প্রস্তাবিত আইপিএল উইন্ডোর ‘বিপক্ষে’ পিসিবি

আইসিসির ভবিষ্যৎ সফর সূচিতে আইপিএলের জন্য আলাদা একটি উইন্ডো রাখার প্রস্তাবের ‘বিরোধী’ পাকিস্তান। দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান রমিজ রাজা জানালেন, আইসিসির আগামী সভায় এই বিষয়ে নিজেদের মতামত উত্থাপন করবেন তারা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 June 2022, 03:23 PM
Updated : 24 June 2022, 03:23 PM

আইপিএলের যে দাপট ও ক্রিকেটারদের কাছে যে চাহিদা, তাতে এফটিপিতে এটির জন্য আলাদা ‘উইন্ডো’ নিয়ে আলোচনা হয়ে আসছে অনেক দিন থেকেই। অবশেষে সেটিই হতে যাচ্ছে বলে কদিন আগে বেশ জোর দিয়ে বলেন বিসিসিআই সচিব জয় শাহ। তিনি স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন, আইসিসির এফটিপির আগামী চক্র থেকেই আড়াই মাসের আলাদা সময় ধরা থাকবে আইপিএলের জন্য।

২০২৩ থেকে ২০২৭ পর্যন্ত ৫ বছরের জন্য আইপিএলে সম্প্রচার স্বত্ব ৪৮ হাজার ৩৯০.৫ কোটি রুপিতে বিক্রি করেছে বিসিসিআই। সম্প্রচার স্বত্বের দিক থেকে ভারতের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এখন সব খেলা মিলিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে দামী টুর্নামেন্ট।

এমন আকাশছোঁয়া মূল্যে সম্প্রচার স্বত্ব বিক্রি হওয়ার পর আইপিএলের আকার বাড়তে পারে। এই বছর থেকেই আইপিএলে দুটি দল বাড়ানো হয়েছে। এবার নতুন ধরনের সূচিতে খেলা হলেও সামনে টুর্নামেন্টে ম্যাচের সংখ্যা বাড়তে পারে। বাড়তে পারে পরিধিও। ম্যাচ সংখ্যা এখনকার ৭৪ থেকে বেড়ে ৮৪, এমনকি ৯৪টিও হতে পারে বলে মিলছে আভাস।

আইপিএলের সবশেষ আসরই দুই মাসের বেশি সময় ধরে হয়েছে। ১০ দলের এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে আইসিসির অন্য দেশের বোর্ডগুলোর সঙ্গেও নির্দিষ্ট উইন্ডোর ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে দাবি করেন জয় শাহ। 

যদিও এখন পর্যন্ত আইসিসির পক্ষ থেকে এই নিয়ে কোনো ঘোষণা আসেনি। ঘরোয়া ক্রিকেটের একটি টুর্নামেন্টের জন্য এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনাও ঠিক স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় পড়ে না। আগামী ৮ বছরের চক্র এখনও চূড়ান্তও করেনি আইসিসি।

রাজনৈতিক কারণে প্রথম আসরের পর থেকে আর পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের আইপিএলে নেওয়া হয় না। তাই আইপিএলের জন্য আলাদা উইন্ডো রাখা হলে তা অন্য সব দেশের তুলনায় পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশি প্রভাব ফেলবে। পিসিবির ৬৯তম বোর্ড গভর্নরদের সভা শেষে লাহোরে এক সংবাদ সম্মেলনে রমিজ আইপিএল উইন্ডো নিয়ে তুলে ধরেন তাদের পরবর্তী পদক্ষেপের কথা। 

“আইপিএলের উইন্ডো বাড়ানো নিয়ে এখনও কোনো ঘোষণা আসেনি। এই বিষয়ে আমার মতামত আছে, যেটা আগামী জুলাইয়ের আইসিসি সভায় আমরা উত্থাপন করব।”

ভারত, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানকে নিয়ে প্রতি বছর একটি চার-জাতি টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন রমিজ। যেটা গত এপ্রিলের আইসিসি সভায় গ্রহণযোগ্য হয়নি। পিসিবি সভাপতি বললেন, এই টুর্নামেন্টের আলোর মুখ দেখার আশা এখনও শেষ হয়ে যায়নি।

“আমার চার-জাতি টুর্নামেন্টের কনসেপ্ট এখনও শেষ হয়ে যায়নি। গণমাধ্যমের খবরে মনে হচ্ছে, এই পরিকল্পনায় না এগোনোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু এটা সত্যি নয়। বিশ্বকাপ আসরগুলোর জন্য (সম্প্রচার) স্বত্ব তারা (আইসিসি) একত্রিত করছিল, তাই তারা বলেছিল যে অন্য টুর্নামেন্টের ঘোষণা করা হলে সব বিনিয়োগকারীরা সেটার পেছনে ছুটতে শুরু করবে। সেটা নতুন একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠবে, তাই এখনই এটা চালু না করাই ভালো মনে করছে তারা।”

পরে আবারও ‘আইপিএল উইন্ডো’ প্রসঙ্গে কথা বলেন রমিজ। জানান, নিজেদের শক্ত অবস্থানের কথা।

“আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে (আইপিএল উইন্ডো সম্প্রসারণ) বিষয়টি সম্পর্কে জানার পরই আমাদের মতামতগুলো দৃঢ়ভাবে উপস্থাপন করব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক