• সৌম্য-শরিফুল-নাঈমের উন্নতিতে খুশি ডমিঙ্গো
    আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক দিন হয়ে গেলেও এখনও পায়ের নিচে মাটি খুঁজে ফিরছেন সৌম্য সরকার। টি-টোয়েন্টিতে ঝলক দেখালেও ধারাবাহিক হতে পারেননি মোহাম্মদ নাঈম শেখ। তবে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট রাসেল ডমিঙ্গো। আর শরিফুল ইসলাম ছোট্ট ক্যারিয়ারে এরই মধ্যে নিজের সামর্থ্যের ছাপ রাখতে পেরেছেন। এই তিন জনের উন্নতিতে খুশি বাংলাদেশ কোচ।
  • সিরিজ সেরা সৌম্যর র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি
    জিম্বাবুয়েতে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সে সিরিজ সেরা হওয়া সৌম্য সরকারের র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে। আইসিসির টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ৯ ধাপ এগিয়েছেন বাংলাদেশের এই ব্যাটসম্যান।
  • ভালো খেলার তৃপ্তি সিরিজ সেরা সৌম্যর
    আপাতত কেবল একটি সংস্করণেই খেলছেন দেশের হয়ে। তামিম ইকবাল ও লিটন দাস থাকলে টি-টোয়েন্টি একাদশেও জায়গা নিশ্চিত নয় সৌম্য সরকারের। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে ভালো করে পূর্ণশক্তির দলেও জায়গা ধরে রাখার দাবি জানিয়ে রাখলেন তিনি। সিরিজ সেরার পুরস্কার জয়ের চেয়ে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলতে পারাকেই বড় করে দেখছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।
  • রেকর্ড গড়া জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের
    সিরিজ জিততে রেকর্ড গড়ার চ্যালেঞ্জ দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। সম্মিলিত ব্যাটিংয়ে সেই বড় রান টপকে গেল বাংলাদেশ। ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসে শুরুতে পথ দেখালেন সৌম্য সরকার, শেষটায় বিস্ফোরক ইনিংসে বাকিটা সারলেন শামীম হোসেন। সফরে তৃতীয় ট্রফি পেল বাংলাদেশ।
  • ম্যাচ সেরা হয়েও সৌম্যর আক্ষেপ
    টেস্ট আর ওয়ানডে দলে এখন ঠাঁই নেই সৌম্য সরকারের। টি-টোয়েন্টিই আপাতত ভরসা। এই সংস্করণই তিনি রাঙাতে চান যতটা সম্ভব। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ সেরা হয়েও তাই ভরছে না মন। তার আফসোস, ম্যাচটা যদি শেষ করে আসতে পারতেন!
  • শততম ম্যাচে শতরানের জুটিতে বাংলাদেশের জয়
    শততম ওয়ানডে আর শততম টেস্ট, দুটিতেই জয়ের স্বাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি আর বাদ থাকবে কেন! সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ নাঈম শেখের শতরানের উদ্বোধনী জুটিতে গড়া হলো বড় জয়ের পথ। শততম টি-টোয়েন্টিও জিতে পূরণ হলো বাংলাদেশের অন্যরকম এক হ্যাটট্রিক।
  • সৌম্যর ব্যাটে রান
    ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে রানের দেখা পেলেন সৌম্য সরকার। ছোট ছোট স্কোর পেরিয়ে বাঁহাতি এই ওপেনার লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে পেলেন ফিফটি। বোলারদের সৌজন্যে পাওয়া মাঝারি লক্ষ্য তার ব্যাটে সহজেই পেরিয়ে গেল  গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স।
  • লিটনের বড় ইনিংস 'এই এলো বলে'
    সবশেষ দুই ওয়ানডে সিরিজে রান নেই লিটন দাসের ব্যাটে। তাতে অবশ্য উদ্বেগের বেশি কিছু দেখছেন না রাসেল ডমিঙ্গো। বাংলাদেশের প্রধান কোচের বিশ্বাস, তরুণ এই ওপেনারের ব্যাট থেকে বড় ইনিংস আসতে খুব দেরি নেই।
  • লিটন-সৌম্যর কাছে চাওয়া ‘মুশফিকের ধারাবাহিকতা’
    প্রতিভা নিয়ে সংশয় আছে সামান্যই। কিন্তু পারফরম্যান্স বলতে কেবল মাঝেমধ্যে কিছু ঝলক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৬ বছর হতে চলল লিটন দাসের, সৌম্য সরকার তো অর্ধযুগ পেরিয়েই গেছেন। প্রত্যাশা মেটাতে পেরেছেন তারা কমই। তামিম ইকবালের মতে, লিটন-সৌম্যর সময় এখন দলের আস্থার প্রতিদান দেওয়ার। এই দুজনের ব্যাটে মুশফিকুর রহিমের মতো ধারাবাহিকতা দেখতে চান বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।
  • সৌম্য-আফিফ-মাহমুদউল্লাহর ফিফটি, সাকিব আউট ২৮ রানে
    শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য বাংলাদেশের চূড়ান্ত দল ঘোষণার আগে নিজেদের বার্তা জানিয়ে রাখলেন সৌম্য সরকার ও আফিফ হোসেন। প্রস্তুতি ম্যাচে দুজনই উপহার দিলেন ফিফটি। মাহমুদউল্লাহর দলে থাকা নিয়ে সংশয় নেই কোনো। তিনিও ফিফটিতে সেরে নিলেন প্রস্তুতি।
  • হতাশা ভুলে নতুন শুরুর আশায় সৌম্য
    সব সংস্করণ মিলিয়ে টানা ১০ ম্যাচে জয়ের দেখা নেই। পিঠ যেন দেওয়ালে ঠেকে গেছে বাংলাদেশ দলের। তবে অন্ধকার সুড়ঙ্গের শেষে আলোর খানিকটা রেখা হিসেবে দেখা যাচ্ছে সামনে সিরিজ। নিজেদের প্রিয় সংস্করণে খেলা আপন আঙিনায়। ফিরছেন সাকিব আল হাসানও। সব মিলিয়ে বাজে সময় পেছনে ফেলে দল জয়ের ধারায় ফিরবে, বিশ্বাস সৌম্য সরকারের।
  • ‘পরের সিরিজেই হয়তো তিনে ফিরবে সাকিব’
    সাকিব আল হাসানকে চার নম্বরে খেলানোর পরীক্ষা আপাতত শেষ বলেই ইঙ্গিত দিলেন তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক জানালেন, পরের সিরিজেই সাকিবকে তিন নম্বরে দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। পাশাপাশি, সৌম্য সরকারকে ‘ফিনিশার’ বানানোর ভাবনা থেকেও দল সরে এসেছে বলে আভাস দিলেন তামিম।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর উন্নতি
    নিউ জিল্যান্ড সফরে দলের সময় ভালো কাটছে না। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের দিক থেকেও কেউ তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। তবে ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে একা লড়াই করে আইসিসির ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে মাহমুদউল্লাহর। টি-টোয়েন্টি ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ নাইম শেখ।
  • টানা ৩২ হার নাকি প্রথম জয়?
    একটি জয়ের অপেক্ষায় শেষ হতে চলল আরেকটি সফর। সেই জয় এখনও অধরা। আগের নানা সফরে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ২৬ ম্যাচ, এবার হয়ে গেছে ৫ ম্যাচ। নিউ জিল্যান্ডকে তাদের দেশে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে কি ধরা দেবে সেই বহু কাঙ্ক্ষিত জয়, নাকি হারের ধারা দীর্ঘায়িত হবে টানা ৩২ আন্তর্জাতিক ম্যাচে?
  • সৌম্যর নতুন পরিচয় ‘ষষ্ঠ বোলার ও তিন নম্বর ব্যাটসম্যান’
    কখনও ওপেনার, কখনও ফিনিশার। কখনও তিন নম্বর, কখনও পেস বোলিং অলরাউন্ডার। বিভিন্ন সময়ে নানা ভূমিকায় সৌম্য সরকারকে নেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ দলে। অধিনায়ক তামিম ইকবাল এবার জানালেন সৌম্যর আরেকটি পরিচয়, যে ভূমিকায় তাকে নেওয়া হয়েছে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে।
  • সৌম্য আবার ‘ওপরে’, শান্তর ‘ভবিষ্যৎ লম্বা’
    সৌম্য সরকারকে সাতে খেলানোর পরীক্ষার আপাতত সমাপ্তি বলে ধরে নেওয়া যায়। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে আবার টপ অর্ডারে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানালেন তামিম ইকবাল। রান খরার কারণ আলোচনায় থাকা আরেক বাঁহাতি নাজমুল হোসেন শান্তর ওপর দলের আস্থার কথাও আরেকবার জানিয়ে দিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।
  • টিকা নিলেন তামিমরা, বললেন ‘কাজটি জরুরি’
    নিউ জিল্যান্ড সফরের আগে করোনাভাইরাসের টিকা নিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কয়েকজন খেলোয়াড়।
  • যে কারণে সুযোগ পেলেন না সাইফ
    প্রাথমিক দলেও না থাকা সৌম্য সরকার বদলি হিসেবে স্কোয়াডে এসে একাদশেও ঢুকে গেলেন। কিন্তু শুরু থেকেই যিনি স্কোয়াডে আছেন ওপেনার হিসেবে, সেই সাইফ হাসান চট্টগ্রামের পর মিরপুর টেস্টেও হয়ে রইলেন দর্শক। তার প্রতি কি সুবিচার হলো? প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলছেন, প্রস্তুতি ম্যাচে আর নেটে টিম ম্যানেজমেন্টের মন ভরাতে পারেননি সাইফ।
  • সাদমানকে নিয়ে শঙ্কা, টেস্ট দলে সৌম্য
    চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়া সাকিব আল হাসানের বদলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের বাংলাদেশ দলে নেওয়া হয়েছে সৌম্য সরকারকে। স্পিনিং অলরাউন্ডারের জায়গায় ব্যাটসম্যান দলে নেওয়ার কারণ, শঙ্কা আছে সাদমান ইসলামকে পাওয়া নিয়েও।
  • সৌম্যকে জানানো হয়েছে ‘৪-৫ মাস আগে’
    ক্রিকেট অনুসারী-দর্শকরা তো বটেই, ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট অনেকের কাছেও বড় চমক হয়ে এসেছে সৌম্য সরকারকে ফিনিশারের ভূমিকায় খেলানোর ভাবনা। তবে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল জানালেন, সৌম্যকে নতুন দায়িত্বের জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে অনেক আগেই। 
  • প্রিয় ৩ নম্বর হারাচ্ছেন সাকিব
    প্রিয় পজিশন তিন নম্বরে ফিরে আলো ছড়ানো সাকিব আল হাসানকে আবার নেমে যেতে হচ্ছে মিডল অর্ডারে। সম্ভাবনাময় তরুণ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্তকে এই পজিশনে সুযোগ দিতে চান প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
  • রাজশাহীকে মাড়িয়ে চট্টগ্রামের আটে সাত
    শীর্ষ চারে থাকার লড়াইয়ে টিকে থাকতে জয়টা ভীষণ জরুরি ছিল রাজশাহীর। কিন্তু প্রশ্নবিদ্ধ কৌশল আর ব্যাটে-বলে ধারহীন পারফরম্যান্সে সেই ম্যাচই তারা হেরে বসল বাজেভাবে। আগেই শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে ফেলা চট্টগ্রাম দারুণ জয়ে আত্মবিশ্বাস আরও পোক্ত করে নিল ফাইনালের লড়াইয়ের জন্য।
  • সৌম্যর ব্যাটিং ঝড়ে চট্টগ্রামের জয়
    ১০ ওভারে বিনা উইকেটে রান ৮৪। সেই দল কিনা শেষ পর্যন্ত দেড়শও করতে পারল না! মাঝারি স্কোর নিয়ে পরে বল হাতেও লড়াই করতে পারল না বরিশাল। দলের সেরা কয়েকজনকে বিশ্রাম দিয়েও চট্টগ্রাম অনায়াসে জিতে গেল সৌম্য সরকারের ঝড়ো ফিফটিতে।
  • স্বস্তির যে অন্তত খেলা শুরু হতে যাচ্ছে আমাদের: সৌম্য
    দলে থাকবেন কী না, একাদশে সুযোগ মিলবে কী না, এ সব নিয়ে ভাবছেন না সৌম্য সরকার। দল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে, আপাতত এটুকুই বেশি গুরুত্বপূর্ণ বাঁহাতি এই ওপেনারের কাছে। আগামী দিনগুলোতে আরও কঠোরভাবে নিয়ম মেনে চলার দিকে গুরুত্ব দিলেন তিনি।
  • সেরা ফিল্ডার: শাহরিয়ারের চোখে এগিয়ে সাকিব
    ‘সেরা ফিল্ডার বাছাই করতে হবে!’, শাহরিয়ার নাফীস যেন আঁতকে উঠলেন। পজিশন অনুযায়ী সেরা বলতে তার আপত্তি নেই। কিন্তু সব মিলিয়ে সেরা বাছাই করতেই চান না, কাজটি তার চোখে অসম্ভবের কাছাকাছি। অনেক জোরাজুরির পর শেষ পর্যন্ত শাহরিয়ার অনেক ভেবে একটু এগিয়ে রাখলেন সাকিব আল হাসানকে।
  • সেরা ফিল্ডার: মুমিনুলের চোখে এখন সৌম্য, ভবিষ্যতে আফিফ
    মুমিনুল হক বেশ বিপাকেই পড়ে গেলেন। কারও সঙ্গে খেলেছেন অল্প সময়, তাকে বিবেচনায় নেওয়া উচিত হবে? কাউকে দেখেছেন শুধুই ঘরোয়া ক্রিকেটে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সঙ্গে তাকে মেলানো ঠিক হবে? সেরা ফিল্ডার নিয়ে মুমিনুল ভাবলেন অনেক। উঠে এলো অনেকের নাম। শেষ পর্যন্ত তিনি সৌম্য সরকারকে বেছে নিলেন এখনও পর্যন্ত সেরা হিসেবে। তবে তার ভবিষ্যতের বাজি, আফিফ হোসেন।
  • ‘কত রেকর্ড যে তোরা ভাঙবি’, সৌম্য-লিটনকে তামিম
    বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের অনেক রেকর্ড যে দুই তরুণ সতীর্থ এক সময়ে নিজেদের করে নিবেন, অনেকবার বলেছেন তামিম। দেশের সফলতম ব্যাটসম্যান এবার বললেন তাদের সামনেই। বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক জানিয়ে দিলেন, সৌম্য সরকার ও লিটন দাসের সামর্থ্যে তার কত আস্থা। সম্ভাবনায় দুই তরুণ ব্যাটসম্যানকে কতটা উঁচুতে রাখেন তিনি।
  • নায়কদের নায়ক: সৌম্যর মুগ্ধতা সৌরভ-যুবরাজ থেকে সাকিব-তামিমে
    তখন কেবল ক্রিকেটে হাতেখড়ি হয়েছে সৌম্য সরকারের। বড় ভাই পুষ্পেন সরকার বললেন, “তুই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান হবি আর ডানহাতি পেসার, সৌরভ গাঙ্গুলির মত।” সৌম্য টিভিতে চোখ রাখলেন। সৌরভের সুবাসে মোহিত হলেন দ্রুত। সহজাত বাঁহাতি না হয়েও শুরু করলেন বাঁহাতি ব্যাটিং। ক্রমে সৌম্য বেড়ে উঠলেন আর প্রসারিত হলো তার ভালো লাগার জগৎ। সেখানে জায়গা করে নিলেন সৌরভের দেশের যুবরাজ সিং থেকে শুরু করে নিজ দেশের সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা।
  • মনকে বশ করাই মাশরাফি-তামিমদের বড় চ্যালেঞ্জ
    মাঠের ডাক তো আছেই। মন ছুটে যায় সেই টানে। ঘরে পড়ে থাকা ব্যাট-বল যেন আগের চেয়ে বেশি আকর্ষণ করছে। ক্রিকেটের বাইরে বন্ধু-আড্ডা-ঘোরাফেরা তো আছেই। এই অস্বাভাবিক সময়ে স্বাভাবিক সবকিছুর টান যেন আরও প্রবলভাবে অনুভব করছেন ক্রিকেটাররা। ঘরবন্দি এই সময়ে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ মনকে মানানো। কঠিন সেই কাজ কে কিভাবে করছেন, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে সেই গল্প শোনালেন ক্রিকেটারদের কয়েক জন।
  • ‘এ প্লাস’ গ্রেডে সৌম্য, পারিশ্রমিক ৪ লাখ টাকা
    প্রথম ঘোষিত চুক্তির তালিকায় নামই ছিল না সৌম্য সরকারের। চুক্তির গ্রেড ঘোষণার তালিকায় সেই ক্রিকেটারকেই দেখা গেল সাদা বলের শীর্ষ ক্যাটাগরিতে। ‘এ প্লাস’ গ্রেডে সৌম্যর পারিশ্রমিক মাসে ৪ লাখ টাকা।
  • সৌম্যর মাথায় ছিল ‘বিয়ের পর প্রথম ইনিংস’
    সীমিত ওভারের ক্রিকেটের পারফরম্যান্সে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে সাদা বলের শ্রেণিতে সৌম্য সরকারের না থাকার কোনো কারণ নেই। তবুও বিস্ময় জাগিয়ে ছিলেন না তরুণ এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নামার আগে কেন্দ্রীয় চুক্তি নয়, তার মাথায় ছিল বিয়ের পর এটাই প্রথম ইনিংস।
  • সৌম্যর ঝড়ের প্রেরণা লিটন
    ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত দুটি সেঞ্চুরি। সেই ছন্দ লিটন দাস টেনে এনেছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতেও। দারুণ ব্যাটিংয়ে করেছেন ফিফটি। একই ম্যাচে ঝড়ো ফিফটি করা আরেক ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার জানালেন, লিটনের ব্যাটিংয়ে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি খেলেছেন এমন ইনিংস।
  • নিজের জায়গা ধরতে চেয়েছিলেন সৌম্য
    বিচরণ করতে ভালো লাগে টপ অর্ডারে। কিন্তু কখনও নিজের গন্তব্য খুঁজে না পাওয়া, কখনও দলের চাওয়া মিলিয়ে পছন্দের জায়গাটা হারিয়ে ফেলেছিলেন সৌম্য সরকার। এবার সেই প্রিয় পজিশনে খেলেই করেছেন রান। তাতেই ফিরেছে আশা। এবার আর জায়গাটা হারাতে চান না এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।
  • সৌম্য-লিটনের ঝড়ে এগিয়ে বাংলাদেশ
    করোনাভাইরাসের কারণে সীমিত আকারে ম্যাচের টিকেট ছেড়েছিল বিসিবি। টি-টোয়েন্টির টানে তবু গ্যালারিতে এসেছিলেন হাজার সাতেক দর্শক। ব্যাটিং তাণ্ডবে তাদের মাতিয়ে রাখলেন লিটন কুমার দাস ও সৌম্য সরকার। দলও পেল প্রত্যাশিত জয়। ঝুঁকি নিয়ে আসা সেই দর্শকেরা মাঠ ছাড়লেন টইটুম্বুর বিনোদনের পূর্ণতায়।
  • সাদা বলের চুক্তিতে থাকছেন সৌম্য
    বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে সৌম্য সরকারের না থাকা জন্ম দিয়েছে বিস্ময়ের। আরও বেশি অবাক করা তথ্য জানা গেল তাকে না রাখার কারণ অনুসন্ধানে। তালিকা কাটছাঁট করতে গিয়ে বাদ পড়ে গিয়েছিল সৌম্যর নাম! প্রধান নির্বাচক জানালেন, এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে রাখা হচ্ছে সাদা বলের চুক্তিতে।
  • তৃতীয় ওয়ানডের দলে সৌম্য
    বিয়ের ছুটি শেষ। সৌম্য সরকার ফিরছেন মাঠে। বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের দলবদলের দ্বিতীয় দিন গেছেন নতুন ঠিকানায়। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডের দলে ডাক পেয়েছেন তরুণ বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।
  • মুমিনুল-সৌম্য গাজী গ্রুপে, প্রাইম ব্যাংকে রুবেল
    বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের আসন্ন আসরের জন্য দলবদল করেছেন মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, রুবেল হোসেন। বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক খেলবেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সে। একই দলে নাম লিখিয়েছেন বাঁহাতি ওপেনার সৌম্য। শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবে যোগ দিয়েছেন ইমরুল। জাতীয় দলের পেসার রুবেল খেলবেন প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে।
  • সাদমান নেই বলে সৌম্য, ‘আরও সুযোগ’ মিঠুনকে
    অভিষেক টেস্টে ছিল একটি ফিফটি। এরপর ৬ টেস্ট খেলে আর কোনো ফিফটি নেই। একের পর এক ম্যাচে আউট বাজে শটে। তারপরও মোহাম্মদ মিঠুনকে আরও সুযোগ দিতে চাইছেন নির্বাচকরা। এজন্যই এই ব্যাটসম্যান টিকে গেছেন পাকিস্তান সফরের বাংলাদেশ টেস্ট দলে। সৌম্য সরকারকে দলে ফিরিয়েছে সাদমান ইসলামের চোট।
  • পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট দলে শান্ত-সৌম্য-রুবেল
    পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দলে ফিরেছেন পেসার রুবেল হোসেন, দুই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রত্যাশিতভাবে দলে ফিরেছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। অনুমিতভাবেই দলে নেই নিরাপত্তা শঙ্কায় সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়া মুশফিকুর রহিম।
  • ‘সৌম্য ব্যাট করতে পারে ছয়ে, তিন-চারে আফিফ’
    আভাস দিয়েছিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন, নিশ্চিত করলেন প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো; পাকিস্তান সফরে ওপেনারদের কয়েকজনকে ব্যাট করতে হবে মিডল অর্ডারে। সৌম্য সরকার ব্যাট করতে পারেন ছয়ে, তিন-চারে দেখা যেতে পারে আফিফ হোসেনকে।
  • ‘অলরাউন্ডার’ হিসেবে সৌম্য, ‘ওপেনিংয়ে নন’ আফিফ
    স্কোয়াডে ওপেন করার মতো ব্যাটসম্যান ছয় জন। ম্যাচে করবেন কোন দুইজন? চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন জানালেন, ওই ছয় জনের অন্তত দুই জনকে তারা ওপেনিংয়ের ভাবনায় দলে নেননি। আফিফ হোসেনকে তারা ভেবেছেন তিন নম্বর থেকে নিচের যে কোনো পজিশনের জন্য। আর সৌম্যকে দলে রাখা হয়েছে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ও মিডিয়াম পেস বোলিং বিবেচনায়।
  • মালানের কাছে ম্যাচ সেরা সৌম্য
    ক্রিজে থেকে দেখেছেন সৌম্য সরকারের ইনিংসের শুরু, বাকিটুকু দেখেছেন ড্রেসিং রুম থেকে। দায়িত্বশীল ইনিংসের জন্য নিজে জিতেছেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। তবে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স অধিনায়ক দাভিদ মালান মনে করেন, ম্যাচের আসল নায়ক সৌম্য।
  • ৪৪ ইনিংস পর বিপিএলে সৌম্যর ফিফটি
    বিপিএলে সবশেষ কবে ফিফটি পেয়েছিলেন? সৌম্য সরকার নিজেও মনে করতে পারবেন কিনা সন্দেহ। খুঁজে পেতে যেতে হলো সেই চার বছর পেছনে। প্রথম ফিফটির পর দীর্ঘ খরা কাটিয়ে অবশেষে বিপিএলে আরেকবার পঞ্চাশের স্বাদ পেলেন সৌম্য।
  • সৌম্যর ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসেও পারল না কুমিল্লা
    লিটন দাস ও আফিফ হোসেনের আগ্রাসী জুটিতে শুরু। শোয়েব মালিক ও আন্দ্রে রাসেলের জুটির তাণ্ডবে ইনিংসের শেষ। এই চতুষ্টয়ের ব্যাটিংয়ে যে উচ্চতায় উঠল রাজশাহী, সৌম্য সরকারের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসেও সেই রানের নাগাল পেল না কুমিল্লা।
  • এসএ গেমস: ভুটানের বিপক্ষে সৌম্যদের প্রত্যাশিত জয়
    জয় নিয়ে সংশয় থাকার কোনো কারণই ছিল না। জয়ের ধরণটাও মোটামুটি প্রত্যাশিতই হলো। এসএ গেমস ক্রিকেটে ভুটানকে ১০ উইকেটে হারাল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। আনকোরা ভুটানকে অবশ্য কৃতিত্ব দিতেই হয় পুরো ২০ ওভার ব্যাট করায়।
  • ফাইনাল মানেই যেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের হতাশা
    আরেকটি ফাইনাল, হতাশার আরেকটি অধ্যায়। যে পর্যায়ের ক্রিকেটই হোক, ফাইনাল মানেই যেন বাংলাদেশের হৃদয়ভাঙার নিয়তি! জাতীয় দল, অনূর্ধ্ব-১৯ দলের মতো এবার উদীয়মানদের দলও হারল ফাইনাল। একের পর এক ম্যাচে দাপুটে জয়ে ফাইনালে আসা দল খেই হারাল আসল সময়ে। প্রথমবার শিরোপা জিতল পাকিস্তান।
  • ব্যাটে-বলে দুর্দান্ত সৌম্য, আফগানদের উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ
    গ্রুপ পর্বের দাপুটে পারফরম্যান্স সেমি-ফাইনালেও ধরে রাখল বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার ধরে রাখলেন ব্যাটে-বলে ধারাবাহিকতা। সেমি-ফাইনালের গেরো কাটিয়ে বাংলাদেশ প্রথমবার পা রাখল ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপের ফাইনালে।
  • সৌম্য-শান্তর ব্যাটে ভারতকে উড়িয়ে দিল ইমার্জিং দল
    ভারত থেকে ফিরে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে রান পেলেন সৌম্য সরকার। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে বাঁ-হাতি ওপেনার তুলে নিলেন ফিফটি। ছয় রানের জন্য সেঞ্চুরি হাতছাড়া হলো নাজমুল হোসেন শান্তর। ইন্দোর টেস্টে বাংলাদেশ যখন মুখ থুবড়ে পড়েছে, তখন সাভারে ভারতকে বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ ইমাজিং দল।
  • ভারত থেকে ফিরেই সৌম্য-নাঈমের ব্যাটে রান
    ভারতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ। জাতীয় দল থেকে ফিরে বাঁহাতি ওপেনার রান পেলেন বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের হয়েও। ভারত সিরিজে ব্যাট হাতে খুব ভালো কাটেনি সৌম্য সরকারের। দেশে ফেরার পর তার ব্যাটে ফিরল ঝড়। এসিসি ইমার্জিং টিমস কাপে উড়ন্ত সূচনা করল বাংলাদেশ।
  • অধিনায়কের চোখে সিরিজে প্রাপ্তি
    সিরিজ কারো কাটলো দুর্দান্ত, সারা জীবন মনে রাখার মতো। কেউবা ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। চাইবেন, যত দ্রুত সম্ভব ভুলে যেতে। মাহমুদউল্লাহর চোখে কেমন ছিল সতীর্থদের পারফরম্যান্স? ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের প্রাপ্তি, অপ্রাপ্তি নিয়ে নিজের মতো করে বললেন অধিনায়ক।
  • বাংলাদেশ ইমার্জিং দলে দুই লেগ স্পিনার আমিনুল ও আফ্রিদি
    ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দলে থাকা ৫ ক্রিকেটার জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশ ইমার্জিং দলে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি দেশে ফিরে খেলবেন ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপে। টুর্নামেন্টে দলকে নেতৃত্ব দেবেন নাজমুল হোসেন শান্ত।
  • ‘বাজে সিদ্ধান্তে আউট হচ্ছে সৌম্য-লিটন’
    শুরুটা ভালো করেও বারবার আউট হয়ে যাচ্ছেন হুট করে। থিতু হওয়ার পরও লিটন দাস ও সৌম্য সরকারের ইনিংস বড় করতে না পারার পেছনে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বাজে সিদ্ধান্ত অন্যতম প্রধান কারণ বলে মনে করেন রাসেল ডমিঙ্গো।
  • সাকিব-তামিমকে জয় উৎসর্গ দলের
    নিষেধাজ্ঞার জন্য ছিটকে যাওয়া সাকিব আল হাসান ও পারিবারিক কারণে ছুটি নেওয়া তামিম ইকবালকে জয় উৎসর্গ করেছে বাংলাদেশ দল।
  • বাংলাদেশ ‘এ’ দলে রিশাদ, সৌম্য, মিরাজ
    রিশাদ হোসেনকে নিয়ে একসময় অনেক উচ্চাশা ছিল নির্বাচকদের। সেই লেগ স্পিনার এখন অনূর্ধ্ব-১৯ দলে জায়গা পেতেই ধুঁকছেন। তবে তাকে নিয়ে আশা ছাড়ছেন না নির্বাচকরা। শ্রীলঙ্কা সফরের বাংলাদেশ ‘এ’ দলে জায়গা পেয়েছেন ১৭ বছর বয়সী এই লেগ স্পিনার। এই দলে আছেন সম্প্রতি বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা হারানো সৌম্য সরকার ও মেহেদী হাসান মিরাজও।
  • সৌম্য-লিটনের পাশে থাকার তাগিদ ব্যাটিং কোচের
    শিষ্যদের ধারাবাহিকতার অভাব আছে মানছেন নিল ম্যাকেঞ্জি। তবে সৌম্য সরকার, লিটন দাসের মতো তরুণদের সামর্থ্য নিয়ে কোনো সংশয় নেই ব্যাটিং কোচের। সবাইকে তাগিদ দিলেন দুই তরুণ ব্যাটসম্যানের পাশে থাকার।
  • সাকিব ভাইকে যত দেখছি, তত শিখছি: সৌম্য
    দুজন সতীর্থ। কিন্তু এরপরও একজন যে উচ্চতায় উঠেছেন, সেখানে যাওয়া আরেকজনের কাছে স্বপ্ন। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে একই ড্রেসিং রুমে থাকতে পেরে গর্বিত সৌম্য সরকার। বাঁহাতি ওপেনার চেষ্টা করছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের কাছ থেকে যতটা সম্ভব শেখার।
  • ‘ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ সেমি-ফাইনাল, ফাইনাল, সবকিছু’
    তামিম ইকবালের চোখ ফোনের স্ক্রিনে। লর্ডসে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া লড়াই তখন কেবল শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের ওপেনার স্কোর দেখতে দেখতে বলছিলেন, “সাড়ে তিনশ করতে হবে, আজকে আমি অস্ট্রেলিয়ার সাপোর্টার।” পাশেই দাঁড়ানো মাশরাফি বিন মুর্তজা সঙ্গত করলেন, “আমি তো ছোট থেকেই অস্ট্রেলিয়ার সাপোর্টার!” রসিকতায় হাসির রেশ থাকতে থাকতেই অধিনায়ক আবার সিরিয়াস, “আগে নিজেদের কাজ ঠিকঠাক করতে হবে। আপাতত ভারত ম্যাচ আমাদের ফাইনাল।”
  • যে কারণে মুস্তাফিজের বোলিং ভালো লাগে সৌম্যর
    বল হাতে ভালো দিন যেমন থাকে, আসে খারাপ দিনও। তবে ভালো লাগাটা থাকে অটুট। মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে সৌম্য সরকারের অনুভূতি এমনই। বাঁহাতি পেসারের বোলিং সবসময়ই ভালো লাগে বাঁহাতি ওপেনারের।
  • সৌম্যর ১০-২০ রানও ‘দলের জন্য’
    ইনিংসের আকার খুব বড় ছিল না, বেশি ছিল না স্থায়ীত্ব। কিন্তু গুরুত্বে বিশাল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়ের ভিত গড়া হয়েছিল সৌম্য সরকারের স্ট্রোকের দ্যুতিতে। ইনিংস বড় না করতে পারা নিয়ে আক্ষেপ থাকলেও তাই দিন শেষে বাঁহাতি ওপেনার ছিলেন খুশি। প্রতিটি রানই যে কাজে লাগাতে চান তিনি দলের জয়ে।
  • হারানোর ভয়কে হারিয়ে স্বরূপে সৌম্য
    তার ব্যাটিংয়ের মূল মন্ত্র, ভয়ডরহীন মানসিকতা। কিন্তু এই মন্ত্রেই আস্থা হারিয়ে ফেলেছিলেন। মনে ঢুকেছিল সংশয়ের ঘুণপোকা। হারিয়ে খুঁজছিলেন নিজেকে। এবার দেশ ছাড়ার আগে ঠিক করেছিলেন, এই ভয়কে জয় করবেন। ত্রিদেশীয় সিরিজে রান করার চেয়েও সৌম্য সরকারের বড় তৃপ্তি, নিজের সঙ্গে সেই লড়াইয়ে জয়।
  • সাকিবকে নিয়ে সংশয় নেই সতীর্থদের
    আইপিএলে ম্যাচ অনুশীলন হয়নি খুব একটা। দেশ ছাড়ার আগে দলের সঙ্গে অনুশীলন করা হয়নি একদিনও। সাকিব আল হাসানকে নিয়ে ছিল অনেক আলোচনা-সমালোচনা। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে সেই সাকিবই জ্বলে উঠলেন দুর্দান্ত অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে। জয়ের আরেক নায়ক সৌম্য সরকার জানালেন, সাকিবকে নিয়ে কোনো দুর্ভাবনাতেই ছিল না দল।
  • তামিম-সৌম্যর রসায়নে নেই ‘জোরাজুরি’
    তামিম ইকবাল যখন ধুঁকছেন, সৌম্য সরকার তখন ছুটছেন। ব্যাটিংয়ে তো বটেই, মানসিকতায়ও। দ্রুত রান তুলে শুধু তামিমের ওপর চাপই কমাননি সৌম্য, সাহস দিয়েছেন কথায়ও। ভরসা পেয়ে নিজেকে ফিরে পেয়েছেন তামিম। দুজনের দারুণ রসায়নেই গড়া হয়েছে রেকর্ড জুটি। জিতেছে দল।
  • এই জয়ের পর আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ: সৌম্য
    বিশ্বকাপের প্রস্তুতির শুরুটা হলো দারুণ। প্রস্তুতি ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে হারের পর জেগেছিল শঙ্কার চোরা স্রোত। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সহজেই হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরুটা দারুণ করেছে বাংলাদেশ। জয়ের অন্যতম নায়ক সৌম্য সরকার মনে করেন, এই জয় আত্মবিশ্বাস যোগাবে তাদের।
  • আতহার-রফিকের সেই জুটি ছাড়িয়ে গেলেন তামিম-সৌম্য
    ওয়ানডেতে তখনও জয়ের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। সুযোগ এলো ১৯৯৮ সালে ভারতে ত্রিদেশীয় সিরিজে। কেনিয়ার বিপক্ষে লক্ষ্য ২৩৭। রান তাড়ায় বাজি খেলল বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। আতহার আলি খানের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামানো হলো মোহাম্মদ রফিককে। দুজনের ব্যাটে গড়া হলো নতুন ইতিহাস। ১৩৭ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে দিল জয়ের ভিত। ২১ বছর পর সেই জুটিকে ছাড়িয়ে গেলেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার।
  • সৌম্য-লিটনের জন্য অধিনায়কের উদাহরণ শেবাগ-গিলক্রিস্ট
    ইচ্ছেমতো শট খেলার অনুমতি দিয়ে রাখা আছে লিটন দাস ও সৌম্য সরকারকে। শুরু থেকে প্রতিপক্ষের ওপর চড়াও হতে গিয়ে তরুণ এই দুই ওপেনার প্রায়ই ফিরেন দ্রুত। মাশরাফি বিন মুর্তজা জানান, বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চেও শট খেলার স্বাধীনতা থাকবে তাদের। তবে একই সঙ্গে দুই সতীর্থদের ব্যাটে ধারাবাহিকতাও দেখতে চান অধিনায়ক।  
  • ‘সৌম্য-লিটনের দেখিয়ে দেওয়ার সময় এখনই’
    লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে দেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি। সৌম্য সরকারের অর্জনের বিশালত্ব ছুঁয়ে যাচ্ছে তামিম ইকবালকে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কাজটা যদিও অনেক কঠিন। তামিম তবু উদ্বেধনী জুটিতে আশার আলো দেখছেন নতুন করে। শুধু সৌম্য নন, তামিম আশাভরে তাকিয়ে লিটন দাসের দিকেও।
  • সৌম্যর অনন্য কীর্তিতে রাঙা আবাহনীর শিরোপা
    চ্যালেঞ্জ ছিল কঠিন। চাপ ছিল প্রচণ্ড। কিন্তু সৌম্য সরকারের ব্যাটিং তাণ্ডবে উড়ে গেল সমীকরণের সব প্রতিবন্ধকতা। দুর্দান্ত ডাবল সেঞ্চুরিতে বাঁহাতি ওপেনার নাম লেখালেন ইতিহাসে। জহুরুল ইসলামের সঙ্গে তার ট্রিপল সেঞ্চুরি জুটিতে তছনছ হলো রেকর্ড বই। শেষ দিনের অসাধারণ জয়ে আবাহনী ধরে রাখল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা।
  • ‘খুব স্বাভাবিক ক্রিকেট’ খেলে সৌম্যর ইতিহাস
    তরতর করে এগিয়ে যাচ্ছিলেন সৌম্য সরকার। ১৯০-এ যাওয়ার আগ পর্যন্ত নাকি স্নায়ু চাপ অনুভব করেননি খুব একটা। ডাবল সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে গিয়ে টের পান চাপ। তবে শেষ ১০ রান যেভাবেই হোক তুলে নেওয়ার পরিকল্পনায় অটল ছিলেন বাঁহাতি এই ওপেনার। দেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তি গড়ার পর সৌম্য জানালেন, কেবল স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলে যাওয়ার কথাই ভাবছিলেন তিনি।
  • সৌম্য-জহুরুল জুটিতে বিশ্বরেকর্ড
    ডাবল সেঞ্চুরির অনন্য কীর্তিতে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের শেষ দিন রাঙিয়েছেন সৌম্য সরকার। ইতিহাস গড়া এই ইনিংসে ব্যক্তিগত রেকর্ড বেশ কয়েকটি যেমন হয়েছে তার, তেমনি জহুরুল ইসলামকে নিয়ে গড়েছেন জুটির বিশ্বরেকর্ডও!
  • ১৬ ছক্কায় সৌম্যর রেকর্ড গড়া ডাবল সেঞ্চুরি
    লিগ জুড়ে নিজেকে খুঁজে ফিরেছেন। বড় ইনিংসের জন্য হাপিত্যেশ করেছেন। শেষ দিকে যেন সব পুষিয়ে দিলেন সৌম্য সরকার। আগের ম্যাচে ঝড়ো সেঞ্চুরির পর বাঁহাতি ওপেনার এবার উপহার দিলেন রেকর্ডের মালায় সাজানো ডাবল সেঞ্চুরি।
  • রূপগঞ্জকে হারিয়ে শিরোপার পথে আবাহনী
    জিতলেই শিরোপা ঘরে তোলার হাতছানি ছিল লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের সামনে। প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষে থাকা দলটি পুড়ল আবাহনীর প্রতিশোধের আগুনে। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরি করলেন সৌম্য সরকার। পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস খেললেন জহুরুল ইসলাম ও মোহাম্মদ মিঠুন। বিশাল সংগ্রহ গড়া বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা জিতল সহজেই।
  • বাজে সময় কাটিয়ে সৌম্যর সেঞ্চুরি
    ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম দিকে ভালো শুরুগুলো বড় করতে পারছিলেন না সৌম্য সরকার। টুর্নামেন্টের শেষের দিকে এসে শুরুটাও পাচ্ছিলেন না। আগের ম্যাচে ফিরেছিলেন শূন্য রানে। লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে আবাহনীর মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ছন্দে ফিরলেন সৌম্য সরকার। বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে তুলে নিলেন সেঞ্চুরি।
  • বিশ্বকাপে এবার চাপমুক্ত থাকবেন না সৌম্য
    মাত্র একটি ওয়ানডের অভিজ্ঞতা। সেই সম্বল নিয়েই ২০১৫ বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়ার বিমানে চেপেছিলেন সৌম্য সরকার। অভিজ্ঞতা না থাকলেও ছিল খোলা মনে খেলার সাহস। প্রত্যাশা খুব বেশি ছিল না, তাই ছিলেন নির্ভার। চার বছর পর আরেকটি বিশ্বকাপ এগিয়ে আসছে। সঙ্গে বাড়ছে চাপ। বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের উপলব্ধি, গত বিশ্বকাপের মতো এবার বিশ্বকাপে অতটা ‘ফ্রি’ থাকতে পারবেন না।
  • সৌম্যর মানসিক প্রস্তুতি ২২ গজ ঘিরে
    মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছেন, বিশ্বকাপের আগে সবার মানসিক প্রস্তুতি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অধিনায়কের কথাটি শুনেছেন সৌম্য সরকার। শুরু হয়ে গেছে তার মানসিক প্রস্তুতি। ‘গেম অ্যাওয়ারনেস’ বা পরিস্থিতি সচেতনতা বাড়াতে চান আরও। উইকেটে গিয়ে ইনিংস গড়ায় রাখতে চান আরও পরিকল্পনার ছাপ।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে তামিম-মাহমুদউল্লাহ-সৌম্যর বড় লাফ
    ইনিংস ব্যবধানে হারলেও নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে হ্যামিল্টন টেস্টে সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশের তিন ব্যাটসম্যান। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসেও ফিফটি করেছেন তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন সৌম্য সরকার ও মাহমুদউল্লাহ। আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে অনেকটা এগিয়েছেন তিন ব্যাটসম্যানই।
  • তামিমের রেকর্ড ছুঁলেন সৌম্য
    সৌম্য সরকারের রান তখন ৯২ বলে ৯৯। হাতছানি রেকর্ডের। কিন্তু টিম সাউদির শর্ট বলটি ঠিকমতো খেলতে পারলেন না। এলো না রান। গড়া হলো না রেকর্ডও। তবে রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগটি হাতছাড়া করলেন না সৌম্য। পরের বলেই সিঙ্গেল নিয়ে রেকর্ড বইয়ে বসলেন তামিম ইকবালের পাশে।
  • সৌম্য-মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরির পরও ইনিংস হার
    রেকর্ড ছোঁয়া অসাধারণ সেঞ্চুরিতে সকালটা রাঙালেন সৌম্য সরকার। দ্বিতীয় সেশন আলোকিত করল মাহমুদউল্লাহর দুর্দান্ত সেঞ্চুরি। তবে অন্যরা থাকল সেই ব্যর্থতার চক্রেই। বিকেলে তাই মেনে নিতে হলো অনুমিত পরিণতিই। বাংলাদেশ হারল ইনিংস ব্যবধানে।
  • টেস্ট দলে সৌম্য
    সবশেষ ১০ টেস্ট ইনিংসে ফিফটি নেই। সবশেষ ছয় ইনিংসের চারটি ছুঁতে পারেনি দুই অঙ্ক। তবু নির্বাচকরা আস্থা রাখছেন সৌম্য সরকারের ওপর। নিউ জিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে থাকা ব্যাটসম্যানকে যোগ করা হয়েছে টেস্ট দলেও।
  • ‘দুর্ভাগা’ ইমরুলকে তামিমের বার্তা
    এক সিরিজ আগেই ৩৪৯ রান করার পরও নিউ জিল্যান্ড সফরের দল থেকে বাদ পড়ে যাওয়া ইমরুল কায়েসের মানসিক অবস্থা বুঝতে পারছেন তামিম ইকবাল। দেশসেরা এই ওপেনার সতীর্থকে ধৈর্য ধরে সুযোগের অপেক্ষা করার পরামর্শ দিলেন।
  • শর্ট বলে ভয় নেই, সাহস আছে: সৌম্য
    প্রথম টি-টোয়েন্টির আগের দিন পায়ের চোট। অনুশীলনের মাঝপথেই ফেরা ড্রেসিং রুমে। দ্বিতীয় ম্যাচের আগের দিন জ্বর। অনুশীলন শুরুর আগেই মাঠ থেকে ফেরার পথে। ম্যাচের আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের ভাবনা জানা গেল না এবারও। তবে দলের প্রতিনিধি হয়ে এসে সৌম্য সরকার জানিয়ে গেলেন দলের মনোভাব, শর্ট বল নিয়ে কোনো অস্বস্তির হাওয়া নেই ড্রেসিং রুমে।
  • তিনে ফিরছেন সৌম্য, ইমরুলের বদলে মিঠুন
    ছয়-সাতে খেলানোর ‘পরীক্ষা’ আপাতত শেষ। সৌম্য সরকার আবার ফিরছেন টপ অর্ডারে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান খেলবেন টপ অর্ডারে। প্রথম দুই ম্যাচে তিনে নেমে ব্যর্থ ইমরুল কায়েস জায়গা হারাচ্ছেন একাদশে। মিডল অর্ডারে ফিরছেন মোহাম্মদ মিঠুন। 
  • ‘চার ওপেনার’ খেলানোর ব্যাখ্যা মাশরাফির
    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে একই সঙ্গে ওপেনিংয়ের চার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, লিটন দাস, ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে খেলানোর ব্যাখ্যা দিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ অধিনায়ক জানালেন ছন্দে থাকা মোহাম্মদ মিঠুনকে একাদশের বাইরে কারণ।
  • তেতে থাকা উইন্ডিজকে নিয়ে সতর্ক বাংলাদেশ কোচ
    ক্যারিবিয়ানে টেস্ট সিরিজে হারার পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ জিতে নিয়েছিল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। স্টিভ রোডস মনে করেন, একইভাবে ঘুরে দাঁড়াতে চাইবে টেস্ট সিরিজ হারা ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তেতে থাকা সফরকারীদের নিয়ে সতর্ক বাংলাদেশের প্রধান কোচ।
  • তামিমের পরামর্শ শুনে সৌম্যর এই সেঞ্চুরি
    ভালো শুরুটা হাতছাড়া হতে বসেছিল সৌম্য সরকারের। রোস্টন চেইসকে উড়ানোর চেষ্টায় তুলে দিয়েছিলেন আকাশে। আশেপাশে কোনো ফিল্ডার না থাকায় বেঁচে যান বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। নন স্ট্রাইকার তামিম ইকবাল এগিয়ে গিয়ে কিছু একটা বলেন তরুণ সতীর্থকে। ম্যাচ শেষে সৌম্য জানান, সেই পরামর্শের জন্যই শেষ পর্যন্ত তুলে নিতে পেরেছিলেন সেঞ্চুরি।
  • ঝড়ো সেঞ্চুরিতে দাবি জানিয়ে রাখলেন সৌম্য
    সবশেষ ওয়ানডেতে আছে সেঞ্চুরি। তবুও যেন পরের ম্যাচে খেলাটা নিশ্চিত নয় সৌম্য সরকারের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ ছিল বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের নিজের দাবি জানিয়ে রাখার সুযোগ। সেটা দুই হাতে কাজে লাগালেন তিনি। ঝড়ো এক সেঞ্চুরিতে উজ্জ্বল করলেন একাদশে টিকে যাওয়ার আশা।   
  • তামিম-সৌম্যর সেঞ্চুরিতে উড়ে গেল উইন্ডিজ
    শেই হোপ ও রোস্টন চেইসের ফিফটিতে বড় সংগ্রহ গড়েও সফরে নিজেদের প্রথম জয় পাওয়া হল না ওয়েস্ট ইন্ডিজের। তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকারের দাপুটে দুই সেঞ্চুরিতে প্রস্তুতি ম্যাচে তাদের সহজেই হারিয়েছে বিসিবি একাদশ।
  • ইমরুল-সৌম্যর জুটিতে পাল্লা ভারি
    প্রস্তুতি ম্যাচে ভালো করে সাদমান ইসলাম দলে জায়গা করে নেওয়ায় চট্টগ্রাম টেস্টে উদ্বোধনী জুটি নিয়ে লড়াই ত্রিমুখী। সাকিব আল হাসানের কথায় রয়েছে ইমরুল কায়েস-সৌম্য সরকারের জুটিতে পাল্লা ভারি থাকার আভাস। তবে বাঁহাতি ওপেনার সাদমানের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। 
  • দাপুটে ব্যাটিংয়ে প্রস্তুতি সারলেন সৌম্য
    পরিণত এক ইনিংস খেলে প্রথম টেস্টের প্রস্তুতি সারলেন সৌম্য সরকার। টেস্ট দলে ফেরা ওপেনার টেস্ট ক্রিকেটের সঙ্গে মানানসই ব্যাটিংয়েই প্রস্তুতি ম্যাচে তুলে নিয়েছেন ফিফটি। 
  • কোয়ালিটি স্পিনে অতটা টিকবে না উইন্ডিজ: সৌম্য
    প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে বাংলাদেশের স্পিনারদের বিপক্ষে সাবলীল ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। তাদের এই ব্যাটিং নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু দেখেন না সৌম্য সরকার। তার বিশ্বাস, টেস্টে বাংলাদেশের মানসম্পন্ন স্পিনে ঠিকই ভুগবে সফরকারীরা।
  • মনঃসংযোগ বাড়িয়ে সাফল্যের আশা সৌম্যর
    রানের জন্য ছটফট করে ভালো শুরু বিসর্জন দেওয়ার নজির কম নেই সৌম্য সরকারের। তার মাশুল দিতে হয়েছে জাতীয় দলে জায়গা হারিয়ে। পায়ের নিচে মাটি পেতে তাই নিজের ব্যাটিংয়ের ধরন পাল্টে ফেলেছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। উইকেটে টিকে থাকার মানসিকতা নিয়ে এনসিএলে সাফল্য পাওয়া এই তরুণ টেস্টেও রান পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।
  • সাকিবের সঙ্গে ফিরলেন সৌম্য ও নাঈম
    বড় একটা অস্বস্তি হানা দিয়েছিল আগেই। তবে দল ঘোষণায় একটি স্বস্তির খবরও এলো। চোটের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও ফেরা হচ্ছে না তামিম ইকবালের। তবে বাংলাদেশ দল ফিরে পেয়েছেন নিয়মিত টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে। চোট কাটিয়ে ফেরা অলরাউন্ডারের সঙ্গে টেস্ট দলে ফিরেছেন ওপেনার সৌম্য সরকার ও অফ স্পিনার নাঈম হাসান।
  • তুষার-নাঈম-সৌম্যকে ছাপিয়ে সেরা সাদমান
    খুব কাছে গিয়েও ডাবল সেঞ্চুরি করতে না পারার আক্ষেপ আছে। ঢাকা মেট্রোকে প্রথম স্তরে নিতে না পারাটা পোড়াচ্ছে আরও বেশি। তবে সব না পাওয়ার হিসাব সাদমান ইসলাম মেলাতে চান পরেরবার। এনসিএলের সদ্য সমাপ্ত আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক জানালেন, যে কোনো পরিস্থিতির জন্য নিজেকে প্রস্তুত রাখতে চান তিনি।
  • লিগের শেষ ইনিংসে তুষার শূন্য, সৌম্য ৮৩
    টুর্নামেন্টে আগের ম্যাচগুলো দুর্দান্ত কাটালেও শেষটা ভালো হলো না তুষার ইমরানের। জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডে প্রথম ইনিংসে ১৯ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ফিরেছেন শূন্য রানেই। সৌম্য সরকার লিগ শেষ করলেন ৮৩ রানের ইনিংসে। হতাশার টুর্নামেন্ট কাটানো নুরুল হাসান সোহান লিগের প্রথম ফিফটির দেখা পেলেন শেষ ইনিংসে।
  • ব্যাগ গুছিয়েই রাখেন সৌম্য
    গত কিছু দিনে সৌম্য সরকার হয়ে উঠেছেন যেন যাযাবর। খুলনা থেকে দুবাই ছুটেছেন। আবার ফিরেছেন জাতীয় লিগে। আবার খুলনায় ম্যাচ শেষ করেই পর দিন বিকেএসপিতে ছুটেছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে। সেঞ্চুরি করে ফিরেছেন জাতীয় লিগে। তৃতীয় ওয়ানডের আগে আচমকা ডাক পড়ল জাতীয় দলে। আবার খুলনা থেকে ছুটে এলেন চট্টগ্রামে। ব্যাট হাতে তুললেন ঝড়। ম্যাচ শেষে বললেন, তার ব্যাগ এখন গুছানোই থাকে!
  • ফেইসবুক দূরে পাঠিয়ে রানের কাছে সৌম্য
    টেকনিক তার কখনোই আদর্শ নয়। টেম্পারামেন্টও। তবে এই নিয়েই তো রান করেছেন। গুঁড়িয়ে দিয়েছেন পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকার মতো বোলিং আক্রমণ। সৌম্য সরকারের সমস্যাটি তাহলে কোথায়? গবেষণা, আলোচনা হয়েছে বিস্তর। সমস্যার একটি জায়গা বের করেছেন সৌম্য নিজেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর বাইরের আলোচনা! সেই কপাট বন্ধ করেই ফিরলেন রানে।
  • ‘সৌম্য যেদিন খেলবে সেদিন ওয়ান ম্যান শো হবে’
    সৌম্য সরকারের স্ট্রোক খেলার সামর্থ্যে অগাধ আস্থা ইমরুল কায়েসের। বাঁহাতি এই ওপেনার মনে করছেন, একাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেওয়ার সামর্থ্য আছে সৌম্যর।
  • ইমরুল-সৌম্যর জুটির রেকর্ড
    ইনিংসের প্রথম বলেই আউট লিটন দাস। মাঠের রেকর্ড রান তাড়ায় শুরুতেই বড় ধাক্কা। কিন্তু পরের জুটিতেই চার-ছক্কার স্রোতে ভেসে গেল সব চাপ। ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারের জুটিতে গড়া হলো নতুন রেকর্ড। দ্বিতীয় উইকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জুটি এটিই।
  • ইমরুল-সৌম্যর ব্যাটে উড়ে গেল জিম্বাবুয়ে
    সিরিজ জয়ের পর প্রাপ্তি আর কি হতে পারে? দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করাও এখন বড় প্রাপ্তি নয়। সুযোগটা করে দিল জিম্বাবুয়ে, রেকর্ড রান তাড়ার চ্যালেঞ্জ জানিয়ে। সেই চ্যালেঞ্জ হেসেখেলে জয় করে বাংলাদেশ খুঁজে নিল প্রাপ্তির রসদ। ফিরেই বিস্ফোরক সেঞ্চুরি উপহার দিলেন সৌম্য সরকার। ঘুরে দাঁড়ানোর অবিশ্বাস্য অধ্যায়ে আরেকটি সেঞ্চুরি করলেন ইমরুল কায়েস। বড় রান তুলেও পাত্তা পেল না জিম্বাবুয়ে।
  • তৃতীয় ওয়ানডের দলে সৌম্য
    খুলনায় জাতীয় লিগের ম্যাচ খেলছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু তৃতীয় দিনেই খুলনা ছেড়ে উড়াল দিতে হচ্ছে তাকে চট্টগ্রামের পথে। জাতীয় লিগের মাঝপথেই ডাক পেয়েছেন জাতীয় দলে। জিম্বাবুয়ের সঙ্গে তৃতীয় ওয়ানডের দলে যুক্ত করা হয়েছে সৌম্যকে।
  • আবারও বড় ইনিংসের সুযোগ হাতছাড়া এনামুল-সৌম্যর
    আগের রাউন্ডেই ফিফটি পেরিয়ে তিন অঙ্কে যেতে পারেননি দুজন। জাতীয় লিগে আবারও বড় ইনিংস খেলার সুযোগ হাতছাড়া করলেন জাতীয় দলের বাইরে থাকা সৌম্য সরকার ও এনামুল হক। এ দিন আরেকটি সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে পারেননি তুষার ইমরানও।