বিশ্বকাপে কোহলিকে টপ অর্ডারে চান না শেবাগ

সাদা বলের ক্রিকেটে তিন নম্বর পজিশনে ভারতের সফলতম ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। মাঝে মধ্যে খেলেছেন ওপেনিংয়ে। নিচে যে খেলেননি তাও নয়, তবে তিনেই ক্যারিয়ারের সেরা সব সাফল্য ধরা দিয়েছে তার হাতে। আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেই কোহলিকেই কিনা টপ অর্ডারে দেখতে চান না বিরেন্দর শেবাগ!

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 June 2022, 12:56 AM
Updated : 27 June 2022, 12:56 AM

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া বৈশ্বিক আসরে ব্যাটিং অর্ডারের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান হিসেবে রোহিত শর্মা, ইশান কিষান ও লোকেশ রাহুলকে পছন্দ ভারতের সাবেক এই ওপেনারের।

কদিন আগেও তার ব্যাটে ছিল রানের স্রোত। উইকেটে নামলেই গুঁড়িয়ে দিতেন প্রতিপক্ষের বোলারদের। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টি কোনোখানেই সময়টা ভালো যাচ্ছে না কোহলির। রাখতে পারছেন না নিজের সামর্থ্যের ছাপ।

ওয়ানডেতে তিন নম্বরে নেমে ১০ হাজার রান করা ভারতের একমাত্র ব্যাটসম্যান কোহলি। পাঁচ হাজারও নেই আর কারো। সব দল মিলিয়ে এই পজিশনে রান সংগ্রাহকের তালিকায় তিনি আছেন দুইয়ে। শীর্ষে থাকা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিংয়ের রান ১২ হাজার ৬৬২। আর কোহলির রান ১০ হাজার ১৯৫।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তো তিন নম্বর ব্যাটসম্যানদের মধ্যে কোহলির ধারেকাছেও নেই কেউ। ৬১ ইনিংসে ৫৭.১৩ গড় ও ১৩৫.৯৭ স্ট্রাইক রেটে তার নামের পাশে রান ২ হাজার ৪৫৭, ফিফটি আছে ২৫টি। অনেক পিছিয়ে দুইয়ে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ দু প্লেসির রান ৩৭.২৫ গড় ১৩৫.৪১ স্ট্রাইক রেটে ১ হাজার ৩০৪।

দেশের হয়ে ৮ টি-টোয়েন্টিতে ওপেন করেছেন কোহলি। সেখানেও পারফরম্যান্স বেশ ভালোই। ১৪৮.৬৬ স্ট্রাইক রেট ও ৩৯.৭১ গড়ে রান তার ২৭৮, ফিফটি আছে দুটি। তিনের পর সবচেয়ে বেশি ১৭ ইনিংসে চারে ব্যাটিং করেছেন তিনি। যেখানে ৩ ফিফটিতে ৪২.৪১ গড় ও ১৪১.৩৮ স্ট্রাইক রেটে রান ৫০৯। অভিজ্ঞতা আছে পাঁচ ও ছয়ে ব্যাটিংয়েরও।

সাফল্যমণ্ডিত ক্যারিয়ারে সম্প্রতিক ফর্ম সেখানে ভীষণ হতাশাজনক কোহলির। পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হয়তো শেবাগের ভাবনায় ছিল সেটাই।

“টি-টোয়েন্টিতে হার্ড হিটারদের কথা বললে ভারতে বিকল্প অনেক। অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপে আমি ব্যক্তিগতভাবে রোহিত শর্মা, ইশান কিষান ও লোকেশ রাহুলকে প্রথম তিন ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলানোর ব্যাপারে সমর্থন করব।”

“ডানহাতি ও বাঁহাতি কম্বিনেশনের জন্য রোহিত শর্মা ও ইশান কিষান কিংবা ইশান ও লোকেশ রাহুল হতে পারে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দারুণ রোমাঞ্চকর।”

কোহলির পর পাকাপাকিভাবে ভারতের তিন সংস্করণের নেতৃত্ব রোহিত পেয়েছেন বেশি দিন হয়নি। এর মধ্যেই এই জায়গায় পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা দেখছেন শেবাগ। তার মতে, চাইলে রোহিতকে সরিয়ে অন্য কাউকে টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক বানাতে পারে ভারত। এতে সুবিধাগুলোও তুলে ধরলেন তিনি।

“টি-টোয়েন্টি সংস্করণের নেতৃত্বের জন্য ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের ভাবনায় অন্য কোনো নাম থাকলে রোহিতকে এই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া যেতে পারে। সামনে এগিয়ে যেতে নতুন জনকে বিবেচনায় নেওয়া যেতে পারে।”

“প্রথমত, বয়স বিবেচনায় এটা রোহিতকে তার কাজের চাপ এবং মানসিক ক্লান্তি সামলাতে সাহায্য করবে। দ্বিতীয়ত, নতুন কাউকে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে নিযুক্ত করলে বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ পাবে রোহিত। সঙ্গে চাঙ্গা হয়ে সে টেস্ট ও ওয়ানডে উভয় সংস্করণে ভারতকে নেতৃত্ব দিতে পারবে।”

তবে তিন সংস্করণে একই অধিনায়ক রাখার নিয়মে অটল থাকলে ভারতের হাতে সেরা পছন্দ এখন রোহিতই, সেটাও বললেন শেবাগ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক