• ‘দেশের মাঠে মুস্তাফিজ চ্যাম্পিয়ন, দেশের বাইরে উন্নতি প্রয়োজন’
    অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের সম্প্রতি এরকম নাচিয়ে ছাড়লেন মুস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু উইকেটে সহায়তা না পেলে তিনিও হয়ে ওঠেন অসহায়। দেশের বাইরে তার কার্যকারিতা, তার সুইং-ইয়র্কারে উন্নতি হবে কিভাবে? বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন দেখালেন সেই পথ। পাশাপাশি তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলামদের এগিয়ে চলা, অন্যান্য পেসারদের শক্তি-দুর্বলতা-সম্ভাবনা, বাংলাদেশের পেস বোলিং সংস্কৃতির বদল ও ভবিষ্যৎ ভাবনা, সব কিছু নিয়েই বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ একান্তে কথা বললেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে।
  • কোচদের অনুপস্থিতিতে উতরে যাওয়ার আশায় বাংলাদেশ
    স্পিন বোলিং কোচ অনেক দিন ধরেই নেই। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে নেই পেস বোলিং ও ফিল্ডিং কোচও। বিষয়টি মোটেও আদর্শ নয়। তবে অভিজ্ঞতার জোরে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী রাসেল ডমিঙ্গো। বাংলাদেশের প্রধান কোচের বিশ্বাস, দেশের মাটির সিরিজে কোচদের অনুপস্থিতি ততটা প্রভাব ফেলবে না।
  • বোলিংয়ে পুরো সন্তুষ্ট নন বাংলাদেশের বোলিং কোচ
    চট্টগ্রামে শেষ দিনের হতাশার পর টিম মিটিংয়ে কথার ঝড়। নতুন অনেক পরিকল্পনা। নতুন আশা। সবকিছুর পর মিরপুরে বাংলাদেশের বোলিংয়ে উন্নতির ছাপ মিলেছে বটে। তবে বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের মতে, এখনও উন্নতির অনেক বাকি আছে বোলারদের।
  • উইকেট দেখেই চট্টগ্রামে মুস্তাফিজ, মিরপুরে আবু জায়েদ
    বাংলাদেশের একাদশ নিয়ে ধাঁধা থাকে যেন সবসময়ই। চলতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজও ব্যতিক্রম নয়। একাদশে এক পেসার খেলানো নিয়ে জোর আলোচনা তো চলছেই। সেই একমাত্র পেসার বাছাই নিয়েও জেগেছে নানা প্রশ্ন। মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন শেষে উত্তর পাওয়া গেল বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের কাছ থেকে।
  • দুই পেসার খেলানোর সাহস দেখাতে হবে, বলছেন বোলিং কোচ
    স্পিনারে ঠাসা বোলিং আক্রমণ। কিন্তু মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনে উজ্জ্বল বাংলাদেশের পেস আক্রমণ। স্পিন বোলিংয়ে ৬৪ ওভারে এসেছে ২ উইকেট। পেস বোলিংয়ে প্রাপ্তি ২৬ ওভারে ৩ উইকেট। প্রথম দিনের অভিজ্ঞতা থেকে বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের অভিমত, দেশের মাঠেও কখনও কখনও একাধিক পেসার খেলানোর সাহস দলকে দেখাতে হবে।
  • ‘ভেতরের দিকে সুইং মুস্তাফিজ আরও দেখাবে’
    ৬ ওভারে ২০ রান দিয়ে ২ উইকেট। বেশ ভালো বোলিং ফিগার। তবে খুব আলোচনার মতো কিছু নয়। এমন বোলিং তো মুস্তাফিজুর রহমানের কাছ থেকে প্রত্যাশিতই! ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে তার বোলিংয়ে তবু মিশে থাকল বাড়তি উচ্ছ্বাস আর আশার উপকরণ। অনেক আলোচনা আর অপেক্ষা শেষে, হা-হুতাশের অনেক প্রহরের পর অবশেষে আভাস মিলছে, ডানহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য বল ভেতরে আনা রপ্ত করতে শুরু করেছেন এই বাঁহাতি পেসার।
  • ঘাম ঝরানোর দাম পেয়েছেন হাসান
    প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিংয়ে আলো অনেকটাই কেড়ে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। তবে বাংলাদেশের মহাতারকার পাশে ঝলমলে পারফরম্যান্সে ঠিকই নজর কেড়েছেন নবীন একজন। অভিষেক ওয়ানডেতে ৩ উইকেট নিয়ে হাসান মাহমুদ আগমণী বার্তা জানিয়েছেন বেশ জোরেসোরেই। বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের মতে, কঠোর পরিশ্রমের ফল পেয়েছেন তরুণ এই পেসার।
  • বোলারদের চেষ্টায় ঘাটতি দেখছেন না গিবসন
    রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই আঘাত। এরপর সারাদিনের চেষ্টায় প্রতিপক্ষের আর দুই উইকেট নিতে পেরেছেন বাংলাদেশের বোলাররা। বল হাতে সফল দিন পার করতে না পারলেও দলের বোলারদের চেষ্টায় ঘাটতি দেখছেন না বাংলাদেশের নতুন পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।
  • বোলিং কোচের কাঠগড়ায় মুমিনুল-মাহমুদউল্লাহরা
    দুই দিনেই রাওয়ালপিন্ডি টেস্টে চালকের আসনে বসেছে পাকিস্তান। প্রতিপক্ষের দেওয়া সুযোগ কাজে লাগিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন বাবর আজম ও শান মাসুদ। বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন মনে করেন, বাংলাদেশেরও কারও সেঞ্চুরি করা উচিত ছিল।
  • রুবেলকে খেলানোর ব্যাখ্যা বোলিং কোচের
    তার স্কোয়াডে আসাটাই বিস্ময় হয়ে এসেছিল। রুবেল হোসেন সুযোগ পেয়েছেন রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের একাদশেও। ডানহাতি পেসার দ্বিতীয় দিন বোলিংয়ে আহামরি কিছু করে দেখাতে পারেননি। তাকে খেলানো নিয়ে উঠেছে তাই প্রশ্ন। জবাব দিলেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।
  • দলে বেশি পরিবর্তনের বিপক্ষে বাংলাদেশ কোচ ও অধিনায়ক
    নতুন অভিযানের আগে একটা জায়গায় একমত রাসেল ডমিঙ্গো ও মুমিনুল হক, দল নিয়ে খুব বেশি নাড়াচাড়া করা যাবে না। বাংলাদেশ কোচ ও অধিনায়ক মনে করেন, একজন খেলোয়াড়ের নিজেকে প্রমাণের জন্য যথেষ্ট সুযোগ পাওয়া উচিত। তারা দল নির্বাচনে একটা ধারাবাহিকতা আনার দিকে জোর দিচ্ছেন।
  • বাংলাদেশের নতুন বোলিং কোচ গিবসন
    গত কিছুদিনের ঘটনাপ্রবাহে অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল, কে পাচ্ছেন বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্ব। বাকি ছিল কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। দল পাকিস্তানে যাওয়ার আগের রাতে সেই ঘোষণাও চলে এলো। ওটিস গিবসনকেই জাতীয় দলের নতুন বোলিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি।
  • সাব্বিরের ভাবনার গভীরতায় ঘাটতি দেখছেন গিবসন
    বিপিএলে সাব্বির রহমানকে দলে পেয়ে বেশ রোমাঞ্চিত ছিলেন ওটিস গিবসন। কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের কোচ হয়ে আসা এই ক্যারিবিয়ান টুর্নামেন্ট শুরুর আগে টিম ম্যানেজমেন্টের আলোচনায় সাব্বিরকে অধিনায়ক করার সুপারিশও করেছিলেন বলে জানা গিয়েছিল সেসময়। কিন্তু গিবসনের সেই রোমাঞ্চ উধাও হয়ে গেছে সময়ের সঙ্গে। সাব্বিরের পারফরম্যান্সে ভীষণ হতাশ কুমিল্লা কোচ।
  • বিসিবির সঙ্গে গিবসনের ‘আলোচনা চলছে’
    প্রশ্নটি শেষও হয়নি। ওটিস গিবসন তার আগেই হেসে বললেন, “আমি জানতাম, প্রশ্নটি আসবে!’ বাংলাদেশের বোলিং কোচ হতে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে সাবেক ক্যারিবিয়ান পেসারকে, এই গুঞ্জন ছিল। গিবসন নিজেই জানালেন, সেটি সত্যিই। বিসিবির সঙ্গে আলোচনা চলছে তার।
  • সাব্বিরের এতদিনে জাতীয় দলে জায়গা পাকা করার কথা: গিবসন
    ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার ছিল সংক্ষিপ্ত। তবে ইংলিশ কাউন্টি ও দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া ক্রিকেটে ক্যারিয়ার ছিল দারুণ সমৃদ্ধ। ওটিস গিবসন অবশ্য বেশি পরিচিতি পেয়েছেন খেলোয়াড়ি জীবনের পরের অধ্যায়ে। কোচ হিসেবে ক্রিকেট বিশ্বে আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন সর্বোচ্চ পর্যায়ে। দুই দফায় ছিলেন ইংল্যান্ডের বোলিং কোচ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান কোচ ছিলেন লম্বা সময়। সবশেষ ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান কোচ। গত অগাস্টে সেই দায়িত্ব শেষ হয়েছে বিতর্কিতভাবে। এখন তিনি বাংলাদেশে, বিপিএলে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের প্রধান কোচ। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সাবেক ক্যারিবিয়ান পেসার কথা বললেন বিপিএলে তার স্কোয়াড, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট, তার কোচিং, দক্ষিণ আফ্রিকায় বিতর্কিত সময় ও সমসাময়িক ক্রিকেটের বাস্তবতা নিয়ে।
  • ব্যাটিংয়ের দর্শনেই বিপিএল রাঙাতে চান কোচ গিবস
    ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে ছুটে আসা বল বোলিং প্রান্তের খানিক দূরে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ধরলেন। থ্রো করলেন স্টাম্প তাক করে। নিখুঁত লক্ষ্যভেদের পর একহাত উঁচিয়ে খানিক দৌড়ে উদযাপনও করলেন। কে বলবে, তিনি ক্রিকেটার নন, কোচ! সিলেট থান্ডারের সঙ্গে প্রথম দিনের অনুশীলনে যেন খেলোয়াড়ি দিনগুলোর মতোই প্রাণবন্ত হার্শেল গিবস।
  • দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ ওটিস গিবসন
    দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক ক্রিকেটার ওটিস গিবস। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজ শেষে ইংল্যান্ডের বোলিং কোচের দায়িত্ব ছাড়বেন তিনি।