নিউ জিল্যান্ডের প্রস্তুতির অংশ বাংলাদেশের সাবেক কোচরাও

বাংলাদেশ সিরিজের জন্য প্রস্তুতিতে কোনো কমতিই রাখেনি নিউ জিল্যান্ড। মন্থর উইকেট তৈরি করে অনুশীলন করা, দুটি ক্যাম্প করা, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের নিয়ে বিশ্লেষণ করা, এসব তো হয়েছেই। এখানকার কন্ডিশন ও ক্রিকেটারদের সম্পর্কে ধারণা নিয়েছে তারা বাংলাদেশের সাবেক কোচদের থেকেও। সব মিলিয়ে খর্বশক্তির দল পাঠালেও তারা আটঘাঁট বেঁধেই এসেছেন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 August 2021, 01:24 PM
Updated : 28 August 2021, 01:24 PM

বাংলাদেশের সাবেক কোচ শেন জার্গেনসেন অনেক দিন থেকেই নিউ জিল্যান্ডের বোলিং কোচ। এই সফরে তিনি আসেননি। তবে নানান তথ্য দিয়ে দলকে সহায়তা করেছেন প্রস্তুতিতে। এই সফরে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিউ জিল্যান্ড নিয়ে এসেছে বাংলাদেশের সাবেক ব্যাটিং কোচ থিলান সামারাবিরাকে।

এছাড়াও নিউ জিল্যান্ডের এই সফরের প্রধান কোচ গ্লেন পকন্যাল ওয়েলিংটন ফায়ারবার্ডসের হয়ে অনেক দিন কাজ করেছেন বাংলাদেশের আরেক সাবেক কোচ জেমি সিডন্সের সঙ্গে।

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শনিবার পকন্যাল জানালেন, সিডন্স-সামরাবিরাদের কাছ থেকে বাংলাদেশ নিয়ে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন তারা।

“জেমির (সিডন্স) সঙ্গে তিন বছর কাজ করেছি আমি। এখানকার কন্ডিশন সম্পর্কে তার ভালো ধারণা আছে, থিলানেরও (সামারাবিরা) আছে। ব্যাপারটি হলো, ওদের কাছ থেকে জেনে তা সহজভাবে ক্রিকেটারদের সামনে তুলে ধরা।”

“অবশ্য দিনশেষে, অপ্রত্যাশিত কিছুর জন্যও প্রস্তুত থাকতে হবে। পিচ ও কন্ডিশন বদলাতেই পারে। বিভিন্ন সময়ে এসব বদলাতে পারে। সবকিছুর জন্য তৈরি থাকতে হবে।”

থিলান সামারাবিরাকে যে আশায় এই সফরে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে, সাবেক শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানের কাছ থেকে তা পাওয়া যাচ্ছে বলে জানালেন পকন্যাল।

“সে দারুণ কাজ করছে। বাংলাদেশের হয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তার, এশিয়ান কন্ডিশন সম্পর্কেও তার জানাশোনা অনেক। স্পিন বোলিং সামলানোয় আরও বেশি বিকল্প খুঁজে বের করতে ব্যাটসম্যানদের সহায়তা করছে সে। আশা করি, এসব আমাদের জন্য এই ম্যাচগুলোয় অমূল্য হয়ে উঠবে।”

সার্বিক প্রস্তুতি যা হয়েছে, তাতে সন্তুষ্টই নিউ জিল্যান্ড কোচ। এখন তিনি তাকিয়ে মাঠের লড়াইয়ে।

“আমরা খুব ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। নিউ জিল্যান্ডে গোটা দুই ক্যাম্প হয়েছে আমাদের, যেখানে আমরা চেষ্টা করেছি এখানকার মতো উইকেট তৈরি করে খেলতে। এখানেও প্রস্তুতি নিচ্ছি। দিন শেষে এসবই আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। যতটা সম্ভব, সেরা প্রস্তুতি নিতে হবে যা আমাদের ম্যাচে সেরা পারফর্ম করার সুযোগ দেবে। আমরা পারফর্ম করতে চাই এবং বাংলাদেশের সঙ্গে লড়াই করতে চাই।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক