ওয়ানডেতে ৫০০, বাটলার বললেন ‘চেষ্টা করে যাব’

ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের নতুন চূড়ায় ওঠার পরও কি আক্ষেপ থাকতে পারে? রান যখন ৪৯৮, তখন ২ রানের জন্য আফসোস হতেই পারে। এত কাছে গিয়েও পাওয়া হলো না ৫০০ রানের জাদুকরি স্পর্শ! ইংল্যান্ডের এই রেকর্ড অভিযানের নায়ক জস বাটলার বলছেন, ৫০০ ছোঁয়ার চেষ্টা তারা করে যাবেন। তবে কাজটা যে কঠিন, সেটিও মনে করিয়ে দিয়েছেন বিধ্বংসী এই ব্যাটসম্যান।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 June 2022, 07:03 AM
Updated : 18 June 2022, 07:03 AM

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে শুক্রবার আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের ম্যাচে এই ধ্বংসযজ্ঞ চালায় ইংল্যান্ড। আমস্টেলভিনে ডাচ বোলিং তুলাধুনা করে ইংলিশরা ৫০ ওভারে তোলে ৪ উইকেটে ৪৯৮ রান। পেছনে ফেলে তারা চার বছর আগে নিজেদেরই গড়া ৪৮১ রানের রেকর্ড।

৭০ বলে ১৬২ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন বাটলার, দাভিদ মালান করেন ১০৯ বলে ১২৫ আর ফিল সল্ট ৯৩ বলে ১২২। পাশাপাশি ২২ বলে ৬৬ রানের তাণ্ডব চালান লিয়াম লিভিংস্টোন।

৫০০ রান একসময় মনে হচ্ছিল সম্ভবই। তবে ৪৮তম ওভারে তিনটি বলে রান আসেনি। বাটলার-লিভিংস্টোন রুদ্ররূপে থাকার পরও ৪৯তম ওভারে হয়নি কোনো বাউন্ডারি, রান আসে ওই ওভার থেকে স্রেফ ৭টি। শেষ ওভারে ২১ রান নিয়েও তাই ঘাটতি রয়ে যায় ওই ২ রানের।

খেলা শেষে ম্যাচ সেরা বাটলার বললেন, নতুন উচ্চতা ছোঁয়ার প্রচেষ্টা তারা চালিয়ে যাবেন।

“আমরা চেষ্টা করি নিত্য সীমানা ছাড়িয়ে যেতে, খেলাটাকে সামনে এগিয়ে নিতে এবং গতিময় করতে। আজকে যারা খেলেছে, সবাই এই চেষ্টাই করেছে। আমরা চেষ্টা করে যাব (৫০০ ছুঁতে)। তবে এই চেষ্টা এবং এটা অর্জন করা কঠিন। খুব ভালো ব্যাটিং উইকেটে ও ছোট মাঠে খেলতে হবে।”

“তবে স্কোর যেমনই হোক, সবচেয়ে সেরা ব্যাপার হলো দল হিসেবে যে মানসিকতা আমরা দেখিয়ে চলেছি। আমরা চেষ্টা করছি এটা ভালো থেকে আরও ভালো করতে এবং মাঠে নেমে আরও আগ্রাসী ও সাহসী হতে।”

এবার আইপিএলে রেকর্ড ছোঁয়া ৪ সেঞ্চুরিতে ৮৬৩ রান করেন বাটলার। সেই ফর্ম বয়ে আনলেন তিনি জাতীয় দলেও। আইপিএল থেকে পাওয়া বিশ্বাস তাকে অনুপ্রাণিত করেছে বলে জানালেন ৩১ বছর বয়সী কিপার-ব্যাটসম্যান।

“আইপিএলটা আমার জন্য এর চেয়ে ভালো আর হতে পারত না। দারুণ লেগেছে আমার এবং অনেক আত্মবিশ্বাস মিলেছে সেখান থেকে। এখানে এসে আমার মনে হচ্ছিল, ভালো ছন্দে আছি। দারুণ তাড়না নিয়ে ও তরতাজা হয়ে মাঠে নেমেছি, যা ছিল গুরুত্বপূর্ণ।”

এই সিরিজ দিয়েই সাদা বলের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের নতুন কোচ হিসেবে যাত্রা শুরু করেছেন ম্যাথু মট। অস্ট্রেলিয়ান এই কোচের দায়িত্বে প্রথম ম্যাচেই ইংল্যান্ড বইয়ে দিল রেকর্ডের বন্যা। তবে এই ঘরানার ক্রিকেট তারা খেলে আসছে কয়েক বছর ধরেই। ম্যাচের পর বাটলার মনে করিয়ে দিলেন সেটিই। জৈব-সুরক্ষা বলয়ের দিন শেষ হওয়াতেও তার কণ্ঠে ছিল স্বস্তি।

“দল হিসেবে এভাবে খেলতে পারা সবসময়ই দারুণ। অনেকবারই আমি বলেছি, যত জায়গায় আমি খেলেছি, সবচেয়ে আনন্দময় আবহ থাকে এখানেই। ফিরতে পেরে (নতুন মৌসুমে) তাই ভালো লাগছে। ‘বাবল’ বা এই ধরনের কিছুর মধ্যে না থেকে স্বাভাবিক ক্রিকেট সফরে আসতে পারাও দারুণ।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক