিজে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের চাওয়া-পাওয়ার হিসাব মিলেছে সামান্যই। অনেক হিসাব চুকানোর বাকি আফগানিস্তানের বিপক্ষে। ফাইনাল তো বটেই, এমনকি প্রাথমিক পর্বে আফগানদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটিও গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশের জন্য।
  • আমিনুলের লেগ স্পিনে আশার ঝিলিক
    এলেন, দেখলেন, জয় করলেন! শুধু খেলাধূলায় নয়, জীবনের বহু ক্ষেত্রে বহু জনের প্রসঙ্গে কথাটি ব্যবহৃত হয়েছে অসংখ্যবার। তারপরও যুগ যুগ ধরে এটিই কোনো বিস্ময় ছড়ানো নবীনের স্তুতিতে আদর্শ জয়গান। আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের ক্ষেত্রেও বলা যায় একই কথা। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে তার জায়গা পাওয়া ছিল চমক জাগানিয়া। সেই চমক আমিনুল ধরে রাখলেন পারফরম্যান্সেও। অভিষেক হলো লেগ স্পিনের আলো ছড়িয়ে।
  • ‘আমরা কেউ গেইল বা রাসেল নই’
    শুরুটা হলো দুর্দান্ত। সাময়িক ঝটকা কাটিয়ে মাঝেও গতিময় ইনিংসের পথচলা। কিন্তু শেষে গিয়ে সেই পুরোনো মন্থরতা। দলের মোটামুটি ভালো স্কোরের ম্যাচেও আক্ষেপ থেকে গেল ইনিংসের শেষটা প্রত্যাশিত না হওয়ায়। যার ইনিংস ছিল দলের ইনিংসের মেরুদণ্ড, সেই মাহমুদউল্লাহ ম্যাচ শেষে তুলে ধরলেন বাস্তবতা। বাংলাদেশে তো ক্যারিবিয়ানদের মতো পেশি শক্তির ব্যাটসম্যান নেই!
  • মাহমুদউল্লাহর কাছে ফিফটি ‘ম্যাটার করে না’
    দুই ফিফটির মাঝে দুই ডজন ইনিংসের বিরতি। তার মানের একজনের জন্য বেশ দীর্ঘ খরাই বটে। তবে পরিসংখ্যানের এই ছবিতে মোটেও অস্বস্তি নেই মাহমুদউল্লাহর। কার্যকর ইনিংস তিনি এই সময়েও বেশ কটি খেলেছেন। তার তৃপ্তির জায়গা সেখানেই, দলের জয়ে অবদান রাখা। নিজের রান তাতে যতোই কম হোক বা বেশি।
  • সাকিবের আক্ষেপ কেবল শেষের ব্যাটিং নিয়ে
    ম্যাচ জুড়ে ভালো হয়েছে বোলিং। ফিল্ডিং হয়েছে দুর্দান্ত। ব্যাটিংয়ে শুরুটা ছিল উড়ন্ত। কেবল শেষটা নিয়ে একটু আক্ষেপ আছে সাকিব আল হাসানের। ব্যাটিংয়ের শেষটা ছাড়া প্রায় নিখুঁত একটা ম্যাচ খেলে ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ।
  • অনায়াস জয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ
    জয় ছিল খুবই প্রত্যাশিত। আত্মবিশ্বাস ফেরানোর রেসিপিতে ছিল দাপুটে কোনো জয়। অবশেষে সেই দাপটের কিছুটা দেখা গেল বাংলাদেশের পারফরম্যান্সে। চাওয়া আর পাওয়া পুরোপুরি এক বিন্দুতে না মিললেও সমান্তরাল রেখায় এগিয়ে গেল জয়ের ঠিকানায়। অনায়াস জয়ে নিশ্চিত হলো ফাইনালে খেলা।
  • ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাহমুদউল্লাহর রেকর্ড
    আগের ম্যাচেও রান করেছিলেন। তবে সেই ইনিংসে টি-টোয়েন্টির মেজাজ কিংবা কার্যকারিতা ছিল না ততটা। এবার ঝড়ো ইনিংস খেললেন মাহমুদউল্লাহ। যে ইনিংসে গড়েছেন একটি রেকর্ড, ছুঁয়েছেন আরেকটি।
  • অভিষেকও হয়ে গেল আমিনুলের
    কিছুদিন আগেও জাতীয় দলের ধারেকাছে ছিলেন না আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। ক্যারিয়ারে নাটকীয় পালাবদলে সেই আমিনুল পেলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ। চমক হিসেবে ত্রিদেশীয় সিরিজের বাংলাদেশ দলে আসা লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার টি-টোয়েন্টি ক্যাপও পেয়ে গেলেন দ্রুতই।
  • জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ
    মাহমুদউল্লাহর দারুণ ফিফটিতে লড়াইয়ের পুঁজি পাওয়া বাংলাদেশ দাঁড়াতেই দেয়নি জিম্বাবুয়েকে। সম্মিলিত চেষ্টায় হ্যামিল্টন মাসাকাদজার দলকে গুঁড়িয়ে দিয়ে দলকে ফাইনালে নিয়ে গেলেন স্বাগতিক বোলাররা। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে সাকিব আল হাসানের দল জিতেছে ৩৯ রানে।
  • ‘সাকিব-মুশফিকদের ফেরানোর পথ বাউন্ডারি আটকানো’
    বাঁহাতি স্পিনারদের দেশ বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বাঁহাতি স্পিনে আটকানো কঠিন। তবে একটি পথ জানা আছে শন উইলিয়ামসের। বাউন্ডারি আটকানো। বাংলাদেশের শীর্ষ ব্যাটসম্যানদের বাউন্ডারি মারতে না দিলেই তারা তেড়েফুঁড়ে খেলতে গিয়ে নিজের বিপদ ডেকে আনবে, বিশ্বাস জিম্বাবুয়ের এই সিনিয়র ক্রিকেটারের।
  • ফাইনালের ছবি আঁকছে জিম্বাবুয়ে
    প্রথম দুই ম্যাচে জয়ের দেখা মেলেনি। পরের ম্যাচটি হারলেই নিশ্চিত হয়ে যাবে বিদায়। তবু বিশ্বাস বা সাহস, কোনোটিরই কমতি নেই জিম্বাবুয়ের। অভিজ্ঞ ক্রিকেটার শন উইলিয়ামস জানালেন, ফাইনালে ওঠার বিশ্বাস নিয়েই সামনের ম্যাচগুলোয় মাঠে নামবে দল।
  • চাপে থাকা বাংলাদেশকে চেপে ধরতে চায় জিম্বাবুয়ে
    মাঠের বাইরের নানা ঘটনায় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের অবস্থা জেরবার। সেই তারাও সুযোগ নিতে চাইছে বাংলাদেশের বিপর্যস্ত অবস্থার। মাঠের ক্রিকেটে বাংলাদেশের চলছে দুঃসময়। চাপে থাকা দলকে হারিয়ে তাই টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে চায় জিম্বাবুয়ে।
  • টি-টোয়েন্টি দলে নতুন চমক নাঈম শেখ ও আমিনুল
    আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ হারার পর পরিবর্তনের ছড়াছড়ি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশ দলে। চট্টগ্রাম পর্বের দুই ম্যাচের জন্য দলে নেওয়া হয়েছে মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে। প্রথমবার টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত।
  • এভাবে অবসরে যাওয়া অবশ্যই হতাশার: মাসাকাদজা
    তার আবির্ভাব ছিল ক্রিকেট বিশ্বে সাড়া জাগিয়ে। ২০০১ সালে টেস্ট অভিষেকেই রেকর্ড গড়েছিলেন সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করে। জিম্বাবুয়ের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ ব্যাটসম্যান হিসেবে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন তার আগেই। তবে শুরুর সেই প্রতিশ্রুতির পূর্ণতা দিতে পারেননি সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটও হেঁটেছে কেবল পেছন পানে। বিরুদ্ধ সেই সময়ের সঙ্গে দেড় যুগের বেশি লড়াই করে অবশেষে থামার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা।
  • ‘আফগানিস্তানের সঙ্গে জিততে বাংলাদেশের কষ্ট হয়’
    একমাত্র টেস্টের পর টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের প্রথম লড়াইয়েও হার। পেছনে আছে সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশড হওয়ার স্মৃতি। আফগানিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের এই পারফরম্যান্স যা বলছে, সেটিকেই বাস্তবতা মনে করেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে, টি-টোয়েন্টিতে তাদের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে আফগানরা।
  • যে কারণে ওপেনিংয়ে মুশফিক
    চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য। শুরুটা তাই ভালো হওয়া ছিল জরুরি। সেই ভাবনাতেই বাংলাদেশের ইনিংসের শুরুতে দেখা গেল চমক। লিটন দাসের সঙ্গে ইনিংস শুরু করতে এলেন মুশফিকুর রহিম। পরিবর্তনটা অবশ্য শেষ পর্যন্ত ফলপ্রসূ হয়নি। মুশফিক ভালো করতে পারেননি। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ব্যাখ্যা করলেন এই পরিবর্তনের কারণ।
  • আত্মবিশ্বাস তলানিতে, পরিষ্কার নয় মানসিকতা: সাকিব
    ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিতেছে বাংলাদেশ, হেরেছে দ্বিতীয়টিতে। তবে একটি জায়গায় দুই ম্যাচের চিত্র ছিল একই। টপ অর্ডার ব্যর্থ হয়েছে পুরোপুরি। অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের মতে, ব্যাটসম্যানের আত্মবিশ্বাস আর মানসিকতা, ঘাটতি আছে দুই জায়গাতেই।
  • টানা এক ডজন জয়ে আফগানিস্তানের বিশ্বরেকর্ড
    টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আফগানিস্তান বেশ কিছুদিন ধরে শীর্ষ দলগুলির জন্যও সমীহ জাগানিয়া শক্তি। এবার রেকর্ড বইয়ের একটি জায়গায় তারা ছাড়িয়ে গেল সব দলকেই। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে টানা সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জয়ের বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে আফগানিস্তান। টানা ১২ ম্যাচ!
  • বাজে বোলিং, ফিল্ডিংকে দুষলেন সাকিব
    আফগানিস্তান ম্যাচে একের পর এক ভুল করে গেছে বাংলাদেশ। তাইজুল ইসলামের ‘নো’ বলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পড়েনি উইকেট। অতিরিক্ত থেকে এসেছে ১৮ রান। শেষ ১০ ওভারে বাজে বোলিংয়ে হজম করতে হয়েছে ১০৪ রান। এই বিষয়গুলো পার্থক্য গড়ে দিয়েছে বলে মনে করেন সাকিব আল হাসান।
  • আফগানদের কাছে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ
    র‍্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের যে ব্যবধান, মাঠের ক্রিকেটও তা বুঝিয়ে দিল পুরোপুরি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আফগানদের শক্তিমত্তা আর বাংলাদেশের দৈন্য ফুটে উঠল স্পষ্ট হয়ে। ম্যাচের প্রথম ৬ ওভারেই যা একটু উজ্জীবিত পারফরম্যান্স দেখাল বাংলাদেশ। বাকি সময়টায় আর পাত্তাই পেল না। মোহাম্মদ নবির দুর্দান্ত ইনিংস আর মুজিব-উর-রহমানের দারুণ বোলিংয়ে আফগানরা পেল সহজ জয়।
  • ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশের হার
    মোহাম্মদ নবির ঝড়ো ইনিংসের পরও লক্ষ্যটা নাগালেই ছিল। তবে মুজিব উর রহমানের দারুণ বোলিং আর ব্যাটসম্যানদের বাজে ব্যাটিংয়ের জন্য পেরে উঠলো না বাংলাদেশ। ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২৫ রানে হারল সাকিব আল হাসানের দল।
  • শিষ্যদের উল্টাপাল্টা শটে ভয় ব্যাটিং কোচের
    ক্রিকেটীয় শট খেলে শিষ্যরা আউট হলে উদ্বেগের কিছু দেখেন না বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি। তবে ভাবনায় পড়েন চাপ মুক্ত হওয়ার চেষ্টায় কেউ উল্টাপাল্টা খেলে আউট হলে। 
  • সৌম্য-লিটনের পাশে থাকার তাগিদ ব্যাটিং কোচের
    শিষ্যদের ধারাবাহিকতার অভাব আছে মানছেন নিল ম্যাকেঞ্জি। তবে সৌম্য সরকার, লিটন দাসের মতো তরুণদের সামর্থ্য নিয়ে কোনো সংশয় নেই ব্যাটিং কোচের। সবাইকে তাগিদ দিলেন দুই তরুণ ব্যাটসম্যানের পাশে থাকার।
  • আফগানিস্তান ম্যাচের দলে আবু হায়দার
    জয় দিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করা বাংলাদেশ আফগানিস্তান ম্যাচের আগে বোলিংয়ে শক্তি বাড়িয়েছে। দলে ফেরানো হয়েছে বাঁহাতি পেসার আবু হায়দারকে।
  • বাংলাদেশের শত্রু বাংলাদেশই!
    বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের যা প্রতিভা ও সামর্থ্য, তাতে প্রতিটি ম্যাচই জয়ের সুযোগ আছে বলে মনে করেন নিল ম্যাকেঞ্জি। তবে বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচের মতে, এখানে নিজেদের কাজটা কঠিন করে তোলা হয় নিজেদের দিয়েই। তার মতে, সব পক্ষ মিলেই বিশ্বাস জোগানো উচিত ক্রিকেটারদের।
  • উদযাপনই করতে পারলেন না আফিফ
    ক্যারিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক ফিফটি, সেটিও দলে ফেরার ম্যাচে। দলের জয়ও তখন প্রায় নিশ্চিত। ২০ বছর ছুঁইছুঁই এক তরুণের উচ্ছ্বসিত হওয়ার জন্য যথেষ্ট। অথচ উইকেটে আফিফ হোসেনের তেমন কোনো প্রতিক্রিয়াই দেখা গেল না পঞ্চাশ ছুঁয়ে!
  • স্বাধীনতা পেয়েই প্রস্ফুটিত আফিফ
    সংবাদ সম্মেলনের প্রায় শেষ দিকে একজন বললেন, “ম্যাচ জিতিয়ে এসেও আপনার মুখে হাসি নেই!” পুরো সময়টাই নির্লিপ্ত কণ্ঠে এক-দুই লাইনে উত্তর দিচ্ছিলেন আফিফ হোসেন। এই কথা শুনে একটু হাসলেন। পরক্ষণেই আবার ফিরলেন আপন রূপে! আফিফ পছন্দ করেন নিজের মতো থাকতে। ভালোবাসেন নিজের মতো খেলতেও। এবার টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে পেয়েছেন সেই স্বাধীনতা। জাতীয় দলে ফেরার ম্যাচেই তাই উদ্ভাসিত তরুণ এই অলরাউন্ডার।
  • সহজ জয়ের চেয়ে এই জয় বেশি আত্মবিশ্বাস দেবে: সাকিব
    সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে ছয় ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ। সুসময় ফেরাতে একটা জয়ের জন্য উন্মুখ হয়ে ছিলেন সাকিব আল হাসান। অধিনায়ক মনে করছেন, সহজ জয়ের চেয়ে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে পাওয়া জয়ই দলকে বেশি আত্মবিশ্বাস যোগাবে। 
  • আফিফ-মোসাদ্দেক এনে দিলেন স্বস্তির জয়
    চোখরাঙানি তখন পরাজয়ের। অপেক্ষা আরেকটি হতাশাময় সমাপ্তির। হাওয়া বুঝে গ্যালারি ছেড়ে গেছেন দর্শকদের অনেকে। মোসাদ্দেক হোসেনের সঙ্গে আফিফ হোসেনের জুটির শুরু সেখান থেকেই। ঝড়ো ফিফটিতে জাতীয় দলে ফেরা রাঙালেন আফিফ। মোসাদ্দেক থাকলেন শেষ পর্যন্ত। দুঃসময়ের চক্রে থাকা বাংলাদেশকে স্বস্তির জয় এনে দিল দুজনের দারুণ জুটি।
  • খেলা চলার সময় হঠাৎ অন্ধকার শের-ই-বাংলা
    জিম্বাবুয়ের ইনিংসের সেটি শেষ ওভার। বোলিং করতে প্রস্তুত মুস্তাফিজুর রহমান। হঠাৎই অন্ধকার চারপাশ। নিভে গেল মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের সব ফ্লাডলাইট। বন্ধ হলো খেলা।
  • টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে প্রথম বলেই তাইজুলের উইকেট
    আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হতে অনেকটা সময় লেগে গেল তাইজুল ইসলামের। তবে সাফল্য পেতে সময় লাগল না একটুও। ক্যারিয়ারের প্রথম বলেই নিলেন উইকেট! টি-টোয়েন্টিতে নিজের প্রথম বলেই উইকেট নেওয়ার কীর্তি আগে ছিল না বাংলাদেশের আর কারও।
  • আফিফ-মোসাদ্দেকের ব্যাটে বাংলাদেশের রোমাঞ্চকর জয়
    আট নম্বরে নেমে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিলেন আফিফ হোসেন। বোলিংয়ে ভালো করার পর ব্যাটিংয়েও অবদান রাখলেন মোসাদ্দেক হোসেন। দুই তরুণের দৃঢ়তায় রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে জিম্বাবুয়েকে ৩ উইকেটে হারিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে শুভ সূচনা করেছে বাংলাদেশ।
  • এখনও বোঝার চেষ্টা করছেন ডমিঙ্গো
    নামের পাশ থেকে নতুনের রেশ মুছে যায়নি এখনও। নতুন পরিবেশে, নতুন দায়িত্বে সবকিছু বুঝে ওঠার চেষ্টা করছেন রাসেল ডমিঙ্গো। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টের আগে বাংলাদেশ কোচ বলেছিলেন, আপাতত তিনি থাকছেন পর্যেবক্ষকের ভূমিকায়। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগেও নতুন কোচ বললেন, তিনি এখনও চেষ্টা করছেন সবকিছু বুঝে উঠতে।
  • বিশ্বকাপে চোখ রেখে ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশ
    আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট হারের রেশ রয়েছে এখনও। কথা প্রসঙ্গে রাসেল ডমিঙ্গো বলছিলেন বাংলাদেশের টেস্ট রেকর্ডের করুণ অবস্থার কথা। তাকে মনে করিয়ে দেওয়া হলো, বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি রেকর্ডও খুব সুবিধের নয়! কোচের মুখে খেলে গেল শুকনো হাসি। বাস্তবতা মেনে নিয়ে বললেন, বিশ্বকাপকে সামনে রেখে টি-টোয়েন্টি দলও গুছিয়ে নিতে হবে। যেটির শুরু এই ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্ট দিয়ে।
  • টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে নজর ডমিঙ্গোর
    ওয়ানডে ক্রিকেট বেশি খেলে বেড়ে ওঠায় এই সংস্করণের অলিগলি বেশ চেনা বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে তারা যতটা সাবলীল ততটাই নড়বড়ে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে। তাই এই দুই সংস্করণে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
  • বাংলাদেশ ও টি-টোয়েন্টি বলেই আশায় জিম্বাবুয়ে
    আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে টালমাটাল অবস্থা। নানা বিতর্কে জেরবার দল। টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান ফুটিয়ে তুলছে পারফরম্যান্সের চিত্র। সবকিছু মিলিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে আশার জায়গা খুব বেশি থাকার কথা নয় দলটির। অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজার তবু আত্মবিশ্বাসের কমতি নেই। কারণ, খেলা বাংলাদেশে আর সংস্করণ টি-টোয়েন্টি!
  • টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের টিকেট ১০০ টাকায়
    ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের প্রাথমিক পর্বে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের ম্যাচগুলোর টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ১০০ টাকা। শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া টুর্নামেন্টের টিকেট বিক্রি শুরু বৃহস্পতিবার থেকে।
  • প্রথম ইনিংসের ছক্কায় তালি, পরের ইনিংসে আউটে গালি: মোসাদ্দেক
    চেষ্টা ছিল একইরকম কিছুর। ফল হয়েছে দুই রকম। প্রতিক্রিয়াও তাই ভিন্ন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে মোসাদ্দেক হোসেন পেয়েছেন মিশ্র স্বাদ। দুটির সমন্বয় ভাবনায় তল পাচ্ছেন না এই অলরাউন্ডার। বুঝে উঠতে পারছেন না এগোবার পথ।
  • প্রস্তুতি ম্যাচে মুশফিক চমক
    চট্টগ্রাম টেস্ট খুব একটা ভালো কাটেনি মুশফিকুর রহিমের। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেকে মেলে ধরতে উন্মুখ এই কিপার-ব্যাটসম্যান। বিসিবি একাদশে না থাকলেও ভালো প্রস্তুতির জন্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলছেন প্রস্তুতি ম্যাচে।  
  • এখন টি-টোয়েন্টিতে তাকিয়ে সাকিব
    নানা রোগে ভুগে কাহিল দেশের ক্রিকেটের ‘দাওয়াই’ ভাবা হচ্ছিল আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টকে। ম্যাচ শুরুর আগের দিন সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, এই টেস্ট জিতলে দেশের ক্রিকেটের সবকিছু স্বাভাবিক হতে শুরু করবে বলে তার বিশ্বাস। কিন্তু সেই দাওয়াই নিতে গিয়ে উল্টো প্রকট হয়েছে রোগ। অধিনায়কের অপেক্ষা এখন ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য। এই টুর্নামেন্ট দিয়ে যদি চিত্র বদলানো যায়!
  • বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে চমক ইয়াসিন আরাফাত
    টেস্ট সিরিজে আফগানিস্তানের কাছে পরাজয়ের রাতেই এলো টি-টোয়েন্টি দলের ঘোষণা। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচের বাংলাদেশ দলে সুযোগ পেয়েছেন তরুণ পেসার ইয়াসিন আরাফাত। আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে দলে আনা হয়েছে অনেক পরিবর্তন।
  • প্রতিটি ম্যাচই সাব্বিরের কাছে শেষ সুযোগ
    সাড়ে চার বছরের ওয়ানডে ক্যারিয়ার। কিন্তু বাংলাদেশ দলে সাব্বির রহমানের আত্মপরিচয়ের সংকট এখনও প্রকট। ঝলক মাঝেমধ্যেই দেখিয়েছেন, তবে ধারাবাহিকতার আলোয় জায়গা পাকা করতে পারেননি। সেই বাস্তবতা জানেন নিজেও। প্রতিটি ম্যাচই তাই খেলতে নামেন নিজের শেষ সুযোগ হিসেবে।
  • হারানোর ভয়কে হারিয়ে স্বরূপে সৌম্য
    তার ব্যাটিংয়ের মূল মন্ত্র, ভয়ডরহীন মানসিকতা। কিন্তু এই মন্ত্রেই আস্থা হারিয়ে ফেলেছিলেন। মনে ঢুকেছিল সংশয়ের ঘুণপোকা। হারিয়ে খুঁজছিলেন নিজেকে। এবার দেশ ছাড়ার আগে ঠিক করেছিলেন, এই ভয়কে জয় করবেন। ত্রিদেশীয় সিরিজে রান করার চেয়েও সৌম্য সরকারের বড় তৃপ্তি, নিজের সঙ্গে সেই লড়াইয়ে জয়।
  • প্রথম ট্রফি জয়ের উদযাপন যেমন হলো
    উইকেটে দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানের উদযাপনে ছিল না চোখে পড়ার মতো উচ্ছ্বাস। সীমানার বাইরে থেকে কেউ ছুটে যায়নি মাঠে। ড্রেসিং রুমের সামনে অপেক্ষমান ক্রিকেটারদের উচ্ছ্বাস অবশ্য যথেষ্টই প্রাণবন্ত ছিল। তবে ছিল না বাঁধনহারা আনন্দ। পরে ড্রেসিং রুমে বা টিম হোটেলেও ছিল না তেমন কোনো আয়োজন। বহু আরাধ্য ট্রফির ছোঁয়া পেয়েও খুশিতে ভেসে যায়নি বাংলাদেশ দল।
  • স্কোর সমান হওয়ার আগে নিশ্চিত হইনি: মাশরাফি
    পুরস্কার বিতরণী মঞ্চ থেকে ট্রফি নিয়েই এক ছুট! মাশরাফি বিন মুর্তজার হাসিই বলে দিচ্ছিল কত আরাধ্য সেই ট্রফি। মাঠে অবশ্য খুব বেশি সময় থাকতে পারেননি। চার দিনের ছুটিতে দেশে ফিরছেন, ছিল ফ্লাইট ধরার তাড়া। মাঠ থেকেই ছুটতে হয়েছে বিমানবন্দরে। তবে বিমানে ওঠার আগে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ট্রফি জয়ী অধিনায়ক কথা বললেন এই সাফল্য, অতীতের হতাশা আর সামনের বিশ্বকাপের চ্যালেঞ্জ নিয়ে।
  • দেশের পথে মাশরাফি, লেস্টারের পথে মুশফিকরা
    বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচ শেষ হয়েছে নির্ধারিত সময়ের বেশ পরে। পুরস্কার বিতরণী ও ফটো সেশন শেষেই শুরু হলো মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবালদের ছুটোছুটি। ফ্লাইট ধরার তাড়া! তাদের সঙ্গী আরও চার ক্রিকেটার। দলের অন্যদের তাড়া ছিল হোটেলে ফেরার। রাতে না হলেও তাদের ফ্লাইট শনিবার। গোছগাছের তাড়া ছিল তাদেরও।
  • ‘বিশ্বকাপের জন্যও আত্মবিশ্বাস পেয়েছে বাংলাদেশ’
    দল জিতেছে প্রথম আন্তর্জাতিক ট্রফি। মোসাদ্দেক হোসেন জিতেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম ম্যাচ সেরা পুরস্কার। বিশ্বকাপের আগে শেষ আসরে আর কী চাওয়ার থাকতে পারে! নিজে যেমন, তেমনি দলও দারুণ আত্মবিশ্বাস নিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব আসরের মহা লড়াইয়ে, বলছেন মোসাদ্দেক।
  • মাশরাফি ভাই বলেছিলেন, তুই পারবি: মোসাদ্দেক
    মুশফিকুর রহিমের পর যখন মোহাম্মদ মিঠুনও আউট হলেন, ড্রেসিং রুমে অনেকের মাথা নুইয়ে এসেছিল হতাশায়। মাশরাফি বিন মুর্তজা উঠে দাঁড়ালেন চকিতে। নতুন ব্যাটসম্যান মোসাদ্দেক হোসেনের কাছে গিয়ে চাপড়ে দিলেন পিঠ। বললেন দুটি কথা। ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের জয়ের নায়ক মোসাদ্দেকের মনে পড়ছে অধিনায়কের সেই কথা।
  • রোমাঞ্চকর জয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস
    মাহমুদউল্লাহর শটে বল ছুটল বাউন্ডারিতে। ধরা দিল জয়। আরেক প্রান্তে মোসাদ্দেক হোসেন উঁচিয়ে ধরলেন দুহাত। ড্রেসিং রুমের সামনে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মেতে উঠলেন উল্লাসে। গ্যালারিতে শখানেক বাংলাদেশি দর্শকের গগনবিদারী আনন্দ চিৎকার। উৎসবের এই আবহে মিলিয়ে গেল অতীতের বেদনাগুলো। অবসান হলো বাংলাদেশের ক্রিকেটের দীর্ঘ যন্ত্রণাময় অপেক্ষার। অবশেষে ধরা দিল আন্তর্জাতিক ট্রফি!
  • সাকিবকে ছাড়াই ট্রফির লড়াইয়ে বাংলাদেশ
    ডাবলিনের মালাহাইডে যখন গা গরম করছে বাংলাদেশ দল, সাকিব আল হাসান তখন এক পাশে দাঁড়িয়ে অতিরিক্ত ক্রিকেটারদের সঙ্গে। চিত্র অনেকটা পরিষ্কার হয়ে উঠে তাতেই। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এলো টসের সময়। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানালেন, দলের সেরা ক্রিকেটারকে ছাড়াই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ফাইনালে খেলতে নামছে বাংলাদেশ।
  • সৌম্য-মোসাদ্দেক ঝড়ে স্বপ্নের শিরোপা
    লক্ষ্যটা ছিল কঠিন। তবে ঝড় তুলে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার। দুইবার কাছাকাছি সময়ে জোড়া উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সমীকরণ হয়ে গিয়েছিল কঠিন। বিধ্বংসী ইনিংসে সেই সমীকরণ মেলালেন মোসাদ্দেক হোসেন। কাটালেন ফাইনালের গেরো। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম শিরোপা জিতল বাংলাদেশ।
  • ফাইনালের আগে দলের আলোচনায় নেই ‘ফাইনাল’
    ফাইনালের আগের দিন সকালে দলের অনুশীলন ছিল ঐচ্ছিক। দুপুরে ছিল টিম মিটিং, সেটিও শেষ কেবল ১৫ মিনিটেই। সেখানে আলোচনার ঝড় ছিল না, ফাইনাল নিয়ে পরিকল্পনার তোড়জোড় ছিল না। বরং ‘ফাইনাল ম্যাচ’ শব্দ যুগলকে এড়িয়ে যাওয়া হচ্ছে সযতনে। টিম ম্যানেজমেন্টের চাওয়া, ফাইনাল ম্যাচের ওজনে যেন এবার চাপা না পড়ে দল।
  • মাশরাফি-সাকিবদের ফোন করে ভরসা দিলেন প্রধানমন্ত্রী
    আরেকটি ফাইনাল, আরেকবার ট্রফির অপেক্ষা। আছে অধরা ট্রফি ছোঁয়ার তাড়না। তবে ডাবলিনে বাংলাদেশ দলকে ফোন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চ্যাম্পিয়ন হওয়াই শেষ কথা নয়, মন উজার করে খেলাই গুরুত্বপূর্ণ।
  • সাকিবকে না পেলেও বিশ্বাসে কমতি নেই মাশরাফির
    টিম মিটিং থেকে একসঙ্গেই বেরিয়ে এলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সাকিব আল হাসান। অপেক্ষমান সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়ার আগে সহ-অধিনায়কের সঙ্গে একটু কথা বলেও নিলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক। পরে মাশরাফি জানালেন, ফাইনালে সাকিবকে পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তার কথা। শোনালেন সাকিবকে না পেলেও জয়ের প্রত্যয়।
  • সাকিবের ওপরই সিদ্ধান্ত ছেড়েছে দল
    টিম হোটেলে সাকিব আল হাসানকে দেখা গেল বেশ ফুরফুরে। সকালে নাস্তার টেবিলে ছিলেন হাসিখুশি। দুপুরের দিকে খানিকটা সুইমিংও করে এলেন। সবকিছুতেই ছিল স্বস্তির আবহ। তবে আদতে অতটা স্বস্তিতে নেই তিনি বা দল। ফাইনাল খেলা যে নিশ্চিত নয় এখনও! শুক্রবার ফাইনালে এই অলরাউন্ডার খেলবেন কিনা, সেই সিদ্ধান্ত তার ওপরই ছেড়ে দিয়েছে দল।
  • বাংলাদেশকে হারাতে যেখানে উন্নতি চান হোল্ডার
    প্রাথমিক পর্বে দুই দলের লড়াই জমেনি একদমই। বাংলাদেশের কাছে দুই ম্যাচে পাত্তাই পায়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ফাইনালে তাহলে পাশার দান উল্টে দেওয়া সম্ভব কিভাবে? ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের মতে, ব্যাটিং আর ফিল্ডিংয়ে উন্নতি হলেই সম্ভব ফাইনালে জয়।
  • আরও অনেক পথ পাড়ি দিতে চান আবু জায়েদ
    ওয়ানডে ক্যারিয়ার শুরুর আগেই চেপে বসেছিল পাহাড় সমান চাপ। অভিষেকের পর সেই চাপ বাড়ল আরও। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দারুণ পারফরম্যান্সে মিলল চাপ মুক্তির স্বাদ। তাতে স্বস্তি পাচ্ছেন আবু জায়েদ। তবে জানেন, এই অনুভূতি কেবলই সাময়িক। পাড়ি দিতে হবে আরও অনেক পথ।
  • আপাতত পর্যবেক্ষণে থাকবেন সাকিব
    ব্যাটিংয়ের সময় ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়া সাকিব আল হাসানের চোট আপাতত গুরুতর কিছু নয় বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে এক দিন পর্যবেক্ষণের পর অবস্থা আরও ভালো বোঝা যাবে, জানালেন বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার মিনহাজুল আবেদীন।
  • নিজের কাজটুকু করে রাখলেন আবু জায়েদ
    আগের ম্যাচে দল চেয়েছিল পরখ করতে। সেটি হলো, কিন্তু মন ভরল না। দল চাইল বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকা পেসারে বিশ্বাস ফেরাতে। এবার দুইয়ে দুইয়ে মিলল চার। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডেতেই ৫ উইকেট নিয়ে আবু জায়েদ জানিয়ে দিলেন, বিশ্বকাপ দলে তিনি অপাংক্তেয় নয়।
  • ফাইনালের আগে বাংলাদেশের অনেক পাওয়ার জয়
    এমনিতে এই ম্যাচের মূল্য খুব একটা ছিল না। কিন্তু বিশ্বকাপের আগে কোনো ম্যাচই তো গুরুত্বহীন নয়! আগেই ফাইনালে পা রাখা বাংলাদেশের এজেন্ডা ছিল বেশ কিছু। চাওয়ার সঙ্গে পাওয়া মিলে গেছে অনেকটাই। পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়েছে। ধরা দিয়েছে জয়। পোক্ত হয়েছে বিশ্বাস। অপরাজেয় থেকেই ফাইনালের মঞ্চে নামছে বাংলাদেশ।
  • বড় রান তাড়ায় বাংলাদেশের অনায়াস জয়
    আবু জায়েদ চৌধুরী পাঁচ উইকেট নিলেও পল স্টার্লিংয়ের সেঞ্চুরিতে লড়াই করার মতো রান তুলেছিল আয়ারল্যান্ড। চ্যালেঞ্জিং রান তাড়ায় সামনে থেকে পথ দেখাল উদ্বোধনী জুটি। লিটন দাস ও তামিম ইকবাল করলেন ফিফটি। সাকিব আল হাসানও খেললেন পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস। টপ অর্ডারের দৃঢ়তায় অনায়াসেই জিতল বাংলাদেশ।
  • ফিল্ডিং ঠিক তো সাব্বিরের দুনিয়া ঠিক
    দল জিতলে ব্যাটিং না পেলেও খুশি। ব্যাটিং পেয়ে ব্যর্থ হলে মন খারাপ হয়, তবে অনেক কিছুই নিজের হাতে থাকে না অনেক সময়। বোলিং না পেলেও আপত্তি নেই। কিন্ত ফিল্ডিংয়ের সবকিছু তো নিজের হাতে। ফিল্ডিংটা ঠিক না হলে সাব্বির রহমানের কাছে দুনিয়ার সবকিছুই ওলট-পালট লাগে। ফিল্ডিং ভালো করতে চান সবসময়, সব ম্যাচে।
  • এভাবে ব্যাটিং না পেলেও খুশি সাব্বির
    অনুশীলনে নিজের সবটা ঢেলে দিচ্ছেন বলেই মনে হচ্ছে। ম্যাচের দিনও সকালে দলের গা গরমের আগে দেখা যায় নেটে নিজের মতো করে ব্যাটিং করতে। প্রস্তুতিতে কমতি রাখছেন না সাব্বির রহমান। কিন্তু ম্যাচে তো কিছু করে দেখানোর সুযোগই পাচ্ছেন না! তাতে অবশ্য সমস্যার কিছু দেখছেন না বাংলাদেশের এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান; দল জিতলেই তিনি খুশি।
  • মাশরাফির লড়াইটা বাতাসের সঙ্গেও
    প্রথম বল শর্ট। বাউন্ডারি। দ্বিতীয় বলও শর্ট। আবার চার। রান আপে যেন কোনোরকমে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন নিজের শরীর। লাইন-লেংথের ঠিক নেই। মাশরাফি বিন মুর্তজাই তো? ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে প্রথম দুই ওভারের বোলিংয়ে চেনাই যাচ্ছিল না তাকে। কন্ডিশন যদিও চেনা হতে শুরু করেছে, এরপরও বাংলাদেশের অধিনায়ককে এমন অচেনা করে তুলেছিল আসলে মালাহাইডের বাতাস।
  • সুযোগ পাচ্ছেন মোসাদ্দেক, লিটন ও রুবেল
    খানিকটা চোট, খানিকটা বিশ্রাম আর কিছুটা পরখ করে দেখার তাড়না, সব মিলিয়ে বাংলাদেশের একাদশে আসছে অন্তত তিনটি পরিবর্তন। ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রাথমিক পর্বের শেষ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সুযোগ পাচ্ছেন মোসাদ্দেক হোসেন, লিটন দাস ও রুবেল হোসেন।
  • ‘২০ বলে ৪০ রানের’ জন্য প্রস্তুত সাব্বির
    ম্যাচে সুযোগ এখনও সেভাবে মিলছে না ব্যাটিংয়ের। তবে সুযোগ আসবে, জানেন সাব্বির রহমান। তার কাছে দলের সুনির্দিষ্ট চাওয়া খুব ভালো করেই জানেন। প্রস্তুতিও নিচ্ছেন সেভাবে। আগে ব্যাট করে হোক বা পরে, ইনিংসের শেষ দিকে ঝড় তুলতে চান ব্যাট হাতে।
  • ফাইনাল নিয়ে ‘ফাইনাল’ কথা নেই মাশরাফির
    ‘ফাইনাল’ শব্দটি এখন অন্যরকম এক অনুরণন তোলে মাশরাফি বিন মুর্তজার মনে। এমনিতে যে কোনো আসরের ফাইনাল খেলা মানে যথেষ্টই বড় প্রাপ্তি। কিন্তু বারবার হৃদয় ভাঙার যন্ত্রণায় পুড়ে বাংলাদেশের জন্য ফাইনাল হয়ে আছে হাহাকারের প্রতিশব্দ। ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে তাই চূড়ান্ত কিছু বলতে চাইছেন না মাশরাফি।
  • সেই মালাহাইডেই আবার ম্যাচ সেরা মুস্তাফিজ
    ‘সবশেষ ম্যান অব দা ম্যাচ কোথায় হয়েছিলেন মনে পড়ে?’, প্রশ্ন শুনে থমকে দাঁড়ালেন মুস্তাফিজুর রহমান। মাত্রই আরেকটি ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতে এসেছেন। আগেরটা মনে করারে চেষ্টা করলেন। খানিকটা ভাবার পর মুখে ফুটে উঠল হাসি, “এই মাঠেই তো মনে হয়... আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে!”
  • ‘দেশের উইকেট হলে আগের মুস্তাফিজকেই পাওয়া যেত’
    মাত্র চার বছরের ক্যারিয়ার। তাতেই মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে প্রায়ই তুলনা ‘আগের মুস্তাফিজ, এখনকার মুস্তাফিজ।’ বেশিরভাগ সময়ই সেই তুলনায় মিশে থাকে হাহাকারের সুর। মুস্তাফিজ নিজে মনে করিয়ে দিলেন, বাস্তবতাই বদলে গেছে অনেক। তার বোলিং সম্পর্কে ধারণা জন্মেছে সব প্রতিপক্ষের। দেশের বাইরে ম্যাচও খেলতে হচ্ছে শুরুর তুলনায় বেশি।
  • ‘গরম’ আবহাওয়ায় মুস্তাফিজের গরম বোলিং
    “কী সুন্দর রোদ উঠিছে”, ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে যেতে যেতে বলছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। একটু দাঁড়িয়ে রোদ গায়ে মাখিয়েও নিলেন। সন্ধ্যা সাতটায়ও ডাবলিনে রোদের তেজ বেশ। টানা কিছুদিন শীতে জবুথবু হয়ে থাকার পর এই গরম বেশ উপভোগ করছেন বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসার। প্রথম আর দ্বিতীয় ম্যাচে তার বোলিংয়ে আকাশ-পাতাল পার্থক্যের অন্যতম কারণ নাকি আবহাওয়ার এই পার্থক্যই!
  • ধারাবাহিক মাশরাফি, দুর্দান্ত মুস্তাফিজ
    প্রথম ম্যাচের চেয়ে রান খরচ হলো একটু বেশি। তবে কার্যকারিতা একইরকম। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে মাশরাফি বিন মুর্তজা নিলেন ৩ উইকেট। মুস্তাফিজুর রহমানের চ্যালেঞ্জটা ছিল ফিরে আসার। আগের ম্যাচে ছিলেন ভীষণ বিবর্ণ। চ্যালেঞ্জটা দারুণভাবে জিতে এই বাঁহাতি পেসারই দলের উজ্জ্বলতম বোলার।
  • প্রত্যাশিত জয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ
    একটুও ব্যাট তোলা নয়, নেই উল্লাসের লেশ মাত্র। স্রেফ দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানের করমর্দনের আনুষ্ঠানিকতা। কে বলবে, এই জয়ে ফাইনালে উঠল দল! এতটাই অনায়াস, এতটাই প্রত্যাশিত ছিল বাংলাদেশের জয়। পাত্তা পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ, এক ম্যাচ বাকি রেখেই নিশ্চিত হয়ে গেল বাংলাদেশের ফাইনাল।
  • উইন্ডিজকে আবার হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ
    দারুণ বোলিংয়ে লক্ষ্যটা নাগালে রেখেছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান-মাশরাফি বিন মুর্তজারা। ভালো শুরুর পরও তিন বলের মধ্যে সাকিব আল হাসান ও সৌম্য সরকারকে হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। মোহাম্মদ মিঠুন ও মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে দলকে পথ দেখালেন মুশফিকুর রহিম। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে দলকে জিতিয়ে নিয়ে গেলেন ফাইনালে।
  • সাইফের চোট, অভিষেকের অপেক্ষায় আবু জায়েদ
    আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে আবু জায়েদকে পরখ করে দেখার উপায় খুঁজছিল বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। সুযোগটা এসে গেল অনেকটা অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে। চোটের কারণে সোমবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলতে পারছেন না মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। শেষ মূহুর্তে ভাবনার পরিবর্তন না হলে তার জায়গায় খেলবেন আবু জায়েদ।
  • বড় রানের চ্যালেঞ্জে তৈরি বাংলাদেশ
    শনিবার বাংলাদেশ দল ছুটি কাটাচ্ছে, মালাহাইডে তখন রান উৎসব করছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। বিশ্রামের ফাঁকে টিভি পর্দায় চোখ রেখেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের অনেকে। কেউ বা আবার অনুসরণ করেছেন ইন্টারনেটে। খানিকটা অবাক সবাই। মালাহাইডেও এত রান!
  • ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের আগে চনমনে বাংলাদেশ
    দু-একজনের গায়ে ট্র্যাক শ্যুট, পুলওভার আছে। বাকিদের সবাই অনুশীলনে নামলেন শুধু জার্সি গায়ে। ডাবলিনে রোববার চকচকে রোদ দিনজুড়েই। ঝকঝকে নীল আকাশে ভেসে বেড়াচ্ছে সাদা মেঘের ভেলা। রোদের উষ্ণতার পরশ নেওয়ার এই তো সুযোগ! ঠাণ্ডায় জবুথবু হয়ে থাকা বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা এ দিন দারুণ ফুরফুরে।
  • আমব্রিসের বীরত্বে উইন্ডিজের রেকর্ড গড়া জয়
    অ্যান্ডি বালবার্নির সেঞ্চুরি আর কেভিন ও’ব্রায়েনের ঝড়ো ফিফটিতে বড় সংগ্রহ গড়েছিল আয়ারল্যান্ড। তিনশ রানের লক্ষ্য তাড়ার অভিজ্ঞতা খুব বেশি না থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ গড়ল রেকর্ড। সুনিল আমব্রিসের বীরত্বে নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জিতে ক্যারিবিয়ানরা উঠে গেল ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে।
  • বড়দের বিশ্বকাপের বড় চ্যালেঞ্জে প্রস্তুত মিরাজ
    দুটি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দিয়েছেন দলকে। তার নেতৃত্বে যুব বিশ্বকাপে সেরা সাফল্যও পেয়েছে বাংলাদেশ। মেহেদী হাসান মিরাজ এবার খেলবেন মূল বিশ্বকাপে। বড়দের বিশ্বকাপে চ্যালেঞ্জও বড়, জানেন এই অলরাউন্ডার। প্রস্তুতি নিচ্ছেন সেভাবেই।
  • দলের জন্য বাইরে থাকতে আপত্তি নেই মিরাজের
    ওয়ানডে দলে আপাতত তিনি প্রথম পছন্দের দ্বিতীয় স্পিনার। কিন্তু দুই জন স্পিনার যখন লাগবে না? বাস্তবতা মেনে নিতে একটুও মন খারাপ করবেন না মেহেদী হাসান মিরাজ। বরাবরই দল অন্তঃপ্রাণ হিসেবে পরিচিতি তার। সেই পরিচয়কে উজ্জ্বল করেই বললেন, দলের জন্যই তো সবকিছু!
  • মৌলিকত্বের আশ্রয়েই থাকতে চান মিরাজ
    ক্যারম বল, টপ স্পিন, স্লাইডার, এমনকি লেগ স্পিন, রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বৈচিত্রময় বোলিং মুগ্ধ হয়ে দেখেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোয় দেখেন, আর কত স্পিনার কত কারিকুরি করছেন। মিরাজেরও ইচ্ছে করে চেষ্টা করতে। তবে সেই ইচ্ছেকে প্রশ্রয় দেন না। নিজের ভিত যে শক্ত নয় এখনও! আপাতত অফ স্পিনের মৌলিক দিকগুলোই আরও পোক্ত করতে চান তিনি, বৈচিত্রের অভিযানে ছুটবেন পরে।