টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আয়নায় বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবে সব ম্যাচ খেলার সুযোগ মেলেনি। যতটুকু সুযোগ হয়েছে তাতে মোটেও ভালো নয় বাংলাদেশের পরিসংখ্যান। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আয়নায় দলের যে প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠেছে তাতে নেই উন্নতির ছাপ, এই মূল্যায়ন স্বয়ং অধিনায়ক মুমিনুল হকের।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 May 2021, 11:56 AM
Updated : 3 May 2021, 11:56 AM

প্রথম আসরে ৭ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রাপ্তি একটি ড্র। ৯ দলের টুর্নামেন্টে একমাত্র তারাই জেতেনি কোনো ম্যাচ।

২০১৯ সালে ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টেই ইনিংস ব্যবধানে হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করে বাংলাদেশ। মুমিনুলের নেতৃত্বের শুরুও এই সিরিজ দিয়ে। গত বছর পাকিস্তানে একমাত্র টেস্টেও ইনিংস ব্যবধানে হারে তার দল।

চলতি বছরের শুরুতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেশের মাটিতে দুটি জয়ের আশায় ছিল বাংলাদেশ। হয় উল্টো ফল; জেতার মতো অবস্থানে থেকেও পেরে উঠেনি স্বাগতিকরা। খর্ব শক্তির দল নিয়েও দুই টেস্টেই জিতে যায় ক্যারিবিয়ানরা।

শ্রীলঙ্কা সফর দিয়ে পয়েন্টের খাতা খোলে বাংলাদেশ। রান উৎসবের প্রথম টেস্টে ড্র থেকে পায় ২০ পয়েন্ট। পরের ম্যাচে ২০৯ রানের হার দিয়ে শেষ হলো টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে দলটির হতাশার অধ্যায়। পাল্লেকেলেতে সোমবার সংবাদ সম্মেলনে মুমিনুল স্বীকার করে নিলেন, এক বিন্দুতেই দাঁড়িয়ে আছেন তারা।

“টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে আমরা যত ম্যাচ খেলেছি আমার মনে হয় না, আমাদের কোনো উন্নতি হয়েছে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এক বছর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলেছি। সেখানে ১০ দিনের মধ্যে কেবল দুটি দিন ডমিনেট করতে পারিনি, সেই দুই দিনে ম্যাচ হেরেছি।”

“শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে আমরা কিছুটা ভালো খেলেছি। দ্বিতীয় টেস্টে বোলাররা খুবই ভালো বোলিং করেছে, আর ব্যাটসম্যানরা কলাপস করেছে।…পয়েন্টের হিসেবে আমরা ২০ পয়েন্ট হয়তো পেলাম, কিন্তু আমার মনে হয় না খুব ভালো প্রাপ্তি আছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক