‘ম্যানচেস্টার টেস্ট বাতিল হয়েছে অর্থ ও আইপিএলের কারণে’

ম্যাচ শুরুর স্রেফ ঘণ্টা দুয়েক আগে ম্যানচেস্টার টেস্ট বাতিল হওয়া মানতেই পারছেন না মাইকেল ভন। ইংল্যান্ডের সাবেক এই অধিনায়কের মতে, ক্রিকেটারদের আইপিএলে খেলতে না পারার ভয়ে জমজমাট ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজটির এই পরিণতি হয়েছে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Sept 2021, 01:43 PM
Updated : 11 Sept 2021, 01:43 PM

ওভালে চতুর্থ টেস্ট চলাকালীন কোভিড-১৯ টেস্টে পজিটিভ ফল আসে ভারতের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রীর। সতর্কতার অংশ হিসেবে তাকেসহ দলটির বোলিং কোচ ভারত অরুন, ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর ও ফিজিওথেরাপিস্ট নিতিন প্যাটেলকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়।

পরে গত বুধবার কোভিড-১৯ পজিটিভ হন ভারতের সহকারী ফিজিও ইয়োগেশ পারমারও।  একাধিক ভারতীয় খেলোয়াড় এরপর বিসিসিআই ও টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনায় পঞ্চম টেস্টে মাঠে নামা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বৃহস্পতিবার আরটি-পিসিআর টেস্টে অবশ্য দলটির সবার নেগেটিভ ফল আসে।

তবুও গত শুক্রবার ইসিবি বিবৃতি দিয়ে জানায়, ক্যাম্পের ভেতরে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কায় ভারত দুঃখজনকভাবে দল মাঠে নামাতে পারছে না। তাই দু-পক্ষের মধ্যে আলোচনার পর পঞ্চম টেস্ট বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল ভারত। শেষ ম্যাচে দারুণ লড়াইয়ের অপেক্ষা করছিল ক্রিকেট বিশ্ব। কিন্তু ক্রিকেটারদের ভীতি শেষ করে দিয়েছে সব উত্তেজনার।

দা টেলিগ্রাফে নিজের কলামে ভন লিখেছেন, কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে আইপিএল খেলতে না পারার ভয়ে ছিল ক্রিকেটাররা।

“সত্যি কথা বলতে, এটা পুরোটাই অর্থ ও আইপিএলের কারণে। টেস্ট বাতিল করা হয়েছে, কারণ খেলোয়াড়রা কোভিডে আক্রান্ত হয়ে আইপিএল খেলতে না পারার ভয়ে ছিল।”

“এক সপ্তাহ পরই আমরা আইপিএল দেখব এবং খেলোয়াড়রা সেখানে আনন্দে হাসিমুখে দৌড়ে বেড়াবে। কিন্তু তাদের উচিত ছিল পিসিআর টেস্টে ভরসা রাখা। আমরা এই ভাইরাস সম্পর্কে এখন অনেক কিছুই জানি। কীভাবে এটাকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় সেটাও আমরা ভালো জানি। ক্রিকেটারদের দুইবার টিকা দেওয়া হয়েছে। আর জৈব-সুরক্ষা বলয় দ্রুতই তৈরি করা যায়।”

ইংল্যান্ডকে ৫১ টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়া ভনের মানতে কষ্ট হচ্ছে, ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্টের জন্য ১১ ক্রিকেটার খুঁজে পায়নি ভারত।

“ক্রিকেটের জন্য টেস্ট ম্যাচটি প্রয়োজন ছিল। সিরিজটি প্রস্তুত ছিল দারুণ কিছুর জন্য। টসের ৯০ মিনিট আগে টেস্ট ম্যাচ বাতিল করা ঠিক মেনে নেওয়া যায় না। অর্থ খরচ করা মানুষদের জন্য এটা অসম্মানের।”

আইপিএলের বাকি অংশ শুরু আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ফাইনালসহ বাকি এখনও ৩১ ম্যাচ।

আইপিএল শুরুর সময় এবং পঞ্চম টেস্ট শেষের সময়টা উল্লেখ করে টুইটারেও ক্ষোভ ঝেরেছেন ভন।

“আইপিএলের দলগুলো খেলোয়াড়দের নিতে প্লেন ভাড়া করছে..সংযুক্ত আরব আমিরাতে গিয়ে ৬ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে..টুর্নামেন্ট শুর হতে বাকি সাত দিন!!! দয়া করে বলবেন যে আইপিএল ছাড়া অন্য কোনো কারণে টেস্ট বাতিল হয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক