‘নেতৃত্বে না থাকলেও নেতা হয়ে থাকবেন কোহলি’

অধিনায়কের তকমা সরে গেছে বিরাট কোহলির নামের পাশ থেকে। এখন তিন সংস্করণেই ভারত দলে সাধারণ একজন ক্রিকেটার তিনি। তবে জাসপ্রিত বুমরাহর কাছে কোহলির স্থান অনেক উপরে। এই পেসার বললেন, কোহলি সবসময়ই ভারত দলের একজন নেতা হয়ে থাকবেন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Jan 2022, 01:49 PM
Updated : 17 Jan 2022, 01:49 PM

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে কোহলি বিদায় জানান ২০ ওভারের ক্রিকেটের নেতৃত্বকে। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে তাকে সরিয়ে দেওয়া হয় ওয়ানডের নেতৃত্ব থেকে। দলটির বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষে গত শনিবার তিনি হঠাৎ করে ইতি টেনে দেয় এই সংস্করণে অধিনায়কত্বের অধ্যায়ের।

সাদা পোশাকে অধিনায়ক হিসেবে দারুণ সফল কোহলি। ভারতকে এনে দিয়েছেন অনেক সাফল্য। ৪০ জয় নিয়ে দেশটির সফলতম টেস্ট অধিনায়ক তিনি। বিশ্ব ক্রিকেটেই তার চেয়ে বেশি টেস্ট জয়ী অধিনায়ক আছেন কেবল তিনজন।

দেশের বাইরে তার ১৬ টেস্ট জয়ও ভারতের রেকর্ড। অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জয়ী প্রথম এশিয়ান অধিনায়ক তিনি। তার নেতৃত্বে ভারত টেস্ট সিরিজ জিতেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কায়। ইংল্যান্ডেও সবশেষ সিরিজে এগিয়ে আছে ২-১ ব্যবধানে, যেটিতে একটি টেস্ট বাকি আছে।

আইসিসির কোনো ট্রফি জিততে না পারলেও সব সংস্করণ মিলিয়েই অধিনায়ক কোহলির ক্যারিয়ার বেশ সমৃদ্ধ। সতীর্থদেরও তার প্রতি রয়েছে অগাধ শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। সেই কথাই সোমবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন ২০১৮ সালে কোহলির নেতৃত্বে টেস্ট অভিষেক হওয়া বুমরাহ।

“দেখুন, আমি এখানে বিরাটের টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো রায় দিতে আসিনি। এটা ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত এবং আমরা তার সিদ্ধান্তকে সম্মান করি। তার শরীর কেমন সাড়া দিচ্ছে এবং মানসিক অবস্থা কেমন, তিনিই তা ভালো জানেন।”

“বিরাটের অধীনে খেলা ছিল ভীষণ আনন্দের, আমার টেস্ট অভিষেক হয়েছিল তার নেতৃত্বে। তিনি থাকলে দলে অনেক শক্তি যোগ হয়। দলে সবসময় অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন তিনি। আগামীতে সবসময় দলের নেতা হয়ে থাকবেন কোহলি।”

হুট করেই টেস্টের নেতৃত্ব থেকে কোহলির সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা ক্রিকেট বিশ্বে অনেক বড় চমক হয়ে এসেছিল। এই বিষয়ে সতীর্থরা আগে থেকে কিছু জানতেন কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে বুমরাহ বললেন সেই সময়ের কথা।

“দল হিসেবে আমরা খুব ঘনিষ্ঠ। তার অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত আমরা টিম মিটিংয়েই জানতে পারি। আমরা তার সিদ্ধান্তকে সম্মান করি, নেতৃত্বকে মূল্যায়ন করি। এই দলের নেতা হিসেবে তিনি যা অর্জন করেছেন তার জন্য আমরা তাকে অভিনন্দন জানিয়েছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক