• বেয়ারস্টোকে ছাপিয়ে নায়ক ম্যাক্সওয়েল-কেয়ারি
    ম্যাচের প্রথম দুই বলে উইকেট হারানো দলকে টানলেন জনি বেয়ারস্টো। তার সেঞ্চুরি ও ক্রিস ওকসের শেষের ঝড়ো ফিফটিতে ইংল্যান্ড পেল তিনশ ছাড়ানো সংগ্রহ। রান তাড়ায় শুরুর ধসে ম্যাচ থেকে ছিটকে যেতে বসেছিল অস্ট্রেলিয়া। সেখান থেকে দারুণ দুই সেঞ্চুরিতে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে গেলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও অ্যালেক্স কেয়ারি।
  • ঘুরে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ডের দারুণ জয়
    মাঝারি রান তাড়ায় অনায়াস জয়ের পথে ছিল অস্ট্রেলিয়া। চ্যালেঞ্জিং উইকেটেও সাবলীল ব্যাটিংয়ে অ্যারন ফিঞ্চ ও মার্নাস লাবুশেন অনেকটাই মুঠোয় নিয়ে এসেছিলেন ম্যাচ। কিন্তু তাদের শতরানের জুটি ভাঙার পর ঘুরে দাঁড়ানোর চমৎকার এক গল্প লিখল ইংল্যান্ড। বুদ্ধিদীপ্ত নেতৃত্ব ও পেসারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ের মিশেলে নাটকীয় জয়ে সিরিজে সমতা টানল ওয়েন মর্গ্যানের দল।
  • বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ার শুভ সূচনা
    রেকর্ড গড়া জুটিতে দলকে লড়াইয়ের সংগ্রহ এনে দিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও মিচেল মার্শ। ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে লড়াই করলেন স্যাম বিলিংস। তবে জস হেইজেলউড ও অ্যাডাম জ্যাম্পার বোলিংয়ের বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত পেরে ওঠেনি ইংল্যান্ড। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে ওয়ানডে লিগে শুভ সূচনা করেছে অস্ট্রেলিয়া।
  • স্টার্লিং-বালবার্নির সেঞ্চুরিতে আয়ারল্যান্ডের রেকর্ড গড়া জয়
    ওয়েন মর্গ্যানের সেঞ্চুরিতে আয়ারল্যান্ডকে রেকর্ড গড়ার চ্যালেঞ্জ দিয়েছিল ইংল্যান্ড। হোয়াইটওয়াশ এড়াতে সেই চ্যালেঞ্জ নিলেন পল স্টার্লিং ও অ্যান্ডি বালবার্নি। টপ অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি আর রেকর্ড গড়া জুটিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের তাদেরই মাটিতে হারিয়ে দিয়েছে আয়ারল্যান্ড।