‘বাদ পড়ায় রুটের সঙ্গে বিবাদে জড়ালে, সেটা হতো প্যাথেটিক’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দল থেকে বাদ পড়ায় প্রকাশ্যেই ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন স্টুয়ার্ট ব্রড। কারো দিকে সরাসরি অবশ্য আঙ্গুল তোলেননি তিনি। তবে তখনকার অধিনায়ক জো রুটের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে দানা বাঁধতে শুরু করে নানা জল্পনা। ইংলিশ অভিজ্ঞ এই পেসার অবশ্য সেসব উড়িয়ে দিলেন। বললেন, দলে জায়গা না পাওয়া নিয়ে তাদের স্বাভাবিক সম্পর্কে কোনো ফাটল ধরেনি। 

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 June 2022, 10:25 AM
Updated : 7 June 2022, 03:16 PM

সবশেষ অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ায় ৪-০ ব্যবধানে শোচনীয় হারের পর ইংল্যান্ড দলে পরিবর্তনের হাওয়া বয়ে যায়। সেই পালাবদলে চমক হয়ে আসে পরের সিরিজ ক্যারিবিয়ান সফর থেকে ব্রড ও জেমস অ্যান্ডারসনের বাদ পড়া।

অ্যাশেজে দুইজনের পারফরম্যান্স খারাপ ছিল না। তারপরও দল পুনর্গঠন করে সামনে তাকানোর কথা বলে গত মার্চের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল তাদের। হাজারের বেশি উইকেট শিকারি দুই বোলারকে বাইরে রাখায় তখন ইংলিশ ক্রিকেট মহলে দেখা যায় প্রবল প্রতিক্রিয়া। ৩৯ বছর বয়সী অ্যান্ডারসন ও ৩৫ বছর বয়সী ব্রড তাদের বিস্ময় ও অসন্তুষ্টির কথা জানান প্রকাশ্যেই।

ক্যারিবিয়ানে ১-০ তে হেরে আসার পর আবারও ইংল্যান্ড দলে আসে পরিবর্তন। জো রুট নেতৃত্ব ছেড়ে দিলে অধিনায়ক করা হয় বেন স্টোকসকে। দায়িত্ব নিয়েই ব্রড-অ্যান্ডারসনকে ফেরাতে চাওয়ার কথা বলেন স্টোকস। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজে হয় সেটাই। লর্ডসে সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলেন অভিজ্ঞ দুই পেসারই।

দুই জনই নিজেদের মেলে ধরেন আরও একবার। ম্যাচে অ্যান্ডারসন নেন ৬ উইকেট, ব্রড ৪টি। রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচটি ৫ উইকেটে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়ে অপরাজিত ১১৫ রানের ইনিংস খেলে দলের জয়ের নায়ক ছিলেন রুট।

মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ব্রড তুলে ধরেন সাবেক অধিনায়ক রুটের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা।

“জো নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর পর তার সঙ্গে আমি অনেক্ষণ কথা বলেছিলাম। তাকে বলেছিলাম, অধিনায়ক হিসেবে আমার কাছে সে কতটা সম্মানের এবং তার নেতৃত্বে খেলা কতটা সৌভাগ্যের ছিল।”

“আগামী কয়েক বছর সে যেন উপভোগ করতে পারে, সেটাই আমি চাই। এরই মধ্যে খেলাটির একজন কিংবদন্তি হয়ে গেছে…জো আর আমি খুব ভালো বন্ধু। তারা আমাকে দলে নিল না, শুধু এই কারণে আমি কারো সঙ্গে বিবাদে জড়াতে পারি না, তেমন কিছু হলে বিষয়টা খুব খারাপ হতো।”

ইংল্যান্ডের হয়ে আবার মাঠে নামবেন এমন ভাবনা নিয়ে চলতি মৌসুম শুরু করেননি ব্রড। তবে পুনরায় দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারার সুযোগ তাকে স্বাভাবিকভাবেই আনন্দিত করছে। বললেন, দলের সঙ্গে দারুণ সময় কাটছে তার।

“ইংল্যান্ডের জার্সি আবার গায়ে জড়াতে পারব কিনা, মৌসুমের শুরুতে জানতাম না…দলে আমরা দারুণ আনন্দে সময় কাটাচ্ছি।”

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু আগামী শুক্রবার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক