লেগ স্পিনার খেলাতে ফের বিসিবির ‘বিশেষ ব‍্যবস্থা’

লাঞ্চের পরপরই ম‍্যাচ শেষ হয়ে যাওয়ায় শের-ই-বাংলার সেন্টার উইকেটে ব‍্যাটিংয়ে নেমে গেলেন তামিম ইকবাল। চার বোলারের একজন ছিলেন জুবায়ের হোসেন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকে দেওয়া কথা ঠিক হয়ে থাকলে এই লেগ স্পিনারের নেটে বাঁহাতি ওপেনারকে বোলিং করার কথা নয়! কোনো একটা দলের হয়ে বিসিএলে খেলার কথা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 Dec 2021, 11:43 AM
Updated : 22 Dec 2021, 11:43 AM

চলমান বিসিএলের দ্বিতীয় রাউন্ডে কোনো দলই কোনো লেগ স্পিনার না খেলানোয় বিস্ময় প্রকাশ করলেন নাজমুল হাসান। জানালেন, তাকে বলা হয়েছিল খেলানো হবে লেগ স্পিনারদের। 

খেলানোর আগে তো দলে নিতে হবে। চার লেগ স্পিনারের মধ‍্যে দল পেয়েছেন কেবল আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। বিসিবি উত্তরাঞ্চলের হয়ে প্রথম রাউন্ডে খেলে তিনি বাদ পড়েছেন পরের ম‍্যাচে। বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল, ওয়ালটন মধ‍্যাঞ্চল ও ইসলামী ব‍্যাংক পূর্বাঞ্চল নেয়নি কোনো লেগ স্পিনার। জুবায়েরের মতো দল পাননি রিশাদ হোসেন ও মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি। এই দুই তরুণ তবুও আছেন হাই পারফরম‍্যান্স ইউনিট দলে। জুবায়ের নেই কোথাও। এই তিন জনের কেউ গত জাতীয় ক্রিকেট লিগেও পাননি কোনো ম‍্যাচ।

লেগ স্পিনারদের খেলানোর জন‍্য বারবার বলেও কাজ হয়নি। তাদের খেলানো বাধ‍্যতামূলক করে দেওয়ার পর শেষ পর্যন্ত তা মুখ থুবড়ে পড়ছে। ফের বিশেষ ব‍্যবস্থা গ্রহণের কথা বলার সময় দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্তা সংস্থার প্রধান কণ্ঠে অসহায়ই শোনাল।

“এই জিনিসটা গত তিন-চার বছর ধরে বলে আসছি। বিসিএলেও খেলায় না। বিপিএলেও খেলায় না, কোনো খেলাতেই খেলায় না।”

“কোনোভাবেই এটা সমর্থনযোগ্য নয়। একটা সময় ছিল আমাদের লেগ স্পিনার ছিল না কিন্তু এখন আছে। তাদেরকে যদি ইনক্লুড করতে (জাতীয় দলে) হয় তাদেরকে ম্যাচ খেলতে দিতে হবে। খেলতে খেলতেই তারা ভালো হবে, এটা হলো স্বীকৃত পদ্ধতি। আমরা শুধু লেগ স্পিনার না আরও কয়েকটা জায়গায় স্পেশাল অ্যারেঞ্জমেন্টের কথা ভাবছি।”

এই কথা বহুবার বলেছেন নাজমুল হাসান। বোর্ড প্রধান চাওয়ার পরও যখন লেগ স্পিনারদের খেলানো যাচ্ছে না, তাহলে কী পথ খোলা আছে বিসিবির সামনে?

“আমাকে বলা হয়েছে, এখন থেকে খেলোনো হবে।”

আজ শেষ হয়েছে একটা রাউন্ড। সেখানে খেলানো হয়নি একজনকেও জানানোর পর বিসিবি প্রধান প্রতিশ্রুতি দিলেন, লেগ স্পিনারদের খেলানোর জন‍্য তিনি আবার উদ‍্যোগ নেবেন।

“আমাকে বলা হয়েছিল, খেলানো হবে। এটা আপনাদের কাছে এখন শুনলাম যে খেলানো হয় নাই। তবে এটুকু আপনাদের বলতে পারি খেলবে..এইবারই হবে কিনা জানিনা তবে খুব শিগগিরই তাদের খেলানো হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক