হার্ট অ্যাটাকের পর হাসপাতালে অস্ট্রেলিয়ান গ্রেট রড মার্শ

খেলার কথা ছিল একটি চ্যারিটি ম্যাচে। কিন্তু হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাতে আর অংশ নেওয়া হলো না রড মার্শের। হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই কিপার-ব্যাটসম্যানকে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Feb 2022, 11:28 AM
Updated : 24 Feb 2022, 11:28 AM

বান্ডাবার্গের স্থানীয় অলাভজনক সংস্থা বুলস মাস্টার্সের হয়ে চ্যারিটি ম্যাচ খেলার কথা ছিল ৭৪ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান গ্রেট মার্শের। নর্দার্ন কুইন্সল্যান্ডের শহরটিতে বৃহস্পতিবার পৌঁছান তিনি। দেশটির গণমাধ্যমের খবর, বান্ডাবার্গে পৌঁছে হোটেলের উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে গাড়িতে অস্ট্রেলিয়া হয়ে ৯৬ টেস্ট ৯২ ওয়ানডে খেলা এই ক্রিকেটার অসুস্থ হয়ে পড়েন।

বুলস মাস্টার্সের দুইজন কর্মকর্তা মার্শের সঙ্গে ছিলেন। দ্রুত তারা বান্ডাবার্গের একটি হাসপাতালে নিয়ে যান সাবেক এই ক্রিকেটারকে, ডেইলি টেলিগ্রাফকে বলেন সংস্থাটির প্রধান জিমি মাহের।

“তাদের (বুলস মাস্টার্সের দুই কর্মকর্তা) কৃতিত্ব অনেক, কারণ চিকিৎসক বলেছেন তারা যদি অ্যাম্বুলেন্সের জন্য অপেক্ষা করতেন তাহলে হয়তো মার্শ বাঁচতেন না।”

টেলিগ্রাফ তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, অস্ত্রোপচারের জন্য মার্শকে ব্রিজবেনে নিতে হতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৯৭০ সালে টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন মার্শ। ব্যাট হাতে লাল বলের সংস্করণে তিন সেঞ্চুরিতে রান করেন ৩ হাজার ৬৩৩। উইকেটের পেছনের দায়িত্বে তিনি ছিলেন নিজের সময়ে সেরা। ১৯৮৪ সালে অবসর নেওয়ার সময় তার ৩৫৫ ডিসমিসাল ছিল বিশ্ব রেকর্ড।

টেস্টে এখন তার চেয়ে বেশি ডিসমিসাল আছে কেবল তিন জনের-দক্ষিণ আফ্রিকার মার্ক বাউচার (৫৫৫), অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (৪১৬) ও ইয়ান হিলি (৩৯৫)।

ওয়ানডেতে চার ফিফটিতে মার্শের রান এক হাজার ২২৫। গ্লাভস হাতে ডিসমিসাল ১২৪টি, এই সংস্করণে যা অস্ট্রেলিয়ার চতুর্থ সর্বোচ্চ।

খেলোয়াড়ি জীবনের পর ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মার্শ। এর আগে ২০০১ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড একাডেমির পরিচালক হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক