প্রধান নির্বাচকের দায়িত্বে উইন্ডিজের সোনালি দিনের নায়ক

আশির দশকে বিশ্ব ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দাপুটে দিনগুলোর সেনানী ডেসমন্ড হেইন্স, হাল ধরে রেখেছিলেন নব্বই দশকের প্রায় মাঝামাঝি পর্যন্ত। দীর্ঘদিন পর এবার নতুন ভূমিকায় ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটে ফিরলেন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব পেলেন তাদের সর্বকালের সেরা ওপেনারদের একজন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Jan 2022, 06:17 AM
Updated : 7 Jan 2022, 12:18 PM

ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের পরিচালকদের সভায় বৃহস্পতিবার চূড়ান্ত হয় হেইন্সের নিয়োগ। ৬৫ বছর বয়সী সাবেক ব্যাটসম্যানের মেয়াদ ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত।

হেইন্স স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন তার ক্রিকেট মাঠের সাবেক সতীর্থ রজার হার্পারের। তার দুই বছরের মেয়াদ শেষ হয় গত ৩১ ডিসেম্বর।

১৬ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ১৬ হাজারের বেশি রান করেছেন হেইন্স। ১৯৭৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জোড়া ফিফটি দিয়ে টেস্ট অভিষেক ডানহাতি ব্যাটসম্যানের। ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত ১১৬ টেস্টের ক্যারিয়ারে ১৮ সেঞ্চুরিতে তার রান ৭ হাজার ৪৮৭।

গর্ডন গ্রিনিজের সঙ্গে মিলে হেইন্স গড়েছিলেন এমন এক জুটি, বছরের পর বছর ধরে যা ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাফল্যের বড় নিয়ামক। গ্রিনিজের বিদায় দিয়ে এই জুটি থেমেছে ৩০ বছর আগে, আজও টেস্ট ইতিহাসের সফলতম উদ্বোধনী জুটি তারাই (৬ হাজার ৪৮২ রান)।

ওয়ানডে ক্রিকেটেও হেইন্সকে মনে করা হয় সবসময়ের সেরা ওপেনারদের একজন। তার ১৭ সেঞ্চুরি দীর্ঘদিন ছিল ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরির রেকর্ড। এখানেও ১৬ বছরের ক্যারিয়ার তার, ২৩৮ ম্যাচে ৮ হাজার ৬৪৮ রান ৪১.৩৭ গড়ে।

বেশ অনেক দিন ধরেই ক্রিকেটে সরাসরি সম্পৃক্ততা ছিল না হেইন্সের। ২০১৯ সালে অবশ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোচ হওয়ার লড়াইয়ে ছিলেন তিনি। তবে সংক্ষিপ্ত তালিকায় তাকে রাখা হলেও পরে দায়িত্ব পান ফিল সিমন্স।

নিজের খেলোয়াড়ী জীবনে পারফর্ম করার দায়িত্ব ছিল নিজের ওপরে। নির্বাচক হিসেবে সাফল্যের নিয়ন্ত্রণ যে নিজের ওপর নেই, দায়িত্ব নিয়ে সেই চ্যালেঞ্জের কথাই বললেন হেইন্স।

“আবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের সেবা করার সুযোগের জন্য ধন্যবাদ দিতে চাই প্রেসিডেন্স রিকি স্কেরিট ও ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ডকে। নির্বাচকের কাজে প্রশংসা মেলে কম, তবে ক্রিকেট সিস্টেমে এটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব এবং আমি এই দায়িত্ব পেয়ে সম্মানিত।”

“আমি সবসময়ই বলে এসেছি, যে কোনোভাবে সম্ভব হলেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটকে সহায়তা করতে চাই এবং এই দায়িত্বকে দেখছি সেটিরই সুযোগ হিসেবে। স্বচ্ছ ও পেশাদারীভাবে দায়িত্ব পালন করার আশা রাখি।”

হেইন্সের নিয়োগে বড় ভূমিকা রেখেছেন বোর্ডের ডিরেক্টর অব ক্রিকেট ও সাবেক অধিনায়ক জিমি অ্যাডামস।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক