সাইফের ফিফটি, ফরহাদ রেজার শেষের ঝড়

শুরুতেই জীবন পাওয়া সাইফ হাসান কাজে লাগালেন সুযোগ। আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে করলেন ফিফটি। শেষের দিকে নেমে ঝড় তুললেন ফরহাদ রেজা। তাদের ব্যাটে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে শাইনপুকুরকে হারাল প্রাইম দোলেশ্বর। 

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 June 2021, 07:40 AM
Updated : 7 June 2021, 08:10 AM

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লিগে সোমবার ৪ উইকেটে জিতেছে দোলেশ্বর।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাটসম্যানদের মিলিত অবদানে ৭ উইকেটে ১৬২ রান করে শাইনপুকুর। সাইফের ফিফটি আর ফরহাদ রেজার বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ২ বল বাকি থাকতে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে দোলেশ্বর।

৩৫ বলে চার ছক্কা ও তিন চারে ৫০ রান করেন সাইফ। দোলেশ্বর অধিনায়ক ফরহাদ রেজা দুটি করে ছক্কা ও চারে অপরাজিত থাকেন ২৭ রানে।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে তানজিদ হাসান ও সাব্বির হোসেনের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় শাইনপুকুর। ফরহাদ রেজার করা ম্যাচের প্রথম বলে বাউন্ডারিতে শুরু করেন তানজিদ। চতুর্থ বলে মারেন আরেকটি। শেষ বলে স্ট্রাইক পেয়ে বাউন্ডারিতে রানের খাতা খোলেন সাব্বির। ওভার থেকে আসে ১৩।

চতুর্থ ওভারে শরিফউল্লাহকে ছক্কায় ওড়ান তানজিদ। এক বল পর এর পুনরাবৃত্তি করেন সাব্বির। পঞ্চম ওভারে তানজিদকে ফিরিয়ে ৪৯ রানের শুরুর জুটি ভাঙেন শামীম হোসেন। এনামুল হক জুনিয়রের পরে ওভারে তিন চারে আসে ১৩ রান। পাওয়ার প্লেতে শাইনপুকুর তোলে ১ উইকেটে ৭১।

এই শুরুটা অবশ্য পরে ধরে রাখতে পারেনি শাইনপুকুর। ১৯ বলে দুই ছক্কা ও চারটি চারে ৩৬ রান করে সাব্বির ফেরার পর কমে তাদের রানের গতি।

অনেকটা সময় ক্রিজে থেকে চারটি চারে ৩৬ বলে ৩৪ রান করেন রবিউল। শেষ বলে বিদায় নেওয়া কিপার-ব্যাটসম্যান মাহিদুল ৩২ বলে দুই ছক্কা ও তিন চারে করেন ৪৪।

খরুচে বোলিংয়ে ৪ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন ফরহাদ রেজা। অভিজ্ঞ দুই স্পিনার শরিফউল্লাহ ও এনামুল জুনিয়র মিলে ৫ ওভারে ৫২ রান দিয়ে উইকেটশূন্য। শামীম ও রেজাউর রহমান রাজা নেন দুটি করে উইকেট।      

রান তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি দোলেশ্বরের। দ্রুত ফিরেন দুই ওপেনার ইমরান উজ্জামান ও তৌফিক খান। পাওয়ার প্লেতে দলটি ২ উইকেটে তোলে ৩০।

১৩ রানে ফিরতে পারতেন সাইফ। মোহর শেখের বলে এই ডানহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের ক্যাচ ছাড়েন তানভির ইসলাম। দলকে দিতে হয় এর চড়া মাশুল।

প্রাইম দোলেশ্বর। ফাইল ছবি

নবম ওভারে বোলার সুমন খানের মাথার উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে রানের গতিতে দম দেন সাইফ। রবির পরের ওভারে মারেন চার ও ছক্কা। বাঁহাতি স্পিনার তানভিরকে স্লগ করে ওড়ায় ছক্কায়।

তানভিরের পরের ওভারে পুল করে ৩৪ বলে স্পর্শ করেন ফিফটি। পরের ওভারে একই চেষ্টায় বলের লেংথ পড়তে ভুল করে ফিরেন বোল্ড হয়ে।

সাইফের বিদায়ের পর রানের গতি বাড়ান ফজলে মাহমুদ রাব্বি। ইফতেখার সাজ্জাদকে পরপর দুই বলে মারে চার। তানভিরের বলে আসে তার একমাত্র ছক্কা। ৩২ রানে ইফতেখারের বলে ক্যাচ দিয়েও বেঁচে ফজলে রাব্বি।

মোহরকে পরপর দুই চারের মেরে ছক্কার চেষ্টায় ফিরে যান ক্যাচ দিয়ে। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের ৩৩ বলে খেলা ৪১ রানের ইনিংসে ৬ চারের পাশে ছক্কা একটি।

ক্রিজে গিয়েই বোলারদের ওপর চড়াও হন শামীম। মারেন দুটি বিশাল ছক্কা। কিন্তু বড় করতে পারেননি। ১৯তম ওভারে মোহরকে ওড়ানোর চেষ্টায় ১৬ বলে ফিরেন ২২ রান করে। পরের বলে রান আউট হয়ে যান মার্শাল আইয়ুব।

সেই ওভারের শেষ বলে ছক্কা হাঁকান ফরহাদ রেজা। লং অন ফিল্ডারের সুযোগ ছিল ক্যাচ নেওয়ার কিন্তু ঠিক সময়ে লাফ দিতে পারেননি তিনি।

শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ১২ রান। পেসার সুমনকে ছক্কা ও চার মেরে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান ফরহাদ রেজা। দিনের শুরুতে খরুচে বোলিং করলেও শেষের দারুণ ফিনিশিংয়ে ম্যাচ সেরা দোলেশ্বর অধিনায়ক।   

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব:২০ ওভারে ১৬২/৭ (তানজিদ ২৫, সাব্বির ৩৬, রবি ৩৪ম হৃদয় ১০, মাহিদুল ৪৪, অমিত ৪, সুমন ০, মোহর ০*; ফরহাদ রেজা ৪-০-৪৮-১, শরিফ ২-০-২৩-০, এনামুল ৩-০-২৯-০, শামীম ৪-০-২১-২, রাব্বি ৩-০-১৮-১, রেজাউর ৪-০-২২-২)

প্রাইম দোলেশ্বর: ১৯.৪ ওভারে ১৬৩/৬ (ইমরান ৮, তৌফিক ৮, সাইফ ৫০, মাহমুদ ৪১, শমীম ২২, ফরহাদ রেজা ২৭*, মার্শাল ০, ১*; তানভির ৪-০-৩৫-১, মুরাদ ৩-০-১৪-১, সুমন ৩.৪-০-৩৮-১, মোহর ৪-০-২৯-২, ইফতেখার ৩-০-২৪-০, রবি ১-০-১৪-০, সাব্বির ১-০-৭-০)

ফল: প্রাইম দোলেশ্বর ক্রিকেট ক্লাব ৪ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: ফরহাদ রেজা

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক