• লেগ স্পিনারদের আশার পালে আমিনুলের দোলা
    “আমাদের একজন লেগ স্পিনার ছিল, কিন্তু সে তো বিবর্ণ হয়ে গেল…খুবই হতাশাজনক,”  ২০১৬ সালে জুবায়ের হোসেনের ব্যাপারে আক্ষেপ নিয়ে বলেছিলেন তখনকার বাংলাদেশ কোচ চন্দিকা হাথুরুসিংহে। দেশের ক্রিকেটের দীর্ঘ সেই হাহাকার গত বছরের শেষ দিকে এসে কিছুটা ঘুচেছে। আমিনুল ইসলামকে পেয়ে বাংলাদেশ অন্তত বলতে পারছে, আমাদের একজন লেগ স্পিনার আছে। এই তরুণকে দেখে নতুন করে আশায় বুক বাঁধছেন নিজেকে হারিয়ে খোঁজা নূর হোসেন, হাথুরুসিংহের সেই হতাশা জুবায়ের আর সম্ভাবনাময় মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি।
  • স্মরণীয় দ্বৈরথ: বাতাস আর বন্ডের সঙ্গে আমিনুলের লড়াই
    সফরকারী দলগুলির জন্য বরাবরই বড় চ্যালেঞ্জ ওয়েলিংটনের বাতাসের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া। তারওপর সেখানে যদি সামলাতে হয় শেন বন্ডের গতি, সুইং আর বাউন্সের গোলা! ক্যারিয়ারের স্মরণীয় দ্বৈরথের কথা ভাবতে গিয়ে সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়ক আমিনুল ইসলামের মনে পড়ল সেই লড়াইয়ের স্মৃতি।
  • তারুণ্যে ভরসা রেখে পাকিস্তান জয়ের আশা মাহমুদউল্লাহর
    বঙ্গবন্ধু বিপিএলের পারফরমারদের নিয়ে গড়া টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল নিয়ে মাহমুদউল্লাহর অনেক আশা। আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আমিনুল ইসলামের মতো তরুণদের সামর্থ্যে ভরসা করছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দলে অভিজ্ঞতারও কোনো ঘাটতি নেই। পাকিস্তানে সিরিজ জিততে প্রয়োজন স্রেফ একটা দল হিসেবে নিজেদের সেরা ক্রিকেটটা খেলা।
  • বাংলাদেশ ইমার্জিং দলে দুই লেগ স্পিনার আমিনুল ও আফ্রিদি
    ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি দলে থাকা ৫ ক্রিকেটার জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশ ইমার্জিং দলে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও বাঁহাতি পেসার আবু হায়দার রনি দেশে ফিরে খেলবেন ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপে। টুর্নামেন্টে দলকে নেতৃত্ব দেবেন নাজমুল হোসেন শান্ত।
  • ‘বিপ্লব মূলত ব্যাটসম্যান, যে লেগ স্পিন করতে পারে’
    একেকটি ম্যাচ যাচ্ছে আর বল হাতে আরও বেশি মুগ্ধতা ছড়িয়ে যাচ্ছেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। তাতে তার আসল সত্তাই যেন চাপা পড়ে যাচ্ছে। সেটিই মনে করিয়ে দিলেন রাসেল ডমিঙ্গো। আমিনুলের মূল পরিচয় তো ব্যাটসম্যান! জাতীয় দলের কোচ অবশ্য মুগ্ধ তরুণ এই ক্রিকেটারের প্রাণশক্তি দেখে।
  • সাহসী আমিনুলের প্রশংসায় মাহমুদউল্লাহ
    ভারত ১০ উইকেটে জিতবে কি না, রোহিত শর্মা সেঞ্চুরি পাবেন কি না, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে এক পর্যায়ে এটাই ছিল দেখার বিষয়। আমিনুল ইসলামের দারুণ বোলিংয়ে হয়নি তার কোনোটাই। তরুণ লেগ স্পিনার যে সাহস নিয়ে বোলিং করেছেন তাতে মুগ্ধ মাহমুদউল্লাহ। সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে সতীর্থের কাছে একই ধরনের সাহসী বোলিং চান বাংলাদেশ অধিনায়ক।
  • আগ্রাসী আফিফ-আমিনুল-নাঈমকে চান অধিনায়ক
    সীমিত সুযোগে নিজেদের সামর্থ্য দেখানো আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম ও মোহাম্মদ নাঈম শেখকে নিয়ে দারুণ আশাবাদী মাহমুদউল্লাহ। তরুণ সতীর্থদের আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে যাওয়ার পরামর্শ দিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।
  • ছক কেটে শিকার ধরেছেন আমিনুল
    পরপর দুই ওভারে ছক্কা, তরুণ বোলারের জন্য হতে পারত বড় ধাক্কা। কিন্তু দুই ছক্কা হমজ করেও ভড়কে যাননি। এলোমেলো হয়নি ভাবনা। বোলিং করে গেছেন পরিকল্পনা অনুযায়ী। তাতে মিলেছে সাফল্য,থামিয়েছেন ঝড় তোলা শ্রেয়াস আয়ারকে। সাফল্যে উদ্বুদ্ধ আমিনুলের উপলব্ধি, ব্যাটসম্যান যাই করুক, নিজের বোলিংটাই করে যেতে হবে।
  • দুর্দান্ত আমিনুল আর শঙ্কা জাগানিয়া ব্যাটিং
    আমিনুল ইসলাম সবে বল হাতে নিয়েছেন। ড্রেসিং রুম থেকে ছুটে মাঠে গেলেন ড্যানিয়েল ভেটোরি। আম্পায়ারের ঠিক পেছনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের স্পিন কোচ কাছ থেকে দেখলেন আমিনুলের বোলিং। তরুণ লেগ স্পিনার যেভাবে বোলিং করলেন, মন ভরে যাওয়ার কথা ভেটোরির। তবে ভারত সফরের আগে দুর্ভাবনার অবকাশ জাগাল দলের ব্যাটিং।
  • ফাইনালে আমিনুলের খেলার সম্ভাবনা দেখছেন না কোচ
    বাঁহাতে ব্যান্ডেজ আছে এখনও। বোলিংয়ে কোনো সমস্যা নেই। নেটে বোলিং করার পর মাঠে স্পিন কোচ সোহেল ইসলামের সঙ্গে বোলিং অনুশীলন করলেন অনেকক্ষণ। তারপরও ফাইনালে আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো জানিয়ে দিয়েছেন, শতভাগ ফিট একাদশ নিয়ে মাঠে নামা তার পছন্দ।
  • নির্ঘুম রাতের পর আমিনুলের স্বপ্নময় সময়
    মিরপুরে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচের পর একটি ফোনকল পেলেন আমিনুল ইসলাম। যা শুনলেন, তারপর উত্তেজনায় আর ঘুম হলো না রাতে! পরদিন তার ঠিকানা হলো বাংলাদেশের টিম হোটেল। স্বপ্নের নায়করা তখন তার সতীর্থ। তাদের সঙ্গেই নামলেন মাঠে। পারফরম্যান্সও হলো নজর কাড়া। অভিষেক ম্যাচে হাতের চোট যদিও একটু ছন্দপতন ঘটিয়েছে। তবু কয়েক দিন ধরে যেন স্বপ্নের ঘোরে আছেন আমিনুল।
  • অভিষেকে দুই উইকেটের পর আমিনুলের হাতে তিন সেলাই
    আলোচিত অভিষেক ম্যাচে পারফরম্যান্স দিয়ে যথেষ্টই আলোড়ন তুলেছেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। তবে ম্যাচটি শুধু আনন্দ নয়, যন্ত্রণাও দিয়েছে বাংলাদেশের তরুণ এই ক্রিকেটারকে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই উইকেট পাওয়ার ম্যাচে চোটও পেয়েছেন হাতে। ডানহাতি স্পিনারের বাঁ হাতে পড়েছে তিনটি সেলাই।
  • আমিনুলের লেগ স্পিনে আশার ঝিলিক
    এলেন, দেখলেন, জয় করলেন! শুধু খেলাধূলায় নয়, জীবনের বহু ক্ষেত্রে বহু জনের প্রসঙ্গে কথাটি ব্যবহৃত হয়েছে অসংখ্যবার। তারপরও যুগ যুগ ধরে এটিই কোনো বিস্ময় ছড়ানো নবীনের স্তুতিতে আদর্শ জয়গান। আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের ক্ষেত্রেও বলা যায় একই কথা। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে তার জায়গা পাওয়া ছিল চমক জাগানিয়া। সেই চমক আমিনুল ধরে রাখলেন পারফরম্যান্সেও। অভিষেক হলো লেগ স্পিনের আলো ছড়িয়ে।
  • আমিনুলের বোলিংয়ে ‘এক্স ফ্যাক্টর’ দেখছেন মাহমুদউল্লাহ
    কিছুদিন আগেও সিনিয়র ক্রিকেটারদের অনেকে তাকে চিনতেন না। বোলিং সম্পর্কে জানার তো প্রশ্নই আসে না। কিন্তু নেটে কয়েক দিনের দেখা আর অভিষেক ম্যাচের পারফরম্যান্স বদলে দিয়েছে চিত্র। আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের বোলিংয়ে সম্ভাবনার ছাপ দেখছে গোটা দল। সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ দেখছেন এই তরুণ লেগ স্পিনারের উজ্জ্বল ভবিষ্যত।
  • অভিষেকও হয়ে গেল আমিনুলের
    কিছুদিন আগেও জাতীয় দলের ধারেকাছে ছিলেন না আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। ক্যারিয়ারে নাটকীয় পালাবদলে সেই আমিনুল পেলেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ। চমক হিসেবে ত্রিদেশীয় সিরিজের বাংলাদেশ দলে আসা লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার টি-টোয়েন্টি ক্যাপও পেয়ে গেলেন দ্রুতই।
  • প্রথম দিনের নেটে যেমন করলেন নাঈম-আমিনুল
    শুরুতে একটু স্ট্রেচিং, গা গরমের হালকা ফুটবল খেলা। এরপর লম্বা ফিল্ডিং সেশন। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার বাংলাদেশের ব্যাটিং-বোলিং সেশন শুরু হতে একটু সময় লাগল। নেট সেশনের জন্য তাই অপেক্ষা, জাতীয় দলের নেটে যে প্রথমবার খেলবেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব।
  • ‘কোচের চাওয়ায়’ টি-টোয়েন্টি দলে আমিনুল-শান্ত
    বাংলাদেশ হাই পারফরম্যান্স (এইচপি) দলের হয়ে ভারতে যাওয়ার কথা ছিল আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও নাজমুল হোসেন শান্তর। কিন্তু নাটকীয় পালাবদলে দুজনকেই যেতে হচ্ছে চট্টগ্রামে। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশ দলে ডাক পেয়েছেন দুজনই। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন জানালেন, মূলত কোচের আগ্রহে নেওয়া হয়েছে এই দুজনকে।
  • টি-টোয়েন্টি দলে নতুন চমক নাঈম শেখ ও আমিনুল
    আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ হারার পর পরিবর্তনের ছড়াছড়ি ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশ দলে। চট্টগ্রাম পর্বের দুই ম্যাচের জন্য দলে নেওয়া হয়েছে মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে। প্রথমবার টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত।
  • কন্ডিশনিং ক্যাম্পের দলে আমিনুল-শফিকুল
    বাংলাদেশ ক্রিকেটের নতুন মৌসুম শুরুর আগে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের দলে ডাক পেয়েছেন বেশ কয়েকজন তরুণ ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে আছেন আনকোরা বাঁহাতি পেসার শফিকুল ইসলাম ও ব্যাটসম্যান আমিনুল ইসলাম। এই দুজনসহ শ্রীলঙ্কার ইমার্জিং দলের বিপক্ষে সিরিজের বাংলাদেশ হাই পারফরম্যান্স দল থেকে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের দলে আছেন মোট ১০ জন।