অবশেষে একাদশের আলোয় ইয়াসির

ড্রেসিং রুমের ঠিক সামনে মাঠে একটা বৃত্ত। গোল হয়ে দাঁড়িয়ে ক্রিকেটাররা। সেটির মাঝখানে একজনের স্বপ্নপূরণ। বহু দিন ধরে বহু পথ ঘুরে যে মুহূর্তটির প্রতীক্ষায় ছিলেন ইয়াসির আলি চৌধুরি, সেই ক্ষণ অবশেষে এলো। অবসান হলো তার দীর্ঘ অপেক্ষার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকচট্টগ্রাম থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Nov 2021, 04:52 AM
Updated : 26 Nov 2021, 04:52 AM

চট্টগ্রাম টেস্ট দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখলেন ইয়াসির। টসের আগে সকালে তার মাথায় টেস্ট ক্যাপ পরিয়ে দিলেন অধিনায়ক মুমিনুল হক।

এমনিতে এটি বাংলাদেশের ক্রিকেটে নিয়মিত দৃশ্য। অভিষেক এখানে নৈমিত্তিক ব্যাপার। এবারের অভিষেক তবু একটু আলাদা তিনি ইয়াসির বলেই। তিনি কেন খেলার সুযোগ পাচ্ছেন না, বাংলাদেশ ক্রিকেটে এটি ছিল বিরাট এক রহস্য।

দলের সঙ্গে আছেন তিনি অনেক দিন ধরে। ২০১৯ সালের ১৬ এপ্রিল প্রথমবার জাতীয় দলে ডাক পান আয়ারল্যান্ড সফরে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের জন্য। টেস্ট স্কোয়াডে প্রথমবার জায়গা পান গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। এরপর থেকে স্কোয়াডে তিনি প্রায় নিয়মিত মুখ।

মাঠে তার উপস্থিতিও দেখা গেছে নানা সময়ে। বদলি ফিল্ডার হিসেবে নেমে ক্যাচ নিয়েছেন। ছাপ রেখেছেন নিজের। ড্রেসিং রুমে থাকা, অনুশীলনে গুরুত্ব পাওয়া, সবকিছুর পালা পেরিয়েছেন। কিন্তু অভিষেকটাই হচ্ছিল না। কয়েকবার সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত একাদশে ঠাঁই হয়নি।

এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে প্রথমবার ডাক পান টি-টোয়েন্টি দলে। নতুন পথচলার শুরুর সিরিজ সেটি, ইয়াসির এবার নিশ্চিতভাবেই খেলার সুযোগ পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু এবার কেবল হাতছানি দিয়েই মিলিয়ে গেল অভিষেকের সম্ভাবনা।

অবশেষে তার অপেক্ষা শেষ হলো নিজ শহর চট্টগ্রামে। সেই সংস্করণেই অভিষেক হলো, যেটির জন্য সবচেয়ে উপযোগী মনে করা হয় তার ব্যাটিং। স্বীকৃত ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটেই তার রেকর্ড সবচেয়ে উজ্জ্বল। ৫৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে ফেলেছেন ২৫ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। সেঞ্চুরি ৯টি, রান ৩ হাজার ৯৮০। গড় ৫০.৩৭।

ঘরোয়া ক্রিকেটে তো বটেই, এইচপি দল, বাংলাদেশ ইমার্জিং দল, ‘এ’ দল, সব জায়গায় খেলা ও পারফর্ম করার অভিজ্ঞতা হয়ে গেছে তার কয়েক দফায়। এত ম্যাচ খেলে, এত রান করে, এত সমৃদ্ধ পরিসংখ্যান নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আগমণ বাংলাদেশের ক্রিকেটে বিরল।

বলা হয়, অপেক্ষা যত দীর্ঘ, সেটির ফলও তত মধুর। যদিও এতদিন বাইরে থাকাটা তিক্তই হওয়ার কথা ইয়াসিরের জন্য। তবে ঘরের মাঠে, নিজ শহরের দর্শকের সামনে যদি অভিষেক রাঙাতে পারেন, নিশ্চিতভাবেই হাত হবে মধুময়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক