র‌্যাঙ্কিংয়ে খালেদ-শান্তর উন্নতি, পেছালেন সাকিব

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে দল বাজেভাবে হারলেও নিজের কাজটা ঠিকঠাকই করেছেন সৈয়দ খালেদ আহমেদ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের ছাপও পড়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে। টেস্ট বোলারদের তালিকায় এগিয়েছেন এই পেসার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 June 2022, 08:43 AM
Updated : 29 June 2022, 10:37 AM

আহামরি কিছু করতে না পারলেও ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে নাজমুল হোসেন শান্ত ও নুরুল হাসান সোহানের। ব্যাট-বলে একদম নিষ্প্রভ থাকায় অলরাউন্ডারদের তালিকায় অবনতি হয়েছে সাকিব আল হাসানের।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ম্যাচে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন খালেদ। দ্বিতীয় টেস্টে নিজেকে মেলে ধরেন তিনি আরও দুর্দান্তভাবে। ১০৬ রান দিয়ে নেন ইনিংসে পাঁচ উইকেট। এই সংস্করণে বাংলাদেশের ষষ্ঠ পেসার হিসেবে এই কীর্তি গড়েন তিনি।

আইসিসির বুধবার প্রকাশিত র‍্যাঙ্কিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদে ৯ ধাপ এগিয়ে খালেদ এখন ৮৮তম স্থানে। তিন উইকেট নেওয়া মেহেদী হাসান মিরাজ এক ধাপ এগিয়ে আছেন ৩০তম স্থানে। উইকেটশূন্য থাকা সাকিব এক ধাপ পিছিয়ে ২৯ নম্বরে।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ের বাংলাদেশের সেরা অবস্থান তাইজুল ইসলামের, ২৭তম।

১০ উইকেটে হেরে যাওয়া ম্যাচে দুই ইনিংসে ২৬ ও ৪২ রান করেন শান্ত। ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ১১ ধাপ এগিয়ে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের অবস্থান ৮৮তম। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫০ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকা সোহানের অগ্রগতি ১৪ ধাপ, আছেন ৮৪ নম্বরে।

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের সেরা অবস্থান আগের মতোই লিটন দাসের। প্রথম ইনিংসে ফিফটি করলেও এক ধাপ নিচে নেমে তিনি এখন ত্রয়োদশ স্থানে। এই সফর থেকে ছুটি পাওয়া মুশফিকুর রহিম এক ধাপ নেমে আছেন ১৮ নম্বরে।

সেন্ট লুসিয়ায় প্রথম ইনিংসে ভালো শুরু পেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে পুরোপুরি ব্যর্থ ছিলেন তামিম ইকবাল। তাতে এক ধাপ নিচে নেমে ৩৮তম স্থানে আছেন তিনি। সাকিবের অবনতি ৬ ধাপ, আছেন তামিমের পরেই।

প্রথম টেস্টে ভালো করে অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে দুইয়ে উঠেছিলেন সাকিব। কিন্তু এবার দুই বিভাগেই কিছু করতে না পেরে ১৮ রেটিং পয়েন্ট হারিয়ে এক ধাপ নেমে তিনি এখন আছেন তিনে। আগের মতোই শীর্ষে রবীন্দ্র জাদেজা, দুইয়ে উঠে গেছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ২২ ধাপ এগিয়েছেন কাইল মেয়ার্স। ১৪৬ রানের ইনিংসের সুবাদে তিনি জায়গা করে নিয়েছেন ৫৭তম স্থানে। জার্মেইন ব্ল্যাকউডের উন্নতি ৪ ধাপ। ফিফটি করা ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট এক ধাপ এগিয়ে এখন ২৭তম স্থানে।

ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে যথারীতি শীর্ষে ইংল্যান্ডের জো রুট। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে হেডিংলি টেস্টে রান তাড়ায় ৮৬ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।

ওই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে দলের কঠিন বিপর্যয়ে ১৬২ রান করা জনি বেয়ারস্টো দ্বিতীয় ইনিংস খেলেন ৭১ রানের ঝড়ো ইনিংস। র‍্যাঙ্কিংয়ে ২০ ধাপ এগিয়ে তিনি এখন ২১তম স্থানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৮২ রান করা অলিভার পোপ তিন ধাপ উপরে উঠে জায়গা করে নিয়েছেন ৪৯ নম্বরে।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন টেস্টের সিরিজে দল হোয়াইটওয়াশড হলেও ব্যাট হাতে দুর্দান্ত কাটিয়েছেন ড্যারিল মিচেল ও টম ব্লান্ডেল। তৃতীয় ও শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১০৯ রান করা মিচেল দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ৫৬। এই পারফরম্যান্সে চার ধাপ এগিয়ে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় ১২তম স্থানে আছেন তিনি। ওই ম্যাচের দুই ইনিংসেই ফিফটি করা ব্লান্ডেল ১১ ধাপ এগিয়ে আছেন ২০তম স্থানে। দুইজনেরই যা ক্যারিয়ার সেরা অবস্থান।

টেস্ট বোলারদের মধ্যে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৩ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ২৫ নম্বরে উঠে এসেছেন জ্যাক লিচ। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ম্যাচে ১০ উইকেট নেওয়ার কীর্তি গড়ে এই উন্নতি ইংলিশ বাঁহাতি স্পিনারের। তিন উইকেট নেওয়া স্টুয়ার্ট ব্রড এক ধাপ এগিয়ে আছেন ত্রয়োদশ স্থানে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের মধ্যে র‍্যাঙ্কিংয়ে বড় লাফ দিয়েছেন জেডেন সিলস। ১০ ধাপ এগিয়েছেন তিনি। ৭ ধাপ এগিয়ে তার সঙ্গে যৌথভাবে ৪০তম স্থানে আছেন আলজারি জোসেফ।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে আগের মতোই শীর্ষে অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স।

নেদারল্যান্ডস-ইংল্যান্ডের তৃতীয় ওয়ানডে ও শ্রীলঙ্কা-অস্ট্রেলিয়ার পঞ্চম ওয়ানডের পারফরম্যান্সও বিবেচনায় এসেছে এই সপ্তাহের র‍্যাঙ্কিংয়ে। যেখানে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ইংল্যান্ডের জস বাটলার ৪ ধাপ এগিয়ে ২৫তম স্থানে আছেন। অস্ট্রেলিয়ার অ্যালক্স কেয়ারি ৩ ধাপ উন্নতি করে ২৩ নম্বরে।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যথারীতি শীর্ষে পাকিস্তানের বাবর আজম।

বোলারদের মধ্যে জশ হেইজলউড এক ধাপ এগিয়ে জাসপ্রিত বুমরাহর সঙ্গে যৌথভাবে আছেন পঞ্চম স্থানে। তালিকায় আগের মতোই এক নম্বরে নিউ জিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট। অলরাউন্ডারদের মধ্যে সবার ওপরে সাকিব।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক