• জীবন পেয়ে কুমিল্লার শেষের নায়ক নারাইন
    ম্যাচ শেষ হতেই মোসাদ্দেক হোসেন এগিয়ে গিয়ে চেয়ে নিলেন সুনিল নারাইনের ব্যাট। নেড়েচেড়ে দেখলেন কিছুক্ষণ। ওই ব্যাটের যে জোর দেখা গেছে নারাইনের একেকটি শটে, মোসাদ্দেক হয়তো পরখ করছিলেন সেটিই! অথচ ওই দাপট থামতে পারত অনেক আগেই, যদি ক্যাচ নিতে পারতেন মুক্তার আলি। প্রথম বলে বেঁচে যাওয়া সেই নারাইনই শেষ সময়ে ডোবালেন সিলেটকে।
  • ইনগ্রামকে থামিয়ে বরিশালের জয়, চারে চার সাকিব
    ৪০ ওভারের ম্যাচে প্রথম ৩৪ ওভারে মাঠে প্রায় খুঁজে পাওয়াই গেল না নাজমুল হোসেন শান্তকে। সেই তিনিই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেওয়ায় বড় ভূমিকা রাখলেন ৩৫তম ওভারে। ব্যাট হাতে চেনা রূপে অবশ্য নয়, বরং অফ স্পিনের ঝলক দিয়ে! কলিন ইনগ্রামের অশান্ত ব্যাটে যখন বইছে শঙ্কার স্রোত, তখন শান্তই তাকে শান্ত করে স্বস্তি দিলেন দলকে। সাকিব আল হাসানের আরেকটি ম্যাচ সেরা পারফরম্যান্স আর অনেকের সম্মিলিত অবদানের ম্যাচ জিতে শীর্ষস্থান সংহত করল বরিশাল।
  • মিঠুনের মুখে হাসি, ইনগ্রামের মনে খুশি
    নেটে ঘাম ঝরানোর ফল মিলেছে ম্যাচে। নিজেকে হারিয়ে খোঁজা মোহাম্মদ মিঠুন অবশেষে পেয়েছেন পথের দেখা। মাঠের বাইরে সতীর্থের লড়াইটা কাছ থেকে দেখেছেন কলিন ইনগ্রাম। মাঠে সেই পরিশ্রমের ফল পাওয়ায় তাই উচ্ছ্বসিত কলিন ইনগ্রাম।
  • যাযাবর জীবনেই যিনি খুঁজে নিয়েছেন ক্রিকেটানন্দ
    বয়সভিত্তিক ক্রিকেট থেকে নানা ধাপ পেরিয়ে জাতীয় দলে পদার্পণ, অভিষেক ওয়ানডেতেই সেঞ্চুরি। স্বপ্নাতুর চোখে কলিন ইনগ্রাম তখন তাকিয়ে সফল আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের পথে। কিন্তু ছোট্ট ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৩টি সেঞ্চুরির পরও পারলেন না থিতু হতে। হতাশা-অনিশ্চয়তার নানা প্রহর পেরিয়ে এক পর্যায়ে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমালেন কলপ্যাক চুক্তি করে। জীবনও বদলে গেল পুরোপুরি। স্বপ্ন-লক্ষ্য-বাস্তবতা তখন ভিন্ন, সেই দাবি মিটিয়ে নিজের খেলা ভেঙে গড়লেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে দূরে ঠেলে দিলেও ক্রমে তিনি হয়ে উঠলেন বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের ব্যস্ত একজন। এবার ৩৬ বছর বয়সে প্রথম তার পা পড়ল বিপিএলে। সিলেট সানরাইজার্সে খেলতে আসা এই দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে শোনালেন তার ক্রিকেট জীবনের নানা বাঁকের গল্প।