সিরিজ সেরা হয়ে সাকিব বললেন, ‘ভালোর শেষ নেই’

সাকিব আল হাসানের সাফল্যের মন্ত্রটা বাংলাদেশের ক্রিকেটে সবার জানাই। তৃপ্ত না হওয়া। প্রতিনিয়ত নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার তাড়না। উৎকর্ষের পিছু ছোটা। এই জিম্বাবুয়ে সিরিজ শেষেও যেমন খানিকটা নমুনা দেখা গেল। ম্যান অব দা সিরিজ হয়েও তিনি বললেন, ‘আরও ভালো করতে পারলে ভালো লাগত।”

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 July 2021, 05:31 PM
Updated : 20 July 2021, 05:31 PM

তিন ম্যাচের সিরিজে তার উইকেট ৮টি। প্রথম ম্যাচে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। সিরিজে রান ১৪৫। বড় রানে ফেরার স্বস্তি দেওয়া দ্বিতীয় ম্যাচে করেছিলেন অপরাজিত ৯৬। সিরিজে ব্যাটিং গড় ৭২.৫০। সিরিজ সেরা হওয়ার লড়াইয়ে তার প্রতিদ্বন্দ্বীই ছিল না তেমন কেউ।

ওয়ানডেতে এই নিয়ে ৭ বার সিরিজ সেরা হলেন তিনি। বিশ্বরেকর্ডে তিনি আছেন যৌথভাবে চতুর্থ স্থানে, রিকি পন্টিং ও যুবরাজ সিংয়ের সঙ্গে। ক্রিস গেইল, বিরাট কোহলি ও শন পোলক সিরিজ সেরা হয়েছেন ৮ বার করে, সনাৎ জয়াসুরিয়া ১১ বার, শচিন টেন্ডুলকার ১৪ বার।

তিন সংস্করণ মিলিয়ে সাকিব সিরিজ সেরা হলেন ১৫ বার। ছাড়িয়ে গেলেন সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডারদের একজন জ্যাক ক্যালিসকে (১৪ বার)। এখানে তার ওপরে মোটে দুই জন। টেন্ডুলকার ১৯ বার, কোহলি ১৭ বার।

তবে এই রেকর্ড, পরিসংখ্যান, সিরিজ সেরার পুরস্কার, এসব ছাপিয়ে তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ দলে অবদান রাখতে পারা। তবে সেখানেও কিছুটা অতৃপ্তির কথা বললেন তৃতীয় ম্যাচ শেষে।

“ভালো লাগছে। দলে অবদান রাখতে পারা সবসময়ই স্পেশাল। যেভাবে অবদান রাখতে পেরেছি, তাতে আমি খুশি। তবে ভালোর তো শেষ নেই। সেদিক থেকে আরও ভালো করতে পারলে আরও বেশি ভালো লাগত। তবে যেভাবে সিরিজটি গেল, সেদিক থেকে খুশি।”

শুধু নিজেকে নিয়ে নয় ‘ভালোর শেষ নেই’ কথাটিতে তিনি জুড়ে দিচ্ছেন দলকেও। উন্নতির তাড়না থাকতে হবে দলেরও!

এই সিরিজে দলের পারফরম্যান্সে দারুণ খুশি সাকিব। তবে পা না হড়কে এই পথ ধরে দলের এগিয়ে যাওয়া দেখতে চান তিনি।

“জিম্বাবুয়েতে এসে জিম্বাবুয়েকে ৩-০ ব্যবধানে হারানো সহজ নয়। এই তিন ম্যাচে যেভাবে খেলেছি, দলের তাতে কৃতিত্ব প্রাপ্য।”

“বেশ কিছু পরিস্থিতি ছিল যখন আমাদের বেশ কিছু জায়গায় পরীক্ষা হয়েছে। আমরা ভালোভাবেই সেসব পরীক্ষায় উতড়াতে পেরেছি। যেটা বললাম, যে ভালোর তো শেষ নেই বা উন্নতির শেষ নেই। এখান থেকে যেভাবে উন্নতি করতে পারি পরের সিরিজে, তার পরের সিরিজে এবং তার পরের সিরিজে…এভাবে উন্নতি করতে থাকলে আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য অর্জন হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক