মুস্তাফিজকে চাপে রাখার কৌশল নেবে নিউ জিল্যান্ড

বাংলাদেশকে হারাতে হলে কাকে সামলানো জরুরি, সেই গবেষণা করেই এসেছে নিউ জিল্যান্ড। তাদের অ্যানালিস্টের পরীক্ষাগারে প্রবল কাটাছেঁড়া হয়েছে মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং নিয়ে। বিশ্লেষণ করা হয়েছে বিস্তর। বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসারকে নিষ্ক্রিয় করার উপায়ও বের করেছে কিউইরা। তাদের কোচ গ্লেন পকন্যাল জানালেন, ভিন্ন কিছু করে মুস্তাফিজকে পাল্টা চাপে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করবেন তারা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 August 2021, 12:37 PM
Updated : 28 August 2021, 12:37 PM

মুস্তাফিজকে নিয়ে প্রতিপক্ষের ভাবনা কিংবা দুর্ভাবনা, নতুন নয় মোটেও। তবে সেসব আরও বেড়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সবশেষ সিরিজের পর। শুধু উইকেট শিকারই নয়, অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের বলতে গেলে বিব্রত করে ছাড়েন এই বাঁহাতি পেসার। উইকেট ছিল মন্থর ও টার্নিং, বল গ্রিপ করে দারুণ। সহায়ক উইকেট ও পরিবেশ পেয়ে তিনি হয়ে উঠেছিলেন ভয়ঙ্কর।

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষেও একইরকম উইকেট থাকলে মুস্তাফিজকে সামলানো দুরূহ হওয়ারই কথা। উইকেটে অতটা সহায়তা না মিললেও অবশ্য মিরপুরে বরাবরই কার্যকর তিনি।

মুস্তাফিজের জন্য বিশেষ পরিকল্পনার কথা জানালেন নিউ জিল্যান্ডের কোচ গ্লেন পকন্যাল। ছবি : বিসিবি।

এই সফরে নিউ জিল্যান্ডের কোচের দায়িত্ব পাওয়া পকন্যাল শনিবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানালেন মুস্তাফিজকে নিয়ে তাদের ভাবনা।

“সে অসাধারণরকম ভালো বোলিং করেছে (অস্ট্রেলিয়া সিরিজে)। ডেলিভারিগুলো সে যেভাবে করেছে, তা দেখাটা ছিল স্পেশাল। আমার মতে, সে অবশ্যই হুমকি, পাশাপাশি বাংলাদেশের অন্যরাও।”

“আমরা তার বোলিং খুব ভালোভাবে দেখেছি এবং আলোচনা করেছি, কোথায় তাকে টার্গেট করা যায়। তবে, দিনশেষে ব্যাপারটি হলো, মাঠে করে দেখাতে পারা। তাকে চাপে ফেলার চেষ্টা করা এবং তার বিরুদ্ধে ভিন্ন কিছু করাই থাকবে লক্ষ্য।”

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে মুস্তাফিজের একটি সুখস্মৃতিও আছে। টি-টোয়েন্টিতে তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে। ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কলকাতায় ৫ উইকেট শিকার করেছিলেন তিনি ২২ রানে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক