‘হাত কেটে ফেলার’ কথাও ভেবেছিলেন উইলিয়ামসন!

কনুইয়ের চোটের সঙ্গে লড়াইয়ে যেন হাঁপ ধরে গেছে কেন উইলিয়ামসনের। এসেছে বিরক্তি। লম্বা সময় ধরে মাঠের বাইরে থাকায় নিউ জিল‍্যান্ড অধিনায়ক কখনও কখনও হাল ছেড়ে দিতে চেয়েছেন। হতাশা ও বিরক্তি এতটাই পেয়ে বসেছে যে, যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে হাত কেটে ফেলার ভাবনাও কখনও কখনও মনে উদয় হয়েছে বলে জানালেন তিনি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Feb 2022, 10:54 AM
Updated : 11 Feb 2022, 10:54 AM

গত ১৫ মাস ধরে কনুইয়ের চোট বেশ ভোগাচ্ছে উইলিয়ামসনকে। সেরে উঠে মাঠে ফিরলেই মাথাচাড়া দেয় এই ব্যথা। ফলে বেশ কয়েকটি ম্যাচ ও সিরিজে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারেননি তিনি। খেলতে পারেনি গত আইপিএলের সব ম্যাচও।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার সব ম্যাচ খেলা নিয়ে জেগেছিল শঙ্কা। যদিও ফাইনালসহ সাতটি ম্যাচই খেলতে পেরেছিলেন তিনি। এরপর ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে উইলিয়ামসনকে দেওয়া হয় বিশ্রাম। গত নভেম্বরে কানপুরে হওয়া প্রথম টেস্টে মাঠে ফেরেন তিনি। এরপরই ওই চোট আবার মাথাচাড়া দেয়।

এরপর থেকে আর মাঠে নামা হয়নি ৩১ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের। গত জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে ছিলেন না টেস্ট সিরিজে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঘরের মাঠে আসছে দুই টেস্টের সিরিজেও নেই তিনি।

দীর্ঘ দিনের এই চোট সমস্যার সঙ্গে লড়াই করতে করতে মাঝে মধ্যেই ক্লান্তি ভর করে উইলিয়ামসনের। কঠিন এই সময়ের কিছু কথা শুক্রবার বললেন তিনি।

“এটা (হাত) কেটে ফেলা…এমনটা আমি কয়েকবার ভেবেছি। এই ধরনের চোটের সঙ্গে লড়াই করা প্রত্যেকের গল্প আলাদা। শুরুতে আমি অবশ্যই আশাবাদী ছিলাম। কিন্তু এখন আর না। সত্যি বলতে, দিনের পর দিন এটা সহ্য করা খুবই কঠিন।”

টেনিস এলবোর চোটের সঙ্গে লড়াই করে আপাতত সুস্থ আছেন অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ। কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারেরও ছিল একই সমস্যা। তবুও তিনি হার মানেননি, খেলে গেছেন ২৪ বছর ধরে। সেরে ওঠার প্রক্রিয়া নিয়ে এই দুইজনের সঙ্গেই কথা বলেছেন উইলিয়ামসন। কিন্তু এখনও নিজের জন্য কার্যকর কোনো উত্তরই পাননি তিনি।

“আমি এমন অনেকের গল্প শুনেছি যারা এই চোটের মধ্য দিয়ে গেছে এবং শুরুতে তাদের কথা অনুপ্রেরণাদায়ক ছিল। আমার এই লড়াইয়ের শেষ কোথায়, তা জানতে আমি কৌতূহলী।”

মাঠে ফেরার জন্য প্রয়োজনীয় সব চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন উইলিয়ামসন। এখন আছেন তিনি পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে। যেখানে প্রতি দুইদিনে ২০-২৫ মিনিট করে হালকা ব্যাটিং অনুশীলন করছেন তিনি। দরকার হচ্ছে না কোনো ব্যথানাশক ঔষধের।

আগামী মার্চে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলার কথা রয়েছে নিউ জিল্যান্ডের। সেই সিরিজে নজর রেখে সুস্থ হওয়ার পথে এগোচ্ছেন উইলিয়ামসন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক