মিরপুরে এ আর রহমানের কনসার্ট ‘ক্রিকেট সেলিব্রেটস মুজিব হান্ড্রেড’

পরিকল্পনা ছিল এশিয়া একাদশ ও অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশের দুটি ম্যাচ এবং কনসার্টের। অনেক দূর এগিয়েও গিয়েছিল উদ্যোগ। কিন্তু কোভিডের প্রকোপে ম্যাচ দুটি গেছে ভেস্তে। রয়ে গেছে কনসার্ট। আগামী মঙ্গলবার এ আর রহমানের সেই কনসার্ট দিয়েই মুজিববর্ষের ক্রিকেট আয়োজনের ইতি টানছে বিসিবি। কনসার্টের কেতাবি নাম দেওয়া হয়েছে, ‘ক্রিকেট সেলিব্রেটস মুজিব হান্ড্রেড।’

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 March 2022, 12:41 PM
Updated : 22 March 2022, 12:41 PM

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের জন্য ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত সময়কে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করেছিল সরকার। এশিয়া একাদশ ও বিশ্ব একাদশের ম্যাচ দুটি হওয়ার কথা ছিল ওই সময়কালের শুরুর দিকেই।

তবে কোভিডের কারণে থমকে যায় ম্যাচ দুটি। সরকারি নানা আয়োজনও বাধাগ্রস্থ হলে মুজিববর্ষের সময়কাল বাড়ানো হয় ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত। পরে সেটি আরেকদফায় বাড়ানো হয় এই বছরে ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

কোভিড বিরতির পর ক্রিকেটারদের তুমুল ব্যস্ততায় ম্যাচ দুটি আর আয়োজন করতে পারেনি বিসিবি। মিরপুরে মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বললেন, কনসার্ট দিয়ে তারা মুজিববর্ষ শেষ করতে চান।

“যেহেতু এই মাসটাই শেষ উদযাপনের জন্য, সরকার থেকে এটাই ঘোষণা করা হয়েছিল। মুজিববর্ষ শুরু হওয়ার পর থেকে যতগুলো টুর্নামেন্ট হয়েছে, সবগুলোই আমরা জাতির জনকের নামেই করেছি। এমনকি আমরা বাইরেও আপনারা দেখেছেন, শ্রীলংকা সিরিজে যেটা করেছিলাম, জিম্বাবুয়ে ও নিউ জিল্যান্ডে ব্র্যান্ডিংটা করতে পেরেছিলাম, মুজিব হান্ড্রেড। একটা জায়গায় শেষ তো হতেই হবে। শেষটা চাচ্ছিলাম যে আমরা করব (কনসার্ট দিয়ে)।”

মূল আয়োজন ক্রিকেট ম্যাচ দুটি না হলেও কনসার্ট কেন আয়োজন করছে বিসিবি, সেটির একটি ব্যাখ্যাও দিলেন বিসিবি সভাপতি।

“এটার পেছনে আর একটা বড় কারণ হলো, দুটো গান আমরা ইতোমধ্যেই বঙ্গবন্ধুর নামে করিয়েছি। একটা গান এরমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শুনেছেনও, ভারতের প্রধানমন্ত্রী যেদিন এসেছিলেন, সেদিন। ওই গানটা, আর একটা বাংলা গান। লাইভ না হলে তো আসল জিনিসটা পাওয়া যায় না, ভিডিওটা পাওয়া যায় না। আমরা পেয়েছি অডিও, সে করে পাঠিয়েছে।”

“এখন সেটাই চাচ্ছি, এগুলো যেহেতু করেছি, এখন সে যদি লাইভ করতে পারে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি আসেন, তাহলে এটা দিয়ে আমরা শেষ করতে চাই। নামটাও হচ্ছে ‘ক্রিকেট সেলিব্রেটস মুজিব হান্ড্রেড।’ আপাতত ঠিক করেছি এই নামেই আমরা অনুষ্ঠানটা করব।”

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামেই এই কনসার্ট হবে বলে আপাতত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ রাখা হচ্ছে না এই মাঠে। প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চায় বিসিবি। নাজমুল হাসান জানালেন, বুধবার তিনি প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে যাবেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক