কোহলির শূন্যস্থানে পান্তকে অধিনায়ক দেখতে চান গাভাস্কার

বিরাট কোহলি টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর নতুন আলোচনা শুরু হয়ে গেছে ভারতীয় ক্রিকেটে। কে হবেন লাল বলের ক্রিকেটে পরবর্তী অধিনায়ক? সম্ভাবনায় অনেকে হয়তো রোহিত শর্মা কিংবা লোকেশ রাহুলকেই এগিয়ে রাখছেন। তবে সুনিল গাভাস্কার বললেন চমক জাগানিয়া এক নাম। কোহলির উত্তরসূরি হিসেবে কিপার-ব্যাটসম্যান রিশাভ পান্তকে দেখতে চান এই ব্যাটিং গ্রেট।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Jan 2022, 03:07 PM
Updated : 16 Jan 2022, 03:07 PM

দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজ হারের পরদিন শনিবার ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়ে হুট করেই টেস্টের নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দেন কোহলি। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর এই সংস্করণের নেতৃত্ব নিজ থেকে ছাড়ার পর তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল ওয়ানডের নেতৃত্ব থেকে। সীমিত ওভারের দুই সংস্করণেই দায়িত্বটা পেয়েছেন রোহিত। টেস্টের সহ-অধিনায়কও তিনি।

ইন্ডিয়া টুডে’র সঙ্গে আলাপচারিতায় গাভাস্কার বললেন, পরবর্তী টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে তার পছন্দ পান্ত। এর ব্যাখ্যাও দিলেন তিনি।

“পরবর্তী টেস্ট অধিনায়ক কে হবে, তা নিয়ে একটা তর্ক চলবে নির্বাচক কমিটিতে। আমার মনে হয়, এমন একজনকেই করা উচিত যে তিন সংস্করণে অটোমেটিক চয়েস। আর সেক্ষেত্রে জবাবটা সহজ হয়ে যায়। যদি আমাকে জিজ্ঞাসা করেন, আমি রিশাভ পান্তকে ভারতের পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চাইব।”

“শুধু একটি কারণে। রিকি পন্টিং যখন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দায়িত্ব থেকে সরে গেল, তখন রোহিত শর্মাকে অধিনায়কত্ব দেওয়া হয়েছিল। এরপর ওর ব্যাটিংয়ে পরিবর্তনটা দেখুন। হঠাৎ করে অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়ে ৩০, ৪০ কিংবা ৫০ রানের ক্যামিও ইনিংসগুলোকে ১০০, ১৫০ কিংবা ২০০ তে পরিণত করেছে।”

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপ টাউন টেস্টে চাপের মধ্যে দ্বিতীয় ইনিংসে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি উপহার দেন পান্ত। ২৪ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের চার টেস্ট সেঞ্চুরির তিনটিই দেশের বাইরে। গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জয়ে তার ছিল বড় অবদান। অধিনায়কের দায়িত্ববোধ তাকে আরও ভালো ক্রিকেটার হিসেবে গড়ে তুলবে বলে মনে করেন গাভাস্কার। এক্ষেত্রে তিনি উদাহরণ টানলেন সাবেক অধিনায়ক মনসুর আলি খান পতৌদিকে দিয়ে।

“আমার মনে হয়, দায়িত্ববোধ রিশাভ পান্তকে নিউল্যান্ডসের দারুণ সেঞ্চুরির মতো আরও অনেক ইনিংস খেলতে সাহায্য করবে।”

“হ্যাঁ, আমি এটাই বলছি। টাইগার পতৌদি ২১ বছর বয়সে যখন অধিনায়ক হয়েছিলেন, তখন পরিস্থিতি ছিল প্রতিকূল, নরি কনট্রাকটর চোটে পড়েছিলেন। এরপর পতৌদি কী করেছিলেন, দেখুন।”

গত বছর শ্রেয়াস আইয়ারের চোটের কারণে পান্তকে অধিনায়কত্ব দেয় আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি দিল্লি ক্যাপিটালস। কোভিডের ছোবলে স্থগিত হওয়ার সময় আইপিএলের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ছিল দিল্লি। দায়িত্ব পেলে তিনি ভারতীয় ক্রিকেটকেও অনেক দূর এগিয়ে নেবেন বলে বিশ্বাস গাভাস্কারের।

“আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসে রিশাভ পান্তের যে অধিনায়কত্ব আমরা দেখেছি, তাতে আমার বিশ্বাস, সে ভারতীয় ক্রিকেটকে এগিয়ে নেওয়ার সামর্থ্য রাখে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক