অভিজ্ঞ পেস ত্রয়ী ও ওয়ার্নারকে বিশ্রাম দিল অস্ট্রেলিয়া

পাকিস্তান সফরে সীমিত ওভারের সিরিজের দলে অভিজ্ঞদের অনেককেই রাখেনি অস্ট্রেলিয়া। প্যাট কামিন্স, জশ হেইজেলউড, মিচেল স্টার্কের সঙ্গে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে ডেভিড ওয়ার্নারকেও।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Feb 2022, 10:20 AM
Updated : 22 Feb 2022, 10:28 AM

তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও একটি টি-টোয়েন্টির জন্য মঙ্গলবার ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। কদিন আগে সবশেষ অ্যাশেজ সিরিজের দলে থাকা সবাইকে নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের দল দিয়েছে তারা। সাদা পোশাকের দলে আছেন অভিজ্ঞ এই চার ক্রিকেটারই।

২০১৮ সালের পর প্রথম ওয়ানডে খেলার সুযোগ ট্রাভিস হেডের সামনে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ভালো পারফরম্যান্স করা জশ ইংলিস আছেন ওয়ানডেতে অভিষেকের অপেক্ষায়। 

আসছে সিরিজে কেবল একটি টি-টোয়েন্টি থাকায় কিপার-ব্যাটসম্যান ম্যাথু ওয়েডকে রাখা হয়নি দলে। তার অনুপস্থিতিতে এই সংস্করণে কিপারের দায়িত্ব পেতে পারেন ইংলিস।

পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। সিরিজের সময়ে বিয়ে করতে যাচ্ছে অভিজ্ঞ এই অলরাউন্ডার।

কামিন্স, হেইজেলউড, স্টার্ক; তিনজনই সদ্যসমাপ্ত শ্রীলঙ্কা সিরিজে খেলেছেন। ওয়ার্নারকে অবশ্য ওই সিরিজেও বিশ্রাম দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। বিশ্রাম কাটিয়ে ফিরেছেন মিচেল মার্শ।

দলের বোলিং বিভাগের মূল তিন অস্ত্রের জায়গায় ডাক পেয়েছেন শন অ্যাবট, জেসন বেহরেনডর্ফ ও ন্যাথান এলিস। ২০২০ সালে ওয়ানডে অভিষেকের পর আবারও সাদা বলের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার সচল করার সুযোগ পেতে পারেন ক্যামেরন গ্রিন। এখনও অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলেননি এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার।

দেশের হয়ে ২ ওয়ানডে ও ৭ টি-টোয়েন্টি খেলা ডানহাতি পেসার অ্যাবট দুই সংস্করণেই সবশেষ খেলেছেন ২০২০ সালে। বেহরেনডর্ফ সবশেষ ওয়ানডে খেলেন ২০১৯ সালে, টি-টোয়েন্টি গত জুলাইয়ে। আর এলিস গত অগাস্টে বাংলাদেশ সফরে টি-টোয়েন্টি দিয়ে আন্তর্জাতিক আঙ্গিনায় পা রাখেন। এখনও ওয়ানডে অভিষেক হয়নি তার।

পাকিস্তানের মাটিতে ২৪ বছর পর খেলতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। আর গত দুই বছরের বেশি সময় পর দ্বিতীয়বারের মতো ওয়ানডে খেলবে দলটি। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের একটি সিরিজে খেলেছিল তারা।

আগামী ২৯ মার্চ শুরু দুই দলের ওয়ানডে সিরিজ। পরের দুই ম্যাচ ৩১ মার্চ ও ২ এপ্রিল। একমাত্র টি-টোয়েন্টি মাঠে গড়াবে ৫ এপ্রিল। সবগুলো ম্যাচই হবে রাওয়ালপিন্ডিতে।

অস্ট্রেলিয়া দল: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), শন অ্যাবট, অ্যাশটন অ্যাগার, জেসন বেহরেনডর্ফ, অ্যালেক্স কেয়ারি, ন্যাথান এলিস, ক্যামেরন গ্রিন, ট্রাভিস হেড, জশ ইংলিস, মার্নাস লাবুশেন, মিচেল মার্শ, বেন ম্যাকডারমট, কেন রিচার্ডসন, স্টিভেন স্মিথ, মার্কাস স্টয়নিস, অ্যাডাম জ্যাম্পা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক