দলের বিপদেও স্টোকসকে ফেরার তাড়া দেবে না ইংল্যান্ড

মাঠের ক্রিকেটে হিমশিম খাচ্ছে ইংল্যান্ড। তবে মাঠের বাইরে থাকা ভরসায় আশ্রয় খুঁজবে না তারা। বেন স্টোকসকে পেলে সমাধান হতে পারে ইংলিশদের অনেক সমস্যার। কিন্তু কোচ ক্রিস সিলভারউড জানালেন, ক্রিকেট থেকে বিরতিতে যাওয়া অলরাউন্ডারকে জরুরি বার্তা পাঠাবে না দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 August 2021, 05:46 AM
Updated : 18 August 2021, 03:50 PM

গত মাসের শেষ দিনে ইংল্যান্ডের বোর্ড বিবৃতি দিয়ে জানায়, মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে মনোযোগ দিতে ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য দূরে থাকবেন স্টোকস। তাকে পর্যাপ্ত সময় ও সমর্থন দেওয়ার কথা তখনই জানায় বোর্ড, জানান অধিনায়ক জো রুট ও সংশ্লিষ্ট অন্যরাও।

তবে ইংলিশদের পারফরম্যান্সই স্টোকসকে মনে করিয়ে দিচ্ছে বারবার। ভারতের বিপক্ষে চলতি সিরিজে এখনও পর্যন্ত স্টোকসের শূন্যতা অনুভূত হয়েছে প্রবলভাবে। একাদশে ভারসাম্য ও অভিজ্ঞতার ঘাটতি ফুটে উঠেছে বারবার।

সিরিজের প্রথম টেস্টে হারার শঙ্কা থেকে ইংল্যান্ড ড্র করতে পারে শেষ দিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায়। দ্বিতীয় টেস্টে দারুণ জয়ে ভারত এগিয়ে যায় সিরিজে।

দলের এই দুর্দশা দেখেই ম্যাচের পরদিন সিলভারউডের সংবাদ সম্মেলনে স্টোকসকে ফেরানোর প্রসঙ্গ উঠল। ইংল্যান্ড কোচ সরাসরি নাকচ করে দিলেন সেই সম্ভাবনা।

“আমার দিক থেকে কোনো জোরাজুরি নেই। এসব ব্যাপার নিয়ে তাড়া দেওয়া যায় বলেও মনে হয় না আমার। আমি অপেক্ষা করব। সে নিজে থেকে যতক্ষণ না বলছে যে সে প্রস্তুত, ততক্ষণ অপেক্ষা চলবে।”

ভারতের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের এই সিরিজের পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের মতো গুরুত্বপূর্ণ আরও দুটি অভিযান আছে ইংল্যান্ডের। তবে স্টোকসের ক্ষেত্রে সেসব নিয়ে ভাবনা নেই সিলভারউডের। ইংল্যান্ড কোচ জানিয়ে দিলেন, যতদিন প্রয়োজন সময় নিতে পারবেন স্টোকস।

“এটার কোনো সময়সীমা নেই। আমি আবারও তুলে ধরতে চাই যে, সবচেয়ে জরুরি হলো বেনের সুস্থ থাকা, ওর পরিবারের ভালো থাকা এবং সে যেন দারুণভাবে ফিরতে পারে, মানসিকভাবে প্রস্তুত হতে পারে এবং ইংল্যান্ডের হয়ে সেভাবে পারফর্ম করতে পারে, যেভাবে তার সামর্থ্য আছে বলে আমরা জানি।”

“নিশ্চিতভাবেই কোনো উত্তর পেতে তাকে তাড়া দেব না আমি এবং আমার মনে হয়, সেটা করা উচিতও হবে না। তার আশেপাশে লোকজন আছে ও তাকে সাহায্য করছে। যখন সে ফেরার জন্য প্রস্তুত হবে, আমরা তাকে দুহাত বাড়িয়ে আমন্ত্রণ জানাব। কিন্তু ততদিন পর্যন্ত তার যত সহায়তা প্রয়োজন, আমরা করে যাব।”

ভারতের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের তৃতীয় টেস্ট আগামী বুধবার থেকে, হেডিংলিতে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক