রুটের অধিনায়কত্ব নিয়ে চ্যাপেলের প্রশ্ন

ভিন্ন কন্ডিশন, আলাদা ম্যাচ পরিস্থিতিতে অধিনায়ককে হতে হয় কৌশলী। চিরায়ত ধারার বাইরে গিয়ে নিতে হয় উদ্ভাবনী অনেক সিদ্ধান্ত। জো রুটের নেতৃত্বে এসবের বেশ অভাব চোখে পড়েছে ইয়ান চ্যাপেলের। যা ইংল্যান্ডের জন্য উদ্বেগের বলে মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 June 2021, 04:16 PM
Updated : 6 June 2021, 04:16 PM

৫০ টেস্টে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেওয়া পঞ্চম অধিনায়ক রুট। সাদা পোশাকের এই সংস্করণে অধিনায়ক হিসেবে দেশের হয়ে তার চেয়ে বেশি ম্যাচ জেতেননি কেউ। ২৬ টেস্ট জিতে আছেন মাইকেল ভনের পাশে।

পরিসংখ্যান রুটকে ইংল্যান্ডের সফল অধিনায়কদের একজন বললেও তার নেতৃত্বের দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন চ্যাপেল। চলতি বছরের শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়ায় হবে এবারের অ্যাশেজ। চ্যাপেলের মতে, সেখানে পেস সহায়ক কন্ডিশনে অধিনায়ককে হতে হয় উদ্ভাবনী। ইএসপিএনক্রিকইনফোতে নিজের কলামে তিনি লেখেন, ইংলিশ অধিনায়কের মধ্যে সেই গুণ তিনি দেখছেন না।

“রুটের অধিনায়কত্বে প্রায়ই দূরদর্শিতা ও যুক্তির অভাব দেখা যায়। সিনিয়র খেলোয়াড়দের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার প্রবণতা মনে করিয়ে দেয় বাজে সময়ের অ্যালেস্টার কুকের কথা।”

“যে অধিনায়ক আলোচনা করে আর যে অনিশ্চিত থাকে তাদের মধ্যে পার্থক্য আছে। অধিনায়কের জন্য দ্বিধায় থাকা বাজে ব্যাপার। অস্ট্রেলিয়ায় অনেক সময় আসে, যখন কাজ সারতে অধিনায়ককে উদ্ভাবনী কিছু করতে হয়। যেটা রুটের শক্তির জায়গা নয়।”

রুটের নেতৃত্বের পাশাপাশি ইংল্যান্ড দলের আরেকটি জায়গায় ঘাটতি চোখে পড়েছে চ্যাপেলের। ডমিনিক সিবলি ও ররি বার্নসকে নিয়ে গড়া তাদের শুরুর জুটি মোটেও কার্যকর মনে হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়াকে ৩০ টেস্টে নেতৃত্ব দেওয়া চ্যাপেলের।

“ইংল্যান্ডের আছে সিরিজ জেতানোর মতো শক্তিশালী ফাস্ট বোলারদের একটি দল। টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান ও জো রুটের অধিনায়কত্ব তাদের জন্য হতে পারে উদ্বেগের। ডমিনিক সিবলি ও ররি বার্নসের উদ্বোধনী জুটি নড়বড়ে। গ্যাবায় ইংল্যান্ড দলের তালিকায় উপরের দিকে এই দুটি নাম থাকলে প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক ও জশ হেইজেলউডদের আনন্দিত হওয়া উচিত।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক