ভারতকে গুঁড়িয়ে সমতায় ইংল্যান্ড

আগের দিন লড়াইয়ের আভাস দেওয়া ভারত পরদিন টিকতে পারল না এক সেশনও। অলিভার রবিনসনের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৮ উইকেট যেন তারা হারিয়ে ফেলল চোখের পলকে। ধরা দিল ইংল্যান্ডের প্রত্যাশিত ইনিংস ব্যবধানে জয়।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 August 2021, 12:02 PM
Updated : 28 August 2021, 01:08 PM

হেডিংলিতে ইংল্যান্ডের দাপুটে পারফরম্যান্সে চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনেই হয়ে গেল ফয়সালা। তৃতীয় টেস্টে ভারতকে ইনিংস ও ৭৬ রানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-১ সমতা ফেরাল স্বাগতিকরা।

অধিনায়ক হিসেবে টেস্ট জয়ের দিক থেকে রুট ছাড়িয়ে গেলেন মাইকেল ভনকে। ইংল্যান্ডের নেতৃত্বে সবচেয়ে বেশি জয় এখন রুটের, ২৭টি। সাবেক অধিনায়ক ভনের ছিল ২৬টি।

ইংলিশরা জয়ের ভিত গড়েছিল প্রথম ইনিংসেই। প্রতিপক্ষকে ৭৮ রানে গুটিয়ে তারা করেছিল ৪৩২ রান। পেয়েছিল ৩৫৪ রানে বিশাল লিড। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামা বিরাট কোহলির দল চতুর্থ দিনে এসে থেমে যায় ২৭৮ রানে।

চেতেশ্বর পুজারার বিপক্ষে অলিভার রবিনসনের এলবিডব্লিউর আবেদন।

প্রথম ইনিংসে ২ উইকেট নেওয়া পেসার রবিনসন দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ৫ উইকেট। ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন তিনিই।

২ উইকেটে ২১৫ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করে ভারত। হাতে ছিল ৮ উইকেট, পিছিয়ে ছিল কেবল ১৩৯ রানে। কিন্তু নতুন দিনে স্বাগতিকরা যেন শুরু করল নতুন করে। তাদের বিধ্বংসী বোলিংয়ে আর ৬৩ রান যোগ করতেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

কাঙ্ক্ষিত সেঞ্চুরির খুব কাছে থাকা চেতেশ্বর পুজারাকে ফিরতে হয় আক্ষেপ নিয়ে। ৯১ রান নিয়ে আগের দিন শেষ করা অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান শনিবার নামের পাশে যোগ করতে পারেননি কোনো রান। দিনের চতুর্থ ওভারেই তাকে এলবিডব্লিউ করে দেন রবিনসন।

১২০ বলে ফিফটি স্পর্শ করা কোহলিও টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। এবারও দৃশ্যপটে সেই রবিনসনই। তার লেংথ বল ভারত অধিনায়কের ব্যাটের কানা নিয়ে জমা পড়ে জস বাটলারের গ্লাভসে। শেষ হয় কোহলির ১২৫ বলে ৫৫ রানের লড়াই। 

৫৫ রানে আউট হয়ে হতাশা নিয়ে ফিরছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

পরের দুই ওভারে আরও দুই উইকেট হারায় ভারত। জেমস অ্যান্ডারসনের শিকার অজিঙ্কা রাহানে (১০)। ভারত সহ-অধিনায়কও হন কট বিহাইন্ড। ওভারটনের বলে তৃতীয় স্লিপে ধরা পড়েন রিশাভ পান্ত।

অ্যান্ডারসনকে দুই চার মেরে রানের খাতা খোলেন রবীন্দ্র জাদেজা। শেষ দিকে তিনি দ্রুত কিছু রান তুলে কমান হারের ব্যবধান। ৫ চার ও এক ছক্কায় তার ২৫ বলে ৩০ রানের ইনিংস থামে ওভারটনের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে।

এর মাঝে ইশান্ত শর্মাকে ফিরিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় পাঁচ উইকেট পূর্ণ করেন রবিনসন। আর মোহাম্মদ সিরাজের উইকেট নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন ওভারটন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত ১ম ইনিংস: ৭৮

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৪৩২

ভারত ২য় ইনিংস: (আগের দিন ২১৫/২) ৯৯.৩ ওভারে ২৭৮ (পুজারা ৯১, কোহলি ৫৫, রাহানে ১০, পান্ত ১, জাদেজা ৩০, শামি ৬, ইশান্ত ২, বুমরাহ ১*, সিরাজ ০; অ্যান্ডারসন ২৬-১১-৬৩-১, রবিনসন ২৬-৬-৬৫-৫, ওভারটন ১৮.৩-৬-৪৭-২, কারান ৯-১-৪০-০, মইন ১৪-১-৪০-১, রুট ৬-১-১৫-০)।

ফল: ইংল্যান্ড ইনিংস ও ৭৬ রানে জয়ী।

ম্যান অব দা ম্যাচ: অলিভার রবিনসন।

সিরিজ: ৫ ম্যাচের সিরিজ ১-১ সমতায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক