আভিশকা-শানাকার ঝড়, বোলিংয়ে উজ্জ্বল কুমারা

শক্তি, সামর্থ্যে বেশ পিছিয়ে থাকা ওমান প্রত্যাশিতভাবেই তেমন কোনো লড়াই করতে পারল না শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। আভিশকা ফার্নান্দোর দায়িত্বশীল ব্যাটিং, দাসুন শানাকার খুনে ইনিংস ও লাহিরু কুমানার চমৎকার বোলিংয়ে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ল সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Oct 2021, 05:40 PM
Updated : 7 Oct 2021, 05:40 PM

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বৃহস্পতিবার ১৯ রানে জিতেছে শ্রীলঙ্কা। আভিশকার ৫৯ বলে ৮৩ ও শানাকার ২৪ বলে ৫১ রানের ইনিংসে শ্রীলঙ্কা করে ১৬২। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওমান থামে ১৪৩ রানে।

দারুণ বোলিংয়ে ৩০ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন কুমারা। উইকেট না পেলেও ভালো বোলিং করেন শ্রীলঙ্কার রহস্য স্পিনার মাহিশ থিকশানা; ৪ ওভারে রান দেন কেবল ২০। ২ ওভারে ৭ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন নুয়ান প্রদিপ। ২৮ রান দিয়ে চামিকা করুনারত্নের প্রাপ্তি দুটি।

আল আমেরাত ক্রিকেট গ্রাউন্ডের এক নম্বর মাঠে বৃহস্পতিবার টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা শ্রীলঙ্কার শুরুটা হয় বাজে। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ফায়াজ বাটের পরপর দুই বলে ফিরে যান দিনেশ চান্দিমাল ও কামিন্দু মেন্ডিস। দুই ব্যাটসম্যানই পান গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদ।

বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি পাথুম নিশানকা ও ভানুকা রাজাপাকসে। ৫১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় শ্রীলঙ্কা। সেখান থেকে দলকে কক্ষপথে ফেরান আভিশকা ও শানাকা।

তাদের ব্যাটে বাড়তে থাকে শ্রীলঙ্কার রান। জিশান মাকসুদকে ছক্কায় উড়িয়ে ৪৪ বলে ফিফটিতে পৌঁছান আভিশকা। ফিফটির পর তিনি হয়ে ওঠেন আরও আগ্রাসী।

মোহাম্মদ নাদিমকে পরপর দুই বলে মারেন চার ও ছক্কা। ডানহাতি এই পেসারকে পরের ওভারে হাঁকান আরেকটি ছক্কা, এর আগে কলিমউল্লাহকে মারেন একটি।

ইনিংসের শেষ দুই ওভারে তাণ্ডব চালিয়ে ২৪ বলে ফিফটি তুলে নেন শানাকাও। ১৯তম ওভারে নাদিমকে টানা মারেন দুটি ছক্কা। শেষ ওভারে ফায়াজকে পরপর তিন বলে দুই ছক্কা ও এক চার মারেন তিনি। শেষ ৫ ওভারে শ্রীলঙ্কা তোলে ৭৬ রান।

৫ ছক্কা ও ৩ চারে ৫৯ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত থাকেন আভিশকা। টি-টোয়েন্টিতে এটাই তার প্রথম ফিফটি। আগের সেরা ছিল ৩৭।

লঙ্কান অধিনায়ক শানাকা ৫ ছক্কা ও ২ চারে করেন ২৪ বলে ৫১। দুইজনে গড়েন ১১১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি।

লক্ষ্য তাড়ায় রানের খাতা খোলার আগেই উইকেট হারায় ওমান। এরপর চলতে থাকে এই ধারা। অধিনায়ক জিশান মাকসুদসহ শুরুর চার ব্যাটসম্যানের কেউ যেতে পারেননি দুই অঙ্কে। ২৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। প্রদিপ ও কুমারা নেন দুটি করে উইকেট।

মিডল অর্ডারে একটু লড়াই করেন মোহাম্মদ নাদিম ও আয়ান খান। শেষ দিকে ২২ বলে চার ছক্কা ও দুই চারে ৪০ রানের বিস্ফোরক ইনিংসে ব্যবধান কমান নাসিম খুশি।

আগামী শনিবার সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি খেলবে দুই দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ২০ ওভারে ১৬২/৪ (নিশানকা ৮, চান্দিমাল ০, কামিন্দু ০, আভিশকা ৮৩*, রাজাপাকসে ১৫, শানাকা ৫১*; কলিমউল্লাহ ৪-০-১৮-১, ফায়াজ ৪-০-৪২-২, জিশান ৩-০-২২-০, নাদিম ৪-০-৪২-০, আকিব ২-০-১৭-০, খাওয়ার ৩-০-১৮-১)।

ওমান: ২০ ওভারে ১৪৩/৮ (প্রজাপতি ০, জাতিন্দার ৭, আকিব ৩, জিশান ৯, নাদিম ৩২, আয়ান ২৩ সন্দীপ ১৭, নাসিম ৪০, কলিমউল্লাহ ১*; প্রদিপ ২-০-৭-২, কুমারা ৪-০-৩০-৪, থিকশানা ৪-০-২০-০, চামিকা ৪-০-২৮-২, শানাকা ৪-০-৪১- ০, দনাঞ্জয়া ২-০-১৬-০)।

ফল: শ্রীলঙ্কা ১৯ রানে জয়ী।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক