শর্ট বলের চ্যালেঞ্জ ‘সামলাতে প্রস্তুত’ বাংলাদেশ

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে অনেক পুরনো অস্ত্র শর্ট বল। তাদের বিপক্ষে দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সবসময়ই এটা ব্যবহার করে আসছে। কাগিসো রাবাদা, আনরিক নরকিয়া, লুঙ্গি এনগিডিরা অনুপস্থিত থাকলেও ডুয়ানে অলিভিয়েরের নেতৃত্বাধীন পেস আক্রমণও ব্যাটসম্যানদের ঘায়েল করতে সেই পথেই হাঁটতে পারে। এতে দুর্ভাবনার কিছু অবশ্য দেখছেন না মুমিনুল হক। বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে, শর্ট বলের চ‍্যালেঞ্জ সামলাতে আগের চেয়ে অনেক ভালোভাবে প্রস্তুত তারা।  

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 March 2022, 02:47 PM
Updated : 30 March 2022, 02:47 PM

২০১৭ সালে সবশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও শর্ট বলের সামলে নাকাল হয়েছিল বাংলাদেশ। অলিভিয়ের, রাবাদারা কঠিন পরীক্ষায় ফেলেছিলেন ব্যাটসম্যানদের।

প্রথম টেস্টের ভেন্যু ডারবানের কিংসমিডে পেসারদের জন্য বাড়তি সহায়তা আশা করছেন মুমিনুল। এমন হলে নিশ্চয়ই শর্ট বল সামলানো হবে চ‍্যালেঞ্জিং? বাংলাদেশ অধিনায়ক বললেন, তেমন কিছুর জন্য প্রস্তুত আছেন তারা।

“শর্ট বল নিয়ে আমরা যথেষ্ট অনুশীলন করেছি। যারা টেস্ট খেলছে, তারা সবাই জানে, নির্দিষ্ট একটা সময় আসে, যখন পেস বোলাররা কিছু করতে পারে না, তখন তারা হয়তো শর্ট বলে আক্রমণ করতে থাকে। ওই সময়টা বেশি লম্বা সময় থাকে না। হয়তো ৫-৬-৭ বা সর্বোচ্চ ১০ ওভার হয়। ওই সময়ের চাপে কীভাবে ধরে রাখতে হয়, কীভাবে মানিয়ে নিতে হয়, সেটাই গুরুত্বপূর্ণ।”

তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমদের মতো অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা আছেন দলে। মুমিনুল নিজেও কম খেলেননি। সব মিলিয়ে অভিজ্ঞতায় ভর করে শর্ট বলের পরীক্ষায় উতরে যাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী অধিনায়ক।

“আমাদের দলে যারা আছেন, বেশির ভাগই অনেক টেস্ট ম্যাচ খেলা ক্রিকেটার। তারা জানে, কতক্ষণ এই চাপটা ধরে রাখা যায়।”

সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হবে বৃহস্পতিবার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক