শুরু হলো বাংলাদেশ টাইগার্সের পথচলা

অনেকটা দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের প্রস্তুতি ক‍্যাম্পের আবহে শুরু হলো অনেক প্রতীক্ষার বাংলাদেশ টাইগার্সের পথচলা। বগুড়ায় মুমিনুল হক, সাদমান ইসলামদের দিনব‍্যাপী অনুশীলন দিয়ে শুরু হলো নতুন এই ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের যাত্রা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Feb 2022, 11:17 AM
Updated : 26 Feb 2022, 12:02 PM

চোটের কারণে, ফর্ম হারিয়ে কিংবা কেবল এক সংস্করণে খেলা ক্রিকেটাররা যখন জাতীয় দলের বাইরে থাকেন তখন তাদের দেখভালের জন্য একটা সঠিক ব্যবস্থাপনার চাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেটে অনেক দিনের। সেই চাওয়া পূরণ হলো বাংলাদেশ টাইগার্স নামের ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের মাধ‍্যমে। টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল, জাতীয় দল থেকে ছিটকে পড়া সৌম্য সরকার, সম্ভাবনাময় মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরির মতো ক্রিকেটার আছেন বিসিবির নতুন এই প্রকল্পের প্রথম ক‍্যাম্পে।

চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে চলছে বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজ। এরপর ঢাকায় হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এই সময়ে নিজের মতো প্রস্তুতি নিতে হতো মুমিনুল, সাদমান, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ চৌধুরিদের। বাংলাদেশ টাইগার্সের ক‍্যাম্পের মাধ‍্যমে তারা পাচ্ছেন যথাযথ প্রস্তুতির সুযোগ।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ শুরুর আগে নিজের মতো করে অনুশীলন করে যেতে হতো ইমরুল কায়েস, এনামুল হক, সৈকত আলিদের। তারাও পাচ্ছেন নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ।

দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০২০ যুব বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়ার আগে বগুড়াতেই ক‍্যাম্প করেছিলেন আকবর আলি, রকিবুল হাসানরা। তাদের হাত ধরে বাংলাদেশ জেতে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে প্রথম শিরোপা। শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামের উইকেট দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার আগে এখানেই বাংলাদেশ টাইগার্সের ক‍্যাম্পের অনুরোধ জানান টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল।  

ঢাকা থেকে শুক্রবার বগুড়া এসে পরদিন দিনব‍্যাপী অনুশীলন করেছেন ক্রিকেটাররা। কেন পুরো দিনের সেশন, এর ব‍্যাখ‍্যা দিয়েছেন বাংলাদেশ টাইগার্স প্রোগ্রামের প্রধান কাজী ইনাম আহমেদ। 

“টেস্টে ব‍্যাটসম‍্যানদের লম্বা সময় ধরে ব‍্যাটিং, বোলারদের লম্বা সময় ধরে বোলিং করতে পারতে হয়, সে কারণেই সারা দিন। সেখানেও কিন্তু অনেক বিরতি আছে। জাতীয় দলের কোচ, নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলে এবারের প্রোগ্রাম এভাবে পরিকল্পনা করেছেন, যেহেতু সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর আছে সে জন‍্যই এই পরিকল্পনা।”

সামনে থাকবে নতুন পরিকল্পনা। কখনও আনা হবে বোলারদের জন‍্য বিশেষায়িত কোচ, কখনও ব‍্যাটসম‍্যানদের জন‍্য। কাজী ইনাম জানালেন, ফাঁকা সময় পেলেই চলবে ক্রিকেটারদের মান বাড়ানোর এই প্রোগ্রামের কাজ।

“সামনে আমরা একেক ব‍্যাপারে বিশেষজ্ঞ কোচ নিয়ে আসব। যেমন যদি ডেথ বোলিং নিয়ে কাজ করতে হয়, তেমন একজন কোচ এনে আমরা পেসারদের নিয়ে সেটার উপর কাজ করব। একইভাবে পাওয়ার হিটিং (কোচও আসবেন)। রিস্ট স্পিনার যারা আছে, যারা ভালো করছে তাদের নিয়ে বড় ক্যাম্প করতে চাই। সামনে এরকম আমাদের পরিকল্পনা আছে, এগুলো আমরা করব।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক