• ‘৫টি ট্রিপল, আরও ১০টি ডাবল সেঞ্চুরির সামর্থ্য শচিনের ছিল’
    আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন অঙ্ক ছোঁয়ার কাজটা শচিন টেন্ডুলকারের চেয়ে ভালো কেউ পারেনি। কিন্তু শতরানকে আরও বড় করার জন্য যে ক্ষুধা, সেটা তার মাঝে যেন ততটা দেখেননি কপিল দেব। ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের বিশ্বাস, মুম্বাই ক্রিকেটের ঘরানায় আটকে না থাকলে টেন্ডুলকারের নামের পাশে থাকতে পারত পাঁচটি ট্রিপল সেঞ্চুরি ও আরও ১০টি ডাবল সেঞ্চুরি।
  • রিভিউয়ের নিয়মে বদল চান টেন্ডুলকার, যুক্তি পাচ্ছেন লারা
    বলের কত ভাগ অংশ স্টাম্পে লেগেছে, কত ভাগ লাগেনি, এই হিসাবের বালাই চান না শচিন টেন্ডুলকার। সর্বকালের সফলতম ব্যাটসম্যানের চাওয়া, এলবিডব্লিউয়ের ক্ষেত্রে রিভিউয়ে বল স্টাম্পে সামান্যতম লাগলেও যেন আউট দেওয়া হয় ব্যাটসম্যানকে। টেন্ডুলকারের এই দাবির পক্ষে যুক্তি দেখছেন আরেক কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা।
  • অভিষেকের সময় টেন্ডুলকারের যে পরামর্শ পেয়েছিলেন রাহানে
    টেস্ট অভিষেকে ব্যাটিংয়ে নামার সময় ভীষণ স্নায়ু চাপে ভুগছিলেন অজিঙ্কা রাহানে। সেদিন তরুণ এই ব্যাটসম্যানের সাহায্যে এগিয়ে এসেছিলেন আগে থেকেই ক্রিজে থাকা শচিন টেন্ডুলকার। সব ভাবনা পেছনে রেখে স্রেফ সময়টা উপভোগ করার পরামর্শ দিয়েছিলেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান।
  • সৌরভকে স্ট্রাইক নিতে জোর করতেন টেন্ডুলকার
    ব্যাট হাতে ওয়ানডে ক্রিকেটের ধারা বদলে দিয়েছিলেন শচিন টেন্ডুলকার। গড়েছেন অসাধারণ সব কীর্তি। রেকর্ড বইয়ে তার জয়জয়কার। কিন্তু একটি জায়গায় সেই তিনিই থাকতেন গুটিয়ে, কখনোই শুরুতে স্ট্রাইক নিতে চাইতেন না! টেন্ডুলকারের দীর্ঘদিনের উদ্বোধনী জুটির সঙ্গী সৌরভ গাঙ্গুলি শোনালেন সেই গল্প।
  • ‘টেন্ডুলকারকে আউট করার ভাবনায় কত যে মিটিং করেছি’
    জানা কোনো দুর্বলতা নেই। কিন্তু আউট করার উপায় তো একটা বের করতে হবে। এর জন্য চলতো একের পর এক মিটিং। শচিন টেন্ডুলকারকে দ্রুত ফেরানোর পথ বের করতে কতশত মিটিং করতেন, এর হিসেব মনে নেই সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসের হুসেইনের।
  • কঠিন সময়ে যেভাবে টেন্ডুলকারের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন কারস্টেন
    বর্ণিল পথচলায় শচিন টেন্ডুলকারের ক্যারিয়ারেও একটা সময় এসেছিল যখন নিজের প্রিয় পজিশন হারিয়ে ফেলেছিলেন, খেলাও আর অতোটা উপভোগ করছিলেন না। পেয়ে বসেছিল অবসর ভাবনা। ২০০৭ সালের সেই কঠিন সময়ে তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন ওই সময়ে ভারতের নতুন কোচ গ্যারি কারস্টেন। তৈরি করে দিয়েছিলেন ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের নতুন করে জ্বলে ওঠার পরিবেশ।
  • টেস্টে ৪৫-৫৫ ওভারে নতুন বলের পরামর্শ টেন্ডুলকারের
    বলে লালা ব্যবহার বন্ধে আইসিসি নিয়ম করার পর টেস্টে বোলারদের সহায়তার জন্য একটি পরামর্শ এসেছে শচিন টেন্ডুলকারের কাছ থেকে। ভারতীয় ব্যাটিং কিংবদন্তি ৪৫-৫০ কিংবা ৫৫ ওভার পর নতুন বল নেওয়ার সুযোগ রাখার কথা বলেছেন।
  • টেন্ডুলকারকে আউট করায় মৃত্যুর হুমকি!
    শচিন টেন্ডুলকার এগিয়ে যাচ্ছিলেন শততম সেঞ্চুরির দিকে। অপেক্ষা তখন নতুন ইতিহাসের। হঠাৎ থমকে গেল সব আয়োজন। ৯১ রানে আউট টেন্ডুলকার। ভক্তদের হতাশাও স্বাভাবিক। তাই বলে বোলার ও আম্পায়ারকে খুন করার হুমকি! অভাবনীয় হলেও সত্যি। টেন্ডুলকার ভক্তদের কাছ থেকে অমন হুমকিই পেয়েছিলেন ইংলিশ পেসার ট্রিম ব্রেসনান ও অস্ট্রেলিয়ান আম্পায়ার রড টাকার।
  • ১০০ সেঞ্চুরির জন্য যা করতে হবে কোহলিকে
    একসময় যেটিকে মনে হচ্ছিল কল্পনাতীত, সেটিই এখন যেন দৃষ্টিসীমার ভেতরে। অনেকেরই বিশ্বাস, শচিন টেন্ডুলকোরের ১০০ সেঞ্চুরির কীর্তি একদিন ছাড়িয়ে যাবেন বিরাট কোহলি। ইরফান পাঠান অবশ্য সন্দিহান। সাবেক অলরাউন্ডারের মতে, কাজটা হবে খুবই কঠিন। কোহলিকে অবশ্য রেকর্ড গড়ার পথটা বাতলে দিয়েছেন পাঠান।
  • টেন্ডুলকারের সবচেয়ে বড় গুণ বিনয়
    ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকার। ব্যাট হাতে গড়েছেন অনেক রেকর্ড। পেয়েছেন ভক্তদের প্রবল সমর্থন, সিক্ত হয়েছেন ভালোবাসায়। এক সময়ের সতীর্থ ভিভিএস লক্ষ্মণ জানিয়েছেন, তবুও অহংকার, দম্ভ স্পর্শ করত না ভারতীয় ব্যাটিং কিংবদন্তিকে। সব সময় তার পা থাকত মাটিতেই।
  • লারা পুত্রের সঙ্গে টেন্ডুলকারের গ্রিপের মিল
    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সক্রিয় শচিন টেন্ডুলকার। ভক্তদের জন্য নিয়মিত ছবি, ভিডিও পোস্ট করা সর্বকালের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান এবার দেখিয়েছেন ব্রায়ান লারার ছেলের সঙ্গে তার গ্রিপের মিল।
  • টেন্ডুলকারকে দেখে স্বপ্নের ঘোরে ছিলেন কিষান
    অনেক ক্রিকেটারের মতো শচিন টেন্ডুলকারকে আদর্শ মানেন ইশান কিষান। বয়সভিত্তিক ক্রিকেট পেরিয়ে মূল স্রোতে আসার পর সুযোগ আসে স্বপ্নের নায়কের সঙ্গে কথা বলার। তরুণ কিপার-ব্যাটসম্যান এখনও ভুলতে পারেননি ব্যাটিং কিংবদন্তির সঙ্গে প্রথম দেখা হওয়ার দিনটি।
  • টেন্ডুলকার ভেবেছিলেন, অভিষেক ম্যাচই তার শেষ
    দুই যুগের ক্যারিয়ারে খেলেছেন দুইশ টেস্ট। টেস্ট ও ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে করেছেন সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি। আরও কত সব রেকর্ডে সমৃদ্ধ শচিন টেন্ডুলকারের ক্যারিয়ার। অথচ অভিষেক টেস্টের সময় তিনি নিজেই ভেবেছিলেন, এই শেষ। আর কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ আসবে না!
  • টেন্ডুলকারের ১০০ সেঞ্চুরি ছাড়াতে পারবেন কোহলি?
    শত সেঞ্চুরির চূড়ায় যখন পা রেখেছিলেন শচিন টেন্ডুলকার, ক্রিকেট দুনিয়ায় সেটিকেই মনে করা হচ্ছিল চূড়ান্ত উচ্চতা। কে জানত, তার দেশেরই একজন প্রবল প্রতাপে ছুটবেন সেই চূড়ার দিকে! বিরাট কোহলি যেভাবে এগোচ্ছেন, টেন্ডুলকারকে ছাড়িয়ে যাওয়া তার পক্ষে খুবই সম্ভব। ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার দুই গ্রেট, ভিভিএস লক্ষন ও ব্রেট লি মনে করেন, টেন্ডুলকারকে টপকে যাওয়ার সব সামর্থ্যই আছে কোহলির।
  • যে কারণে টেন্ডুলকারকে স্লেজিং করেননি লি
    মাঠে সবসময়ই অস্ট্রেলিয়া দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেট অনুষঙ্গ স্লেজিং। কথার লড়াইকে তারা ক্রিকেট স্কিলের অংশ হিসেবেই নিয়ে থাকে। মাঠে তাদের শরীরী ভাষা আর কথায় থাকে বারুদের ঝাঁজ। তবে সবার ক্ষেত্রে তো একই দাওয়া কাজে লাগে না। শচিন টেন্ডুলকারকে যেমন স্লেজিং করার ক্ষেত্রে খুব সতর্ক ছিল তারা। সেটির কারণ জানালেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক গতি তারকা ব্রেট লি।
  • জন্মদিন পালনের সময় এখন নয়: টেন্ডুলকার
    একসময় বলা হতো, ক্রিকেট ভারতে ধর্মের মত এবং শচিন টেন্ডুলকার সেই ধর্মের ইশ্বর। তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষেও তাকে ঘিরে আবেদন ও আবেগ কমেছে সামান্যই। তার জন্মদিনও তাই অনেকটা জাতীয় উৎসবের মতো। তবে এবার তিনি নিজেই পালন করবেন না জন্মদিন। জীবনের ইনিংসে তার ৪৭ পূর্ণ হলো শুক্রবার। জন্মদিনের প্রাক্কালে স্পোর্টস্টারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই কিংবদন্তি জানালেন, করোনাভাইরাসের এই সময়ে কোনো উদযাপন তিনি করবেন না। ক্রিকেট ইতিহাসের সফলতম ব্যাটসম্যান কথা বললেন প্রাসঙ্গিক আরও কিছু দিক নিয়ে।
  • ৫ হাজার মানুষকে ১ মাসের খাবার দিচ্ছেন টেন্ডুলকার
    এরই মধ্যে ৫০ লাখ রুপি অনুদান দিয়েছেন। তবে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে শচিন টেন্ডুলকারের লড়াই থেমে নেই সেটুকুতেই। ভারতীয় কিংবদন্তি এবার প্রায় পাঁচ হাজার অভাবী মানুষের এক মাসের খাবারের ব্যবস্থা করছেন।
  • কী কথা হলো মোদীর সঙ্গে, জানালেন টেন্ডুলকার
    ভারতে দিন দিন বাড়ছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। প্রতি দিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যু। কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে দেশের বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরে এক বিবৃতিতে সেই আলোচনার বিস্তারিত জানিয়েছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচিন টেন্ডুলকার।
  • করোনাভাইরাস মোকাবেলায় টেন্ডুলকারের অর্ধ কোটি রুপি
    সচেতনতামূলক নানা বার্তায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দারুণ সক্রিয় শচিন টেন্ডুলকার। তবে করোনাভাইরাসের বিপক্ষে তার লড়াই থেমে নেই সেটুকুতেই। আর্থিক সহায়তা নিয়েও এগিয়ে এসেছেন ভারতীয় কিংবদন্তি। কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারকে তিনি দিচ্ছেন মোট ৫০ লাখ রুপি।
  • ক্রিকেট খেলতে ‘না’ করছেন টেন্ডুলকার
    তাকে দেখে ক্রিকেটে পা রেখেছেন, ক্রিকেটের প্রেমে মজেছেন অসংখ্য শিশু-কিশোর-যুবা। সেই শচিন টেন্ডুলকারই এখন অনুরোধ করছেন, ক্রিকেট না খেলতে। সময়টাই যে এমন! করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সবাইকে ঘরে থাকতে ও সব স্বাস্থ্য নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন ভারতীয় কিংবদন্তি।
  • করোনাভাইরাস: টেন্ডুলকারের চোখে টেস্ট ক্রিকেটই সমাধান
    করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছে পুরো বিশ্ব। এই চ্যালেঞ্জে জিততে টেস্ট ক্রিকেট থেকে শিক্ষা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন শচিন টেন্ডুলকার। ধৈর্য ও দলগত প্রচেষ্টার মাধ্যমে করোনাভাইরাসকে হারানো সম্ভব বলে বিশ্বাস এই কিংবদন্তি ক্রিকেটারের।
  • পনেরো মিনিটেই লাবুশেনকে চিনেছিলেন টেন্ডুলকার
    নিজে ক্রিকেটের সব সময়ের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। উইকেট দেখেই বলে দিতে পারতেন কেমন আচরণ করবে। ক্রিকেট-রত্ন চিনতেও ভুল হয় না। খানিকটা খেলা দেখে অনুমান করে নিতে পারেন সামর্থ্য। তেমনটাই হয়েছে অ্যাশেজ সিরিজে। মিনিট পনেরোর মতো খেলা দেখেই মার্নাস লাবুশেনের প্রতিভা বুঝতে পেরেছিলেন ব্যাটিং কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকার।
  • পন্টিংদের কোচ টেন্ডুলকার, ওয়ার্নদের ওয়ালশ
    অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে আয়োজিত চ্যারিটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে কোচের দায়িত্বে থাকবেন শচীন টেন্ডুলকার ও কোর্টনি ওয়ালশ। রিকি পন্টিংয়ের নেতৃত্বে খেলা দলটির কোচ হবেন ভারতীয় ব্যাটিং কিংবদন্তি টেন্ডুলকার। আর শেন ওয়ার্নের দলটির দায়িত্বে থাকবেন সাবেক ক্যারিবিয়ান পেসার ওয়ালশ।
  • ৪ দিনের টেস্টের বিপক্ষে ‘প্রথাপ্রেমী’ টেন্ডুলকার
    চার দিনের টেস্টের বিপক্ষে এরই মধ্যে নিজের মত জানিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এবার তার সঙ্গে একমত প্রকাশ করলেন টেস্ট ক্রিকেটের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক শচীন টেন্ডুলকার। ভারতীয় কিংবদন্তি মনে করেন, দিন কমিয়ে নয় বরং টেস্টকে আকর্ষণীয় করতে বোলিং সহায়ক পিচ তৈরিতে মনো্যোগ দেওয়া উচিত।
  • সৌরভ-পন্টিংদের ছাড়িয়ে, টেন্ডুলকারের পাশে কোহলি
    ১২ বছর! হ্যাঁ, একজনের ব্যাটে এক বছরে হাজার রান দেখতে ওয়ানডে ক্রিকেটকে অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে এক যুগ। ১৯৮৩ সালে ডেভিড গাওয়ার গড়েছিলেন সেই ইতিহাস। সময়ের পরিক্রমায় এই মাইলফলক এখন হয়ে উঠেছে নিয়মিত দৃশ্য। এই ২০১৯ সালেই ওয়ানডেতে হাজার রান করেছেন ৬ জন। তাদের মধ্যে একটি নাম ছিল অবধারিতই, বিরাট কোহলি। ওয়ানডে ক্রিকেটের অনেক রেকর্ড গুঁড়িয়ে এগিয়ে চলা ব্যাটসম্যান এই বছরের হাজার রানে ছুঁয়েছেন আরেকটি রেকর্ড।
  • রোহিতের ওপরে শুধুই টেন্ডুলকার
    ওয়ানডে ক্রিকেটে ব্যাটিং রেকর্ডের বেশ কটিই নিজের করে নিয়েছেন রোহিত শর্মা। কয়েকটিতে ধাওয়া করছেন শচীন টেন্ডুলকারকে। তেমনই এক রেকর্ডে টেন্ডুলকারের ঠিক পরেই জায়গা করে নিলেন রোহিত।
  • বাংলাদেশ-ভারত টেস্টে শিশিরের ভূমিকা দেখছেন টেন্ডুলকার
    কলকাতায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতের দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলাকে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত হিসেবে দেখছেন শচিন টেন্ডুলকার। তবে ম্যাচটি যেহেতু নভেম্বরের শেষ দিকে, সন্ধ্যার পর শিশির বড় ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন ভারতীয় কিংবদন্তি।
  • আবার মাঠে নামছেন লারা-টেন্ডুলকার-ক্যালিসরা
    ২২ গজে তাদের পারফরম্যান্স এখনও স্মৃতিকাতর করে দেয় ক্রিকেট অনুসারীদের। সেই কিংবদন্তিদের আবারও সরাসরি মাঠে দেখার সুযোগ মিলছে। সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে প্রচারণামূলক একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে খেলবেন শচীন টেন্ডুলকার, ব্রায়ান লারা, জ্যাক ক্যালিস, মুত্তিয়া মুরালিধরন, বিরেন্দর শেবাগ, শিবনারায়ন চন্দরপল, ব্রেট লিসহ আরও অনেক সাবেক ক্রিকেটার।
  • টেন্ডুলকারের সেঞ্চুরির রেকর্ড ছুঁলেন কোহলি
    শচিন টেন্ডুলকারের ৪৯ ওয়ানডে সেঞ্চুরির রেকর্ডটির দিকে দ্রুত পায়ে এগোচ্ছেন বিরাট কোহলি। তবে সেঞ্চুরির আরেকটি রেকর্ডে পূর্বসূরিকে ছুঁয়েই ফেললেন ভারতের ওয়ানডে অধিনায়ক। কোনো এক দলের বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে সেঞ্চুরির রেকর্ডটি এখন যৌথভাবে এই দুই ভারতীয় কিংবদন্তির।
  • আইসিসির হল অব ফেইমে টেন্ডুলকার, ডোনাল্ড
    আইসিসি হল অব ফেইমে জায়গা পেয়েছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক শচীন টেন্ডুলকার, দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক পেসার অ্যালান ডোনাল্ড ও অস্ট্রেলিয়ার নারী ক্রিকেট দলের সাবেক পেসার ক্যাথরিন ফিটসপ্যাট্রিক।
  • বোলিং বান্ধব উইকেট চান টেন্ডুলকার
    নিজে ছিলেন ব্যাটসম্যান; কিন্তু তাকে পোড়াচ্ছে বোলারদের অসহায়ত্ব। ক্রিকেটে ব্যাট-বলের ভারসাম্য রক্ষায় আরও বোলিং বান্ধব উইকেট চান শচিন টেন্ডুলকার।
  • এই আমিরকে নিয়ে সমস্যা নেই টেন্ডুলকারের
    প্রাপ্য শাস্তি ভোগ করেছেন মোহাম্মদ আমির। সাজা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফেরা পাকিস্তানের এই পেসারকে নিয়ে সমস্যা নেই ভারতের ব্যাটিং কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকারের।