• চেন্নাই টেস্টে ভারতের উইকেটের পেছনে পান্ত
    অস্ট্রেলিয়া সিরিজে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেলেন রিশাব পান্ত। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চেন্নাই টেস্টে তাকেই উইকেটকিপার হিসেবে খেলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।
  • পান্তের সঙ্গে দ্বন্দ্ব নেই, দাবি ঋদ্ধিমানের
    একাদশে জায়গার লড়াইয়ে তারা দুজন প্রবল প্রতিপক্ষ। তবে এখানে প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও রিশাভ পান্তের সঙ্গে কোনো দ্বন্দ্ব নেই বলেই দাবি করলেন ঋদ্ধিমান সাহা। বরং দুজন নাকি পরস্পরকে সহায়তা করেন। পান্তের কিপিং নিয়ে সমালোচনায় প্রসঙ্গেও এই তরুণের পাশেও দাঁড়ালেন অভিজ্ঞ ঋদ্ধিমান।
  • ‘ঋদ্ধিমানের সঙ্গে অন্যায় হয়েছে, পান্তের সঙ্গেও’
    প্রথম টেস্টে ঋদ্ধিমান সাহাকে দলে নেওয়ার পর সমালোচনা হয়েছিল বেশ। দ্বিতীয় টেস্টে তাকে বাদ দিয়ে রিশাভ পান্তকে নেওয়াতেও আলোচনা থেমে নেই। গৌতম গম্ভিরের কণ্ঠ এই প্রসঙ্গে বেশ উচ্চকিত। সাবেক ভারতীয় ব্যাটসম্যানের মতে, দুই কিপারের প্রতিই সুবিচার করছে না ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট।
  • ‘ঋদ্ধিমানের তুলনীয় কেউ নেই’
    টেস্টে ভারতের উইকেটকিপার হিসেবে ঋদ্ধিমান সাহার সঙ্গে তুলনায় আসার মতো কাউকে দেখেন না পার্থিব প্যাটেল। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অবশ্য লোকেশ রাহুলকেই উপযুক্ত মানছেন পার্থিব।
  • ‘গোলাপি বল কিপার-স্লিপ ফিল্ডারদের জন্যও চ্যালেঞ্জিং’
    আমি তো স্লিপের পাশেই থাকি, ওদের জন্য যদি চ্যালেঞ্জিং হয়, আমার জন্যও হবে-পুরানো গোলাপি বলে ক্যাচ ধরা কঠিন হতে পারে বলে মনে করছেন ঋদ্ধিমান সাহা। ভারতীয় কিপার-ব্যাটসম্যানের মতে, গোলাপি বলে সুবিধা কেবল পেসারদের জন্য, বাকি সবার জন্য হাজির হবে একেক রকম চ্যালেঞ্জ নিয়ে।
  • ভারত একাদশে পান্তের জায়গায় ঋদ্ধিমান
    স্কোয়াডে দুই কিপার থাকায় জমজমাট একটা লড়াই অপেক্ষা করছিল ঋদ্ধিমান সাহা ও রিশাভ পান্তের মাঝে। মাঠে না নেমেই সে লড়াইয়ের প্রথম ধাপে জয়ী ঋদ্ধিমান। একাদশে জায়গা হারিয়েছেন পান্ত, কিপিংয়ে এগিয়ে থাকা ঋদ্ধিমানকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম টেস্টের একাদশে বেছে নিয়েছে ভারত।
  • পুজারার ডাবল সেঞ্চুরি, ঋদ্ধিমানের সেঞ্চুরি
    তিন দিন লড়াই হয়েছে সমানে সমান। চতুর্থ দিনে একটু একটু করে বাড়ল ব্যবধান। ধৈর্যের পরীক্ষায় প্রতিপক্ষের জীবনীশক্তি যেন আস্তে আস্তে শুষে নিলেন চেতেশ্বর পুজারা আর ঋদ্ধিমান সাহা। শেষ বিকেলে অস্ট্রেলিয়ানদের পিঠ দেয়ালে ঠেকিয়ে দিলেন রবীন্দ্র জাদেজা।
  • ‘কপালে সেঞ্চুরি ছিল বলেই মুশফিক লাগাতে পারেনি’
    “অমন মিস দেখে বিস্মিত হননি? নিজেকে নিশ্চয়ই ভাগ্যবান ভাবছেন!” প্রশ্নের ধরণে হোক বা ঘটনাটি মনে করে, সংবাদ সম্মেলনে বসে হেসে ফেললেন ঋদ্ধিমান সাহা। তবে মাঠে ওই সময়টায় নিশ্চয়ই আত্মারাম খাঁচাছাড়া হওয়ার জোগাড় হয়েছিল!
  • ভারতের রেকর্ডে পিষ্ট বাংলাদেশ
    মুখরোচক কোনো বুফে মেন্যুতে কী কী থাকতে পারে? রেস্তোরাঁ নয়, বলা হচ্ছে ২২ গজের কথা। ব্যাটসম্যানদের কাঙ্ক্ষিত তালিকায় থাকতে পারে শর্ট বল, বাইরে বল, হাফ ভলিসহ আলগা বোলিংয়ের সব পদ; বাজে ফিল্ডিং, ক্যাচ ছাড়া, স্টাম্পিং মিস, ম্যাড়মেড়ে শরীরী ভাষা, একঘেয়ে ও কল্পনাশক্তিহীন নেতৃত্ব। অতিথি হয়ে এসে বাংলাদেশই অতিথি-সেবা করল এই সব দিয়ে। সুস্বাদু সব খাবার পেয়ে গোগ্রাসে গিলল ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।
  • অশ্বিন-সাহার শতকের পর উইন্ডিজের লড়াই
    ১২৬ রানে পড়েছিল প্রথম ৫ উইকেট, শেষ ৫টি মাত্র ১৪ রানে। মাঝে ষষ্ঠ উইকেটে অসাধারণ এক জুটি। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও ঋদ্ধিমান সাহার সেঞ্চুরি। সাড়ে তিনশ ছাড়িয়ে ভারত। জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটাও হলো বেশ ভালো।